আলেকজান্ডার ইউনিয়ন

স্থানাঙ্ক: ২২°৩৯′৪৮″ উত্তর ৯০°৫৪′২২″ পূর্ব / ২২.৬৬৩৩৩° উত্তর ৯০.৯০৬১১° পূর্ব / 22.66333; 90.90611
উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
আলেকজান্ডার
ইউনিয়ন
Government Seal of Bangladesh.svg ৪নং আলেকজান্ডার ইউনিয়ন পরিষদ
আলেকজান্ডার চট্টগ্রাম বিভাগ-এ অবস্থিত
আলেকজান্ডার
আলেকজান্ডার
আলেকজান্ডার বাংলাদেশ-এ অবস্থিত
আলেকজান্ডার
আলেকজান্ডার
বাংলাদেশে আলেকজান্ডার ইউনিয়নের অবস্থান
স্থানাঙ্ক: ২২°৩৯′৪৮″ উত্তর ৯০°৫৪′২২″ পূর্ব / ২২.৬৬৩৩৩° উত্তর ৯০.৯০৬১১° পূর্ব / 22.66333; 90.90611 উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
দেশবাংলাদেশ
বিভাগচট্টগ্রাম বিভাগ
জেলালক্ষ্মীপুর জেলা
উপজেলারামগতি উপজেলা উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
সময় অঞ্চলবিএসটি (ইউটিসি+৬)
পোস্ট কোড৩৭৩০ উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
মানচিত্র

আলেকজান্ডার বাংলাদেশের লক্ষ্মীপুর জেলার অন্তর্গত রামগতি উপজেলার একটি ইউনিয়ন। যা একটি প্রসিদ্ধ অঞ্চল এবং রামগতি পৌরসভা, উপজেলা পরিষদ, রামগতি থানা ও উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এই ইউনিয়নেই অবস্থিত। তাছাড়া, তৎসংলগ্ন বিস্তৃত অঞ্চলের ব্যবসাবাণিজ্য, মাছ; বিশেষ করে ইলিশ রপ্তানির তীর্থস্থানও এই আলেকজান্ডার। বাংলাদেশ সরকার ঘোষিত মেঘনা নদীর একশো কিলোমিটার মৎস্য অভয়ারণ্য অঞ্চল আলেকজান্ডার থেকে শুরু হয়ে চাঁদপুর অব্ধি পৌঁছেছে। আলেকজান্ডারে মেঘনা নদী পনেরো কিলোমিটার পর্যন্ত প্রস্থ।

১৯২৫ সালের দিকে এই অঞ্চলের গোড়াপত্তন হয়। ইংরেজ সরকার এখানকার দায়িত্ব দিয়ে শীঘ্রই 'আলেকজান্ডার' নামক একজন কালেক্টরকে নিযুক্ত করে। ভদ্রলোক কোনো আশ্চর্য উপায়ে এখানকার মানুষদের মন জয় করে বসেন। ফলে একটা সময় মিস্টার আলেকজান্ডারকে স্যুটকেস গুঁছিয়ে ফিরতে হলেও, মানুষ তাকে তার নাম ফেরত দেয়নি।

কিংবদন্তি অনুযায়ী, মোটামুটি চল্লিশের দশক থেকে তৎকালীন বরিশালের দক্ষিণ শাহবাজপুরের নিন্মাঞ্চলের মানুষজন প্রতিনিয়ত জলোচ্ছ্বাস ও প্রাকৃতিক দুর্যোগে বিপর্যস্ত হওয়ার প্রেক্ষিতে— সমৃদ্ধ ও বসবাসের জন্য মনোরম এই জনপদে হিজরত করেন। মূলত সেই ভাগ্যান্বেষনের পরিপ্রেক্ষিতেই আলেকজান্ডার কালক্রমে সুপ্রতিষ্ঠিত হওয়ার দিকে এগোয় এবং নগর জীবনের প্রয়োজনের সঙ্গে সঙ্গে অবকাঠামো ও প্রয়োজনীয় সু্যোগ সুবিধা গড়ে ওঠে। শাহবাজপুর অঞ্চলের শেকড় এখানে এসে মাটি পাওয়ায় বংশপরম্পরায় এখানকার মানুষ শাহবাজপুরী হিসেবে প্রসিদ্ধ। এছাড়া এখানে নোয়াখালী অঞ্চলের বংশপরম্পরাও বিদ্যমান। তারাই এখানকার সবচেয়ে প্রাচীন বাসিন্দা। নোয়াখালীর আদি নাম ভুলুয়া হওয়ায় তারা ভুলুয়াওয়ালা হিসেবে পরিচিত।

আয়তন[সম্পাদনা]

