উইনস্টন চার্চিল

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান
উইনস্টন চার্চিল
উইনস্টন চার্চিল

উইনস্টন চার্চিল (৩০শে নভেম্বর, ১৮৭৪২৪শে জানুয়ারি, ১৯৬৫) ইংরেজ রাজনীতিবিদ ও লেখক। তিনি যুক্তরাজ্যের দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধকালীন প্রধানমন্ত্রী হিসেবে অধিক পরিচিত। চার্চিলকে যুক্তরাজ্য ও বিশ্বের ইতিহাসের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ নেতা হিসেবে গণ্য করা হয়। প্রথম জীবনে তিনি ব্রিটিশ নৌবাহিনীর সদস্য ছিলেন। ১৯৫৩ সালে তিনি সাহিত্যে নোবেল পুরস্কার লাভ করেন। ২০০২ সালে বিবিসির এক জরিপে তিনি সর্বকালের সেরা ব্রিটেনবাসী হিসেবে মনোনীত হন।

সমালোচনা[সম্পাদনা]

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় তৎকালীন ব্রিটিশ ভারতের বাংলায় যে ভয়াবহ দুর্ভিক্ষ হয়েছিল (১৯৪৩ সালে) সেজন্যে অনেকেই চার্চিলের নীতিকে দোষারোপ করে থাকেন।যে দুর্ভিক্ষে প্রায় তিরিশ লাখ মানুষের মৃত্যু হয়।

লেখা[সম্পাদনা]

চার্চিল শুধু রাজনীতিবিদ বা সুবক্তাই ছিলেননা তার লেখার প্রভূত সম্ভার ইংরেজি ভাষাকে সমৃদ্ধ করেছে। সৈনিক জীবনেই তিনি যে রিপোর্ট গুলি পাঠাতেন তা ছাপা হয় 'দি পাওনিয়র' ও 'ডেলি টেলিগ্রাফ' এ। আত্মজৈবনিক রচনার জন্যে সাহিত্যে নোবেল পান ১৯৫৩ তে। তার বৈচিত্র্যময় ও বিস্তৃত লেখার সম্ভারের মধ্যে একটিই মাত্র ছোটগল্প লেখেন। তার নাম 'ম্যান ওভারবোর্ড'[১]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. উইনস্টন চার্চিল, অনুবাদ : নির্বেদ রায় (২০১৫)। শেষ প্রার্থনা। কলকাতা: কিশোর ভারতী পুজোসংখ্যা ১৪২২। পৃ: ২৪৯। 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

পূর্বসূরী
ক্লিমেন্ট অ্যাটলি
যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী
২৬ অক্টোবর, ১৯৫১ – ৭ এপ্রিল, ১৯৫৫
উত্তরসূরী
স্যার এন্থনী এডেন
পূর্বসূরী
ইম্যানুয়েল শীনওয়েল
প্রতিরক্ষা মন্ত্রী
১৯৫১-১৯৫২
উত্তরসূরী
হ্যারল্ড আলেকজান্ডার