বাঁকুড়া বিধানসভা কেন্দ্র

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
বাঁকুড়া
বিধানসভা কেন্দ্র
বাঁকুড়া পশ্চিমবঙ্গ-এ অবস্থিত
বাঁকুড়া
বাঁকুড়া
বাঁকুড়া ভারত-এ অবস্থিত
বাঁকুড়া
বাঁকুড়া
পশ্চিমবঙ্গ
স্থানাঙ্ক: ২৩°১৫′০০″ উত্তর ৮৭°০৪′০০″ পূর্ব / ২৩.২৫০০০° উত্তর ৮৭.০৬৬৬৭° পূর্ব / 23.25000; 87.06667স্থানাঙ্ক: ২৩°১৫′০০″ উত্তর ৮৭°০৪′০০″ পূর্ব / ২৩.২৫০০০° উত্তর ৮৭.০৬৬৬৭° পূর্ব / 23.25000; 87.06667
দেশ ভারত
রাজ্যপশ্চিমবঙ্গ
জেলাবাঁকুড়া
কেন্দ্র নং.২৫২
আসনখোলা
লোকসভা কেন্দ্র৩৬.বাঁকুড়া
নির্বাচনী বছর১৭৩,১৫৪ (২০১১)

বাঁকুড়া (বিধানসভা কেন্দ্র) ভারতীয় রাজ্য পশ্চিমবঙ্গের বাঁকুড়া জেলার একটি বিধানসভা কেন্দ্র

এলাকা[সম্পাদনা]

ভারতের সীমানা পুনর্নির্ধারণ কমিশনের নির্দেশিকা অনুসারে, ২৫২ নং বাঁকুড়া বিধানসভা কেন্দ্রটি বাঁকুড়া পৌরসভা বাঁকুড়া-১ সমষ্টি উন্নয়ন ব্লক এবং জুনেদিয়া, মানকানালী ও পুরান্দরপুর গ্রাম পঞ্চায়েত গুলি বাঁকুড়া-২ সমষ্টি উন্নয়ন ব্লক গুলির অন্তর্গত।[১]

বাঁকুড়া বিধানসভা কেন্দ্রটি ৩৬ নং বাঁকুড়া লোকসভা কেন্দ্র এর অন্তর্গত। [১]

বিধানসভার বিধায়ক[সম্পাদনা]

নির্বাচন
বছর
কেন্দ্র বিধায়ক রাজনৈতিক দল
১৯৫১ বাঁকুড়া রাখাহরি চ্যাটার্জী হিন্দু মহাসভা[২]
১৯৫৭ শিশুরাম মণ্ডল ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস[৩]
অনাথ বন্ধু রায় ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস[৩]
১৯৬২ অবনী ভট্টাচার্য ভারতের কমিউনিস্ট পার্টি[৪]
১৯৬৭ এস. মিত্র ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস[৫]
১৯৬৯ বীরেশ্বর ঘোষ ভারতের কমিউনিস্ট পার্টি [৬]
১৯৭১ কাশীনাথ মিশ্র ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস[৭]
১৯৭২ কাশীনাথ মিশ্র ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস[৮]
১৯৭৭ পার্থ দে ভারতের কমিউনিস্ট পার্টি (মার্ক্সবাদী)[৯]
১৯৮২ কাশীনাথ মিশ্র ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস[১০]
১৯৮৭ পার্থ দে ভারতের কমিউনিস্ট পার্টি (মার্ক্সবাদী)[১১]
১৯৯১ পার্থ দে ভারতের কমিউনিস্ট পার্টি (মার্ক্সবাদী)[১২]
১৯৯৬ পার্থ দে ভারতের কমিউনিস্ট পার্টি (মার্ক্সবাদী)[১৩]
২০০১ কাশীনাথ মিশ্র সর্বভারতীয় তৃণমূল কংগ্রেস[১৪]
২০০৬ পার্থ দে ভারতের কমিউনিস্ট পার্টি (মার্ক্সবাদী)[১৫]
২০১১ কাশীনাথ মিশ্র সর্বভারতীয় তৃণমূল কংগ্রেস[১৬]

নির্বাচনী ফলাফল[সম্পাদনা]

২০১৬[সম্পাদনা]

পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচন, ২০১৬: বাঁকুড়া কেন্দ্র[১৭][১৮][১৯]
দল প্রার্থী ভোট % ±%
style="background-color: টেমপ্লেট:ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসে(রাজনীতিবিদ)/মেটা/রঙ; width: 5px;" | [[ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসে(রাজনীতিবিদ)|টেমপ্লেট:ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসে(রাজনীতিবিদ)/মেটা/সংক্ষিপ্তনাম]] শম্পা দড়িপা ৮৩,৪৮৬ ৪৩.৫০
তৃণমূল কংগ্রেস মিনতি মিশ্র ৮২,৪৫৭ ৪২.৯০
বিজেপি সুভাষ কুমার সরকার ২০,৫৭১ ১০.৭০
এসইউসিআই (সি) স্বপন নাগ ২,১৩৮ ১.১০
বিএসপি লাল মোহন মোল্লা ১,৯৯৯ ২.০০
বহুজন মুক্তি পার্টি রবীন্দ্র হাঁসদা ১,৩৯৯ ০.৭০
মোট ১,৯২,০৫০ (৮০.৮%)
তৃণমূল কংগ্রেস থেকে কংগ্রেস অর্জন করেছে ঘুরে যাওয়া

