জাহিদুল হক

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
কবি

জাহিদুল হক
ব্যক্তিগত বিবরণ
জন্ম১১ অগাস্ট ১৯৪৯
বদরপুর রেলওয়ে হাসপাতাল, আসাম, ভারত
পিতামাতামােহাম্মদ নূরুল হক ভূঞা,
জাহানারা খাতুন চৌধুরী
বাসস্থানবনশ্রী আবাসিক এলাকা, ঢাকা, বাংলাদেশ।
প্রাক্তন শিক্ষার্থীঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়
ফেনী সরকারি কলেজ
পুরস্কারবাংলা একাডেমি পুরস্কার (২০০২)

জাহিদুল হক (জন্ম: ১১ অগাস্ট ১৯৪৯) বাংলাদেশের একজন আধুনিক বাংলা কবি, সাংবাদিক, গল্পকার, ঔপন্যাসিক ও গীতিকার। বাংলা কবিতায় বিশেষ অবদানের জন্য তিনি ২০০২ সালে বাংলা একাডেমি পুরস্কার পান।[১]

তিনি বাংলা একাডেমির একজন ফেলাে ও রেডিও ডয়েচে-ভেলের সিনিয়র এডিটর ও ব্রডকাস্টার হিসেবে কাজ করেছেন। দৈনিক সংবাদের সিনিয়র সহকারি সম্পাদক ছিলেন। বাংলাদেশ বেতারে তিনি উপমহাপরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন।

জন্ম ও প্রাথমিক জীবন[সম্পাদনা]

জাহিদুল হকের জন্ম ১১ অগাস্ট ১৯৪৯ সালে ভারতের আসামের বদরপুর রেলওয়ে হাসপাতালে চিকিৎসক পিতার কর্মস্থলে। পৈত্রিক নিবাস কুমিল্লা জেলার চৌদ্দগ্রাম উপজেলার গুণবতী ইউনিয়নের আকদিয়া গ্রামের ভূঞা বাড়ি। বর্তমানে বসবাস করছেন ঢাকার বনশ্রীতে

তার পিতা মােহাম্মদ নূরুল হক ভূঞা ছিলেন সরকারি চাকুরে একজন চিকিৎসক। মাতা-জাহানারা খাতুন চৌধুরী। পিতার চাকরির বদলির কারণে দেশের অনেকগুলাে স্কুলে।

চট্টগ্রামের নগেন্দ্র্রচন্দ্র উচ্চ বিদ্যালয় থেকে ১৯৬৩ সালে মাধ্যমিক পাশ করেন। ১৯৬৬ সালে ফেনী সরকারি কলেজ থেকে উচ্চ মাধ্যমিক ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ১৯৬৯ সালে স্নাতক ডিগ্রি অর্জন করেন।

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

জাহিদুল হক লেখালেখি শুরু করেন স্কুল জীবন থেকে। প্রথম কবিতার প্রকাশ হয় ১৯৬৫ সালে দৈনিক সংবাদ এর ঈদ সংখায়। তিনি বাংলা একাডেমির একজন ফেলাে ও রেডিও ডয়েচে-ভেলের সিনিয়র এডিটর ও ব্রডকাস্টার হিসেবে কাজ করেছেন। দৈনিক সংবাদের সিনিয়র সহকারি সম্পাদক ছিলেন। বাংলাদেশ বেতারে তিনি উপমহাপরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। ১৯৭৮ সালে রেডিওতে রেকর্ডকৃত তার প্রথম গানটি পরে ‘মহানায়ক’ ছবিতে যুক্ত হয়। গানটির সুর করেছেন শেখ সাদী খান

ছিলেন ‘বেতার বাংলা’ পত্রিকার সম্পাদক। তিনি বাংলাদেশ ফিল্ম সেন্সর বোর্ডের সদস্য ছিলেন। তিনি বাংলাদেশ টেলিভিশনে শিল্প বাড়ি নামের একটি অনুষ্ঠানের উপস্থাপনা করেন।

গ্রন্থ[সম্পাদনা]

জাহিদুল হকের কবিতা, উপন্যাস, ছোটগল্প গান মিলিয়ে প্রকাশিত গ্রন্থের সংখ্যা ১৮টি। তার প্রথম কবিতার বই প্রকাশ হয় ১৯৮২ সালে ‘পকেট ভর্তি মেঘ’ শিরোনামে।[২] তার উল্লেখযোগ্য প্রকাশিত গ্রন্থের মধ্যে রয়েছে:-[৩]

  • পকেট ভর্তি মেঘ (১৯৮১),
  • তোমার হোমার (১৯৮৪),
  • নীল দুতাবাস (১৯৮৫),
  • সেই নিঃশ্বাসগুচ্ছ (১৯৮৯),
  • পারীগুচ্ছ ও অন্যান্য কবিতা (১৯৯৪),
  • এই ট্রেনটির নাম গার্সিয়া লোরকা (১৯৯৬),
  • এ উৎসবে আমি একা (১৯৯৭)।

পুরস্কার ও সম্মাননা[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "বাংলা একাডেমি সাহিত্য পুরস্কার বিজয়ী"বাংলাদেশ জাতীয় তথ্য বাতায়ন। ১৯ ডিসেম্বর ২০২০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৪ জানুয়ারি ২০২২ 
  2. "আজ ট্রাভেলটকে থাকবেন কবি জাহিদুল হক ও পিয়ালী গঙ্গোপাধ্যায়"বার্তা২৪.কম। ২১ নভেম্বর ২০২০। ৪ জানুয়ারি ২০২২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৪ জানুয়ারি ২০২২ 
  3. "জাহিদুল হক"বইবাজার.কম। সংগ্রহের তারিখ ৪ জানুয়ারি ২০২২