৩৯তম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার (বাংলাদেশ)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
(39th Bangladesh National Film Awards থেকে পুনর্নির্দেশিত)
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
৩৯তম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার
পুরস্কার দেওয়া হয়২০১৪ সালে চলচ্চিত্রশিল্পে গৌরবোজ্জ্বল ও অসাধারণ অবদানের জন্য
উপস্থাপিততথ্য মন্ত্রণালয়
ঘোষণা২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬
উপস্থাপন১১ মে, ২০১৬
স্থানঢাকা, বাংলাদেশ
অফিসিয়াল ওয়েবসাইটঅফিসিয়াল ওয়েবসাইট
আলোকপাত
আজীবন সম্মাননাসৈয়দ হাসান ইমামরানী সরকার
শ্রেষ্ঠ পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রনেকাব্বরের মহাপ্রয়াণ
শ্রেষ্ঠ অ-পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রগাড়িওয়ালা
শ্রেষ্ঠ অভিনেতাফেরদৌস আহমেদ
এক কাপ চা
শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রীমৌসুমীবিদ্যা সিনহা সাহা মীম
তারকাঁটাজোনাকির আলো
সর্বাধিক পুরস্কারনেকাব্বরের মহাপ্রয়াণ (৬)
 < ৩৮তম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ৪০তম > 

৩৯তম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার বাংলাদেশের তথ্য মন্ত্রণালয় কর্তৃক চলচ্চিত্রের বিভিন্ন ক্ষেত্রে বিশেষ অবদান রাখার জন্য প্রদত্ত পুরস্কার। সরকার কর্তৃক নিযুক্ত একটি জাতীয় প্যানেল বিজয়ীদের নির্বাচন করে থাকে।

সারাংশ[সম্পাদনা]

২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ তারিখে তথ্য মন্ত্রণালয়ে থেকে একটি প্রজ্ঞাপন জারির মাধ্যমে 'জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ২০১৪' ঘোষণা করা হয়। এই বছর ২৬টি শ্রেণীতে ২৯ জন শিল্পী ও কুশলীকে ‘জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ২০১৪’ প্রদান করা হয়।[১] এই বছর সর্বোচ্চ ৫টি পুরস্কার পায় মাসুদ পথিক পরিচালিত সরকারি অনুদানের ছবি ‘নেকাব্বরের মহাপ্রয়াণ’। এছাড়া সৈকত নাসির পরিচালিত ‘দেশা: দ্য লিডার’ চলচ্চিত্রটি ৪টি পুরস্কার লাভ করে। দেশা দ্য লিডার গান গেয়ে প্রথমবারের মতো জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারে ভূষিত হন মাহফুজ আনাম জেমস। আজীবন সম্মাননা পান অভিনেতা সৈয়দ হাসান ইমাম ও অভিনেত্রী রানী সরকার[২]

১১ মে ২০১৬ তারিখে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০১৪ সালের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার প্রাপ্তদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন।[৩]

জয়ীদের তালিকা[সম্পাদনা]

মেধা পুরস্কার[সম্পাদনা]

পুরস্কারের নাম বিজয়ী চলচ্চিত্র
শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র ব্রাত্য চলচ্চিত্র (মাসুদ পথিক) নেকাব্বরের মহাপ্রয়াণ
শ্রেষ্ঠ স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র মোঃ আশরাফুল আলম (প্রযোজক) গাড়িওয়ালা
শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র পরিচালক জাহিদুর রহিম অঞ্জন মেঘমল্লার[৪]
শ্রেষ্ঠ অভিনেতা প্রধান চরিত্রে ফেরদৌস আহমেদ এক কাপ চা
শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী প্রধান চরিত্রে (যৌথভাবে) মৌসুমী
বিদ্যা সিনহা সাহা মীম
তারকাঁটা
জোনাকির আলো[৫]
শ্রেষ্ঠ অভিনেতা পার্শ্ব চরিত্রে এজাজুল ইসলাম তারকাঁটা
শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী পার্শ্ব চরিত্রে চিত্রলেখা গুহ ৭১ এর মা জননী
শ্রেষ্ঠ খলচরিত্রে অভিনেতা তারিক আনাম খান দেশা: দ্য লিডার
শ্রেষ্ঠ কৌতুক চরিত্রে অভিনেতা মিশা সওদাগর অল্প অল্প প্রেমের গল্প
শ্রেষ্ঠ শিশু শিল্পী আবীর হোসেন অংকন বৈষম্য
শ্রেষ্ঠ সঙ্গীত পরিচালক ড. সাইম রানা নেকাব্বরের মহাপ্রয়াণ
শ্রেষ্ঠ সুরকার বেলাল খান নেকাব্বরের মহাপ্রয়াণ
শ্রেষ্ঠ গীতিকার মাসুদ পথিক নেকাব্বরের মহাপ্রয়াণ
শ্রেষ্ঠ পুরুষ কণ্ঠশিল্পী মাহফুজ আনাম জেমস দেশা: দ্য লিডার
শ্রেষ্ঠ নারী কণ্ঠশিল্পী রুনা লায়লা
মমতাজ
প্রিয়া তুমি সুখী হও
নেকাব্বরের মহাপ্রয়াণ[১]

