সায়ানোজেনমোড

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সায়ানোজেনমোড
সায়ানোজেনমোড লোগো.svg
CyanogenMod 13 homescreen english.png
অ্যান্ড্রয়েড ৬.০ "মার্শম্যালো" এর উপর ভিত্তি করে ডিফল্ট সায়ানোজেনমোড ১৩ হোমস্ক্রিন
ডেভলপারসায়ানোজেনমোড উন্মুক্ত-উৎস কমিউনিটি[১]
প্রোগ্রামিং ভাষাসি (কোর), সি++ (কিছু তৃতীয় পক্ষের লাইব্রেরি), জাভা (ইউআই)
ওএস পরিবারইউনিক্স-সদৃশ
কাজের অবস্থাবন্ধ[২]
সোর্স মডেলউন্মুক্ত-উৎস
প্রাথমিক মুক্তি৩.১ (ড্রিম এন্ড ম্যাজিক) ১ জুলাই ২০০৯; ১২ বছর আগে (2009-07-01)
চূড়ান্ত মুক্তি১৩.০ জেডএনএইচ৫ওয়াইএ০ (অ্যান্ড্রয়েড ৬.০.১ আর৬১ থেকে) / ২০ ডিসেম্বর ২০১৬; ৪ বছর আগে (2016-12-20)[৩]
চূড়ান্ত প্রাকদর্শন১৪.১ নাইটলি বিল্ড / ২৫ ডিসেম্বর ২০১৬; ৪ বছর আগে (2016-12-25)[৪]
মার্কেটিং লক্ষ্যঅ্যান্ড্রয়েড মোবাইল ডিভাইসগুলির জন্য ফার্মওয়্যার প্রতিস্থাপন
ভাষাসমূহ
হালনাগাদের পদ্ধতিওভার-দ্য-এয়ার (ওটিএ), রম ফ্ল্যাশিং
প্যাকেজ ম্যানেজারএপিকে-ভিত্তিক
প্ল্যাটফর্মএআরএম, এক্স৮৬
কার্নেলের ধরনমনোলিথিক (লিনাক্স)
ব্যবহারকারী ইন্টারফেসঅ্যান্ড্রয়েড লঞ্চার (৩, ৪)
এডিডাব্লু লঞ্চার (৫, ৬, ৭)
ট্রেবুচেট লঞ্চার (৯, ১০, ১১, ১২, ১৩, ১৪)
লাইসেন্সঅ্যাপাচি লাইসেন্স ২ এবং গ্নু জিপিএল স.২,[৫] কিছু মালিকানা লাইব্রেরি সহ[৬][৭]
উত্তরসূরীলিনিয়াজওএস
ওয়েবসাইটcyanogenmod.org (বিলুপ্ত)
(archive.org)

সাইনোজেনমোড (/sˈænɛnmɒd/ sy-AN-o-jen-mod; সিএম) অ্যান্ড্রয়েড মোবাইল প্ল্যাটফর্মের উপর ভিত্তি করে মোবাইল ডিভাইসের জন্য একটি উন্মুক্ত উৎসের অপারেটিং সিস্টেম যা বর্তমানে বন্ধ হয়ে গিয়েছে। এটি গুগল কর্তৃক অ্যান্ড্রয়েডের প্রাতিষ্ঠানিক মুক্তির উপর ভিত্তি করে মূল এবং তৃতীয় পক্ষের কোড যুক্ত করে মুক্ত ও উন্মুক্ত উৎসের সফটওয়্যার হিসাবে তৈরি করা হয়েছিল এবং রোলিং রিলিজ ডেভেলপমেন্ট মডেলের উপর ভিত্তি করে হালনাগাদ প্রদান করা হতো। যদিও মোট সায়ানোজেনমোড ব্যবহারকারীদের শুধুমাত্র একটি উপসেট তাদের ফার্মওয়্যার ব্যবহারের রিপোর্ট করার জন্য নির্বাচিত,[৮] ২৩ মার্চ ২০১৫ -তে, কিছু রিপোর্ট ইঙ্গিত দেয় যে ৫০ মিলিয়নেরও বেশি মানুষ তাদের ফোনে সায়ানোজেনমোড ব্যবহৃত হতো।[৯][১০] এটি অন্যান্য রম ডেভেলপারদের দ্বারা প্রায়শই একটি প্রারম্ভিক বিন্দু হিসাবে ব্যবহৃত হতো।

