ইবরাহিম লোদি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
ইবরাহিম লোদি
দিল্লি সালতানাতের সুলতান
Sultan-Ibrahim-Lodhi.jpg
সুলতান ইবরাহিম লোদির একটি আধুনিক আফগান স্কেচ
রাজত্ব১৫১৭–১৫২৬
রাজ্যাভিষেক১৫১৭, আগ্রা
পূর্বসূরিসিকান্দার লোদি
উত্তরসূরিবাবর
মৃত্যু১৫২৬
সমাধি
রাজবংশলোদি রাজবংশ
পিতাসিকান্দার লোদি
সম্ভলে অভিযান প্রেরণের পূর্বে ইবরাহিম লোদির দরবারে অনুষ্ঠান।

ইবরাহিম লোদি (পশতু: ابراهیم لودي, উর্দু: ابراہیم لودی‎‎,হিন্দী:इब्राहीम लोदी) ছিলেন লোদি রাজবংশের শেষ সুলতান। ১৫১৭ সালে তার পিতা সিকান্দার লোদির মৃত্যুর পর তিনি সুলতান হন। পানিপথের যুদ্ধে তার পরাজয় ও নিহত হওয়ার ফলে লোদি রাজবংশের সমাপ্তি ঘটে।

জীবন[সম্পাদনা]

ইবরাহিম লোদি জাতিতে পশতুন ছিলেন। পিতার মৃত্যুর পর তিনি ক্ষমতায় আসেন। তবে শাসনকাজে তিনি দক্ষ ছিলেন না। তার সময় বেশ কিছু বিদ্রোহ সংঘটিত হয়। মেবারের শাসক রানা সংগ্রাম সিং উত্তর প্রদেশের পশ্চিম পর্যন্ত তার রাজ্য বিস্তার করেছিলেন এবং আগ্রায় হামলার হুমকি সৃষ্টি করেন। এছাড়াও পূর্বাঞ্চলেও বিদ্রোহ সংঘটিত হয়। পুরনো ও জ্যেষ্ঠ কমান্ডারদের স্থলে তার প্রতি অণুগত অপেক্ষাকৃত তরুণদের নিয়োগ করায় ইবরাহিম লোদির প্রতি অভিজাত শ্রেণীও অসন্তুষ্ট ছিল। এসময় তার আফগান অভিজাতরা বাবরকে ভারত আক্রমণের আমন্ত্রণ জানায়। ১৫২৬ সালে বাবরের মুঘল সেনাবাহিনী ইবরাহিম লোদির বৃহৎ আকারের সেনাবাহিনীকে পানিপথের যুদ্ধে পরাজিত করে। যুদ্ধে ইবরাহিম লোদি নিহত হন।

মাজার[সম্পাদনা]

পানিপথের তহশিল অফিসের কাছে ইবরাহিম লোদির মাজার অবস্থিত। এর কাছে বু আলি শাহ কালান্দারের দরগাহ রয়েছে। লোদি উদ্যানের শিশ গম্বুজকে অনেকে তার মাজার ভেবে ভুল করে।

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

রাজত্বকাল শিরোনাম
পূর্বসূরী
সিকান্দার লোদি
দিল্লির সুলতান
১৫১৭-১৫২৬
উত্তরসূরী
বাবর