দারুল উলুম হাটহাজারীর শিক্ষার্থীদের তালিকা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
আল জামিয়াতুল আহলিয়া দারুল উলুম মুঈনুল ইসলাম
স্থাপিত১৮৯৬ (১২৫ বছর আগে) (1896)
প্রতিষ্ঠাতাগণ
অবস্থান
সংক্ষিপ্ত নামহাটহাজারী মাদ্রাসা
ওয়েবসাইটdarululoom-hathazari.com

আল জামিয়াতুল আহলিয়া দারুল উলুম মুঈনুল ইসলাম বা হাটহাজারী মাদ্রাসা বাংলাদেশের সর্বপ্রাচীন ও সর্ববৃহৎ কওমী মাদ্রাসা। এটিকে বেসরকারি ইসলামি বিশ্ববিদ্যালয়ও বলা হয়। এটি বাংলাদেশের কওমি মাদ্রাসা সমূহের মা বা উম্মুল মাদারিস নামে খ্যাত যা বাংলাদেশে দেওবন্দ আন্দোলনের অন্যতম প্রাণকেন্দ্র।

তালিকা[সম্পাদনা]

নাম ভূমিকা তথ্যসূত্র
শাহ আবদুল ওয়াহহাব তিনি বঙ্গ অঞ্চলে আশরাফ আলী থানভীর প্রধান শিষ্য ও দারুল উলুম হাটহাজারীর ২য় মহাপরিচালক ছিলেন। [১]
মুহাম্মদ ফয়জুল্লাহ তিনি মুফতিয়ে আজম বা বাংলাদেশের গ্র্যান্ড মুফতি ছিলেন। তিনি দীর্ঘকাল দারুল উলুম হাটহাজারীর প্রধান মুফতির দায়িত্ব পালন করেছিলেন। জামিয়া ইসলামিয়া হামিউস-সুন্নাহ, একটি ব্যতিক্রমী ইসলামি শিক্ষায়তন প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। [২]
ছিদ্দিক আহমদ খতিবে আজম হিসেবে খ্যাত, তিনি আল জামিয়া আল ইসলামিয়া পটিয়ার শায়খুল হাদিস, নেজামে ইসলাম পার্টির সভাপতি ও আঞ্জুমানে ইত্তেহাদুল মাদারিস বাংলাদেশের মহাসচিব এবং পূর্ব বাংলা আইনসভার সদস্য ছিলেন। [৩]
মুহাম্মদ ইউনুস শায়খুল আরব ওয়াল আজম খ্যাত আন্তর্জাতিক ইসলামি ব্যক্তিত্ব। তিনি আল জামিয়া আল ইসলামিয়া পটিয়ার ২য় মহাপরিচালক ও বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়া বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ছিলেন। [৪]
হারুন বাবুনগরী তিনি আল জামিয়াতুল ইসলামিয়া আজিজুল উলুম বাবুনগরের প্রতিষ্ঠাতা মহাপরিচালক ছিলেন। [৫]
আব্দুর রহমান ফকিহুল মিল্লাত নামে পরিচিত, বাংলাদেশে ইসলামি ব্যাংকিং ব্যবস্থার জনক। তিনি দারুল উলুম দেওবন্দের ফতোয়া বিভাগের প্রথম ছাত্র ছিলেন। মুফতি হিসেবে তার ব্যাপক পরিচিত ছিল। তার ফতোয়া সমূহ ১২ খণ্ডে ফতোয়ায়ে ফকিহুল মিল্লাত নামে প্রকাশিত হয়েছে। ইসলামিক রিসার্চ সেন্টার বাংলাদেশ সহ অসংখ্য মসজিদ, মাদ্রাসা ও দাতব্য সংস্থা প্রতিষ্ঠা করে গেছেন। [৬]
