বাংলাদেশ-কুয়েত সম্পর্ক

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
বাংলাদেশ-কুয়েত সম্পর্ক
মানচিত্র Bangladesh এবং Kuwait অবস্থান নির্দেশ করছে

বাংলাদেশ

কুয়েত

বাংলাদেশ-কুয়েত সম্পর্ক বাংলাদেশকুয়েতের দ্বিপক্ষীয় সম্পর্কের কথা উল্লেখ করে।[১]

ইতিহাস[সম্পাদনা]

কুয়েতের আমির কুয়েত সাবাহ আল-সালিম আল-সাবাহ ১৯৭৪ সালে বাংলাদেশ সফর করেছিলেন।[২] কুয়েতে বাংলাদেশের আবাসিক দূতাবাস রয়েছে।[৩] ১৯৯১ সালে ইরাক কুয়েত আক্রমণ করার পরে, সৌদি আরবকে রক্ষার জন্য বাংলাদেশ জাতিসংঘের নেতৃত্বে পরিচালিত অপারেশন ডেজার্ট শিল্ডের জন্য সৈন্য প্রেরণ করেছিল।[৪] আন্তর্জাতিক জোটের অংশ হিসাবে বাংলাদেশও প্রথম উপসাগরীয় যুদ্ধে লড়াই করেছিল।[৫] যুদ্ধের পরে এবং মাইন ক্লিয়ারিং অপারেশনে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী ৫৯ জন সৈন্যকে হারিয়েছিল।[৬] ২০১৬ সালের মধ্যে, "অপারেশন পুনর্গঠন কুয়েত " এর অধীনে উপসাগরীয় যুদ্ধে ইরাক বাহিনীর রেখে যাওয়া ল্যান্ড মাইন পরিষ্কার করতে ৭২৮ জন বাংলাদেশী সেনা মারা গিয়েছেন এবং আরও ১৫২ জন আহত হয়েছিল।[৭][৮] ২০১৬ সালের মার্চে এ উভয় দেশ প্রতিটি দেশের কূটনৈতিক পাসপোর্টধারীদের প্রবেশ ভিসা ছাড়াই যাতায়াতের অনুমতি দেওয়ার জন্য একটি চুক্তি স্বাক্ষর করেছে।[৯] কুয়েতের এনজিও রিভিয়েল অফ ইসলামিক হেরিটেজ সোসাইটি সন্ত্রাসবাদে অর্থায়নের জন্য বাংলাদেশে নিষিদ্ধ হয়েছিল।[১০]

অর্থনৈতিক সম্পর্ক[সম্পাদনা]

২০০০ সালে কুয়েতে আনুমানিক ২০ লক্ষ অভিবাসী বাংলাদেশী শ্রমিক ছিল।[১১] ২০০৮ সালে বাংলাদেশী বেসরকারী নিয়োগ সংস্থাগুলি নিয়োগের ক্ষেত্রে দুর্নীতির অভিযোগে কুয়েত বাংলাদেশী শ্রমিকদের আমদানিতে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছিলেন।[১২] ২০০৮ সালেরজুলাইয়ে, ২০০০ বাংলাদেশী শ্রমিকরা জীবনযাত্রার পরিস্থিতি এবং স্বল্প মজুরি (যা কুয়েতে মাসে ১৮ কুয়েতি দিনার ছিল) নিয়ে প্রতিবাদ করেছিলেন।[১৩] বিক্ষোভের জন্য কয়েকজন শ্রমিককে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল, তবে কুয়েতের শ্রম মন্ত্রনালয় মজুরি বাড়িয়ে মাসে ১৮ কুয়েতি দিনার দিতে দিতে সম্মত হয়।[১৪]

