ক্যালকাটা স্কুল-বুক সোসাইটি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

কলিকাতা স্কুল-বুক সোসাইটি বা ক্যালকাটা স্কুল-বুক সোসাইটি(Calcutta School Book Society) ১৮১৭ খ্রিস্টাব্দের ৪ঠা জুলাই স্কুল পর্যায়ের ছাত্র-পাঠ্যপুস্তক রচনার জন্য কলকাতায় স্থাপিত হয়। [১] প্রতিষ্ঠানটির মূল উদ্যোক্তা ও প্রাণপুরুষ ছিলেন ডেভিড হেয়ার। পাশ্চাত্য শিক্ষার বিস্তারে সহায়তা করার জন্য বাংলা ও ইংরেজি ভাষায় পাঠ্যপুস্তক রচনা, প্রকাশ ও বিতরণের উদ্দেশ্যে তিনি এই প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলেন। শিক্ষার প্রসারের জন্য কম খরচে অথবা বিনামূল্যে ছাত্র-ছাত্রীদের বিতরনের জন্য এই প্রতিষ্ঠান প্রচুর পাঠ্যপুস্তক প্রকাশ করে। এই প্রস্তাব প্রকাশের দায়িত্ব পায় 'শ্রীরামপুর মিশন প্রেস' সহ একাধিক প্রেস। এদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য হল হিন্দুস্থানী প্রেস, পার্শিয়ান প্ৰেস, সংস্কৃত প্ৰেস ইত্যাদি৷ সোসাইটির গঠনতন্ত্র অনুযায়ী ব্যবস্থাপনা পরিষদের ২৪ জন সদস্যের মধ্যে ১৬ জন ছিলেন ইউরোপীয় ও আটজন ভারতীয় এবং দুজন সেক্রেটারির মধ্যে একজন ইউরোপীয় ও একজন ভারতীয় । ভারতীয়দের মধ্যে ছিলেন মৌলভি আমিনুল্লাহ, মৌলভি করম হোসাইন, মৌলভি আবদুল ওয়াহিদ, মৌলভি আবদুল হামিদ, মৃত্যুঞ্জয় বিদ্যালঙ্কার, তারিণীচরণ মিত্র, রাধাকান্ত দেবরামকমল সেনএফ আর্ভিং ও তারিণীচরণ সোসাইটির সেক্রেটারির দায়িত্ব পালন করেন।[২]

এই প্রতিষ্ঠান প্রথমদিকে যে সমস্ত গ্রন্থ প্রকাশ করে সেগুলি হল-

  • নীতিকথা (১৮১৮)
  • মনোরঞ্জনেতিহাস (১৮১৯)
  • হিতোপদেশ (১৮১৯)

এছাড়া প্রতিষ্ঠানটি ১৮২২ খ্রিস্টাব্দে রেভারেন্ড লসন ও ডবলিউ এইচ পীয়ার্স-এর সম্পাদনায় পশ্বাবলী নামক মাসিক পত্রিকা প্রকাশ করে। [১]

পরবর্তীতে সোসাইটির সভ্যরা দেখলেন দেশের স্কুল-পাঠশালা সংস্কার না করলে তাদের উদ্দেশ্য বাস্তবায়িত হবে না। ১৮১৮ খ্রিস্টাব্দের ২৪ জুলাই সোসাইটির একজন বৈঠকে পাঠশালার সংস্কার ও দ্রুত উন্নতির জন্য আলাদা করে গঠিত হয় ক্যালকাটা স্কুল সোসাইটি। আদর্শমানের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান গড়ে তোলাও ছিল অন্যতম প্রয়াস। সেই প্রয়াসেই ১৮১৮ খ্রিস্টাব্দে তৈরি হয় শ্রীরামপুর ব্যাপটিস্ট মিশন কলেজ,দু'বছর পর কলকাতার 'বিশপস্ কলেজ'।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. শিশিরকুমার দাশ (২০১৯)। সংসদ বাংলা সাহিত্যসঙ্গী। সাহিত্য সংসদ, কলকাতা। পৃষ্ঠা ২৩৬। আইএসবিএন 978-81-7955-007-9 
  2. ওয়াকিল আহমদ। "ক্যালকাটা স্কুল-বুক সোসাইটি"বাংলাপিডিয়া