রয়্যাল ডাচ ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
রয়্যাল ডাচ ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন
উয়েফা
রয়্যাল ডাচ ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন.svg
প্রতিষ্ঠিত৮ ডিসেম্বর ১৮৮৯; ১৩০ বছর আগে (1889-12-08)[১]
সদর দপ্তরজিস্ট, নেদারল্যান্ডস
ফিফা অধিভুক্তি১৯০৪[১]
উয়েফা অধিভুক্তি১৯৫৪
বেনে লীগ অধিভুক্তি৫ মে ২০১২ (2012-05-05) – ৫ মে ২০১৫ (2015-05-05)
সভাপতিনেদারল্যান্ডস জাস্ট স্পি
ওয়েবসাইট

রয়্যাল ডাচ ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন (ওলন্দাজ: Koninklijke Nederlandse Voetbalbond, উচ্চারণ [ˌkoːnɪŋkləkə ˌneːdərlɑntsə ˈvudbɑlbɔnt], ইংরেজি: Royal Dutch Football Association; এছাড়াও সংক্ষেপে কেএনভিবি ([ˌkaːʔɛnveːˈbeː]) নামে পরিচিত) হচ্ছে নেদারল্যান্ডসের ফুটবলের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা। এই সংস্থাটি ১৮৮৯ সালের ৮ই ডিসেম্বর তারিখে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। এটি প্রতিষ্ঠার ১৫ বছর পর ফুটবলের সর্বোচ্চ সংস্থা ফিফার সদস্যপদ লাভ করে, এর পাশাপাশি প্রতিষ্ঠার ৬৫ বছর পর ১৯৫৪ সালে সংস্থাটি তাদের আঞ্চলিক সংস্থা উয়েফার সদস্যপদ লাভ করে। এই সংস্থার সদর দপ্তর নেদারল্যান্ডসের জিস্টের কেন্দ্রীয় পৌরসভায় অবস্থিত। ১.২ মিলিয়নেরও বেশি সদস্য নিয়ে কেএনভিবি হলো নেদারল্যান্ডসের একক বৃহত্তম ক্রীড়া সংস্থা।[২]

এই সংস্থাটি নেদারল্যান্ডসের পুরুষ, নারী এবং যুব জাতীয় দলের পাশাপাশি ঘরোয়া ফুটবলে এরেডিভিসি, এরস্টে ডিভিসি, অপেশাদার লীগ এবং কেএনভিবি কাপের মতো প্রতিযোগিতার সকল কার্যক্রম পরিচালনা করে। ২০১০-এর দশকে তিনটি মৌসুমে, কেএনভিবি এবং এর বেলজীয় অংশের সহযোগিতায় একটি যৌথ শীর্ষ স্তরের নারী লীগ, বেনে লীগ পরিচালনা করেছিল। দুটি দেশ ২০১৪–১৫ মৌসুমের পরে লীগটি ভেঙে দিয়ে তাদের নিজস্ব শীর্ষ-স্তরের লীগ পুনরায় প্রতিষ্ঠিত করার পূর্ব পর্যন্ত উক্ত লীগটি পরিচালনা করেছিল। বর্তমানে রয়্যাল ডাচ ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন জাস্ট স্পি এবং সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করছেন সম্পাদক খেইস ডে ইয়ং।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

