নেপালের ভূগোল

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

নেপালের ভূ-প্রকৃতি অত্যন্ত বৈচিত্র্যপূর্ণ নেপালের আকৃতি অনেকটা চতুর্ভুজের মত, প্রায় ৮৮০ কিমি (৫৪৭মাইল) দৈর্ঘ্য এবং ২০০ কিমি (১২৫ মাইল) প্রস্থ। নেপালের মোট আয়তন প্রায় ১৪৭,১৮১ বর্গকিমি (৫৬,৮২৭ বর্গমাইল)। ভূ-প্রকৃতির বৈচিত্র্য অনুসারে নেপাল তিন ভাগে বিভক্ত- পর্বত, পাহাড়ী উঁচু ভূমি(Hill and Siwalik region) এবং নিচু সমতল ভূমি অর্থাৎ তরাই

প্রধান ভৌগোলিক ক্ষেত্র-

দক্ষিণে ভারতের সীমান্তঘেঁষা তরাই নিম্নভূমি নারায়ণী ও কর্ণালী নদীবিধৌত।

হিমালয় পর্বতমালা[সম্পাদনা]

হিমালয় পর্বতমালা (দেবনাগরী: हिमालय) (হিম+আলয় = বরফের ঘর) (বাংলা উচ্চারণ: [হিমালয়] (এই শব্দ সম্পর্কেশুনুন)) এশিয়ার একটি পর্বতমালা যা তিব্বতীয় মালভুমি থেকে ভারতীয় উপমহাদেশকে পৃথক করেছে। আফগানিস্তান, পাকিস্তান, ভারত, চীন, নেপালভূটান এশিয়ার এই ছয় দেশে বিস্তৃত হিমালয় পর্বতমালায় মাউন্ট এভারেস্ট, কেটু, কাঞ্চনজঙ্ঘা প্রভৃতি বিশ্বের উচ্চতম শৃঙ্গগুলি অবস্থান করছে। এই পর্বতমালা থেকে বিশ্বের তিনটি প্রধান নদী সিন্ধু, গঙ্গাব্রহ্মপুত্র তাদের বিভিন্ন প্রধান ও অপ্রধান উপনদীসহ উৎপন্ন হয়েছে।

উল্লেখযোগ্য পর্বত শৃঙ্গ[সম্পাদনা]

শৃঙ্গের নাম অন্য নাম এবং অর্থ উচ্চতা (মি) উচ্চতা (ফু) প্রথম আরোহণ টীকা
এভারেস্ট সাগরমাতা -"সাগরের মাতা",

চোমোলংমা অথবা কোমোলংমা -"মহাবিশ্বের মাতা"

