প্রথম বাহাদুর শাহ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
মুয়াজ্জাম
Portrait of Emperor Shah Alam Bahadur Shah.jpg
Fictional flag of the Mughal Empire.svg ৭ম মুঘল সম্রাট
রাজত্ব১৯ জুন ১৭০৭ – ২৭ ফেব্রুয়ারি ১৭১২
রাজ্যাভিষেকদিল্লীতে ১৯ জুন ১৭০৭
পূর্বসূরিআওরঙ্গজেব
উত্তরসূরিজাহানদার শাহ
জন্ম১৪ অক্টোবর ১৬৪৩
বুরহানপুর, মুঘল সাম্রাজ্য
মৃত্যু২৭ ফেব্রুয়ারি ১৭১২(1712-02-27) (বয়স ৬৮)
লাহোর, মুঘল সাম্রাজ্য
সমাধি
স্ত্রী
  • নিজাম বাই এবং আরও ৮ জন
বংশধর৮ ছেলে, ১ মেয়ে সহ
পূর্ণ নাম
আবুল-নাসর সাইয়্যেদ কুব-উদ-দিন মুহাম্মদ শাহ আলম বাহাদুর শাহ বাদশাহ
রাজবংশতৈমুরি
রাজবংশতৈমুরি
পিতাআওরঙ্গজেব
মাতানোয়াব বাই
ধর্মইসলাম

মুয়াজ্জেম বাহাদুর শাহ (উর্দু: بہادر شاه اول‎‎—Bahādur Shāh Awwal) (ফার্সি: بهادر شاه অক্টোবর ১৪, ১৬৪৩ – ফেব্রুয়ারি, ১৭১২), শাহ আলম প্রথম নামেও পরিচিত।[১] সপ্তম মুঘল সম্রাট। আওরঙ্গজেবের পর মুঘল সম্রাট হিসাবে তিনি ১৭০৭ খ্রিষ্টাব্দ থেকে ১৭১২ খ্রিষ্টাব্দ পর্যন্ত ভারতবর্ষ শাসন করেছেন। পিতা আওরঙ্গজেবের শাসনামলে তিনি বেশ কয়েকবার বিদ্রোহ করে সিংহাসনে আরোহণ করার চেষ্টা করেছিলেন। ১৬৬৩ সালে তিনি মারাঠাদের হাতে ৭ বছর বন্দী ছিলেন। সম্রাট হবার পূর্বে তিনি আকবরআবাদ বা বর্তমান আগ্রার কাবুল এবং লাহোরের সুবাদার ছিলেন।

প্রাক জীবন[সম্পাদনা]

১৬৪৩ সালের ১৪ অক্টোবরে বুরহানপুর (অধুনা মধ্য প্রদেশে ; মহারাষ্ট্রের সীমান্তবর্তী ) শহরে ৬ষ্ঠ মুঘল সম্রাট আওরঙ্গজেব ও তার হিন্দু দ্বিতীয় স্ত্রী নওয়াব বাঈ এর দ্বিতীয় সন্তান হিসেবে মোয়াজ্জাম নামে বাহাদুর শাহ-এর জন্ম হয়।

শাহজাহান কালে (১৬৫৩-১৬৫৯)[সম্পাদনা]

মাত্র ১০ বছর বয়েসে পিতামহের শাসনকালে তিনি লাহোরের উজির হিসেবে নিয়োজিত হন।

আওরঙ্গজেব কালে (১৬৬৭-১৭০৭)[সম্পাদনা]

মাত্র ২৪ বছর বয়েসে পিতার শাসনকালে তিনি দাক্ষিণাত্যের প্রধান হিসেবে নিয়োজিত হন। অনুগত মেবার রাজ্ যশোবন্ত সিং হন তার সহকারী। ১৬৭০ সালে পিতাকে ক্ষমতাচুত্য করার প্রচেষ্টা করে বিফল হন। ১৬৮০ সালে পুনরায় একবার রাজপূত ক্ষোভ ফুঁসলে ক্ষমতাদখল করতে বিফল হন। ১৬৮১ সালে সম্রাট তাকে দিল্লি ফিরিয়ে আনেন এবং আগ্রা , লাহোর ও কাবুলের সুবাদার হিসেবে সম্রাটের কড়া পর্যবেক্ষণে ছিলেন।

ক্ষমতায়ন[সম্পাদনা]

ক্ষমতায়নের যুদ্ধ[সম্পাদনা]

কোনো প্রকৃত যুবরাজ নির্দিষ্ট না করেই ঔরংজেব ১৭০৭ সালে মৃত্যু বরণ করেন। সেসময় তার জীবিত ৩ সন্তান মোয়াজ্জাম কাবুলের , আজম শাহ (আওরংজেবের প্রথম স্ত্রী দিলরাস বানু বেগমের গর্ভের পুত্র) গুজরাটের এবং কাম বক্স(আওরংজেবের কনিষ্ঠ সঙ্গী উদয়পুরী মহলের জারজ পুত্র) দাক্ষিণাত্যের সুবাদার ছিলেন। ক্ষমতা দখলের লক্ষ্যে আজম শাহ দিল্লি দখল করেন। মোয়াজ্জাম ও আজমের মধ্যে জাজাও-এর যুদ্ধ(আগ্রার নিকটবর্তী) সংঘটিত হয়। মোয়াজ্জাম জয়ী হয় এবং প্রথম বাহাদুর শাহ হিসেবে ৬৩ বছর বয়সে সম্রাট হন। আজম শাহ ও তার বংশ নির্মূল হয়ে যায়।

মৃত্যু[সম্পাদনা]

১৭১২ সালের ফেব্রুয়ারিতে সম্রাটের মৃত্যু হলে তার জ্যেষ্ঠ পুত্র জাহানদার শাহ সম্রাট হন।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Kallidaikurichi Aiyah Nilakanta Sastri (১৯৫২)। History of India - Volume 3। S. Viswanathan। পৃষ্ঠা 5। 

আরো পড়ুন[সম্পাদনা]

পূর্বসূরী:
আওরঙ্গজেব
মুঘল সম্রাট
১৭০৭১৭১২
উত্তরসূরী:
জাহানদার শাহ