# সুইং গণনা এলএফ + কংগ্রেস ভোট শতকরা ২০১৬ সালে একত্রিত হয়েছে।

২০১২উপনির্বাচন[সম্পাদনা]

২০১২ সালে তৃণমূল কংগ্রেসের বিধায়ক কাশীনাথ মিশ্রের মৃত্যুর কারণে উপনির্বাচন হয়। তৃণমূল কংগ্রেসের মিনতি মিশ্র তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী সিপিআই (এম) এর নিলাঞ্জন দাশগুপ্তকে ১৫,১৩৮ ভোটে পরাজিত করেন।[২০]

২০১১[সম্পাদনা]

পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচন, ২০১১: বাঁকুড়া কেন্দ্র[১৭][১৮][১৯]
দল প্রার্থী ভোট % ±%
তৃণমূল কংগ্রেস কাশীনাথ মিশ্র ৯৩,৮৩৫ ৫৩.৯৩ +৯.৬২
সিপিআই(এম) প্রতীপ মুখার্জী ৬৩,৭৪৫ ৩৭.০৩ -৮.৬৫
বিজেপি অনিল ঘোষ ৫,৭৩২ ৩.৩৩
নির্দল স্বপন কুমার মণ্ডল ৩,১১২
বিএসপি অনিল পাল ১,৮৭৭
নির্দল বিজয় চন্দ্র মণ্ডল ১,৭৮৯
ঝাড়খণ্ড বিকাস মোর্চা (প্রজাতান্ত্রিক) জব্বর শেখ ১,৭৮৩
নির্দল ভক্ত রঞ্জন নায়ক ১,২৮১
মোট ১৭২,১৫৪ ৮০.৩৬
সিপিআই(এম) থেকে তৃণমূল কংগ্রেস অর্জন করেছে ঘুরে যাওয়া ১৭.৮৭
 •  পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচন, ২০১১
বাঁকুড়া জেলার সারাংশ
পার্টি আসন জয় আসন পরিবর্তন
তৃণমূল কংগ্রেস বৃদ্ধি
ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস বৃদ্ধি
ভারতের কমিউনিস্ট পার্টি (মার্ক্সবাদী) হ্রাস
ফরওয়ার্ড ব্লক হ্রাস
বিপ্লবী সমাজতন্ত্রী দল হ্রাস
ভারতের কমিউনিস্ট পার্টি হ্রাস

১৯৭৭-২০০৬[সম্পাদনা]

২০০৬ সালের বিধানসভা নির্বাচনে,[১৫] সিপিআই (এম) এর পার্থ দে বাঁকুড়া বিধানসভা কেন্দ্র থেকে জয়ী হন তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী তৃণমূল কংগ্রেসের কাশীনাথ মিশ্রকে পরাজিত করেন। অধিকাংশ বছরে প্রতিযোগিতাগুলিতে প্রার্থীদের বিভিন্ন ধরনের কোণঠাসা করে ছিল কিন্তু শুধুমাত্র বিজয়ী ও রানার্সকে উল্লেখ করা হচ্ছে। তৃণমূল কংগ্রেসের কাশীনাথ মিশ্র ২০০১ সালে সিপিআই (এম) এর পার্থ দে কে পরাজিত করেন।[১৪] সিপিআই (এম) এর পার্থ দে ১৯৯৬ সালে কংগ্রেসের আশিস চক্রবর্তীকে[১৩] এবং ১৯৯১[১২] এবং ১৯৮৭ সালে[১১] কংগ্রেসের কাশীনাথ মিশ্রকে পরাজিত করেন। কংগ্রেসের কাশীনাথ মিশ্র ১৯৮২ সালে সিপিআই (এম) পার্থ দে কে পরাজিত করেন।[১০] সিপিআই (এম) এর পার্থ দে ১৯৭৭ সালে জনতা পার্টির আনন্দী কন্ডুকে পরাজিত করেন।[৯][২১]

১৯৫১-১৯৭২[সম্পাদনা]

