পারা বিধানসভা কেন্দ্র

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
পারা
বিধানসভা কেন্দ্র
পারা পশ্চিমবঙ্গ-এ অবস্থিত
পারা
পারা
পারা ভারত-এ অবস্থিত
পারা
পারা
পশ্চিমবঙ্গ
স্থানাঙ্ক: ২৩°৩১′০″ উত্তর ৮৬°৩১′০″ পূর্ব / ২৩.৫১৬৬৭° উত্তর ৮৬.৫১৬৬৭° পূর্ব / 23.51667; 86.51667স্থানাঙ্ক: ২৩°৩১′০″ উত্তর ৮৬°৩১′০″ পূর্ব / ২৩.৫১৬৬৭° উত্তর ৮৬.৫১৬৬৭° পূর্ব / 23.51667; 86.51667
দেশ ভারত
রাজ্যপশ্চিমবঙ্গ
জেলাপুরুলিয়া
কেন্দ্র নং.২৪৫
আসনতপসিলি জাতির জন্য সংরক্ষিত
লোকসভা কেন্দ্র৩৫.পুরুলিয়া
নির্বাচনী বছর১৮৪,০৩৪ (২০১১)

পারা (বিধানসভা কেন্দ্র) ভারতীয় রাজ্য পশ্চিমবঙ্গের পুরুলিয়া জেলার একটি বিধানসভা কেন্দ্র। এই কেন্দ্রটি তপসিলি জাতির জন্য সংরক্ষিত।

এলাকা[সম্পাদনা]

ভারতের সীমানা পুনর্নির্ধারণ কমিশনের নির্দেশিকা অনুসারে, ২৪৫ নং পারা (এসসি) বিধানসভা কেন্দ্রটি পারা এবং রঘুনাথপুর-২ সমষ্টি উন্নয়ন ব্লক এর অন্তর্গত।[১]

পারা বিধানসভা কেন্দ্রটি ৩৫ নং পুরুলিয়া লোকসভা কেন্দ্র এর অন্তর্গত। [১] পূর্বে এই কেন্দ্রটি বাঁকুড়া লোকসভা কেন্দ্র এর অন্তর্গত ছিল।[২]

বিধানসভার বিধায়ক[সম্পাদনা]

নির্বাচন
বছর
কেন্দ্র বিধায়ক রাজনৈতিক দল
১৯৫১ পার তথা চাস শরৎ মোচি ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস[৩]
দেওশঙ্কর প্রসাদ সিং নির্দল[৩]
১৯৫৭ পারা আসন নেই [৪]
১৯৬২ নেপাল বাউরি ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস[৫]
১৯৬৭ এস. বাউরি বাংলা কংগ্রেস[৬]
১৯৬৯ তিনকড়ি বৌড়ি বাংলা কংগ্রেস [৭]
১৯৭১ শরৎ দাস ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস[৮]
১৯৭২ শরৎ দাস ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস[৯]
১৯৭৭ গোবিন্দ বৌড়ি ভারতের কমিউনিস্ট পার্টি (মার্ক্সবাদী)[১০]
১৯৮২ গোবিন্দ বৌড়ি ভারতের কমিউনিস্ট পার্টি (মার্ক্সবাদী)[১১]
১৯৮৭ গোবিন্দ বৌড়ি ভারতের কমিউনিস্ট পার্টি (মার্ক্সবাদী)[১২]
১৯৯১ বিলাসিবালা সহিস ভারতের কমিউনিস্ট পার্টি (মার্ক্সবাদী)[১৩]
১৯৯৬ বিলাসিবালা সহিস ভারতের কমিউনিস্ট পার্টি (মার্ক্সবাদী)[১৪]
২০০১ বিলাসিবালা সহিস ভারতের কমিউনিস্ট পার্টি (মার্ক্সবাদী)[১৫]
২০০৬ বিলাসিবালা সহিস ভারতের কমিউনিস্ট পার্টি (মার্ক্সবাদী)[১৬]
২০০৯ উপনির্বাচন মিনু বৌড়ি ভারতের কমিউনিস্ট পার্টি (মার্ক্সবাদী)[১৭]
২০১১ উমাপদ বারুই ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস[১৮]

নির্বাচনী ফলাফল[সম্পাদনা]

২০১১[সম্পাদনা]

পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচন, ২০১১: পারা কেন্দ্র [১৯][২০][২১]
দল প্রার্থী ভোট % ±%
কংগ্রেস উমাপদ বারুই ৬২,২০৮ ৪২.৬ +৯.০৮
সিপিআই(এম) দীপক বারুই ৬১,৬২২ ৪২.২ -১০.৪৫
এসইউসিআই(সি) শিবানী বৌড়ি ৬,৫০৩ ৪.৪৫
জেএমএম চরন বারুই ৬,৩০২ ৪.৩২
বিজেপি স্বপন বৌড়ি ৪,৬৮১
ঝাড়খণ্ড বিকাস মোর্চা (প্রজাতান্ত্রিক) সত্যনারায়ণ রাজওয়ার ৩,৪৪১
বিএসপি সন্দীপ রাজওয়ার ১,২৭৪
মোট ১৪৬,০৩১ ৭৯.৩৫
সিপিআই(এম) থেকে কংগ্রেস অর্জন করেছে ঘুরে যাওয়া ১৯.৫৩
 •  পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচন, ২০১১
পুরুলিয়া জেলার সারাংশ
পার্টি আসন জয় আসন পরিবর্তন
তৃণমূল কংগ্রেস বৃদ্ধি
ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস বৃদ্ধি
ভারতের কমিউনিস্ট পার্টি (মার্ক্সবাদী) হ্রাস
ফরওয়ার্ড ব্লক হ্রাস