১৮৮৯ সালে, নেদারল্যান্ডস্কে ভয়েটবাল এন অ্যাথলেটিক বন্ড নামে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল। কিছু মতবিরোধের কারণে বেশ কয়েকটি ফুটবল ক্লাব এর সাথে তাদের যোগাযোগ বন্ধ করে দেয় এবং একত্রে কোনিঙ্কলিজকে নেদারল্যান্ডস ভয়েটবলবন্ড (কেএনভিবি) গঠন করেছিল, যা পরবর্তীকালে বর্তমান নামে নামকরণ করা হয়েছিল।[৩] এটি ১৯০৪ সালে ফিফার অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা সদস্য এবং ইউরোপের প্রথম অ-ব্রিটিশ ফুটবল সংস্থায় পরিণত হয়।[৪] ১৮৭৯ সালে হারলেমে প্রথম ডাচ ফুটবল ক্লাবটি সংগঠিত হয়েছিল।[৫] এই সংস্থা প্রতিষ্ঠিত হওয়ার পূর্বে বেসরকারিভাবে নেদারল্যান্ডস ফুটবল লীগ চ্যাম্পিয়নশিপ ইতিমধ্যে এক দশক ধরে অস্তিত্ব ছিল। ১৯৯৯ সালে কেএনভিবি ফুটবলের পেশাদারিত্বকে অস্বীকার করেছিল। এটি বলেছে যে "এটি সর্বাত্মকভাবেই এর বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করবে"।[৬] ২০১২ সালে কেএনভিবি সমকামী ফুটবলের প্রচারের জন্য 'সবার জন্য ফুটবল' নামে একটি ১১ দফা কর্মপরিকল্পনা চালু করে। এটি 'গে? এতে কিছু আসে যায় না' নামে একটি ৩০-সেকেন্ডের ভিডিও প্রকাশ করেছে; উক্ত ভিডিওটি সম্প্রচারক বিএনএন প্রস্তুত করেছিল। এই ভিডিওটি অক্টোবরে অনুষ্ঠিত অ্যান্ডোরার বিরুদ্ধে নেদারল্যান্ডস জাতীয় ফুটবলের দলের বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের ম্যাচ চলাকালীন প্রদর্শিত হয়েছে।[৭]

২০১৪ ফিফা বিশ্বকাপ চলাকালীন, এটি রয়্যাল ফিলিপসের সাথে ব্রাজিল জুড়ে ছয়টি ফুটবল ক্লিনিক খোলায় সহযোগিতা করেছিল। বার্ট ভান ওস্টভিন হলেন কেএনভিবির বর্তমান সেক্রেটারি জেনারেল।[২]

স্পন্সর[সম্পাদনা]

কর্মকর্তা[সম্পাদনা]

৩ সেপ্টেম্বর ২০২০ পর্যন্ত হালনাগাদকৃত।[১]
অবস্থান নাম
সভাপতি জাস্ট স্পি
সহ-সভাপতি
সাধারণ সম্পাদক খেইস ডে ইয়ং
গণমাধ্যম এবং যোগাযোগ পরিচালক বাস টিখেলার
খ্রিস ভান নেইনাটেন
প্রযুক্তিগত পরিচালক নিকো-ইয়ান হোগমা
আর্ট লাঙ্গেলার
ফুটসাল সমন্বয়কারী হান্স স্খেলিং
জাতীয় দলের কোচ (পুরুষ) ডোয়াইট লোডেওয়েজেস
জাতীয় দলের কোচ (নারী) সারিনা ওয়েইখমান
রেফারি সমন্বয়কারী ডিক ভান এখমন্ড

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "অ্যাসোসিয়েশনের তথ্য"fifa.com (ইংরেজি ভাষায়)। ফিফা। সংগ্রহের তারিখ ৩ সেপ্টেম্বর ২০২০ 
  2. "Philips partners with the Royal Dutch Football Association to kick- off a series of football clinics across Brazil"Philips Newscenter। Rio de Janeiro, Brazil। ১০ জুন ২০১৪। সংগ্রহের তারিখ ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৪ 
  3. Sean Hamil; Simon Chadwick (২০১০)। Managing Football: An International Perspective। Routledge। পৃষ্ঠা 411। আইএসবিএন 978-1-85617-544-9 
  4. David Laine। Facts About Association Football - History Timeline। Lulu.com। পৃষ্ঠা 10। আইএসবিএন 978-1-4716-1231-2 
  5. John Nauright; Charles Parrish (২০১২)। Sports Around the World: History, Culture, and Practice। ABC-CLIO। পৃষ্ঠা 239। আইএসবিএন 978-1-59884-300-2 
  6. Jacco van Uden (২০০৪)। Organisation and Complexity: Using Complexity Science to Theorise Organisational Aliveness। Universal-Publishers। পৃষ্ঠা 18। আইএসবিএন 978-1-58112-222-0 
  7. Comiteau, Lauren (১২ অক্টোবর ২০১২)। "Out of the closet and on to the pitch"Radio Netherlands Worldwide। ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৪ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

টেমপ্লেট:রয়্যাল ডাচ ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন