খ্রিস্ট ধর্ম

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
Jump to navigation Jump to search

খ্রিস্ট ধর্ম (প্রাচীন গ্রিক: Χριστός খ্রিস্তোস্‌) হচ্ছে একেশ্বরবাদী ধর্ম। নাজারাথের যীশুর জীবন ও শিক্ষাকে কেন্দ্র করে এই ধর্ম বিকশিত হয়েছে। খ্রিস্টানরা মনে করেন যীশুই মসীহ এবং তাঁকে যীশু খ্রীস্ট বলে ডাকেন। খ্রিস্ট ধর্মের শিক্ষা নতুন টেস্টামেন্ট বা নতুন বাইবেলে এ গ্রন্থিত হয়েছে। এই ধর্মাবলম্বীরা খ্রিস্টান পরিচিত। তারা বিশ্বাস করে যে যীশু খ্রীস্ট হচ্ছেন ঈশ্বরের পুত্র।

২০০১ সালের তথ্য অনুযায়ী সারা বিশ্বে ২.১ বিলিয়ন খ্রীস্ট ধর্মের অনুসারী আছে।[১][২][৩][৪] সে হিসেবে বর্তমানে এটি পৃথিবীর বৃহত্তম ধর্ম।[৫][৬] ইউরোপ, উত্তর ও দক্ষিণ আমেরিকা, সাব-সাহারান আফ্রিকা, ফিলিপিন্স দ্বীপপুঞ্জ ও ওশেনিয়া অঞ্চলে খ্রীস্ট ধর্ম প্রধান ধর্ম হিসেবে পালিত হয়।

প্রথম শতাব্দীতে একটি ইহুদি ফেরকা হিসেবে এই ধর্মের আবির্ভাব। সঙ্গত কারণে ইহুদি ধর্মের অনেক ধর্মীয় পুস্তক ও ইতিহাসকে এই ধর্মে গ্রহণ করা হয়েছে। ইহুদিদের ধর্মগ্রন্থ তানাখ বা হিব্রু বাইবেলকে খ্রিস্টানরা পুরাতন বাইবেল বলে থাকে। ইহুদি ও ইসলাম ধর্মের ন্যায় খ্রিস্ট ধর্মও আব্রাহামীয়।

বহিঃসূত্র[সম্পাদনা]

  1. ৬.৭ বিলিয়ন বৈশ্বিক জনসংখ্যা ৩৩.২%(জনসংখ্যার অধীনে) "পৃথিবী"। সিআইএ ওয়ার্ল্ড ফ্যাক্ট। 
  2. "দ্য লিস্ট: দ্য ওয়ার্ল্ডস ফাস্টেস্ট গ্রোয়িং রিলিজিয়ন"। ফরেইনপলেসি ডট কম। মার্চ, ২০০৭। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ৪, ২০১০  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |তারিখ= (সাহায্য)
  3. "ম্যাজর রিলিজিয়নস র‍্যাংকড বাই সাইজ"। এড্রেহেন্টস। সংগ্রহের তারিখ ২০০৯-০৫-০৫ 
  4. এনালাইজিস (২০১১-১২-১৯)। "বৈশ্বিক খ্রিস্টিয়ানিটি"। পিফোরাম অর্গ। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-০৮-১৭ 
  5. Hinnells, The Routledge Companion to the Study of Religion, p. 441.
  6. Zoll, Rachel (ডিসেম্বর ১৯, ২০১১)। "Study: Christian population shifts from Europe"Associated Press। সংগ্রহের তারিখ ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০১২