২০১৩ সালে প্রতিষ্ঠাতা স্টেফানি কন্ডিক,[১১][১২] প্রকল্পের বাণিজ্যিকীকরণের অনুমতি দেওয়ার জন্য সায়ানোজেন ইনকর্পোরেটেড নামে উদ্যোগের জন্য অর্থায়ন পেয়েছিলেন।[১][১৩] যাইহোক, তার দৃষ্টিতে একটি কোম্পানি তার প্রকল্পের সাফল্যকে পুঁজি করে না এবং ২০১৬ সালে তিনি একটি কর্পোরেট পুনর্গঠনের অংশ হিসাবে চলে যান বা বাধ্য হয়েছিলেন,[১৪] যার মধ্যে সিইও পরিবর্তন, অফিস, প্রকল্প বন্ধ করা ও পরিষেবা বন্ধ করা ছিল[১৫][১৬] এবং সেইজন্য কোম্পানির ভবিষ্যৎ নিয়ে অনিশ্চয়তা সৃষ্টি হয়েছিল। কোডটি নিজেই, উন্মুক্ত উৎসের হওয়ায় পরবর্তীতে শাখা তৈরি করা হয় এবং বর্তমানে এর উন্নয়ন লিনিয়াজওএস নামে একটি আলাদা কমিউনিটি প্রকল্প হিসাবে অব্যাহত রয়েছে।[১৭]

মোবাইল ডিভাইস বিক্রেতাদের দ্বারা বিতরণ করা প্রাতিষ্ঠানিক ফার্মওয়্যারগুলোর মধ্যে সাইনোজেনমোডের বৈশিষ্ট্য এবং বিকল্পগুলি পাওয়া যেতো না। সাইনোজেনমোডের দ্বারা সমর্থিত বৈশিষ্ট্যগুলির মধ্যে রয়েছে স্বকীয় থিম সমর্থন,[১৮] এফএলএসি অডিও কোডেক সমর্থন, একটি বড় অ্যাক্সেস পয়েন্ট নাম তালিকা, প্রাইভেসি গার্ড (প্রতি-অ্যাপ্লিকেশন অনুমতি ব্যবস্থাপনার জন্য অ্যাপ্লিকেশন), সাধারণ ইন্টারফেসের উপর টিথারিংয়ের জন্য সমর্থন, সিপিইউ ওভারক্লকিং এবং অন্যান্য কর্মক্ষমতা বৃদ্ধি, আনলকযোগ্য বুটলোডার এবং রুট ফোল্ডারে প্রবেশের অনুমতি, সফট বোতাম, স্ট্যাটাস বার পরিবর্তন এবং অন্যান্য "ট্যাবলেট টুইকস", নোটিফিকেশন নিচে নামানো (যেমন ওয়াই-ফাই, ব্লুটুথ এবং জিপিএস) এবং অন্যান্য ইন্টারফেস বর্ধনের মধ্যে সমন্বয় করা। সাইনোজেনমোডের ডেভেলপারদের মতে গুপ্তচর প্রোগ্রাম বা ব্লোটওয়্যার নেই।[১৯][২০] প্রাতিষ্ঠানিক ফার্মওয়্যার মুক্তিগুলোর তুলনায় সাইনোজেনমোডে কর্মক্ষমতা এবং নির্ভরযোগ্যতা বাড়ানোর কথাও বলা হয়েছিল।[২১]

সায়ানোজেন মোড নামটি সায়ানোজেন থেকে উদ্ভূত (কোন্ডিকের ডাকনাম হিসেবে গৃহীত একটি রাসায়নিক যৌগের নাম) + মোড (ব্যবহারকারীর দ্বারা বিকশিত পরিবর্তনের একটি শব্দ, যা মোডিং নামে পরিচিত)।

ইতিহাস এবং উন্নয়ন[সম্পাদনা]

২০০৮ সালের সেপ্টেম্বরে এইচটিসি ড্রিম (মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে "টি-মোবাইল জি ১" নামক) মোবাইল ফোন প্রবর্তনের পর, অ্যান্ড্রয়েডের লিনাক্স-ভিত্তিক সাব-সিস্টেমের মধ্যে বিশেষাধিকারযুক্ত নিয়ন্ত্রণ ("রুট প্রবেশাধিকার") অর্জনের জন্য একটি পদ্ধতি আবিষ্কৃত হয়।[২২] অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেমের উন্মুক্ত-উৎস প্রকৃতির সাথে রুট প্রবেশাধিকার থাকার ফলে, ফোনের মূল ফার্মওয়্যার পরিবর্তন করে ফোনে অন্য ফার্মওয়্যার পুনরায় ইনস্টল করার অনুমতি দেওয়া হয়।