শাহ আহমদ শফী শায়খুল ইসলাম নামে প্রসিদ্ধ, একজন বিপ্লবী ইসলামি আধ্যাত্মিক ব্যক্তিত্ব ছিলেন। হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠা করে তিনি জাতীয় পর্যায়ে ব্যাপক সংস্কার করেছিলেন। তার নেতৃত্বে ঐতিহাসিক শাপলা চত্বর সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। এছাড়াও তিনি বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়া বাংলাদেশের সভাপতি ও দারুল উলুম হাটহাজারীর মহাপরিচালক ছিলেন। [৭]
জমির উদ্দিন নানুপুরী আধ্যাত্মিক ব্যক্তিত্ব, জামিয়া ইসলামিয়া ওবাইদিয়া নানুপুরের ২য় মহাপরিচালক। [৮]
মুহিব্বুল্লাহ বাবুনগরী একজন সংস্কারপন্থী ইসলামি ব্যক্তিত্ব। তিনি বাংলাদেশে দেওবন্দ আন্দোলনের অন্যতম পথপ্রদর্শক হিসেবে বিবেচিত হন। নাস্তিক, ধর্মনিরপেক্ষতাবাদীইসলাম বিদ্বেষীদের বিরুদ্ধে তিনি সবসময় কঠোর অবস্থান গ্রহণ করেছেন। তিনি আল জামিয়াতুল ইসলামিয়া আজিজুল উলুম বাবুনগরের মহাপরিচালক ও হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের আমির। [৯]
জুনায়েদ বাবুনগরী কায়েদে মিল্লাত নামে খ্যাত, হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের আমির ও দারুল উলুম হাটহাজারীর শায়খুল হাদিস ছিলেন। [১০]
মিজানুর রহমান সাঈদ বাংলাদেশি মুফতি, শাইখ যাকারিয়া ইসলামিক রিসার্চ সেন্টারের পরিচালক। [১১]
জিয়া উদ্দিন তিনি জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশআযাদ দ্বীনী এদারায়ে তালীম বাংলাদেশের সভাপতি এবং জামিয়া মাদানিয়া আঙ্গুরা মুহাম্মদপুরের মহাপরিচালক। [১২]
মুশতাক আহমদ তিনি জাতীয় দ্বীনি মাদ্রাসা শিক্ষাবোর্ড বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য ও সহ-সভাপতি, ইসলামিক ফাউন্ডেশন বাংলাদেশের উপ-পরিচালক এবং জামিয়া শায়খ যাকারিয়্যা কমপ্লেক্সের প্রতিষ্ঠাতা ও মহাপরিচালক। [১৩]
তাফাজ্জুল হক হবিগঞ্জী তিনি হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশজমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশের সহ-সভাপতি এবং জামিয়া ইসলামিয়া আরাবিয়া উমেদনগরের মহাপরিচালক ছিলেন। [১৪]
নুরুল ইসলাম জিহাদী তিনি হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ ও আন্তর্জাতিক মজলিসে তাহাফফুজে খতমে নবুওয়ত বাংলাদেশের মহাসচিব, আল জামিয়াতুল ইসলামিয়া মাখজানুল উলুম মাদ্রাসার মহাপরিচালক ও শায়খুল হাদিস। [১৫]
ইজহারুল ইসলাম তিনি নেজামে ইসলাম পার্টির সভাপতি।

