ইদ্রিসা গেয়ে

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
ইদ্রিসা গেয়ে
Krasnodar-Lille (7).jpg
২০১৪ সালে লিলের হয়ে গেয়ে
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নাম ইদ্রিসা গানা গেয়ে[১]
জন্ম (1989-09-26) ২৬ সেপ্টেম্বর ১৯৮৯ (বয়স ৩২)
জন্ম স্থান ডাকার, সেনেগাল
উচ্চতা ১.৭৪ মিটার (৫ ফুট   ইঞ্চি)
মাঠে অবস্থান মধ্যমাঠের খেলোয়াড়
ক্লাবের তথ্য
বর্তমান ক্লাব
পারি সাঁ-জেরমাঁ
জার্সি নম্বর ২৭
জ্যেষ্ঠ পর্যায়*
বছর দল ম্যাচ (গোল)
২০০৭–২০০৮ দিয়াম্বার্স
২০০৮–২০১০ লিল বি ৫৫ (২)
২০১০–২০১৫ লিল ১৩৪ (৫)
২০১৫–২০১৬ অ্যাস্টন ভিলা ৩৫ (০)
২০১৬–২০১৯ এভার্টন ৯৯ (৩)
২০১৯– পারি সাঁ-জেরমাঁ ৫৩ (৫)
জাতীয় দল
২০১২ সেনেগাল অনূর্ধ্ব-২৩ (০)
২০১১– সেনেগাল ৮০ (৫)
* শুধুমাত্র ঘরোয়া লীগে ক্লাবের হয়ে ম্যাচ ও গোলসংখ্যা গণনা করা হয়েছে এবং ১৬:৪২, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ (ইউটিসি) তারিখ অনুযায়ী সকল তথ্য সঠিক।
‡ জাতীয় দলের হয়ে ম্যাচ ও গোলসংখ্যা ১৬:৪২, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ (ইউটিসি) তারিখ অনুযায়ী সঠিক।

ইদ্রিসা গানা গেয়ে (ফরাসি: Idrissa Gueye; জন্ম: ২৬ সেপ্টেম্বর ১৯৮৯; ইদ্রিসা গেয়ে নামে সুপরিচিত) হলেন একজন সেনেগালীয় পেশাদার ফুটবল খেলোয়াড়। তিনি বর্তমানে ফ্রান্সের পেশাদার ফুটবল লীগের শীর্ষ স্তর লীগ ১-এর ক্লাব পারি সাঁ-জেরমাঁ এবং সেনেগাল জাতীয় দলের হয়ে মধ্যমাঠের খেলোয়াড় হিসেবে খেলেন। তিনি মূলত রক্ষণাত্মক মধ্যমাঠের খেলোয়াড় হিসেবে খেললেও মাঝেমধ্যে কেন্দ্রীয় মধ্যমাঠের খেলোয়াড় হিসেবে খেলেন।

২০০৭–০৮ মৌসুমে, সেনেগালীয় ক্লাব দিয়াম্বার্সের হয়ে খেলার মাধ্যমে তিনি তার জ্যেষ্ঠ পর্যায়ের খেলোয়াড়ি জীবন শুরু করেছেন; দিয়াম্বার্সের হয়ে মাত্র এক মৌসুম অতিবাহিত করার পর ২০০৮–০৯ মৌসুমে তিনি প্রথমে ফরাসি ক্লাব লিল বি-এ এবং পরবর্তীকালে লিলে যোগদান করেছেন। লিলের হয়ে তার দ্বিতীয় মৌসুমে তিনি রুদি গার্সিয়ার অধীনে ২০১০–১১ লীগ ১-এর শিরোপা জয়লাভ করেছেন। লিলে ছয় মৌসুম অতিবাহিত করার পর প্রায় ৯ মিলিয়ন ইউরোর বিনিময়ে ইংরেজ ক্লাব অ্যাস্টন ভিলার সাথে চুক্তি স্বাক্ষর করেছেন, যেখানে তিনি সকল প্রতিযোগিতায় ৩৮ ম্যাচে ১টি গোল করেছেন। পরবর্তীকালে, তিনি এভার্টনের হয়ে খেলেছেন। ২০১৯–২০ মৌসুমে, তিনি প্রায় ৩০ মিলিয়ন ইউরোর বিনিময়ে এভার্টন হতে ফরাসি ক্লাব পারি সাঁ-জেরমাঁ যোগদান করেছেন।

২০১২ সালে, গেয়ে সেনেগাল অনূর্ধ্ব-২৩ দলের হয়ে সেনেগালের বয়সভিত্তিক পর্যায়ে অভিষেক করেছিলেন। সেনেগালের বয়সভিত্তিক দলের হয়ে খেলার পর, তিনি ২০১১ সালে সেনেগালের হয়ে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে অভিষেক করেছেন; সেনেগালের জার্সি গায়ে তিনি এপর্যন্ত ৮০ ম্যাচে ৫টি গোল করেছেন। তিনি সেনেগালের হয়ে ২০১৮ ফিফা বিশ্বকাপে অংশগ্রহণ করেছেন।

