আশখাবাদ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
Jump to navigation Jump to search
আশখাবাদ

Aşgabat/Ашгабат (তুর্কমেনীয়)
Ашхабад (রুশ)


পোলতোরাস্তক (১৯১৯-১৯২৭)
অফিসিয়াল সীলমোহর
সীলমোহর
শহরে মধ্যবর্তী স্থান থেকে উত্তর দিকের দৃশ্য
শহরে মধ্যবর্তী স্থান থেকে উত্তর দিকের দৃশ্য
আশখাবাদ তুর্কমেনিস্তান-এ অবস্থিত
আশখাবাদ
তুর্কমেনিস্তানে আশখাবাদের অবস্থান
স্থানাঙ্ক: ৩৭°৫৬′ উত্তর ৫৮°২২′ পূর্ব / ৩৭.৯৩৩° উত্তর ৫৮.৩৬৭° পূর্ব / 37.933; 58.367স্থানাঙ্ক: ৩৭°৫৬′ উত্তর ৫৮°২২′ পূর্ব / ৩৭.৯৩৩° উত্তর ৫৮.৩৬৭° পূর্ব / 37.933; 58.367
দেশ তুর্কমেনিস্তান
প্রতিষ্ঠা১৮৮১
সরকার
 • ধরনরাষ্ট্রপতি শাসিত
 • মেয়রদুর্দিলিয়েভ[১]
আয়তন
 • মোট৪৪০ কিমি (১৭০ বর্গমাইল)
উচ্চতা২১৯ মিটার (৭১৯ ফুট)
জনসংখ্যা (২০১২)
 • মোট১০,৩১,৯৯২
 • ঘনত্ব২৩০০/কিমি (৬১০০/বর্গমাইল)
পোস্টাল কোড744000 - 744040
এলাকা কোড(+993) 12
যানবাহন নিবন্ধনAG
ওয়েবসাইটwww.ashgabat.gov.tm
আশখাবাদের উপগ্রহ থেকে দৃশ্য

আশখাবাদ (তুর্কমেনীয়: Aşgabat, ফার্সি: عشق‌آباد‎‎, রুশ: Ашхабáд) তুর্কমেনিস্তানের রাজধানী ও প্রধান শহর। এটি তুরকেমেনিস্তান ও মধ্য এশিয়ার বৃহত্তম শহর। ১৯১৯ থেকে ১৯২৭ সালে এই শহরের নাম রাখা হয়েছিল পোলতোরাস্তক। এই শহরটি কারাকুম মরুভূমি ও কোপে দাগ পর্বতের মাঝে অবস্থিত।


ইতিহাস[সম্পাদনা]

আশখাবাদ শহরটি ১৮৮১ সালে প্রতিষ্ঠিত হয় এবং এর নামকরণ করা হয় নিকটবর্তী আশখাবাদ বসতির নামানুসারে। তুর্কমেনীয় ভাষায় আশখাবাদ শব্দের শাব্দিক অর্থ প্রিয় শহর[২]

জেলাসমূহ[সম্পাদনা]

আশখাবাদে নিম্নোক্ত জেলাসমূহ রয়েছে:[৩]

  1. আর্কাবিল জেলা (তুর্কমেনীয়: Arçabil etraby, Арчабильский)
  2. বের্কারার্লিক জেল (তুর্কমেনীয়: Berkararlyk etraby, Беркарарлыкский)
  3. কোপেৎদাগ জেলা (তুর্কমেনীয়: Köpetdag etraby, Копетдагский)
  4. বাগতিয়ালার্ক জেলা (তুর্কমেনীয়: Bagtyýarlyk etraby, Багтырялыкский)
  5. চান্দিবিল জেলা (তুর্কমেনীয়: Çandybil etraby, Чандыбильский)

২০১৩ সালে আহাল অঞ্চলের নিম্নোক্ত এলাকাসমূহ আশখাবাদ শহরের সাথে যুক্ত হয়:[৪]

  1. আবাদান জেলা (তুর্কমেনীয়: Abadan etraby, Абаданский)
  2. রুহাবাদ জেলা (তুর্কমেনীয়: Ruhabat etraby, Рухабадский)

দর্শনীয় স্থান[সম্পাদনা]

তুর্কমেনিস্তানের রাজধানী আশখাবাদে আনিন্দ্য সুন্দর স্থাপনা এরতুগরুল গাজি মসজিদের অবস্থান। ১৯৯৮ সালে মসজিদটি নামাজের জন্য চালু করা হয়। সাদা মর্মর পাথরের এ স্থাপনাটি স্মরণ করিয়ে দেয় তুরস্কের ইস্তাম্বুলের বিখ্যাত নীল মসজিদের কথা।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Государственное информационное агентство Туркменистана - TDH"tdh.gov.tm। সংগ্রহের তারিখ আগস্ট ২, ২০১৭ 
  2. Pospelov, pp. 29–30
  3. "??" (PDF)। Stat.gov.tm। ডিসেম্বর ২, ২০১৩ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৯ জানুয়ারি ২০১৮ 
  4. "Туркменистан: золотой век"। Turkmenistan.gov.tm। ২০১৩-০৫-২৭। সংগ্রহের তারিখ ৯ জানুয়ারি ২০১৮ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]