বিমল গুহ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
বিমল গুহ
২০১১ সালে দিল্লীতে বিমল গুহ
২০১১ সালে দিল্লীতে বিমল গুহ
জন্ম (1952-10-27) ২৭ অক্টোবর ১৯৫২ (বয়স ৬৯)
বাজালিয়া, সাতকানিয়া, চট্টগ্রাম
পেশাকবি, শিক্ষকতা
বাসস্থানঢাকা, বাংলাদেশ
জাতীয়তাবাংলাদেশী
নাগরিকত্ববাংলাদেশ
শিক্ষাস্নাতকোত্তর
শিক্ষা প্রতিষ্ঠান
উল্লেখযোগ্য পুরস্কারবাংলা একাডেমি সাহিত্য পুরস্কার (২০২১)
দাম্পত্যসঙ্গীমিনা গুহ
সন্তান
    • ঈষিকা
    • উপমা ও
    • মিথিলা

বিমল গুহ (জন্ম: ২৭ অক্টোবর ১৯৫২) একজন বাংলাদেশী কবি ও লেখক। স্বাধীনতা-পরবর্তীকালে বাংলাদেশের কবিতায় যারা গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখেছেন কবি বিমল গুহ তাদের অন্যতম।[১] কবিতায় অবদান রাখার জন্য তাকে ২০২২ সালে “বাংলা একাডেমি সাহিত্য পুরস্কার ২০২১” প্রদান করা হয়।[২]

জন্ম ও প্রাথমিক জীবন[সম্পাদনা]

বিমল গুহ ১৯৫২ সালের ২৭ শে অক্টোবর চট্টগ্রাম জেলার সাতকানিয়া উপজেলার বাজালিয়া ইউনিয়নে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতা প্রসন্নকুমার গুহ এবং মাতা মানদাবালা।[৩] পিতামাতার চার সন্তানের মধ্যে তিনি ছিলেন সবার বড়।[৪]

শিক্ষা জীবন[সম্পাদনা]

বিমল গুহ গ্রামের বাজালিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ে তার মাধ্যমিক শিক্ষা শেষ করেন। তিনি ১৯৭০ সালে সাতকানিয়া সরকারি কলেজ থেকে উচ্চ মাধ্যমিক পাশ করেন। এরপরে বাংলা সাহিত্যে ১৯৭৫ সালে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এম.এ পাশ করেন এবং যুক্তরাজ্যের নেপিয়ার বিশ্ববিদ্যালয় থেকে মুদ্রণ ও প্রকাশনা বিষয়ে উচ্চশিক্ষা গ্রহণ করেছেন। ১৯৯৭ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে তিনি পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন করেন।[১][৩]

ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

বিমল গুহ ১৯৮০ সালে মিনা গুহকে বিয়ে করেন। তার তিন কন্যা সন্তান রয়েছে।[৫]

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

পেশাসূত্রে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রকাশনা সংস্থার পরিচালক ও কলেজ পরিদর্শক ছিলেন।[৩][৪]

বর্তমানে তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মুদ্রণ ও প্রকাশনা অধ্যয়ন বিভাগে শিক্ষকতা করছেন।[৬]

সাহিত্য জীবন[সম্পাদনা]

গুহ সাহিত্য জগতে প্রবেশ করেন ১৯৬৮ সালে যখন তিনি স্কুলের ছাত্র ছিলেন। তার প্রথম কবিতা "আকাশ" ১৯৬৯ সালে সাতকানিয়া সরকারি কলেজ সাময়িকী "রেশমী" তে প্রকাশিত হয়।[৭] স্বাধীনতা পরবর্তীকালে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রাবস্থায় নিয়মিত কাব্যচর্চা শুরু। ১৯৮২ সালে ঢাকা থেকে প্রকাশিত হয় প্রথম কাব্যগ্রন্থ ‘অহংকার, তোমার শব্দ’। এ পর্যন্ত তার ১৫টি কবিতাগ্রন্থ, ৯টি কিশোর কবিতাগ্রন্থসহ মোট ৩৬টি গ্রন্থ প্রকাশিত হয়েছে।[৩][৪][৮] উল্লেখযোগ্য কাব্যগ্রন্থ হলো : ‘অহংকার তোমার শব্দ,’ ‘সাঁকো পার হলে খোলাপথ’, ‘স্বপ্নে জ্বলে শর্তহীন ভোর’, ‘নষ্ট মানুষ ও অন্যান্য কবিতা’, ‘প্রতিবাদী শব্দের মিছিল’, ‘বিবরের গান’, ‘প্রত্যেকেই পৃথক বিপ্লবী’, ‘নির্বাচিত কবিতা’, ‘কবিতাসংগ্রহ’।

