গঙ্গাসাগর রেলওয়ে স্টেশন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
গঙ্গাসাগর রেলওয়ে স্টেশন
বাংলাদেশের রেলওয়ে স্টেশন
অবস্থানআখাউড়া উপজেলা ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা, চট্টগ্রাম বিভাগ
 বাংলাদেশ
মালিকানাধীনবাংলাদেশ রেলওয়ে
পরিচালিতবাংলাদেশ রেলওয়ে
লাইন
ট্রেন পরিচালকপূর্বাঞ্চল রেলওয়ে
নির্মাণ
গঠনের ধরনমানক
পার্কিংআছে
সাইকেলের সুবিধাআছে
প্রতিবন্ধী প্রবেশাধিকারআছে
ইতিহাস
চালু১৮৯৬
অবস্থান

গঙ্গাসাগর রেলওয়ে স্টেশন[১] বাংলাদেশের চট্টগ্রাম বিভাগের ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার আখাউড়া উপজেলায় অবস্থিত একটি রেলওয়ে স্টেশন[২]

ইতিহাস[সম্পাদনা]

১৮৯২ সালে ইংল্যান্ডে গঠিত আসাম বেঙ্গল রেলওয়ে কোম্পানি এদেশে রেলপথ নির্মাণের দায়িত্ব নেয়। ১৮৯৫ সালের ১ জুলাই চট্টগ্রাম থেকে কুমিল্লা ১৫০ কিমি মিটারগেজ লাইন এবং লাকসাম থেকে চাঁদপুর পর্যন্ত ৬৯ কিমি রেললাইন জনসাধারণের জন্য খোলা হয়। ১৮৯৬ সালে কুমিল্লা-আখাউড়া-শাহবাজপুর রেলপথ স্থাপন করা হয়।[৩] এই লাইনের স্টেশন হিসেবে গঙ্গাসাগর রেলওয়ে স্টেশন তৈরি করা হয়।

আখাউড়া-আগরতলা রেলপথ[সম্পাদনা]

নির্মাণাধীন আখাউড়া-আগরতলা ১৫ কিলোমিটার রেলপথের মধ্যে পাঁচ কিলোমিটার ভারতে ও ১০ কিলোমিটার বাংলাদেশে হবে। এরই মধ্যে ভারতের আগরতলা অংশে রেলপথ নির্মাণকাজ প্রায় শেষের পথে। ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ার গঙ্গাসাগর রেলওয়ে স্টেশন এলাকা থেকে ভারত সীমান্তঘেঁষা শিবনগর পর্যন্ত রেললাইন নির্মাণে পুরো ১০ কিলোমিটার অংশেই প্রাথমিকভাবে মাটি ও বালু ফেলার কাজ শেষ হয়েছে। আখাউড়া-আগরতলা রেলপথ নির্মাণে ব্যয় ধরা হয়েছে ৯৮০ কোটি রুপি। এর মধ্যে ভারতের পাঁচ কিলোমিটার অংশের জন্য ব্যয় ধরা হয়েছে ৫৮০ কোটি রুপি ও বাংলাদেশ অংশের ১০ কিলোমিটারের জন্য ব্যয় ধরা হয়েছে ৪০০ কোটি রুপি (৪৭৭ কোটি ৮১ লাখ টাকা)। এর মধ্যে ভারত থেকে অনুদান হিসেবে পাওয়া গেছে ৪২০ কোটি ৭৫ লাখ টাকা। অবশিষ্ট ৫৭ কোটি ছয় লাখ টাকা বাংলাদেশের সরকারি কোষাগার থেকে ব্যয় করা হয়েছে। এই রেলপথ চালু হলে প্রাথমিকভাবে মালবাহী ট্রেন চলাচল করার কথা বলা হলেও পরবর্তী সময় যাত্রীবাহী ট্রেন চলাচলের আশা করছে ভারত। যাত্রীবাহী ট্রেন চালু করা গেলে আগরতলার সঙ্গে কলকাতাসহ বিভিন্ন এলাকার দূরত্ব কমে গিয়ে যোগাযোগ সহজ হয়ে যাবে।[৪][৫][৬]

পরিষেবা[সম্পাদনা]

গঙ্গাসাগর রেলওয়ে স্টেশন দিয়ে চলাচলকারী ট্রেনের তালিকা নিম্নে দেওয়া হলো:

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Gangasagar Bangladesh Railway Station Picture & Video Gallery - Railway Enquiry"indiarailinfo.com। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৩-১৪ 
  2. "বেহাল দশায় আখাউড়া রেলওয়ে জংশন"desh.tv। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৩-১৪ 
  3. "রেলওয়ে - বাংলাপিডিয়া"bn.banglapedia.org। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৩-১৪ 
  4. "ভারতের আগরতলা অংশে কাজ প্রায় শেষ, পিছিয়ে বাংলাদেশ | কালের কণ্ঠ"Kalerkantho। ২০১৯-১১-১৭। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৩-১৪ 
  5. "বাংলাদেশ অংশের নির্মাণকাজ উদ্বোধন করবেন হাসিনা-মোদি"Dhakatimes24.com। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৩-১৪ 
  6. "আগামী বছরেই আখাউড়া-আগরতলা রেলপথ নির্মাণ শেষ হবে: রিভা গাঙ্গুলী | জাতীয়"ittefaq। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৩-১৪