পরের বছর, অ্যান্ড্রয়েড উত্সাহীদের দ্বারা এইচটিসি ড্রিমের জন্য পরিবর্তিত ফার্মওয়্যার তৈরি এবং বিতরণ করা হয়েছিল। যীশুফ্রেক নামে একজন ডেভেলপার দ্বারা পরিচালিত একটি রম এইচটিসি ড্রিমের মালিকদের মধ্যে জনপ্রিয় হয়ে ওঠেছিল। ২০০৮ সালের নভেম্বরে গুগল তার অ্যান্ড্রয়েড আরসি৩০ ওভার-দ্য-এয়ার হালনাগাদ জারি করার পরে যে বাগটি আগে রুট প্রবেশাধিকারের জন্য ব্যবহৃত হয়েছিল তা ঠিক করেছিল,[২৩] তিনি পরিবর্তিত সংস্করণ দেওয়া শুরু করেন যা মূল প্রবেশাধিকার পুনরুদ্ধার করেছিল এবং ধীরে ধীরে সেগুলি প্রসারিত করেছিল।[২৪] আগস্ট ২০০৯ সালে যীশুফ্রেক তার ফার্মওয়্যারে কাজ বন্ধ করে দেন এবং ব্যবহারকারীদের তার রমের একটি সংস্করণে পরিবর্তন করার পরামর্শ দিয়েছিলেন যা ডেভেলপার সায়ানোজেন (স্যামসাং সফটওয়্যার প্রকৌশলী স্টেফানি কন্ডিকের ব্যবহৃত অনলাইন নাম[২৫]), যা "সায়ানোজেনমোড" নামে পরিচিত (ব্যবহারকারীরদের মধ্যে যা মোডিং নামে পরিচিত)।[২৬]

সায়ানোজেনমোড জনপ্রিয়তা ধীরে ধীরে বৃদ্ধি পেতে থাকে এবং ডেভেলপারদের একটি সম্প্রদায়, যাকে সায়ানোজেনমোড দল বলা হতো (এবং অনানুষ্ঠানিকভাবে "টিম ডাউচ"[২৭])। কয়েক মাসের মধ্যে, সায়ানোজেনমোড দ্বারা সমর্থিত ডিভাইসের সংখ্যা এবং এর বৈশিষ্ট্যসমূহ বৃদ্ধি পেতে শুরু করেছিল এবং সায়ানোজেনমোড জনপ্রিয় অ্যান্ড্রয়েড ফার্মওয়্যার বিতরণগুলির মধ্যে অন্যতম হয়ে ওঠেছিল।

অনেক উন্মুক্ত-উৎস প্রকল্পের মতো, সায়ানোজেনমোড একটি বিতরণকৃত সংশোধন নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থা ব্যবহার করে তৈরি করা হয়েছিল যার সাথে গিটহাবে প্রাতিষ্ঠানিক সংগ্রহস্থলগুলি জমা করা হয়েছিল।[২৮] অবদানকারীরা জেরিট নামক সফটওয়্যার ব্যবহার করে নতুন বৈশিষ্ট্য বা বাগ ঠিক পরিবর্তন জমা দিতো।[২৯] সায়ানোজেনমোডে অবদান করা কোডগুলি যে কেউ পরীক্ষা করতে পারতো ও নিবন্ধিত ব্যবহারকারীদের দ্বারা উপর বা নিচ ভোট দেওয়া এবং চূড়ান্তভাবে সায়ানোজেনমোড ডেভেলপারদের দ্বারা এক কোডে গৃহীত করা হতো।

এডিডাব্লু লঞ্চার যা অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেমের জন্য একটি বিকল্প লঞ্চার (হোম স্ক্রীন), তার একটি সংস্করণ সায়ানোজেনমোড ৫.০.৮-এ ডিফল্ট লঞ্চার করা হয়েছিল। লঞ্চারটি অতিরিক্ত বৈশিষ্ট্যগুলি সরবরাহ করে যা ডিফল্ট অ্যান্ড্রয়েড লঞ্চার দ্বারা সরবরাহ করা হতো না। এছাড়া আরও পরিবর্তনীয় ক্ষমতা (আইকন থিম, প্রভাব এবং আচরণ সহ), কনফিগারেশন সেটিংস ব্যাকআপ এবং পুনরুদ্ধার করার ক্ষমতা এবং অন্যান্য বৈশিষ্ট্য এতে বিদ্যমান ছিল।[৩০][৩১] সংস্করণ ৯ থেকে সায়ানোজেনমোড এর নিজস্ব ট্রেবুচেট লঞ্চার ফার্মওয়্যারের সাথে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছিল।