২০১৫ সালের ফেব্রুয়ারিতে কুয়েত আবার ৭ বছরের নিষেধাজ্ঞার পরে আবারও বাংলাদেশী শ্রমিকদের প্রবেশের অনুমতি দেয়; কুয়েতে ভারতীয় শ্রমিকদের অভিবাসন নিয়ে ভারত নতুন বিধিনিষেধ আরোপের পরে এটি করা হয়েছিল। ২০১৪ সালের মধ্যে মোট বাংলাদেশী অভিবাসী শ্রমিকের সংখ্যা কমে ১৯০ হাজারে নেমে এসেছিল।[১৫] ২০১৬ সালের মধ্যে অভিবাসী শ্রমিকের সংখ্যা এসে দাঁড়ায় ২০০ হাজারে।[১৬] ২০১৬ সালের মে মাসে কুয়েত সরকার বাংলাদেশ সরকারকে বাংলাদেশে একটি তেল শোধনাগার স্থাপনে সহায়তা করতে সম্মত হয়।[১৭]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Kuwait, Bangladesh deepen cooperation - Kuwait Times"Kuwait Times। ৬ মে ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ২৫ এপ্রিল ২০১৭ 
  2. "PM for strengthening Bangladesh-Kuwait ties"bdnews24.com। সংগ্রহের তারিখ ২৫ এপ্রিল ২০১৭ 
  3. "Kuwaiti Amir keen to visit Bangladesh"The Daily Star (ইংরেজি ভাষায়)। ৩০ অক্টোবর ২০০৯। সংগ্রহের তারিখ ২৫ এপ্রিল ২০১৭ 
  4. "Kuwait PM due today"The Daily Star (ইংরেজি ভাষায়)। ৩ মে ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ২৫ এপ্রিল ২০১৭ 
  5. "Kuwaiti-Bangladeshi military ties distinctive: Senior officer - Kuwait Times"Kuwait Times। ২২ নভেম্বর ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ২৫ এপ্রিল ২০১৭ 
  6. "Kuwait revisited"The Daily Star (ইংরেজি ভাষায়)। ৩১ আগস্ট ২০০৮। সংগ্রহের তারিখ ২৫ এপ্রিল ২০১৭ 
  7. "Bangladesh Army men risk lives to rebuild Kuwait"The Independent। সংগ্রহের তারিখ ২৫ এপ্রিল ২০১৭ 
  8. "Bangladesh helps reconstruct Kuwait"banglanews24.com (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২৫ এপ্রিল ২০১৭ 
  9. "Bangladesh, Kuwait sign 4 accords"banglanews24.com (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২৫ এপ্রিল ২০১৭ 
  10. "Banned Kuwait-based NGO runs covertly"The Daily Star (ইংরেজি ভাষায়)। ৩১ মার্চ ২০০৯। সংগ্রহের তারিখ ২৫ এপ্রিল ২০১৭ 
  11. Chowdhury, From Rashed (১ নভেম্বর ২০০০)। "Bangladesh, Kuwait sign agreement"GulfNews। সংগ্রহের তারিখ ২৫ এপ্রিল ২০১৭ 
  12. "Kuwait may reopen its door in Feb"The Daily Star (ইংরেজি ভাষায়)। ৮ ডিসেম্বর ২০১৪। সংগ্রহের তারিখ ২৫ এপ্রিল ২০১৭ 
  13. "Bangladeshi workers held in Kuwait"The Daily Star (ইংরেজি ভাষায়)। ২৯ জুলাই ২০০৮। সংগ্রহের তারিখ ২৫ এপ্রিল ২০১৭ 
  14. "Bangladeshi workers in Kuwait end strike"The Daily Star (ইংরেজি ভাষায়)। ২০ আগস্ট ২০০৮। সংগ্রহের তারিখ ২৫ এপ্রিল ২০১৭ 
  15. "Kuwait reopens entry of Bangladeshi workers in Feb"The Daily Star (ইংরেজি ভাষায়)। ৭ ডিসেম্বর ২০১৪। সংগ্রহের তারিখ ২৫ এপ্রিল ২০১৭ 
  16. "Bangladesh, Kuwait reiterate zero tolerance to terrorism"The Daily Star (ইংরেজি ভাষায়)। ৫ মে ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ২৫ এপ্রিল ২০১৭ 
  17. "Kuwait to help build oil refinery"The Daily Star (ইংরেজি ভাষায়)। ৬ মে ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ২৫ এপ্রিল ২০১৭