১৫৫১২ একর বা ২৯ বর্গকিলোমিটার এলাকা নিয়ে সমগ্র আলেকজান্ডারের অবস্থান। যা বালুরচর, মানিকপুর, সোনালীগ্রাম, চর ডাক্তার, সুজনগ্রাম, সবুজগ্রাম, আসলপাড়া, আলেকজান্ডার, পূর্ব আলেকজান্ডার এবং সেবাগ্রাম অঞ্চলের মধ্যে বিভক্ত।

অবস্থান ও সীমানা[সম্পাদনা]

রামগতি উপজেলার পশ্চিমাংশে আলেকজান্ডার ইউনিয়নের অবস্থান। রামগতি বাজার থেকে যা ১৫ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত।

লক্ষ্মীপুর শহর থেকে আলেকজান্ডারের দূরত্ব ৪০ কিলোমিটার এবং নোয়াখালী শহর থেকে ৩৩ কিলোমিটার। অন্যদিকে, ঢাকা হতে ১৯৩ ও বিভাগীয় শহর চট্টগ্রাম হতে ১৭৪ কিলোমিটার দূরত্ব বিদ্যমান।

এই ইউনিয়নের দক্ষিণে মেঘনা নদী ও চর আবদুল্যাহ ইউনিয়ন। পূর্বে রামগতি পৌরসভা, চর আলগী ইউনিয়ন ও চর বাদাম ইউনিয়ন। উত্তরে কমলনগর উপজেলার পাটারীরহাট ইউনিয়ন ও চর ফলকন ইউনিয়ন এবং পশ্চিমে মেঘনা নদী ও ভোলা জেলার দৌলতখান উপজেলার মদনপুর ইউনিয়ন অবস্থিত।

প্রশাসনিক কাঠামো[সম্পাদনা]

আলেকজান্ডার ইউনিয়ন রামগতি উপজেলার আওতাধীন ৪নং ইউনিয়ন পরিষদ। এরমধ্যে রামগতি পৌরসভার দ্বারা বিশেষায়িত পৌরসভা অঞ্চল পরিচালিত হয়। এ ইউনিয়নের প্রশাসনিক কার্যক্রম রামগতি থানার আওতাধীন। এটি জাতীয় সংসদের ২৭৭ নং নির্বাচনী এলাকা লক্ষ্মীপুর— ৪ [রামগতি-কমলনগর] এর অন্তর্গত।


শিক্ষার হার

৭০%

শিক্ষা প্রতিষ্ঠান[সম্পাদনা]

  • আ স ম আবদুর রব সরকারি কলেজ।
  • আলেকজান্ডার কামিল মাদরাসা।
  • আলেকজান্ডার মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়।
  • আলেকজান্ডার সরকারি মডেল পাইলট উচ্চবিদ্যালয়।
  • আলেকজান্ডার পাইলট বালিকা উচ্চবিদ্যালয়।
  • তোহফা-ই-আইয়ূব মহিলা কলেজ।
  • সেবাগ্রাম ফজলুর রহমান উচ্চবিদ্যালয়।
  • আলেকজান্ডার আর.সি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়।
  • মধ্য আলেকজান্ডার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়।
  • চর আব্দুল্যাহ্ আল মাদ্রাসাতুল জামিয়াতুল ইসলামিয়া ফাযিল (ডিগ্রি) মাদ্রাসা।
  • চর ডাক্তার ছিদ্দিকীয়া তাহফিজুল কোরআন মাদ্রাসা।
  • বালুর চর উচ্চ বিদ্যালয়।
  • বালুর চর ইসলামীয়া আলিম মাদ্রাসা।

যোগাযোগ ব্যবস্থা[সম্পাদনা]

এই জনপদ আঞ্চলিক মহাসড়কের মাধ্যমে লক্ষীপুর ও নোয়াখালী শহরের সঙ্গে নিরবিচ্ছিন্নভাবে সংযুক্ত। আলেকজান্ডার বাজার থেকে রাজধানী ঢাকা এবং সংলগ্ন থেকে বিভাগীয় শহর চট্টগ্রামের সঙ্গে চেয়ারকোচ বাস সার্ভিসের মাধ্যমে রয়েছে সরাসরি যোগাযোগ। লঞ্চ সার্ভিস পরিচালিত হয় আলেকজান্ডার ও দ্বীপজেলা ভোলার দৌলতখান রুটে। এছাড়াও, রামগতি বাজার ও রামগতি উপজেলার বিভিন্ন অঞ্চলের সঙ্গে শক্তিশালী সড়ক সংযোগ রয়েছে।

হাট-বাজার[সম্পাদনা]

▪️আলেকজান্ডার বাজার।

▪️আশ্রম বাজার।

▪️সেবাগ্রাম বাজার।

▪️বাংলা বাজার।

▪️জনতা বাজার।

▪️জমিদারহাট।

দর্শনীয় স্থান[সম্পাদনা]