১৯৭২[৮] এবং ১৯৭১ সালে[৭] কংগ্রেসের কাশীনাথ মিশ্র জয়ী হন। সিপিআই এর বীরেশ্বর ঘোষ ১৯৬৯ সালে জয়ী হন।[৬] কংগ্রেসের এস. মিত্র ১৯৬৭ সালে জয়ী হন।[৫] সিপিআই এর অবনী ভট্টাচার্য ১৯৬২ সালে জয়ী হন।[৪] ১৯৫৭ সালে বাঁকুড়া যৌথ আসন ছিল। কংগ্রেসের শিশুরাম মণ্ডল এবং অনাথ বন্ধু রায় উভয়ই জয়ী হন।[৩] স্বাধীন ভারতের প্রথম নির্বাচন ১৯৫১ সালে, হিন্দু মহাসভার রাখাহরি চ্যাটার্জী জয়ী হন।[২][২২]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Delimitation Commission Order No. 18 dated 15 February 2006" (PDF)। Government of West Bengal। ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১০ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১০-১০-১৫ 
  2. "General Elections, India, 1951, to the Legislative Assembly of West Bengal" (PDF)Constituency-wise Data, Assembly Constituency No.। Election Commission। সংগ্রহের তারিখ ৯ জুলাই ২০১৫ 
  3. "General Elections, India, 1957, to the Legislative Assembly of West Bengal" (PDF)Constituency-wise Data, AC No। Election Commission। সংগ্রহের তারিখ ৯ জুলাই ২০১৫ 
  4. "General Elections, India, 1962, to the Legislative Assembly of West Bengal" (PDF)Constituency-wise Data, AC No। Election Commission। সংগ্রহের তারিখ ৯ জুলাই ২০১৫ 
  5. "General Elections, India, 1967, to the Legislative Assembly of West Bengal" (PDF)Constituency-wise Data, AC No। Election Commission। সংগ্রহের তারিখ ৯ জুলাই ২০১৫ 
  6. "General Elections, India, 1969, to the Legislative Assembly of West Bengal" (PDF)Constituency-wise Data, AC No। Election Commission। সংগ্রহের তারিখ 9 July 20  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |সংগ্রহের-তারিখ= (সাহায্য)
  7. "General Elections, India, 1971, to the Legislative Assembly of West Bengal" (PDF)Constituency-wise Data, AC No ?। Election Commission। সংগ্রহের তারিখ ৯ জুলাই ২০১৫ 
  8. "General Elections, India, 1972, to the Legislative Assembly of West Bengal" (PDF)Constituency-wise Data, AC No। Election Commission। সংগ্রহের তারিখ ৯ জুলাই ২০১৫ 
  9. "General Elections, India, 1977, to the Legislative Assembly of West Bengal" (PDF)Constituency-wise Data, AC No। Election Commission। সংগ্রহের তারিখ ৯ জুলাই ২০১৫ 
  10. "General Elections, India, 1982, to the Legislative Assembly of West Bengal" (PDF)Constituency-wise Data, AC No। Election Commission। সংগ্রহের তারিখ ৯ জুলাই ২০১৫ 
  11. "General Elections, India, 1987, to the Legislative Assembly of West Bengal" (PDF)Constituency-wise Data, AC No। Election Commission। সংগ্রহের তারিখ ৯ জুলাই ২০১৫ 
  12. "General Elections, India, 1991, to the Legislative Assembly of West Bengal" (PDF)Constituency-wise Data, AC No। Election Commission। সংগ্রহের তারিখ ৯ জুলাই ২০১৫ 
  13. "General Elections, India, 1996, to the Legislative Assembly of West Bengal" (PDF)Constituency-wise Data, AC No। Election Commission। সংগ্রহের তারিখ ৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৫ 
  14. "General Elections, India, 2001, to the Legislative Assembly of West Bengal" (PDF)Constituency-wise Data, AC No। Election Commission। সংগ্রহের তারিখ ৯ জুলাই ২০১৫ 
  15. "General Elections, India, 2006, to the Legislativer Assembly of West Bengal" (PDF)Constituency-wise Data, AC No। Election Commission। সংগ্রহের তারিখ ৯ জুলাই ২০১৫ 
  16. "General Elections, India, 2011, to the Legislative Assembly of West Bengal" (PDF)Constituency-wise Data, AC No। Election Commission। সংগ্রহের তারিখ ৯ জুলাই ২০১৫ 
  17. "Bankura"Assembly Elections May 2011 Results। Election Commission of India। সংগ্রহের তারিখ ২০১১-০৫-২২ 
  18. "West Bengal Assembly Election 2011"Bankura। Empowering India। সংগ্রহের তারিখ ২০১১-০৫-০৬ 
  19. "West Bengal Assembly Election 2011" (PDF)Bankura। Election Commission of India। ২০১১-০৯-১২ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১১-০৫-০৬ 
  20. "Trinamul wins bypolls but edge thins"। The Telegraph, 16 June 2012। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-০৬-১৬  অজানা প্যারামিটার |1= উপেক্ষা করা হয়েছে (সাহায্য)
  21. "251 - Bankura Assembly Constituency"Partywise Comparison Since 1977। Election Commission of India। সংগ্রহের তারিখ ২০১১-০৪-০৩ 
  22. "Statistical Reports of Assembly Elections"General Election Results and Statistics। Election Commission of India। ২০১০-১০-০৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১১-০৪-০৩