প্রাথমিকভাবে, সায়ানোজেনমোড মুক্তিগুলি নাইটলি, মাইলস্টোন এবং "স্থিতিশীল সংস্করণ" সময়সূচীতে প্রদান করা হয়েছিল; সায়ানোজেনমোড ১১ এম৬ হিসাবে, "স্থিতিশীল" লেবেলটি আর ব্যবহার করা হয়নি, যা "মাইলস্টোন" এম-বিল্ড দ্বারা প্রতিস্থাপিত হয়েছিল। এটি সায়ানোজেনমোডের রোলিং রিলিজ ডেভেলপমেন্ট মডেলের অংশ হিসাবে ব্যবহৃত হতো।[৩২]

সায়ানোজেনমোড সংস্করণ তালিকা:

সিএম সংস্করণ উপর ভিত্তি করে
সায়ানোজেনমোড ৩ অ্যান্ড্রয়েড ১.৫

(কাপকেক)

সায়ানোজেনমোড ৪ অ্যান্ড্রয়েড ১.৬

(ডোনাট)

সায়ানোজেনমোড ৫ অ্যান্ড্রয়েড ২.x.x

(ইক্লেয়ার)

সায়ানোজেনমোড ৬ অ্যান্ড্রয়েড ২.২.x

(ফ্রয়ো)

সায়ানোজেনমোড ৭ অ্যান্ড্রয়েড ২.৩.x

(জিঞ্জারব্রেড)

সায়ানোজেনমোড ৯ অ্যান্ড্রয়েড ৪.০.x

(আইসক্রিম স্যান্ডউইচ)

সায়ানোজেনমোড ১০ অ্যান্ড্রয়েড ৪.x.x

(জেলিবিন)

সায়ানোজেনমোড ১১ অ্যান্ড্রয়েড ৪.৪.x

(কিটক্যাট)

সায়ানোজেনমোড ১২ অ্যান্ড্রয়েড ৫.০.x

(ললিপপ)

সায়ানোজেনমোড ১২.১ অ্যান্ড্রয়েড ৫.১.x

(ললিপপ)

সায়ানোজেনমোড ১৩ অ্যান্ড্রয়েড ৬.০.x

(মার্শম্যালো)

সায়ানোজেনমোড ১৪ অ্যান্ড্রয়েড ৭.০

(নোগাট)

সায়ানোজেনমোড ১৪.১ অ্যান্ড্রয়েড ৭.১.x

(নোগাট)

সায়ানোজেনমোড ৭[সম্পাদনা]

একটি মটোরোলা ফ্লিপআউট সাইনোজেনমোড ৭.২ (অ্যান্ড্রয়েড ২.৩) বুট অ্যানিমেশন প্রদর্শন করছে

সায়ানোজেনমোড ৭ফার্মওয়্যারটি সায়ানোজেনমোড দলের অবদানে অতিরিক্ত কাস্টম কোড সহ অ্যান্ড্রয়েড ২.৩ জিঞ্জারব্রেড এর উপর ভিত্তি করে তৈরি করা হয়েছিল। সায়ানোজেনমোডের কাস্টম অংশগুলি প্রাথমিকভাবে সায়ানোজেন (স্টেফানি কন্ডিক) দ্বারা লেখা কিন্তু এক্সডিএ-ডেভেলপার সম্প্রদায়ের অবদান (যেমন একটি উন্নত লঞ্চার ট্রে, ডায়ালার অ্যাপ এবং ব্রাউজার) এবং প্রতিষ্ঠিত উন্মুক্ত-উৎস প্রকল্পের কোড (যেমন বিজিবক্স) শেল) দিয়ে সায়ানোজেনমোড রম উন্নত করতে অবদান রেখেছিল।[৩৩]