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

ইদ্রিসা গানা গেয়ে ১৯৮৯ সালের ২৬শে সেপ্টেম্বর তারিখে সেনেগালের ডাকারে জন্মগ্রহণ করেছেন এবং সেখানেই তার শৈশব অতিবাহিত করেছেন।

আন্তর্জাতিক ফুটবল[সম্পাদনা]

গেয়ে সেনেগাল অনূর্ধ্ব-২৩ দলের হয়ে খেলার মাধ্যমে সেনেগালের প্রতিনিধিত্ব করেছেন। ২০১২ সালের ২৬শে জুলাই তারিখে তিনি ২০১২ গ্রীষ্মকালীন অলিম্পিকে গ্রেট ব্রিটেন অনূর্ধ্ব-২৩ দলের বিরুদ্ধে ম্যাচে সেনেগাল অনূর্ধ্ব-২৩ দলের হয়ে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে অভিষেক করেছেন।[২][৩][৪] গেয়ে সেনেগালে অনুষ্ঠিত ২০১২ গ্রীষ্মকালীন অলিম্পিকের জন্য ২০১২ সালের জুলাই মাসে প্রকাশিত সেনেগাল অনূর্ধ্ব-২৩ দলে স্থান পেয়েছিলেন;[৫][৬][৭] যেখানে তিনি মাত্র ১ ম্যাচে অংশগ্রহণ করেছেন।[৮]

২০১১ সালের ১১ই নভেম্বর তারিখে, ২২ বছর, ১ মাস ও ১৬ দিন বয়সে, ডান পায়ে ফুটবল খেলায় পারদর্শী গেয়ে গিনির বিরুদ্ধে অনুষ্ঠিত প্রীতি ম্যাচে অংশগ্রহণ করার মাধ্যমে আন্তর্জাতিক ফুটবলে সেনেগালের হয়ে অভিষেক করেছেন।[৯] উক্ত ম্যাচের ৪৬তম মিনিটে আক্রমণভাগের খেলোয়াড় দেমে এনদিয়ায়ের বদলি খেলোয়াড় হিসেবে তিনি মাঠে প্রবেশ করেছিলেন;[১০] ম্যাচে তিনি ৬ নম্বর জার্সি পরিধান করে রক্ষণাত্মক মধ্যমাঠের খেলোয়াড় হিসেবে খেলেছিলেন। ম্যাচটি সেনেগাল ৪–১ গোলের ব্যবধানে জয়লাভ করেছিল।[১১] সেনেগালের হয়ে অভিষেকের বছরে গেয়ে সর্বমোট ১ ম্যাচে অংশগ্রহণ করেছেন। জাতীয় দলের হয়ে অভিষেকের ৫ বছর, ৬ মাস ও ২৯ দিন পর, সেনেগালের জার্সি গায়ে প্রথম গোলটি করেছেন;[১২] ২০১৭ সালের ৯ই জুন তারিখে, বিষুবীয় গিনির বিরুদ্ধে ম্যাচের ৯০তম মিনিটে সেনেগালের প্রথম গোলটি করার মাধ্যমে তিনি আন্তর্জাতিক ফুটবলে তার প্রথম গোলটি করেছেন।[১৩][১৪] ২০১৯ সালের ১৬ই জুন তারিখে, প্রীতি ম্যাচে নাইজেরিয়ার বিরুদ্ধে অনুষ্ঠিত ম্যাচে তিনি সেনেগালের হয়ে প্রথমবারের মতো অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করেছেন,[১৫] ম্যাচটি সেনেগাল ১–০ গোলের ব্যবধানে জয়লাভ করেছিল,[১৬] যেখানে তিনি ৯০ মিনিট খেলেছিলেন।[১৭]

গেয়ে রাশিয়ায় অনুষ্ঠিত ২০১৮ ফিফা বিশ্বকাপের জন্য আলিউ সিসের অধীনে ঘোষিত সেনেগাল দলে স্থান পাওয়ার মাধ্যমে প্রথমবারের মতো ফিফা বিশ্বকাপে অংশগ্রহণ করার সুযোগ পেয়েছিলেন।[১৮][১৯][২০] ১৯শে জুন তারিখে, তিনি পোল্যান্ডের বিরুদ্ধে গ্রুপ পর্বে নিজেদের ১ম ম্যাচে অংশগ্রহণ করার মাধ্যমে ফিফা বিশ্বকাপে অভিষেক করেছেন।[২১][২২][২৩] এই আসরে তার দল গ্রুপ পর্ব শেষে ৪ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপ পর্ব থেকেই বিদায় নিয়েছিল, যেখানে তিনি ৩ ম্যাচে অংশগ্রহণ করেছেন।[২৪]