৮,৮৪৮ ২৯,০২৮ ১৯৫৩ চীন ও নেপাল সীমান্তে অবস্থিত বিশ্বের সর্বোচ্চ পর্বত শৃঙ্গ।
কে-টু (K2) চোগো গাংড়ি ৮,৬১১ ২৮,২৫১ ১৯৫৪ পাকিস্তান ও চীনের জিনজিয়ান সীমান্তে অবস্থিত বিশ্বের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ শৃঙ্গ। আরোহণের জন্য বিপজ্জনক পর্বতের অন্যতম।
কাঞ্চনজঙ্ঘা Kangchen Dzö-nga, "তুষারের পাঁচ রত্ন" ৮,৫৮৬ ২৮,১৬৯ ১৯৫৫ বিশ্বের ৩য় সর্বোচ্চ শৃঙ্গ, ভারতের সর্বোচ্চ (সিকিম) এবং নেপালের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ শৃঙ্গ।
লোৎসে " দক্ষিণ শৃঙ্গ " ৮,৫১৬ ২৭,৯৪০ ১৯৫৬ পৃথিবীর ৪র্থ উচ্চতম। নেপাল এবং তিবেতের মধ্যে অবস্থিত, এভারেষ্টের ছায়াতে।
মাকালু " মহান কাল " ৮,৪৬২ ২৭,৭৬৫ ১৯৫৫ নেপালে অবস্থিত বিশ্বের ৫ম সর্বোচ্চ শৃঙ্গ।
চো ওইয়ু Qowowuyag, " বৈদূর্য দেবতা " ৮,২০১ ২৬,৯০৫ ১৯৫৪ পৃথিবীর ৬ষ্ঠ উচ্চতম। নেপালে অবস্থিত।
ধবলগিরি শ্বেত পর্বত ৮,১৬৭ ২৬,৭৬৪ ১৯৬০ নেপালে অবস্থিত বিশ্বের ৭ম সর্বোচ্চ শৃঙ্গ।
মানাসলু কুতাং, " আত্মার পর্বত " ৮,১৫৬ ২৬,৭৫৮ ১৯৫৬ পৃথিবীর ৮ম উচ্চতম। গুরখা হিমাল, নেপালে অবস্থিত।
নাংগা পর্বত নাংগাপর্বত শৃঙ্গ অথবা দিয়ামির, "নগ্ন পর্বত" ৮,১২৫ ২৬,৬৫৮ ১৯৫৩ পাকিস্তানে অবস্থিত বিশ্বের ৯ম সর্বোচ্চ শৃঙ্গ। আরোহণের জন্য বিপজ্জনক পর্বতের অন্যতম।
অন্নপূর্ণা "শস্য দেবী" ৮,০৯১ ২৬,৫৪৫ ১৬৫০ নেপালে অবস্থিত বিশ্বের ১০ম সর্বোচ্চ শৃঙ্গ।
গাশারব্রুম ১ " সুন্দর পর্বত " ৮,০৮০ ২৬,৫০৯ ১৯৫৮ পৃথিবীর ১১তম উচ্চতম পর্বত। পাকিস্তানের কারাকোরামে অবস্থিত।
ব্রড পিক ফাইচান কাংরি ৮,০৪৭ ২৬,৪০১ ১৯৫৭ পৃথিবীর ১২তম উচ্চতম পর্বত। পাকিস্তানের কারাকোরামে অবস্থিত।
গাশারব্রুম ২ ৮,০৩৫ ২৬,৩৬২ ১৯৫৬ পৃথিবীর ১৩তম উচ্চতম পর্বত। পাকিস্তানের কারাকোরামে অবস্থিত।
শিশাপাংমা Xixiabangma, "গ্রাসসি প্লাইন্সের ওপর শিখর " ৮,০১৩ ২৬,০৮৯ ১৯৬৪ পৃথিবী ১৪তম উচ্চতম পর্বত। তিব্বতে অবস্থিত, এইটি তিব্বতের মধ্যে উচ্চতম চূড়া wholly।
নন্দা দেবী "আশীর্বাদ-দাত্রী দেবী" ৭,৮১৭ ২৫,৬৪৫ ১৯৩৬ ভারতের উত্তরখন্ডে অবস্থিত।

পাহাড়[সম্পাদনা]

পাহাড় হল একটি ভূমিরূপ, যা পার্শ্ববর্তী ভূখণ্ড উপরে প্রসারিত করে। এটি প্রায়ই একটি স্বতন্ত্র চূড়া হয়, যদিও খারাই / ঢালযুক্ত ভূসংস্থান সহ এলাকায় একটি পাহাড় একটি বিশাল শিখর (যেমন বক্স হিল, সারে) ছাড়া সমতল ভূখণ্ডের একটি নির্দিষ্ট বিভাগ উল্লেখ করতে পারে।

পরিভাষা[সম্পাদনা]