সায়ানোজেনমোড ৭ এর বিকাশ শুরু হয়েছিল যখন গুগল অ্যান্ড্রয়েড ২.৩ এর উৎস কোড প্রকাশ করেছিল।[৩৪] ১৫ ফেব্রুয়ারী ২০১১ সালে সায়ানোজেনমোড ৭ এর প্রথম মুক্তি প্রার্থীদের বেশ কয়েকটি সমর্থিত ডিভাইসের জন্য প্রকাশ করা হয়েছিল।[৩৫][৩৬] চতুর্থ মুক্তিটি ৩০ মার্চ, ২০১১ তে প্রকাশ করা হয়েছিল এবং নুক কালার ও অনুরূপ ডিভাইসগুলির পাশাপাশি অনেক বাগ ফিক্সের জন্য বর্ধিত সমর্থন নিয়ে এসেছিল।[৩৭] ১১ এপ্রিল ২০১১ সালে অ্যান্ড্রয়েড ২.৩.৩ এর উপর ভিত্তি করে সায়ানোজেনমোড ৭.০ এর সর্বজনীন সংস্করণ প্রকাশিত হয়েছিল।[৩৮] সায়ানোজেনমোড ৭.১ অ্যান্ড্রয়েড ২.৩.৪ এর উপর ভিত্তি করে ১০ অক্টোবর ২০১১ সালে প্রকাশিত হয়েছিল।[৩৯] সর্বশেষ স্থিতিশীল সংস্করণ, সায়ানোজেনমোড ৭.২ অ্যান্ড্রয়েড ২.৩.৭ এর উপর ভিত্তি করে ১৬ জুন ২০১২ সালে প্রকাশিত হয়েছিল,[৪০] একটি ভবিষ্যদ্বাণীমূলক ফোন ডায়ালার, লক-স্ক্রিন আপডেট, আইসিএস অ্যানিমেশন ব্যাকপোর্ট এবং অনেক বাগ ফিক্স নিয়ে এটি এসেছিল।[৪১]

সায়ানোজেনমোড ৮-৯[সম্পাদনা]

সায়ানোজেনমোড সংস্করণ ৮ অ্যান্ড্রয়েড ৩.এক্স হানিকম্বের উপর ভিত্তি করে তৈরি করার পরিকল্পনা করা হয়েছিল।

সায়ানোজেনমোড ৯ গুগলের অ্যান্ড্রয়েড ৪.০ আইসক্রিম স্যান্ডউইচের উপর ভিত্তি করে তৈরি করা হয়েছিল এবং এটি সায়ানোজেনমোডের প্রথম সংস্করণ যা ট্রেবুচেট লঞ্চার ব্যবহার করেছিল।[৪২] স্টেফানি কন্ডিক এবং তার দল ঘোষণা করেছে যে গুগল অ্যান্ড্রয়েড 4.0.1 এর সোর্স কোড প্রকাশ করার পরে তারা নতুন রিলিজের কাজ শুরু করেছে।[৪৩] অ্যান্ড্রয়েড ২.৩ "জিঞ্জারব্রেড" এবং ৪.০ "আইসক্রিম স্যান্ডউইচ" এর মধ্যে পরিবর্তনগুলির তাৎপর্যের কারণে এই মুক্তিটির বিকাশে পূর্বের মুক্তিগুলির তুলনায় বেশি সময় লেগেছিল এবং ডেভেলপার দলটি রমের জন্য তাদের দৃষ্টিভঙ্গি স্পষ্ট করার এবং অ্যান্ড্রয়েডের মধ্যে উন্নতির জন্য যে কোনও পরিবর্তন নিয়ে পুনর্বিবেচনা করার জন্য এই সুযোগটিকে তারা কাজে লাগিয়েছিল।[৪৪]

২০১১ সালের নভেম্বরের শেষের দিকে কিছু প্রাথমিক সংস্করণ ছাড়া হয়েছিল, বিশেষ করে স্যামসাং মোবাইল ফোন যেমন নেক্সাস এস এবং গ্যালাক্সি এসের জন্য। ৯ আগস্ট ২০১২ সালে বিভিন্ন বেটা এবং মুক্তির পরে, সায়ানোজেনমোড ডেভেলপার দলটি সায়ানোজেনমোড ৯ এর সমাপ্ত সংস্করণ প্রকাশ করেছিল।[৪৫] অ্যান্ড্রয়েডের পরবর্তী সংস্করণ, ৪.১ "জেলি বিন" ইতিমধ্যেই প্রকাশিত হয়েছিল, তাই সায়ানোজেনমোড ১০ এর বিকাশ দ্রুত অগ্রসর হয়েছিল। ২৯ আগস্ট ২০১২ সালে সায়ানোজেনমোড একটি ছোট হালনাগাদ, সংস্করণ ৯.১.০ প্রকাশ করেছিল, যা বাগ ঠিক এবং একটি এনএফসি পেমেন্টের জন্য সিম্পলিট্যাপ নামক অ্যাপ প্রকাশ করেছিল।[৪৬]

