মন্দবাগ রেলওয়ে স্টেশন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
মন্দবাগ রেলওয়ে স্টেশন
বাংলাদেশের রেলওয়ে স্টেশন
অবস্থানকসবা উপজেলা ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা, চট্টগ্রাম বিভাগ
 বাংলাদেশ
মালিকানাধীনবাংলাদেশ রেলওয়ে
পরিচালিতবাংলাদেশ রেলওয়ে
লাইন
ট্রেন পরিচালকপূর্বাঞ্চল রেলওয়ে
নির্মাণ
গঠনের ধরনমানক
পার্কিংআছে
সাইকেলের সুবিধাআছে
প্রতিবন্ধী প্রবেশাধিকারআছে
ইতিহাস
চালু১৮৯৬
অবস্থান

মন্দবাগ রেলওয়ে স্টেশন বাংলাদেশের চট্টগ্রাম বিভাগের ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার কসবা উপজেলায় অবস্থিত একটি রেলওয়ে স্টেশন[১][২]

ইতিহাস[সম্পাদনা]

১৮৯২ সালে ইংল্যান্ডে গঠিত আসাম বেঙ্গল রেলওয়ে কোম্পানি এদেশে রেলপথ নির্মাণের দায়িত্ব নেয়। ১৮৯৫ সালের ১ জুলাই চট্টগ্রাম থেকে কুমিল্লা ১৫০ কিমি মিটারগেজ লাইন এবং লাকসাম থেকে চাঁদপুর পর্যন্ত ৬৯ কিমি রেললাইন জনসাধারণের জন্য খোলা হয়। ১৮৯৬ সালে কুমিল্লা-আখাউড়া-শাহবাজপুর রেলপথ স্থাপন করা হয়।[৩] কুমিল্লা -আখাউড়া -শাহবাজপুর লাইনের স্টেশন হিসেবে মন্দবাগ রেলওয়ে স্টেশন তৈরি করা হয়।

পরিষেবা[সম্পাদনা]

মন্দবাগ রেলওয়ে স্টেশন দিয়ে চলাচলকারী ট্রেনের তালিকা নিম্নে দেওয়া হলো:

দূর্ঘটনা[সম্পাদনা]

২০১৯ সালের ১২ নভেম্বর রাত পৌনে ৩টায় ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা উপজেলার এই স্টেশনে (মন্দবাগে) সংগঠিত হয়। স্টেশন এলাকায় ঢাকাগামী আন্তনগর ট্রেন তূর্ণা এক্সপ্রেস ও চট্টগ্রামগামী আন্তনগর উদয়ন এক্সপ্রেসের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ১৭ জন নিহত হয় ও ৫৭ জন আহত হয়।[৪][৫]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "কসবা উপজেলা - বাংলাপিডিয়া"bn.banglapedia.org। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৩-১৫ 
  2. "তূর্ণার মাথায় উদয়নের ৩ বগি|180157|Desh Rupantor"www.deshrupantor.com। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৩-১৫ 
  3. "রেলওয়ে - বাংলাপিডিয়া"bn.banglapedia.org। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৩-১৪ 
  4. "বেপরোয়া ট্রেনচালক, নিহত ১৬"। সংগ্রহের তারিখ ১৩ নভেম্বর ২০১৯ 
  5. "রেল দুর্ঘটনায় অপমৃত্যুর মামলা"। ৫ নভেম্বর ২০১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৩ নভেম্বর ২০১৯