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. নিজামপুরী, আশরাফ আলী (২০১৩)। (মাওলানা মুহাম্মদ আব্দুল ওয়াহহাব রহ.)দ্যা হান্ড্রেড (বাংলা মায়ের একশ কৃতিসন্তান) (১ম সংস্করণ)। হাটহাজারী, চট্টগ্রাম: সালমান প্রকাশনী। পৃষ্ঠা ৯০—৯৬। আইএসবিএন 112009250-7 
  2. আবু মূসা মোঃ আরিফ বিল্লাহ (২০১২)। "ফয়জুল্লাহ, মুফতী"ইসলাম, সিরাজুল; মিয়া, সাজাহান; খানম, মাহফুজা; আহমেদ, সাব্বীর। বাংলাপিডিয়া: বাংলাদেশের জাতীয় বিশ্বকোষ (২য় সংস্করণ)। ঢাকা, বাংলাদেশ: বাংলাপিডিয়া ট্রাস্ট, বাংলাদেশ এশিয়াটিক সোসাইটিআইএসবিএন 9843205901ওএল 30677644Mওসিএলসি 883871743। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৬-১৪ 
  3. চৌধুরী, আহমদুল ইসলাম (২০০৩)। (খতীবে আযম ছিদ্দিক আহমদ)বড় হজুর গারাংগিয়া (PDF)। সাতকানিয়া, চট্টগ্রাম: গারাংগিয়া ইসলামিয়া কামিল মাদ্রাসা। পৃষ্ঠা ১২৪,১২৫। 
  4. কাদির, মাসউদুল (২০০৯)। (বিশ্ববরেণ্য আলেমেদ্বীন শায়খুল আরব ওয়াল আজম আল্লামা শাহ মুহাম্মদ ইউনুস আব্দুল জাব্বার রহ.)পটিয়ার দশ মনীষী (২য় সংস্করণ)। আন্দরকিল্লা, চট্টগ্রাম: আল মানার লাইব্রেরী। পৃষ্ঠা ৩০ — ৬১। 
  5. উবাইদ, ওবায়দুল্লাহ। "ওলিয়ে কামেল হযরত মাওলানা হারুন বাবুনগরী রহ."ইনকিলাব। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৭-২৩ 
  6. মুহাম্মদ কিফায়তুল্লাহ শফিক, মুফতি (২৭ নভেম্বর ২০১৫)। "দেশ ও জাতির সেবায় ফকিহুল মিল্লাতের অবদান"কালের কণ্ঠ 
  7. ডেস্ক, অনলাইন (১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০)। "একজন আল্লামা শাহ আহমদ শফী"কালের কণ্ঠ 
  8. মীযানুর রহমান রায়হান, মুফতী (২০ ডিসেম্বর ২০১৯)। "মাওলানা শাহ্ সুফি জমির উদ্দিন নানুপুরী (রহ)"ইত্তেফাক 
  9. সালেহী, আজগর (৩১ অক্টোবর ২০১৯)। "মাওলানা শাহ মুহিব্বুল্লাহ বাবুনগরীর সংক্ষিপ্ত জীবনী"কওমিপিডিয়া। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-১০-০৯ 
  10. নিজামী, মাহবুবুর রহমান (২১ ডিসেম্বর ২০২০)। "মাওলানা জুনায়েদ বাবুনগরী'র সংক্ষিপ্ত জীবনী"কওমিপিডিয়া 
  11. "মিজানুর রহমান সাঈদের পরিচিতি"বিডিনিউজ২৪.কম 
  12. ফরহাদ আহমদ, মাওলানা (১১ এপ্রিল ২০১৯)। "মাওলানা শায়খ জিয়া উদ্দিন দা.বা. এর কর্মময় জীবনালেখ্য"কওমিপিডিয়া 
  13. রহমান, মিরাজ (১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৭)। "মাজার বরকতের স্থান বাণিজ্যকেন্দ্র নয় : ড. মাওলানা মুশতাক আহমদ"প্রিয়.কম। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-১১-১৫ 
  14. মুহাম্মদ উবাইদুল্লাহ, মুনশি (৩০ জানুয়ারি ২০২০)। "আউলিয়াদের জীবন : আল্লামা তাফাজ্জুল হক হবিগঞ্জী (রহ.)"দৈনিক ইনকিলাব। ২ পর্বে সমাপ্ত। 
  15. মুহাম্মদ হানিফ, মাওলানা (২০২০-১২-২৭)। "মাওলানা নুরুল ইসলাম জিহাদী'র সংক্ষিপ্ত জীবন ও কর্ম"কওমিপিডিয়া। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-১২-২৭ 

গ্রন্থপঞ্জি[সম্পাদনা]