৪ এপ্রিল ২০১২ সালে ডেভেলপার দল সায়ানোজেনমোড "সিড" (উচ্চারণ: /sɪd/), নতুন সায়ানোজেনমোড মাসকট উন্মোচন করেছিল, যেটি আগের মাসকট, অ্যান্ডি স্কেটবোর্ডিং "বাগড্রয়েড"-কে প্রতিস্থাপন করেছিল। সিয়াও নামক এক ব্যবহারকারী দ্বারা ডিজাইন করা, সিড (ইংরেজি: C.I.D.) হল "সায়ানোজেনমোড আইডি" এর সংক্ষিপ্ত রূপ।[৪৭]

সায়ানোজেনমোড ১০[সম্পাদনা]

সায়ানোজেনমোড ১০.০[সম্পাদনা]

২০১২ সালের জুলাইয়ের শুরুতে, সায়ানোজেনমোড দল তাদের গুগল+ অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে ঘোষণা করেছিল যে, সায়ানোজেনমোড ১০ অ্যান্ড্রয়েড ৪.১ জেলিবিনের উপর ভিত্তি করে তৈরি হবে।[৪৮] সায়ানোজেনমোড ১০ এর নাইটলি বিল্ডগুলি সায়ানোজেনমোড ৯ দ্বারা সমর্থিত অনেক ডিভাইসের জন্য উপলব্ধ করা হয়েছিল।[৪৯][৫০] সেপ্টেম্বর ২০১২ সালে এম১ বিল্ড দিয়ে শুরু করে, সায়ানোজেনমোড দল মাসিক "এম-সিরিজ" প্রকাশ শুরু করেছিল। প্রতি মাসের শুরুতে, সায়ানোজেনমোড কোডবেসের একটি নরম ফ্রিজ কার্যকর করা হয়; একবার দলটি দৈনিক ব্যবহারের জন্য যথেষ্ট স্থিতিশীল বিল্ড বলে মনে করলে, এটি মাইলফলক বা "এম" সিরিজের অধীনে প্রকাশিত করা হতো।[৫১]

১৩ নভেম্বর ২০১২ সালে বেশ কয়েকটি ডিভাইসের জন্য চূড়ান্ত স্থিতিশীল বিল্ড প্রকাশ করা হয়েছিল।[৫২]

সায়ানোজেনমোড ১০.১

সায়ানোজেনমোড ১০.১ অ্যান্ড্রয়েড ৪.২ জেলিবিনের উপর ভিত্তি করে তৈরি করা হয়েছিল।[৫৩] এম স্ন্যাপশট (মাসিক স্ন্যাপশট) সহ বিভিন্ন ডিভাইসের জন্য নাইটলি সংস্করণগুলি বিভিন্ন নির্বাচিত ডিভাইসগুলির জন্য প্রকাশিত হয়েছিল।

২৪শে জুন ২০১৩ সালে সায়ানোজেনমোড ১০.১.০ কোডবেস (অ্যান্ড্রয়েড সংস্করণ ৪.২.২ এর উপর ভিত্তি করে) "স্থিতিশীল" স্থিতিতে স্থানান্তরিত হয়েছিল, যা বিভিন্ন সমর্থিত বেশিরভাগ ডিভাইস একই দিনে স্থিতিশীল বিল্ড গ্রহণ করেছিল।[৫৪][৫৫] সায়ানোজেনমোড এর ডেভেলপাররা ইঙ্গিত দিয়েছে যে তারা পরবর্তী সায়ানোজেনমোড মুক্তি না হওয়া পর্যন্ত নতুন বৈশিষ্ট্যগুলি অন্তর্ভুক্ত করার জন্য মাসিক স্ন্যাপশট সময়সূচী চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছিল। দুর্ভাগ্যবশত, স্যামসাং এক্সিনোস এবং এনভিডিয়া টেগ্রা ২ এসওসি এর ব্যবহার করা অনেক ডিভাইস প্রাথমিক মুক্তির অংশ ছিল না।

সায়ানোজেনমোড ১০.২

সায়ানোজেনমোড ১০.২ এর প্রথম নাইটলি মুক্তি, যা অ্যান্ড্রয়েড ৪.৩ জেলিবিনের উপর ভিত্তি করে, ১৪ আগস্ট ২০১৩ সাল থেকে নির্বাচিত সংখ্যক ডিভাইসের জন্য প্রকাশ শুরু হয়েছিল।[৫৬] এটি সিস্টেমে কিছু নতুন বর্ধন নিয়ে এসেছিল, যেমন ব্লুটুথ লো এনার্জি এবং ওপেনজিএল ইএস ৩.০ সমর্থন, একটি নতুন ফোন অ্যাপ, ৪কে রেজোলিউশন সমর্থন, সেইসাথে অনেক নিরাপত্তা এবং স্থিতিশীলতার উন্নতি ইত্যাদি যুক্ত হয়েছিল।

