প্রবেশদ্বার:ভূটান

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
Emblem of Bhutan.svg স্বাগতম
ভুটান
­ ­ ­প্রবেশদ্বারে
সম্পাদনা 

ভূটান

Flag of Bhutan
ভূটানের অবস্থান

ভূটান (জংখা: འབྲུག་ཡུལ হব্রুগ যুল) দক্ষিণ এশিয়ার একটি রাজতন্ত্র। দেশটি ভারতীয় উপমহাদেশে হিমালয় পর্বতমালার পূর্বাংশে অবস্থিত। ভূটানের উত্তরে চীনের তিব্বত অঞ্চল, এবং দক্ষিণ, পূর্ব ও পশ্চিমে ভারত। ভূটান শব্দটি এসেছে সংস্কৃত শব্দ "ভূ-উত্থান" থেকে যার অর্থ "উঁচু ভূমি"। ভূটান সার্ক -র একটি সদস্য রাষ্ট্র। ভূটানের রাজধানীর নাম থিম্ফু

অতীতে ভূটান পাহাড়ের উপত্যকায় অবস্থিত অনেকগুলি আলাদা আলাদা রাজ্য ছিল। ১৬শ শতকে একটি ধর্মীয় রাষ্ট্র হিসেবে এর আবির্ভাব ঘটে। ১৯০৭ সাল থেকে ওয়াংচুক বংশ দেশটি শাসন করে আসছেন। ১৯৫০-এর দশক পর্যন্ত ভূটান একটি বিচ্ছিন্ন দেশ ছিল। ১৯৬০-এর দশকে ভারতের কাছ থেকে অর্থনৈতিক সাহায্য নিয়ে দেশটি একটি আধুনিক রাষ্ট্রে রূপান্তরিত হতে শুরু করে। তবে এখনও এটি বিশ্বের সবচেয়ে অনুন্নত দেশগুলির একটি। ভূটানের অধিবাসীরা নিজেদের দেশকে মাতৃভাষা জংকা ভাষায় দ্রুক ইয়ুল বা বজ্র ড্রাগনের দেশ নামে ডাকে।

সম্পাদনা 

নির্বাচিত নিবন্ধ

Bhutanese hemadatsi.jpg

ভুটানী রন্ধনশৈলী ভুটানে প্রচলিত বিভিন্ন স্থানীয় রন্ধনপ্রণালী। ভুটানী রন্ধনশৈলীতে প্রচুর পরিমাণে লাল চাল, ভুট্টা ইত্যাদির ব্যবহার হয়। পাহাড়ের খাদ্যতালিকায় মাংসের উৎস হিসেবে আছে মুরগী, চমরীগাইয়ের মাংস, শুকনো গোমাংস, পোর্ক, শুকরের চর্বি এবং ভেড়ার মাংস ইত্যাদি।শীতকালে স্যুপ ও মাংসের ঝোল, ভাত, ফার্ন, ডাউল ও শুটকি সব্জি, মরিচের ঝাল ও পনির দিয়ে রান্না ভুটানীদের প্রিয় খাদ্য। বেঁচে যাওয়া সব্জির সংগে ভাত মিশিয়ে যোউ শুঙ্গো তৈরী করা হয়। বড়, সবুজ মরিচ দিয়ে তৈরী মশলাদার এমা ডাটসি (ཨེ་མ་དར་ཚིལ།) ভুটানীদের গর্বের খাবার এবং এটাকে জাতীয় খাবারও বলা যায়।

প্রবেশদ্বার:ভূটান/নির্বাচিত নিবন্ধ
সম্পাদনা 

আপনি জানেন কি...

Question.png
  • ... জংখা ভূটানের সরকারি ভাষা?
  • ... ভূটানে দ্রুপকা জাতির লোক প্রায় ৫০% এবং এর পরেই আছে নেপালি ৩৫%?
  • ... ভূটানের বাসিন্দারা বৌদ্ধ ধর্মে বিশ্বাসী?
  • ... ভূটানের অর্থনীতি বিশ্বের সবচেয়ে ক্ষুদ্র অর্থনীতিগুলির একটি?
  • ... ভূটানের প্রায় ৭০% এলাকা অরণ্যাবৃত?
সম্পাদনা 

নির্বাচিত জীবনী

King Jigme Khesar Namgyel Wangchuck (edit).jpg

জিগমে খেসার নামগিয়েল ওয়াংচুক ১০০ বছরেরও বেশি সময় ধরে রাজত্ব করা বর্তমান রাজবংশের পঞ্চম রাজা। ২০০৬ সালে বাবা জিগমে সিংহে ওয়াংচুক সরে দাঁড়ালে ভুটানের রাজার দায়িত্ব পান জিগমে খেসার ওয়াংচুক।

সম্পাদনা 

নির্বাচিত চিত্র


সম্পাদনা 

বিষয়শ্রেণীসমূহ

সম্পাদনা 

উইকিপ্রকল্প

সম্পাদনা 

অন্যান্য প্রবেশদ্বার

সম্পাদনা 

উইকিমিডিয়া

Wikinews-logo.svg
উইকিসংবাদে ভূটান
উন্মুক্ত সংবাদ উৎস

Wikiquote-logo.svg
উইকিউক্তিতে ভূটান
উক্তি-উদ্ধৃতির সংকলন

Wikisource-logo.svg
উইকিসংকলনে ভূটান
উন্মুক্ত পাঠাগার

Wikibooks-logo.png
উইকিবইয়ে ভূটান
উন্মুক্ত পাঠ্যপুস্তক ও ম্যানুয়াল

Wikiversity-logo.svg
উইকিবিশ্ববিদ্যালয়ে ভূটান
উন্মুক্ত শিক্ষা মাধ্যম

Commons-logo.svg
উইকিমিডিয়া কমন্সে ভূটান
মুক্ত মিডিয়া ভাণ্ডার

Wiktionary-logo.svg
উইকিঅভিধানে ভূটান
অভিধান ও সমার্থশব্দকোষ

Wikidata-logo.svg
উইকিউপাত্তে ভূটান
উন্মুক্ত জ্ঞানভান্ডার

Wikivoyage-Logo-v3-icon.svg
উইকিভ্রমণে ভূটান
উন্মুক্ত ভ্রমণ নির্দেশিকা

সার্ভার ক্যাশ খালি করুন