ফিলিপাইনের চকলেট পাহাড়
ইতালির টাস্কিনিতে আবস্থিত পাহাড়

একটি পাহাড় এবং একটি পর্বত মধ্যে পার্থক্য স্পষ্ট এবং মূলত বিষয়ী, কিন্তু একটি পাহাড় সব সময় পর্বতের থেকে কম উচু হয় এবং একটি পর্বরতের তুলনায় কম খাড়া বলে বিবেচিত হয়। যুক্তরাজ্যে, ভূতাত্ত্বিকভাবে ও ঐতিহাসিকভাবে পাহাড় সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে ১,০০০ ফুট (৩০৪.৮ মিটার) এর চেয়ে বেশি উচু হয়ে তাকে বড় পর্বত হিসেবে গণ্য করা হয়, যা ১৯৯৫ সালের চলচ্চিত্র 'দ্য ইংলিশম্যান হু ওয়েনট আপ এ হিল বাট কেম ডাউন এ মাউন্টেন' নামে চলচ্চিত্রের ভিত্তি তৈরি করে। বিপরীতে, পাহাড়ীরা সমুদ্রতল থেকে ২,০০০ ফুট (৬১০ মিটার) উচ্চতা যুক্ত ভূমিভাগকে পর্বতমালা হিসাবে বিবেচনা করতে থাকে: অক্সফোর্ড ইংরেজি অভিধানও ২,০০০ ফুট (৬১০ মিটার) এবং হিট্টো [১]-এর একটি সীমা নির্দেশ করে "কিছু কর্তৃপক্ষ ৬০০ মিটারের বেশি উচু পাহাড়কে পর্বত বলে (১,৯৬২ ফুট) এবং এই উচ্চতার নিচের ভূমিকে পাহাড় বলা হয়। " গ্রেট সোভিয়েত এনসাইক্লোপিডিয়া পাহাড়কে একটি ঊর্ধ্বমুখী ভূমিভাগ হিসেবে নির্ধারণ করে এবং এর আপেক্ষিক উচ্চতা ২০০ মিটার (৬৬০ ফুট) পর্যন্ত। [২]

রোলিং হিলস প্যারানাল[৩]

আজ, একটি পর্বত বলতে সাধারণত যুক্তরাজ্য এবং আয়ারল্যান্ডে অন্তত ২,০০০ ফুট বা ৬১০ মিটার উচ্চতার কোনও শিখরকে সংজ্ঞায়িত করা হয়,[৪][৫][৬][৭][৮] যখন কোনও পর্বত সরকারি ভাবে যুক্তরাজ্য সরকার-এর সংজ্ঞায় চূড়ান্ত উচ্চতা ৬০০ মিটার (১,৯৬৯ ফুট)। [৯] কিছু সংজ্ঞাগুলির মধ্যে একটি স্থানগত গুরুত্বের প্রয়োজন রয়েছে, সাধারণত ১০০ ফুট (৩০.৫ মি) বা ৫০০ ফুট (১৫২.৪ মিটার)। [৬] অনুশীলনের মধ্যে, স্কটল্যান্ডের পর্বতগুলি প্রায়শই "পাহাড়" হিসাবে পরিচিত হয়, যেখানে পাহাড়গুলির উচ্চতা কোন ব্যাপার না, যেমন কুইলিন পাহাড় এবং টরদণ্ড পাহাড়ের নামগুলির প্রতিফলিত। ওয়েলসে, পাহাড় ও পর্বতের পার্থক্যটি ভূমি ব্যবহার এবং পাহাড়ের আকার এবং আরও উচ্চতা সঙ্গে বিবেচনা করা হয়। কিছুদিনের জন্য, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র একটি পর্বত ১,০০০ ফুট (৩০৪.৮ মি) বা আরো উচ্চতার ভূমিভাগ হিসাবে গণ্য। এই উচ্চতার তুলনায় যে কোনও কম উচু ভূমিকে পাহাড় বলে মনে করা হত। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ভূতাত্ত্বিক জরিপ (ইউএসজিএস) অবশ্য, এই পদে যুক্ত হয়েছেন, পদগুলিতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে প্রযুক্তিগত সংজ্ঞা নেই। [১০]

ঐতিহাসিক তাৎপর্য[সম্পাদনা]

স্টপটোতে পাহাড়ের উপরে মেঘ, ওয়াশিংটন
মহীশূরের পাহাড়

বেশিরভাগ বসতিগুলি মূলত পাহাড়গুলোতে নির্মিত হয়েছিল, এগুলি বন্যা এড়াতে বা নিয়ন্ত্রণ করতে পারে, বিশেষত যদি বসতিটি বড় আকারের জল ভান্ডার কাছাকাছি থাকে বা প্রতিরক্ষার জন্য, পাহাড় থেকে আশেপাশের জমির ভাল পর্যবেক্ষন করা যায় এবং আক্রমণকারীদের আক্রমণের বিরুদ্ধে লড়াই সহজ হয়। উদাহরণস্বরূপ, প্রাচীন রোম সাতটি পাহাড়ের উপর নির্মিত হয়েছিল, যা রোমকে আক্রমণকারী থেকে রক্ষা করেছিল।