সায়ানোজেনমোড ১১[সম্পাদনা]

লিনিয়াজওএস শাখা সৃষ্টি[সম্পাদনা]

সায়ানোজেন ইনক.[সম্পাদনা]

শিল্প প্রতিক্রিয়া[সম্পাদনা]

লাইসেন্স[সম্পাদনা]

সংস্করণ ইতিহাস[সম্পাদনা]

সায়ানোজেন ওএস[সম্পাদনা]

সমর্থিত ডিভাইসসমূহ[সম্পাদনা]

আরো দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "A New Chapter"। CyanogenMod। ১১ জুলাই ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  2. Russell, Jon। "Cyanogen failed to kill Android, now it is shuttering its services and OS as part of a pivot"TechCrunchTechCrunch। সংগ্রহের তারিখ ১ জানুয়ারি ২০১৭ 
  3. উদ্ধৃতি ত্রুটি: <ref> ট্যাগ বৈধ নয়; CM 13.0 Release – ZNH5Y নামের সূত্রটির জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি
  4. "CyanogenMod Downloads"। ৬ নভেম্বর ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৯ নভেম্বর ২০১৬ 
  5. "Licenses"Android Open Source ProjectOpen Handset Alliance। সংগ্রহের তারিখ ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১০ 
  6. "Explaining Why We Don't Endorse Other Systems"গ্নু প্রকল্প। সংগ্রহের তারিখ ২৬ ডিসেম্বর ২০১৬This modified version of Android contains nonfree libraries. It also explains how to install the nonfree applications that Google distributes with Android. 
  7. freecyngn – Removing proprietary userspace parts from CM10+ xda-developers
  8. Soyars, Chris (২১ মার্চ ২০১১)। "CMStats – What it is, and why you should opt-in."cyanogenmod.org। ৪ জুন ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৭ অক্টোবর ২০২১ 
  9. Helft, Miguel (২৩ মার্চ ২০১৫)। "Meet Cyanogen, The Startup That Wants To Steal Android From Google"Forbes (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-১০-০৭ 
  10. CyanogenMod (১২ জানুয়ারি ২০১২)। "CyanogenMod just passed 1 million active users."Twitter (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-১০-০৭ 
  11. "Stef Kondik (@cyanogen) | Twitter"twitter.com (ইংরেজি ভাষায়)। 
  12. "cyanogen - Overview"GitHub (ইংরেজি ভাষায়)। 
  13. Reed, Brad (১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৩)। "With $7 million in funding, Cyanogen aims to take on Windows Phone"Boy Genius Report 
  14. উদ্ধৃতি ত্রুটি: <ref> ট্যাগ বৈধ নয়; nov2016-update নামের সূত্রটির জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি
  15. CyanogenMod [@CyanogenMod] (২৫ ডিসেম্বর ২০১৬)। "UPDATE: As of this morning we have lost DNS and Gerrit is now offline — with little doubt as a reaction to our blog post yesterday. Goodbye" (টুইট) – টুইটার-এর মাধ্যমে। 
  16. উদ্ধৃতি ত্রুটি: <ref> ট্যাগ বৈধ নয়; cm-forkintheroad নামের সূত্রটির জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি
  17. "Yes, this is us."Lineage OS। Lineage OS। 
  18. "Themes Support"। CyanogenMod। ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১১। ২১ অক্টোবর ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  19. "Maintenance Mode"। Computer-Howto। ডিসেম্বর ২০১১। ১৯ এপ্রিল ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  20. "Video: CyanogenMod founder Steve Kondik talks Android"UnleashThePhones.com। ৬ জুলাই ২০১২। ৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  21. "About"। CyanogenMod.org। ২২ ডিসেম্বর ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  22. Ben Marvin (১৪ মে ২০০৯)। "How To: Root Your G1 And Install Android 1.5 Cupcake"The Android Site। ৩০ নভেম্বর ২০১০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  23. Kumparak, Greg (২০০৮-১১-০৭)। "Google sends out Android update RC30 – blocks 'jailbreak'"TechCrunch। ২০১৩-০৬-৩০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  24. "Interview with Android Hacker JesusFreke"Android and Me। ২০০৯-০২-১৬। ২০১৪-১০-০৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  25. "Android enters the Jelly Bean Era"। ২৫ নভেম্বর ২০১৫। 