কারিগরী পুরস্কার[সম্পাদনা]

পুরস্কারের নাম বিজয়ী চলচ্চিত্র
শ্রেষ্ঠ কাহিনীকার আখতারুজ্জামান ইলিয়াস (মরণোত্তর) মেঘমল্লার
শ্রেষ্ঠ চিত্রনাট্যকার সৈকত নাসির দেশা: দ্য লিডার
শ্রেষ্ঠ সংলাপ রচয়িতা জাহিদুর রহিম অঞ্জন মেঘমল্লার
শ্রেষ্ঠ চিত্রগ্রাহক মোহাম্মদ হোসেন জেমি বৈষম্য
শ্রেষ্ঠ চিত্রসম্পাদক তৌহিদ হোসেন চৌধুরী দেশা: দ্য লিডার
শ্রেষ্ঠ শিল্প নির্দেশক মারুফ সামুরাই তারকাঁটা
শ্রেষ্ঠ শব্দগ্রাহক রতন পাল মেঘমল্লার
শ্রেষ্ঠ পোশাক ও সাজসজ্জা কনক চাঁপা চাকমা জোনাকির আলো
শ্রেষ্ঠ রূপসজ্জা আব্দুর রহমান নেকাব্বরের মহাপ্রয়াণ[৬]

বিশেষ পুরস্কার[সম্পাদনা]

বৃহন্নলার পুরস্কার বাতিল[সম্পাদনা]

তথ্য মন্ত্রণালয় ২৫ ফেব্রুয়ারি পুরস্কার ঘোষণা করে। এতে শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র, শ্রেষ্ঠ কাহিনীকার ও শ্রেষ্ঠ সংলাপ রচয়িতা এই তিন শাখায় বৃহন্নলা পুরস্কার লাভ করে।[৪] পুরস্কার ঘোষণার পর এই চলচ্চিত্রের নির্মাতার উপর গল্প চুরি করার অভিযোগ ওঠে। অভিযোগ ওঠে ছবিটি সৈয়দ মুস্তাফা সিরাজ রচিত গল্প 'গাছটি বলেছিল' অবলম্বনে নির্মাণ করা হয়েছে।[৭] পরবর্তীতে, অভিযোগ খতিয়ে দেখতে তথ্য মন্ত্রণালয় চলচ্চিত্রের পরিচালক মুরাদ পারভেজকে কারণ দর্শানোর নোটিস দেয় ও একটি তদন্ত কমিটি গঠন করে।[৮] পরে তদন্ত কমিটি অভিযোগের সত্যতা পাওয়ার পর মন্ত্রিপরিষদের সভায় চলচ্চিত্রটিকে দেয়া তিনটি শাখার সবকটি পুরস্কার বাতিলের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।[৯]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ২০১৪ ঘোষণা"দৈনিক জনকণ্ঠ। ঢাকা, বাংলাদেশ। ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ২৬ মার্চ ২০১৬ 
  2. "'বাসি' জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার এবং তারপর…"ভোরের কাগজ। ঢাকা, বাংলাদেশ। ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ২৬ মার্চ ২০১৬ 
  3. "অশুভ শক্তি দমনে চলচ্চিত্র হতে পারে অন্যতম মাধ্যম"প্রথম আলো। সংগ্রহের তারিখ ১২ মে ২০১৬ 
  4. "জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ২০১৪ - সেরা ছবি বৃহন্নলা, সেরা পরিচালক জাহিদুর রহিম অঞ্জন"এনটিভি অনলাইন। ঢাকা, বাংলাদেশ। ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ২৬ মার্চ ২০১৬ 
  5. "জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ২০১৪-এর খসড়া চূড়ান্ত সেরা অভিনেতা ফেরদৌস অভিনেত্রী মৌসুমী ও মিম"দৈনিক মানবজমিন। ঢাকা, বাংলাদেশ। ২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ২৬ মার্চ ২০১৬ 
  6. "জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ২০১৪ ঘোষণা"বণিক বার্তা। ঢাকা, বাংলাদেশ। ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৬। ২০১৬-০৪-২৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৬ মার্চ ২০১৬ 
  7. "গল্প 'চুরি' বিতর্কে মুরাদ পারভেজ! | banglatribune.com"বাংলা ট্রিবিউন। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-০৪-২০ 
  8. "'বৃহন্নলা' বিতর্ক তদন্তে কমিটি"bdnews24.com। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-০৪-২০ 
  9. "'বৃহন্নলা' চলচ্চিত্রের ইতিহাসে লজ্জাজনক ঘটনা"প্রথম আলো। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-০৪-২০ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]