বিমল গুহের প্রেম, স্নিগ্ধ ও সমকালীন কবিতাকে স্বদেশি প্রণোদনায় উন্মোচিত বলে আখ্যায়িত করেন অ্যামিরিটাস অধ্যাপক ড. আনিসুজ্জামান।[১] কবি বিমল গুহ কবিতা ছাড়াও সাহিত্যের অন্যান্য বিষয়েও অবদান রেখেছেন। গবেষণা, সম্পাদনা, ভ্রমণগ্রন্থ রচনা এবং বহু প্রবন্ধ তিনি রচনা করেছেন, যা বহুজন প্রশংসিত। তার স্বীকৃতিস্বরূপ তিনি পেয়েছেন দেশি-বিদেশি অনেক পুরস্কার।[৪]

সাহিত্য কর্ম[সম্পাদনা]

কাব্যগ্রন্থসমূহ[সম্পাদনা]

  • অহংকার, তোমার শব্দ (১৯৮২)
  • সাকোঁ পার হলে খোলা পথ (১৯৮৫)
  • স্বপ্নে জলে শর্তহীন ভোর (১৯৮৬)
  • ভালোবাসার কবিতা (১৯৮৯)
  • কবিতাসমগ্র (১৯৮৯)
  • নষ্ট মানুষ ও অন্যান্য কবিতা (১৯৯৫)
  • প্রতিবাদী শব্দের মিছিল (২০০০)
  • নির্বাচিত কবিতা (২০০১)
  • বিমল গুহের কবিতা সংকলন(২০১০)
  • আমরা রয়েছি মাটি (২০১১)
  • প্রত্যেকই পৃথক বিপ্লবী (২০১৫)
  • বিবরের গান (২০১৫)

কিশোর কাব্যগ্রন্থ[সম্পাদনা]

  • মেঘ ঘুরঘুর বৃষ্টি নামে (২০০০)
  • আগুনের ডিম (২০০১)
  • ছাদাই ছাহানা (২০০২)
  • সাদা মেঘের ভেলা (২০০৮)
  • টুপুর ও চরকা বৌদি(২০১৩)
  • কিশোর কবিতা সংগ্রহ (২০১৪)

গবেষণামূলক[সম্পাদনা]

  • অহিদুল আলম: জীবন ও সাহিত্য (১৯৯৯)
  • আধুনিক বাংলা কবিতায় লোকজ উপাদান (২০০১)

ভ্রমণ কাহিনী[সম্পাদনা]

  • অন্য দেশে অন্য ভূবনে (২০০৮)
  • স্ট্যাচু অব লিবার্টি (২০১৮)

পুরস্কার ও সম্মাননা[সম্পাদনা]

  • তরুণ লেখক জাতীয় সাহিত্য পুরস্কার (১৯৭৯)[৮]
  • কিংবদন্তির আমরা জাতীয় সাহিত্য পুরস্কার (১৩৮৫ বঙ্গাব্দ)
  • বঙ্গবন্ধু স্মারক পুরস্কার (২০০০)
  • ফরিদপুর নির্ণয় শিল্পীগোষ্ঠী স্বর্ণপদক (২০০৮)
  • কবি জীবনানন্দ দাশ পুরস্কার (২০০৯)
  • সূফী মোতাহের হোসেন সাহিত্য পুরস্কার-২০০৯ (২০১৩)
  • বাংলা একাডেমি সাহিত্য পুরস্কার (২০২১)[২]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "বিমল গুহ প্রেমে স্নিগ্ধ, সমকালে স্বদেশি প্রণোদনা"। banglanews24। ৭ মে ২০২০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৭ মার্চ ২০২০ 
  2. "বাংলা একাডেমি সাহিত্য পুরস্কার পেলেন ১৫ জন"প্রথম আলো। সংগ্রহের তারিখ ২৩ জানুয়ারি ২০২২ 
  3. "জন্মদিনে ফুলেল শুভেচ্ছায় সিক্ত কবি বিমল গুহ"। যুগান্তর। সংগ্রহের তারিখ ৭ মার্চ ২০২০ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  4. "কবি বিমল গুহের জন্মদিন আজ"। rupali dot com। ৫ নভেম্বর ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৪ নভেম্বর ২০১৮ 
  5. "মানবতাবাদী কবি বিমল গুহ"। banglanews24। 
  6. "Poet Bimal Guha Award" (PDF)Newsletter। ঢাকা: বাংলাদেশ এশিয়াটিক সোসাইটি। জুলাই ২০০৯। ২০১১-০৭-২৬ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১১-০৪-৩০ 
  7. সিদ্দিক মাহমুদুর রহমানের ভূমিকা, বিমল গুহের নির্বাচিত কবিতা, সমাবেশ, ঢাকা, আইএসবিএন ৯৭৮-৯৮৪-৮৮৬৬-০২-৩, দ্বাদশ পৃষ্ঠা।
  8. "কোনো লেখাই সমাজ-নিরপেক্ষ না"। যুগান্তর। সংগ্রহের তারিখ ৩ আগস্ট ২০২১