  26. "JesusFreke calls it quits"। Jf.andblogs.net। ২০ আগস্ট ২০০৯। ৬ নভেম্বর ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  27. Dustin Karnes (২ অক্টোবর ২০১০)। "Modders round table with Team Douche, makers of CyanogenMod"TalkAndroid 
  28. "CyanogenMod Source Code at Github" 
  29. "CyanogenMod Gerrit Site"। ১৯ ডিসেম্বর ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  30. "ADW.Launcher Review"। PC World। ১৭ মার্চ ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  31. Cyanogen (১৯ জুলাই ২০১০)। "CyanogenMod-5.0.8 has landed!"। CyanogenMod। ২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  32. ciwrl (৪ মে ২০১৪)। "CyanogenMod 11.0 M6 Release"। ২৪ ডিসেম্বর ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  33. development thread.
  34. Kondik, Stefanie [@Cyanogen] (১৭ ডিসেম্বর ২০১০)। "If you need me, I'll be locked in my room for the next 3 days. #gingerbread" (টুইট) – টুইটার-এর মাধ্যমে। 
  35. Cyanogen (১৬ ফেব্রুয়ারি ২০১১)। "CyanogenMod-7 Release Candidates!"। CyanogenMod। ১৯ মে ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  36. Whitson Gordon (১৬ ফেব্রুয়ারি ২০১১)। "CyanogenMod 7 RC Brings Gingerbready Goodness, Canned SMS Responses to Android"LifehackerGawker Media 
  37. Cyanogen (৩০ মার্চ ২০১১)। "CyanogenMod-7.0.0-RC4 has arrived"। CyanogenMod। ২১ অক্টোবর ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  38. Cyanogen (১০ এপ্রিল ২০১১)। "CyanogenMod 7.0 Released!"। CyanogenMod। ২৬ এপ্রিল ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  39. Cyanogen (১০ অক্টোবর ২০১১)। "CyanogenMod 7.1 Released!"। CyanogenMod। ৪ মার্চ ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  40. Cyanogen (১৬ জুন ২০১২)। "CyanogenMod 7.2 Released!"। CyanogenMod। ৯ আগস্ট ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  41. rmcc (১৫ মার্চ ২০১২)। "CyanogenMod Changelog" 
  42. "CyanogenMod 9 Features and Highlights"। Pocketnow। ৭ জুলাই ২০১২। ৩ মার্চ ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  43. Stefanie Kondik [@Cyanogen] (১৪ নভেম্বর ২০১১)। "..and we're off. check back in 2 months" (টুইট) – টুইটার-এর মাধ্যমে। 
  44. ciwrl (২ ডিসেম্বর ২০১১)। "CM9 Progress Update"। CyanogenMod। ২৪ ডিসেম্বর ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  45. ciwrl (৯ আগস্ট ২০১২)। "CyanogenMod 9 – Stable"। CyanogenMod। ১৪ মে ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  46. ciwrl (২৯ আগস্ট ২০১২)। "Let's try something new: CM9.1 and SimplyTapp"। CyanogenMod। ৩ ডিসেম্বর ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  47. "Introducing Cid"। CyanogenMod। ৫ এপ্রিল ২০১২। ২১ অক্টোবর ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  48. "CyanogenMod 10 Announced"Google+। ৫ জুলাই ২০১২। 
  49. Cyanogen (৪ মে ২০১২)। "Nightly Builds from CM9"। Cyanogenmod। ১৩ মার্চ ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  50. Fingas, Jon (১৮ জুন ২০১২)। "Cyanogen Nightlies Reach Samsung Galaxy S"। Engadget। 
  51. Stefanie Kondik (১১ সেপ্টেম্বর ২০১২)। "CyanogenMod announces M1, the first M-Series build"। Cyanogenmod.org। ১৭ ডিসেম্বর ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  52. "Final CyanogenMod 10 Stable Builds Being Released, Available For 4 Devices And Counting"। Androidpolice.com। ১৩ নভেম্বর ২০১২। 
  53. ciwrl (১৩ নভেম্বর ২০১২)। "CyanogenMod 10.0 Release"। CyanogenMod। ৭ জুন ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  54. ciwrl (২৪ জুন ২০১৩)। "CyanogenMod 10.1.0 Release"। CyanogenMod। ১৪ মে ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  55. "CyanogenMod 10.1 Final Will Begin rolling Out Tonight"। Androidpolice.com। ২৪ জুন ২০১৩। 
  56. Sutrich, Nick (১৪ আগস্ট ২০১৩)। "CyanogenMod 10.2 Official Nightlies Rolling Out Now: Brings Android 4.3 to Over 50 Devices"। AndroidHeadlines.com। 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]