কৃষ্ণনগর

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান
কৃষ্ণনগর
শহর
রাজপ্রাসাদের বহির্ভাগ
রাজপ্রাসাদের বহির্ভাগ
কৃষ্ণনগর পশ্চিমবঙ্গ-এ অবস্থিত
কৃষ্ণনগর
কৃষ্ণনগর
পশ্চিমবঙ্গ, ভারতে অবস্থান
স্থানাঙ্ক: ২৩°২৪′উত্তর ৮৮°৩০′পূর্ব / ২৩.৪° উত্তর ৮৮.৫° পূর্ব / 23.4; 88.5স্থানাঙ্ক: ২৩°২৪′উত্তর ৮৮°৩০′পূর্ব / ২৩.৪° উত্তর ৮৮.৫° পূর্ব / 23.4; 88.5
দেশ  ভারত
রাজ্য পশ্চিমবঙ্গ
জেলা নদিয়া
সরকার
 • সংসদ সদস্য তাপস পাল
উচ্চতা ১৪ মিটার (৪৬ ফুট)
জনসংখ্যা (2001)
 • মোট ১,৩৯,০৭০
ভাষা
 • অফিসিয়াল বাংলা, ইংরেজি
সময় অঞ্চল আইএসটি (ইউটিসি+৫:৩০)

কৃষ্ণনগর (ইংরেজি:Krishnanagar), ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের নদিয়া জেলার সদর শহর ও পৌরসভা এলাকা। কৃষ্ণনগরের কুমোরটুলির মাটির পুতুল ও মূর্তি পশ্চিমবঙ্গের শ্রেষ্ঠ কুটির শিল্পগুলির অন্যতম। এটি বর্তমানে নদিয়া জেলার প্রধান বানিজ্যকেন্দ্র ও প্রাচীন বাংলার অন্যতম শিক্ষা ও সংস্কৃতির শহর বলে পরিচিত। কৃষ্ণনগরের বারদোলের মেলা বাংলার অতি প্রাচীন ও ঐতিহ্যবাহী মেলা। নদিয়ারাজ কৃষ্ণচন্দ্র এই মেলার প্রবর্তক হিসাবে জানা যায়।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

বিখ্যাত ব্যক্তিত্ব[সম্পাদনা]

ভৌগোলিক উপাত্ত[সম্পাদনা]

শহরটির অবস্থানের অক্ষাংশ ও দ্রাঘিমাংশ হল ২৩°২৪′উত্তর ৮৮°৩০′পূর্ব / ২৩.৪° উত্তর ৮৮.৫° পূর্ব / 23.4; 88.5[১] সমূদ্র সমতল হতে এর গড় উচ্চতা হল ১৪ মিটার (৪৫ ফুট)।

জনসংখ্যার উপাত্ত[সম্পাদনা]

ভারতের ২০০১ সালের আদমশুমারি অনুসারে কৃষ্ণনগর শহরের জনসংখ্যা হল ১৩৯,০৭০ জন।[২] এর মধ্যে পুরুষ ৫১%, এবং নারী ৪৯%।

এখানে সাক্ষরতার হার ৭৯%, । পুরুষদের মধ্যে সাক্ষরতার হার ৮৩%, এবং নারীদের মধ্যে এই হার ৭৫%। সারা ভারতের সাক্ষরতার হার ৫৯.৫%, তার চাইতে কৃষ্ণনগর এর সাক্ষরতার হার বেশি।

এই শহরের জনসংখ্যার ৯% হল ৬ বছর বা তার কম বয়সী।

ধর্মবিশ্বাস[সম্পাদনা]


Circle frame.svg

কৃষ্ণনগরের ধর্মবিশ্বাস (২০১১)[৩]

  হিন্দুধর্ম (৯০.৮২%)
  ইসলাম (৫.৯৮%)
  শিখধর্ম (০.০৪%)
  জৈন ধর্ম (০.০১%)
  অন্যান্য (০.০৬%)

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Krishnanagar"Falling Rain Genomics, Inc। সংগৃহীত অক্টোবর ৭, ২০০৬ 
  2. "ভারতের ২০০১ সালের আদম শুমারি"। সংগৃহীত অক্টোবর ৭, ২০০৬ 
  3. "Krishnanagar Religion 2011"। সংগৃহীত ২৩ মার্চ ২০১৭