অ্যাপ্লিকেশন প্রোগ্রামিং ইন্টারফেস

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

অ্যাপ্লিকেশন প্রোগ্রামিং ইন্টারফেস বা এপিআই হচ্ছে এক গুচ্ছ ফাংশনের সমষ্টি। এটি একটি ইন্টারফেস যা কোন কম্পিউটার, লাইব্রেরি অথবা অ্যাপলিকেশন অন্য অ্যাপ্লিকেশনকে বিভিন্ন সার্ভিস দেয়ার লক্ষ্যে বা ডাটা বিনিময়ের জন্য প্রদান করে থাকে। সাধারণত সফটওয়্যার প্রস্তুতকারক কোম্পানি এটি তৈরি করে। অন্য কোনো প্রোগ্রাম ঐ সফটওয়্যারকে নিজেদের সাথে একীভূত করতে চাইলে এপিআই এর মাধ্যমে সফটওয়্যারের সাথে যোগাযোগ রক্ষা করে।[১]

বর্ণনা[সম্পাদনা]

কোন অ্যাপ্লিকেশনের এ.পি.আই. -এর প্রধান কাজ হল কিভাবে একটি কম্পিউটার অ্যাপ্লিকেশন বা একজন সফটওয়্যার ডেভেলপারের কাছে ঐ অ্যাপ্লিকেশনের বিভিন্ন ফাংশনের এক্সেস পদ্ধতিকে বর্ণনা করা। এর জন্য ঐ অ্যাপ্লিকেশনের ফাংশনের উৎস কোডে প্রবেশ করার বা উৎস কোডের পূর্ণ ব্যাখ্যা জানার প্রয়োজন পড়ে না। এ.পি.আই. একটি এবস্ট্রাক্ট ধারণা, যেহেতু এটি একটি ইন্টারফেস

ব্যবহার[সম্পাদনা]

কম্পিউটার প্রোগ্রামাররা প্রায় অপারেটিং সিস্টেমের এ.পি.আইকে মেমরি বণ্টন এবং ফাইল প্রবেশে ব্যবহার করেন। বিভিন্ন সিস্টেম ও অ্যাপ্লিকেশন এ.পি.আই-এর সুবিধা দেয়। এদের মধ্যে গ্রাফিক্স সিস্টেম, ডাটাবেজ, নেটওর্য়াক, ওয়েব সার্ভিস এমনকি কম্পিউটার গেমও রয়েছে।

অনেক ক্ষেত্রেই এ.পি.আই. সফটওয়্যার ডেভেলপমেন্ট কিটের সংক্ষেপে এস.ডি.কে-এর, অংশ হিসাবে থাকে। কিন্তু একটি সফটওয়্যার ডেভেলপমেন্ট একটি কিট এ. পি. আই ছাড়াও অন্যান্য টুল, এমনকি হার্ডওয়্যারও থাকে। তাই এস.ডি.কে এবং এ.পি.আই.কে আক্ষরিক অর্থে পরস্পর বিনিময় যোগ্য নয়।

এ.পি.আই-এর জন্য বিভিন্ন ডিজাইন মডেল আছে। মূলত ফাংশন, প্রসিডিউর, ভেরিয়েবল এবং ডাটা স্ট্রাকচার নিয়ে গঠিত একটি সেটের দ্রুত কাজ সম্পাদনের অভিপ্রায়ে ইন্টারফেসের ব্যবহার। এ.পি.আই কিভাবে বিভিন্ন ফাংশনকে কাজ করায় তা প্রোগ্রামারের জানার প্রয়োজন হয় না। এতে এ.পি.আই.-এর কোডকে না ভেঙ্গেও বিভিন্ন ফাংশনের উন্নতি সাধন করা সম্ভব।

উদাহরণ[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Customer Information Manager (CIM)" (PDF)SOAP API Documentation। Authorize.Net। জুলাই ২০১৩। ২০১৩-০৬-২০ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৩-০৯-২৭ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]