পরিসংখ্যান[সম্পাদনা]

আন্তর্জাতিক[সম্পাদনা]

২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ পর্যন্ত হালনাগাদকৃত।
দল সাল ম্যাচ গোল
সেনেগাল ২০১১
২০১২
২০১৩
২০১৪
২০১৫ ১১
২০১৬
২০১৭ ১৪
২০১৮
২০১৯ ১১
২০২০
২০২১
সর্বমোট ৮০

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Updated squads for 2017/18 Premier League confirmed"। Premier League। ২ ফেব্রুয়ারি ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ 
  2. "Great Britain Olympic Team - Senegal Olympia, Jul 26, 2012 - Olympic Games - Match sheet"Transfermarkt (ইংরেজি ভাষায়)। ২৬ জুলাই ২০১২। সংগ্রহের তারিখ ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ 
  3. "Great Britain U23 vs. Senegal U23 - 26 July 2012"Soccerway। ২৬ জুলাই ২০১২। সংগ্রহের তারিখ ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ 
  4. "Great Britain - Senegal 1:1 (Olympic Games 2012 London, Group A)"worldfootball.net (ইংরেজি ভাষায়)। ২৭ নভেম্বর ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ 
  5. "Men's Olympic Football Tournament London 2012: List of Players United Arab Emirates" (PDF)FIFA। ১৩ জুলাই ২০১২। পৃষ্ঠা 15। ১৪ জুলাই ২০১২ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৬ এপ্রিল ২০২০ 
  6. "Senegal leave Papiss Cisse out of Olympic squad"। BBC Sport। ৭ জুলাই ২০১২। সংগ্রহের তারিখ ৭ জুলাই ২০১২ 
  7. "Senegal - Squad Olympic Games 2012 London"worldfootball.net। ২৭ নভেম্বর ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ 
  8. "Senegal - Appearances Olympic Games 2012"worldfootball.net (ইংরেজি ভাষায়)। ২৭ নভেম্বর ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ 
  9. "Guinea - Senegal, Nov 11, 2011 - International Friendlies - Match sheet"Transfermarkt (ইংরেজি ভাষায়)। ১১ নভেম্বর ২০১১। সংগ্রহের তারিখ ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ 
  10. "Guinea - Senegal 1:4 (Friendlies 2011, November)"worldfootball.net। সংগ্রহের তারিখ ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ 
  11. Strack-Zimmermann, Benjamin (১১ নভেম্বর ২০১১)। "Guinea vs. Senegal (1:4)"National Football Teams। সংগ্রহের তারিখ ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ 
  12. "Senegal - Equatorial Guinea, Jun 10, 2017 - Africa Cup of Nations qualification - Match sheet"Transfermarkt (ইংরেজি ভাষায়)। ১০ জুন ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ 
  13. "Senegal vs. Equatorial Guinea - 10 June 2017"Soccerway। ১০ জুন ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ 
  14. "Senegal - Equatorial Guinea 3:0 (Africa Cup Qual. 2017-2019, Group A)"worldfootball.net। ২৭ নভেম্বর ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ 
  15. "Senegal - Nigeria, Jun 16, 2019 - International Friendlies - Match sheet"Transfermarkt (ইংরেজি ভাষায়)। ১৬ জুন ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ 
  16. Strack-Zimmermann, Benjamin (১৬ জুন ২০১৯)। "Senegal vs. Nigeria (1:0)"National Football Teams (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ 
  17. "Senegal - Nigeria 1:0 (Friendlies 2019, June)"worldfootball.net। ২৭ নভেম্বর ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ 
  18. "FIFA World Cup Russia 2018™: List of Players" (PDF)fifadata.com (ইংরেজি ভাষায়)। ফিফা। ১০ জুন ২০১৮। ৬ ডিসেম্বর ২০১৯ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৬ আগস্ট ২০২১ 
  19. "Russie 2018 : La liste des 23 lions publiée" [Russia 2018: The list of 23 Lions published] (ফরাসি ভাষায়)। fsfoot.sn। ২০ মে ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০ মে ২০১৮ 
  20. "Senegal - Squad World Cup 2018 Russia"worldfootball.net। ২৭ নভেম্বর ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ 
  21. "Poland - Senegal, Jun 19, 2018 - World Cup 2018 - Match sheet"Transfermarkt (ইংরেজি ভাষায়)। ১৯ জুন ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ 
  22. "Poland vs. Senegal - 19 June 2018"Soccerway। ১৯ জুন ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ 
  23. "Senegal 1:2 (World Cup 2018 Russia, Group H)"worldfootball.net। ২৭ নভেম্বর ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ 
  24. "Senegal - Appearances World Cup 2018"worldfootball.net (ইংরেজি ভাষায়)। ২৭ নভেম্বর ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]