বিষয়বস্তুতে চলুন

খরনা রেলওয়ে স্টেশন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
খরনা রেলওয়ে স্টেশন
বাংলাদেশের রেলওয়ে স্টেশন
অবস্থানপটিয়া উপজেলা চট্টগ্রাম জেলা, চট্টগ্রাম বিভাগ
 বাংলাদেশ
মালিকানাধীনবাংলাদেশ রেলওয়ে
পরিচালিতবাংলাদেশ রেলওয়ে
লাইন
ট্রেন পরিচালকপূর্বাঞ্চল রেলওয়ে
নির্মাণ
গঠনের ধরনমানক
পার্কিংআছে
সাইকেলের সুবিধাআছে
প্রতিবন্ধী প্রবেশাধিকারআছে
ইতিহাস
চালু১৯৩১
চট্টগ্রাম-কক্সবাজার লাইন
নাজিরহাট ঘাট
নাজিরহাট
কাটিরহাট
সরকারহাট
চারিয়া মাদ্রাসা
হাটহাজারী
জোবরা
চট্টগ্রাম জংশন
চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়
ঝাউতলা
ফতেয়াবাদ জংশন
চট্টগ্রাম পলিটেকনিক
চৌধুরীহাট
ষোলশহর জংশন
চট্টগ্রাম ক্যান্টনমেন্ট
জান আলীর হাট
গোমদণ্ডী
বেঙ্গুরা
ধলঘাট
খানমোহন
পটিয়া
চক্রশালা
খরনা
কাঞ্চননগর
খানহাট
হাশিমপুর
দোহাজারী
সাতকানিয়া
লোহাগাড়া
হারবাং
টাংপিওলেটওয়েয়া
চকরিয়া
ডুলাহাজারা
ঘুমধুম
ইসলামাবাদ
উখিয়া
রামু
কক্সবাজার

খরনা রেলওয়ে স্টেশন বাংলাদেশের চট্টগ্রাম বিভাগের চট্টগ্রাম জেলার পটিয়া উপজেলায় অবস্থিত একটি রেলওয়ে স্টেশন[১][২]

ইতিহাস[সম্পাদনা]

আসাম বেঙ্গল রেলওয়ে কম্পানি চট্টগ্রাম-ষোলশহর লাইন ১৯২৯ সালে, ষোলশহর-নাজিরহাট লাইন ১৯৩০ সালে, ষোলশহর-দোহাজারী লাইন ১৯৩১ সালের মধ্যে নির্মাণকাজ শেষ করে।[৩] ষোলশহর দোহাজারী লাইনের স্টেশন হিসেবে খরনা রেলওয়ে স্টেশন তৈরি করা হয়।

পরিষেবা[সম্পাদনা]

খরনা রেলওয়ে স্টেশন দিয়ে (১১১/১১২/১১৩/১১৪ নং লোকাল ট্রেন) চলাচল করে। তবে কোন আন্তঃনগর ট্রেন চলাচল করে না।[৪]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "আখেরি স্টেশন দোহাজারী, কক্সবাজারে রেল কবে?"banglanews24.com। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৩-২৭ 
  2. Editor, Chakarianews। "চট্টগ্রাম-দোহাজারী রেললাইনের অর্ধশতাধিক ক্রসিংই অরক্ষিত, নেই গেটম্যান, ঝুঁকি নিয়ে চলাচল"Chakarianews। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৩-২৭ 
  3. "রেলওয়ে - বাংলাপিডিয়া"bn.banglapedia.org। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৩-২০ 
  4. "অবশেষে চালু হল নতুন দুটি ট্রেন"কালের কণ্ঠ। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৩-২৭