▪️আলেকজান্ডার মেঘনা বীচ - - মেঘনা নদীকে কেন্দ্র করে বাংলাদেশের সর্ববৃহৎ সুসজ্জিত পর্যটন এরিয়া এবং এখানে এসেই মেঘনা সবচেয়ে বেশি প্রশস্ততা অর্জন করেছে। বিশেষ জালের সাহায্যে এখানে জেলে পরিবারগুলোর গলদা চিংড়ি ধরার দৃশ্যও উপভোগ্য৷

▪️মহিষের চর - - স্থলভাগের সঙ্গে সংযোগহীন মেঘনার মধ্যবর্তী বিরানভূমি সদৃশ সবুজ চারণভূমি। যা বাংলাদেশের পশ্চিমাঞ্চল অভিমুখী চট্টগ্রাম বিভাগেরও শেষ ভূখণ্ড। তার পাশ ঘেঁষে চলে গেছে চট্টগ্রাম বন্দর হয়ে আসা দেশের উত্তরাঞ্চলীয় বন্দরগামী জাহাজের গতিপথ।

▪️আলেকজান্ডার লঞ্চঘাট - - যা ভোলা জেলার নৌরুটের সঙ্গে সংযুক্ত।

▪️ব্যস্ততম মাছঘাট এবং বিভিন্ন আকৃতির নৌকা মেরামত ও তৈরির কারখানা।

▪️আলেকজান্ডার দ্বায়রা শরীফ।

▪️শ্রী শ্রী বুড়াকর্তার আশ্রম

▪️উপকূলীয় নারিকেল সুপারি এবং ঝাউবাগান।

▪️আ স ম আবদুর রব কলেজ ও পরিত্যক্ত হোস্টেল।

▪️জেলা পরিষদ বাংলো।

উল্লেখযোগ্য ব্যক্তি[সম্পাদনা]

▪️মোহাম্মদ তোয়াহা (২ জানুয়ারি ১৯২২- ২৯ নভেম্বর ১৯৮৭): বায়ান্নর ভাষা আন্দোলনের অন্যতম ছাত্রনেতা। ১৯৫৪ সালের যুক্তফ্রন্ট নির্বাচনে জয়ী প্রাদেশিক পরিষদের সদস্য। কমিউনিস্টপন্থী রাজনীতিবিদ ও শক্তিশালী লেখক।

▪️মোহাম্মদ জমির আলী (২৯ নভেম্বর, ১৯৪২- ২৪ ডিসেম্বর, ২০০৪): নিখিল পাকিস্তান মুসলিমলীগের অর্গানাইজার এবং পরবর্তীতে বাংলাদেশ মুসলিমলীগের সভাপতি।

▪️এ্যাডভোকেট সিএসপি আবদুর রব চৌধুরী (১৯৩৪- ১৮ ফেব্রুয়ারী, ২০১৮): ডাকসুর জিএস [১৯৫৪-'৫৫]। পূর্বপাকিস্তানের জেলাপ্রশাসক, শিক্ষামন্ত্রণালয়ের উপসচিব এবং ইসলামাবাদে অর্থ মন্ত্রণালয়ের উপসচিব। পরবর্তীতে স্বাধীন বাংলাদেশে কৃষি মন্ত্রণালয়ের সচিব [১৯৭৩] ও আওয়ামীলীগের উপদেষ্টা মণ্ডলীর সদস্য।

▪️আ স ম আবদুর রব (০১ জানুয়ারি ১৯৪৫- বর্তমান): ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ডাকসুর প্রাক্তন ভিপি এবং স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম পতাকা উত্তোলক। নৌপরিবহন মন্ত্রী [১৯৯৬]। জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের সভাপতি।

▪️মাওলানা আবদুস সোবহান (......- ৭ ডিসেম্বর, ২০০৭): ইসলামপন্থী সংগঠক। সমাজ সংস্কারক।

▪️আজাদ উদ্দিন চৌধুরী (১৯৫৩- ১২ এপ্রিল, ২০২১): ভূমিহীনদের অধিকার আন্দোলনের পথিকৃৎ এবং জননন্দিত মেয়র।

▪️শফিউল বারী বাবু (১ মে, ১৯৬৯- ২৮ জুলাই, ২০২০): বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় জেনারেল সেক্রেটারি এবং পরবর্তীতে জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দলের কেন্দ্রীয় সভাপতি।

▪️অধ্যাপক মোহাম্মদ ইউসুফ: প্রেন্সিপাল, ঢাকা কলেজ



জনপ্রতিনিধি[সম্পাদনা]

ইউপি চেয়ারম্যান: মোহাম্মদ দিদার হোসেন।

মেয়র: মেজবা উদ্দিন মেজু।

আরো দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]