১৯৭৭-২০০৯[সম্পাদনা]

২০০৯ সালে জেলা পরিষদের (জেলা কাউন্সিল) নির্বাচনের পর, বিধায়ক বিলাসিবালা সহিস পদত্যাগ করেন,[১৭] ​​২০০৯ সালের উপনির্বাচনে, সিপিআই (এম) এর মিনু বৌড়ি পারা বিধানসভা কেন্দ্র থেকে জয়ী হন জেএমএমের চরন বৌড়িকে পরাজিত করেন।[২২][২৩]

২০০৬, ২০০১, ১৯৯৬ এবং ১৯৯১ সালে সিপিআই (এম) এর বিলাসিবালা সহিস পারা বিধানসভা কেন্দ্র থেকে জয়ী হন তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ২০০৬ সালে তৃণমূল কংগ্রেসের সীমা বৌড়িকে,[১৬] ২০০১ সালে তৃণমূল কংগ্রেসের মিরা বৌড়িকে,[১৫] ১৯৯৬ সালে জেএমএমের গোবর্ধন বাগদিকে[১৪] এবং ১৯৯১ সালে কংগ্রেসের দূর্গদাস বৌড়িকে পরাজিত করেন।[১৩] অধিকাংশ বছরে প্রতিযোগিতাগুলিতে প্রার্থীদের বিভিন্ন ধরনের কোণঠাসা করে ছিল কিন্তু শুধুমাত্র বিজয়ী ও রানার্সকে উল্লেখ করা হচ্ছে। সিপিআই (এম) এর গোবিন্দ বৌড়ি ​​১৯৮৭ সালে কংগ্রেসের কাশীনাথ বৌড়িকে[১২] এবং ১৯৮২[১১] এবং ১৯৭৭ সালে কংগ্রেসের শরৎ দাসকে পরাজিত করেন।[১০][২৪]

১৯৫১-১৯৭২[সম্পাদনা]

