উল্কাপাত

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
Jump to navigation Jump to search
From a meteoroid to a meteor and meteorite.
পৃথিবীর বায়ুমন্ডলে প্রবেশ করার পর উল্কার বিভিন্ন রূপান্তর এ্যানিমেশন চিত্রের মাধ্যমে দেখান হয়েছে।
আকাশগঙ্গা ছায়াপথের পটভূমিতে একটি উল্কাপাত দেখা যাচ্ছে

উল্কা হল মহাকাশে পরিভ্রমণরত পাথর বা ধাতু দ্বারা গঠিত ছোট মহাজাগতিক বস্তু যা পৃথিবীর বায়ুমন্ডলে প্রবেশ করলে বায়ুর সংঘর্ষে জ্বলে উঠে। তখন একে উল্কাপাত (meteor) বলে। এই উল্কাপাতের জন্য দায়ী বস্তুগুলোকে উল্কা (meteoroid) বলে। উল্কাপিন্ড গ্রহানুর তুলানায় আকারে অনেক ক্ষুদ্র। আকারে এরা ছোট ধূলিকনা থেকে ১ মিটার দৈর্ঘ্যের হয়ে থাকে। এর চেয়ে ছোট বস্তুকে মহাজাগতিক ধূলিকনা বলে। [১][২]

এসব উল্কার বেশীরভাগই গ্রহানু বা ধূমকেতুর অংশবিশেষ। বাকী অংশ মহাজাগতিক বস্তুর সংঘর্ষের ফলে সৃষ্ট ধ্বংসাবশেষ।[৩] যখন কোন উল্কা পৃথিবীর বায়ুমন্ডলে প্রবেশ করে তখন এর গতীবেগ প্রতি সেকেন্ডে ২০ কিমি বৃদ্ধিপ্রাপ্ত হয় (৭২,০০০ কিমি/ঘন্টা; ৪৫,০০০ মাইল/ঘন্টা।)। এসময়ে এ্যারোডাইনামিক্স তাপের কারনে উজ্জ্বল আলোক ছটার সৃষ্টি হয়। এই বাহ্যমূর্তীর কারনে একে তারা খসা (Shooting Star) বলে। কিছু কিছু উল্কা একই উৎস হতে উৎপন্ন হয়ে বিভিন্ন ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র অংশে ভেঙে প্রজ্জ্বলিত হয় যাকে উল্কা বৃষ্টি বলা হয়।

প্রায় ১৫,০০০ টন পরিমাণ উল্কা, ক্ষুদ্র উল্কাকণা এবং মহাজাগতিক ধূলিকনা প্রতি বছর পৃথিবীর বায়ুমন্ডলে প্রবেশ করে।[৪]

গ্যালারী[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. [১] / Wily Online Library
  2. [২] / Universe Today
  3. [৩] / National Geographic 24 Aug 2015
  4. Gary, Stuart (২০১১-১২-২২)। "Survey finds not all meteors the same"ABC Science। ABC।