অক্সিতঁ ভাষা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
অক্সিতঁ, উৎসিতা
Occitan, Lenga d'òc
দেশোদ্ভব  ফ্রান্স
 স্পেন
 ইতালি
 মোনাকো
দেশীয় ভাষাভাষী ১৯,৩৯,০০০  (তারিখ হারিয়ে গিয়েছে)
ভাষা পরিবার
প্রাতিষ্ঠানিক মর্যাদা
সরকারি ভাষা আরান উপত্যকা এবং স্পেনের কাতালুনিয়া-তে সরকারীভাবে অক্সিতঁ নামে স্বীকৃত
নিয়ন্ত্রক সংস্থা কনসেল দে লা লেংগা উক্সিতাঁ
ভাষা কোডসমূহ
আইএসও ৬৩৯-১ oc
আইএসও ৬৩৯-২ oci
আইএসও ৬৩৯-৩ oci
[[File:Occitania blanck map.PNG
ঐতিহাসিক অক্সিতানিয়া অঞ্চল, যেখানে অক্সিতঁ ভাষা প্রচলিত|300px]]

উৎসিতা (Occitan [utsiˈta]) বা অক্সিতঁ (ফরাসি: Occitan) ফ্রান্সের দক্ষিণ তৃতীয়াংশে প্রচলিত একটি রোমান্স ভাষা। ভাষাটি "অক ভাষা" নামেও পরিচিত (ফরাসি: Langue d'oc লঙ্গ্‌দক্‌, উৎসিতা/অক্সিতাঁ: Lenga d'òc লেঙ্গদ়ক্‌ আ-ধ্ব-ব: [ˈleŋgɔˈðɔ(k)])। ফ্রান্সের প্রায় এক-চতুর্থাংশ জনগণ এই ভাষায় কথা বলেন। ১১শ শতক থেকে ১৫শ শতকে অক্সিতঁ ভাষায় বহু সাহিত্য রচিত হয়। এদের মধ্যে ত্রুবাদুরদের লেখা কবিতাগুলি উল্লেখযোগ্য। এটি তখন বর্তমান এলাকার আরও অনেক উত্তর পর্যন্ত প্রচলিত ছিল। এর আদর্শ সাহিত্যিক উপভাষাটি এই অঞ্চলের বিভিন্ন কথ্য উপভাষার মধ্যে সম্মিলন ঘটিয়েছিল।

১৪শ শতকে উত্তর ফ্রান্স অক্সিতঁভাষী অঞ্চলটির উপর আধিপত্য বিস্তার করলে সাহিত্যিক ভাষাটির গুরুত্ব ধীরে ধীরে হ্রাস পেতে থাকে। ১৯শ শতকে কবি ফ্রেদেরিক মিস্ত্রাল একটি সাহিত্যিক আন্দোলনের নেতৃত্ব দেন যার ফলে অক্সিতঁ ভাষার একটি আধুনিক সাহিত্যিক আদর্শ রূপ প্রতিষ্ঠিত হয়। আঞ্চলিক ঐতিহ্য ও সংস্কৃতি রক্ষার স্বার্থে ১৯৯৩ সালে ফরাসি সরকার সরকারী স্কুলগুলিতে অক্সিতঁ ও অন্যান্য স্থানীয় ভাষাগুলি শিক্ষাদান শুরু করে।

অক্সিতঁ ভাষার উপভাষাগুলির মধ্যে লিমুজাঁ এবং অভেরনিয়াঁ দক্ষিণ-মধ্য ফ্রান্সে, লংগদকপ্রোভঁসাল ভূমধ্যসাগরের উপকূলবর্তী এলাকায়, এবং গাসকোঁ দক্ষিণ-পশ্চিম ফ্রান্সে প্রচলিত। এই অঞ্চলগুলি রোমান সেনারা ফ্রান্সের অন্যান্য এলাকাগুলির আগে দখল করেছিল। ফলে রোমানদের লাতিন ভাষা-প্রভাবিত মুখের ভাষাগুলি উত্তর ফ্রান্সের ফ্রাঙ্কীয় ও অন্যান্য জার্মান হানাদারদের ভাষার প্রভাব থেকে অনেকাংশেই মুক্ত ছিল। বর্তমানে অক্সিতঁ ভাষার উপর ফরাসি ভাষার প্রভাব গভীর হলেও এখনও এর গঠন স্পেনীয়কাতালান ভাষার মতই।

অক্সিতঁ ভাষা অঞ্চলের উত্তর-পূর্বে প্রচলিত কতগুলি উপভাষার একটি দল ফ্রাঙ্কো-প্রোভঁসাল ভাষা নামে পরিচিত। এগুলি সুইজারল্যান্ডইতালির কিয়দংশেও প্রচলিত।