১৯৭২[৯] এবং ১৯৭১ সালে[৮] কংগ্রেসের শরৎ দাস জয়ী হন। বাংলা কংগ্রেসের তিনকড়ি বৌড়ি ​​১৯৬৯ সালে জয়ী হন।[৭] বাংলা কংগ্রেসের এস. বাউড়ি ​​১৯৬৭ সালে জয়ী হন।[৬] ১৯৬২ সালে কংগ্রেসের নেপাল বাউড়ি ​​জয়ী হন।[৫] পারা বিধানসভা কেন্দ্রে ১৯৫৭ সালে আসন বিদ্যমান ছিল না।[৪] স্বাধীন ভারতের প্রথম নির্বাচন ১৯৫১ সালে, পারা তথা চাস আসনটি অভিহিত ছিল। পুরুলিয়া জেলার এই অংশটি পূর্বে বিহারের অংশ ছিল। কংগ্রেসের শরৎ মোচি এবং নির্দলের দেওশঙ্কর প্রসাদ সিং উভয়ই যৌথ কেন্দ্র থেকে জয়ী হন।[৩][২৫]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Delimitation Commission Order No. 18 dated 15 February 2006" (PDF) (ইংরেজি ভাষায়)। পশ্চিমবঙ্গ সরকার। ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১০ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১০-১০-১৫ 
  2. "Statistical Report on General Elections, 2004 to the 14th Lok Sabha" (PDF)Volume III Details For Assembly Segments Of Parliamentary Constituencies (ইংরেজি ভাষায়)। ভারতের নির্বাচন কমিশন। সংগ্রহের তারিখ ২০১১-০১-২৮ 
  3. "General Elections, India, 1951, to the Legislative Assembly of West Bengal" (PDF) (ইংরেজি ভাষায়)। ভারতের নির্বাচন কমিশন। সংগ্রহের তারিখ ৯ জুলাই ২০১৫ 
  4. "General Elections, India, 1957, to the Legislative Assembly of West Bengal" (PDF) (ইংরেজি ভাষায়)। ভারতের নির্বাচন কমিশন। সংগ্রহের তারিখ ৯ জুলাই ২০১৫ 
  5. "General Elections, India, 1962, to the Legislative Assembly of West Bengal" (PDF) (ইংরেজি ভাষায়)। ভারতের নির্বাচন কমিশন। সংগ্রহের তারিখ ৯ জুলাই ২০১৫ 
  6. "General Elections, India, 1967, to the Legislative Assembly of West Bengal" (PDF) (ইংরেজি ভাষায়)। ভারতের নির্বাচন কমিশন। সংগ্রহের তারিখ ৯ জুলাই ২০১৫ 
  7. "General Elections, India, 1969, to the Legislative Assembly of West Bengal" (PDF) (ইংরেজি ভাষায়)। ভারতের নির্বাচন কমিশন। সংগ্রহের তারিখ 9 July 20  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |সংগ্রহের-তারিখ= (সাহায্য)
  8. "General Elections, India, 1971, to the Legislative Assembly of West Bengal" (PDF) (ইংরেজি ভাষায়)। ভারতের নির্বাচন কমিশন। সংগ্রহের তারিখ ৯ জুলাই ২০১৫ 
  9. "General Elections, India, 1972, to the Legislative Assembly of West Bengal" (PDF) (ইংরেজি ভাষায়)। ভারতের নির্বাচন কমিশন। সংগ্রহের তারিখ ৯ জুলাই ২০১৫ 
  10. "General Elections, India, 1977, to the Legislative Assembly of West Bengal" (PDF) (ইংরেজি ভাষায়)। ভারতের নির্বাচন কমিশন। সংগ্রহের তারিখ ৯ জুলাই ২০১৫ 
  11. "General Elections, India, 1982, to the Legislative Assembly of West Bengal" (PDF) (ইংরেজি ভাষায়)। ভারতের নির্বাচন কমিশন। সংগ্রহের তারিখ ৯ জুলাই ২০১৫ 
  12. "General Elections, India, 1987, to the Legislative Assembly of West Bengal" (PDF) (ইংরেজি ভাষায়)। ভারতের নির্বাচন কমিশন। সংগ্রহের তারিখ ৯ জুলাই ২০১৫ 
  13. "General Elections, India, 1991, to the Legislative Assembly of West Bengal" (PDF) (ইংরেজি ভাষায়)। ভারতের নির্বাচন কমিশন। সংগ্রহের তারিখ ৯ জুলাই ২০১৫ 
  14. "General Elections, India, 1996, to the Legislative Assembly of West Bengal" (PDF) (ইংরেজি ভাষায়)। ভারতের নির্বাচন কমিশন। সংগ্রহের তারিখ ৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৫ 
  15. "General Elections, India, 2001, to the Legislative Assembly of West Bengal" (PDF) (ইংরেজি ভাষায়)। ভারতের নির্বাচন কমিশন। সংগ্রহের তারিখ ৯ জুলাই ২০১৫ 
  16. "General Elections, India, 2006, to the Legislativer Assembly of West Bengal" (PDF) (ইংরেজি ভাষায়)। ভারতের নির্বাচন কমিশন। সংগ্রহের তারিখ ৯ জুলাই ২০১৫ 
  17. "By-elections in three states next month" (ইংরেজি ভাষায়)। Two circles। সংগ্রহের তারিখ ২০১১-০১-২৭ 
  18. "General Elections, India, 2011, to the Legislative Assembly of West Bengal" (PDF) (ইংরেজি ভাষায়)। ভারতের নির্বাচন কমিশন। সংগ্রহের তারিখ ৯ জুলাই ২০১৫ 
  19. "Para"মে ২০১১ বিধানসভা নির্বাচনের ফলাফল (ইংরেজি ভাষায়)। ভারতের নির্বাচন কমিশন। সংগ্রহের তারিখ ২০১১-০৫-২২  অজানা প্যারামিটার |1= উপেক্ষা করা হয়েছে (সাহায্য)
  20. "West Bengal Assembly Election 2011"Para (ইংরেজি ভাষায়)। Empowering India। সংগ্রহের তারিখ ২০১১-০৫-০৬  অজানা প্যারামিটার |1= উপেক্ষা করা হয়েছে (সাহায্য)
  21. "West Bengal Assembly Election 2011" (PDF)Para (ইংরেজি ভাষায়)। ভারতের নির্বাচন কমিশন। ২০১১-০৯-১২ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১১-০৫-০৬ 
  22. "Landslide for Trinamool in Nandigram" (ইংরেজি ভাষায়)। DNA, Daily News A। সংগ্রহের তারিখ ২০১১-০১-২৭ 
  23. "Three women make Assembly debut - Mausam wins, margin more than mom Ruby" (ইংরেজি ভাষায়)। The Telegraph, 10 January 2009। সংগ্রহের তারিখ ২০১১-০১-২৭ 
  24. "240 - Para (SC) Assembly Constituency"১৯৭৭ থেকে দল অনুযায়ী তুলনা (ইংরেজি ভাষায়)। ভারতের নির্বাচন কমিশন। সংগ্রহের তারিখ ২০১১-০১-২৬  অজানা প্যারামিটার |1= উপেক্ষা করা হয়েছে (সাহায্য)
  25. "Statistical Reports of Assembly Elections"সাধারণ নির্বাচনের ফলাফল এবং পরিসংখ্যান (ইংরেজি ভাষায়)। ভারতের নির্বাচন কমিশন। ২০১০-১০-০৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১১-০১-২৭