উত্তর ইউরোপে, বহু প্রাচীন স্মৃতিসৌধগুলি হ্যাপসগুলিতে বসানো হয়। এদের কেউ কেউ রক্ষণশীল কাঠামো দ্বারা গঠিত (যেমন লোহা যুগের পাহাড়ের কাঁটা), কিন্তু অন্যরা তেমন কোনও গুরুত্ব পূর্ণ নয়। ব্রিটেনে, পাহাড়ের চূড়ায় অনেক গীর্জা আগে পৌত্তলিক পবিত্র স্থানগুলির উপর নির্মিত হয়েছে বলে মনে করা হয়। ওয়াশিংটনে ন্যাশনাল ক্যাথিড্রাল, ডিসি এই ঐতিহ্য অনুসরণ করেছে এবং সেই শহরের সর্বোচ্চ পাহাড়ে নির্মিত হয়েছিল।

তরাই অঞ্চল[সম্পাদনা]

মানচিত্রে বেগুনী রঙে অঙ্কিত অংশটি তরাই অঞ্চল
হাতির সাথে দণ্ডায়মান অ্যাডওয়ার্ড, প্রিন্স অব ওয়েলস; ১৮৭৫/৭৬-এ তোলা ছবি

তরাই (নেপালি: तराई, tarāī) হিমালয়ের পাদদেশে অবস্থিত জলাভূমি, তৃণভূমি, সাভানা ও অরণ্যময় বলয় অঞ্চল। এটি হিমালয় পর্বতমালার দক্ষিণে এবং গাঙ্গেয় সমভূমির উত্তরে অবস্থিত। অঞ্চলটি পশ্চিমে যমুনা নদী ধরে ভারতের হিমাচল প্রদেশ, হরিয়ানা, উত্তরাখণ্ড থেকে পূর্বে উত্তরপ্রদেশবিহার পর্যন্ত বিস্তৃত। পূর্বাঞ্চলে ব্রহ্মপুত্র নদীর অববাহিকায় পশ্চিমবঙ্গ, বাংলাদেশ, ভুটানআসামে এ অঞ্চলটির কিয়দংশ ডুয়ার্স নামে পরিচিত।[১১]

আকাশ থেকে তরাইয়ের সমভূমি, বিরাটনগর, নেপাল

ভূ-প্রকৃতি[সম্পাদনা]

তরাই অঞ্চলের উত্তরে অবস্থিত হিমালয়ের পাথর, নুড়ি আর ক্ষয়প্রাপ্ত মাটিতে তৈরি বনময় ভাবর অঞ্চল। তরাই অঞ্চলের মাটিতে কাদা ও বালির পর্যায়ক্রমিক স্তর দেখা যায়। এখানকার ভৌমজলপৃষ্ঠ (ওয়াটার টেবিল) উচ্চ হওয়ায় অনেক ঝোরা ও জলভূমি দেখা যায়। তরাই অঞ্চলের নদীগুলিতে বর্ষাকালে দুকূল ছাপিয়ে বন্যা হয়। তরাই-ডুয়ার্স সাভানা ও তৃণভূমি একটি বাস্তু-অঞ্চল (ইকোরিজিয়ন)। এই অঞ্চলটি গোটা তরাই অঞ্চলের মধ্যভাগ জুড়ে অবস্থিত। এইখানে লম্বা লম্বা ঘাসের তৃণভূমি, সাভানা এবং চিরহরিৎ ও পর্ণমোচী বনভূমি দেখা যায়। এখানকার ভূমির ঢাল উত্তর থেকে দক্ষিণ দিকে, এবং এই ঢালও বেশি নয়। ভূমিভাগের সাধারণ উচ্চতা ৮০-১০০ মিটার। তিস্তা, তোর্সা, রায়ডাক, জলঢাকা, সঙ্কোশ প্রভৃতি বড় এবং একাধিক ছোট নদীর বয়ে আনা বালি, নুড়ি ও পাথরে গড়ে উঠেছে তরাই।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Whittow, John (1984). Dictionary of Physical Geography. London: Penguin, 2004, p. 352. আইএসবিএন ০-১৪-০৫১০৯৪-X.
  2. Hill at the Great Soviet Encyclopedia.
  3. "Rolling Hills"www.eso.org। সংগ্রহের তারিখ ১২ ডিসেম্বর ২০১৬ 
  4. Nuttall, John & Anne (২০০৮)। The Mountains of England & Wales - Volume 2: England (3rd সংস্করণ)। Milnthorpe, Cumbria: Cicerone। আইএসবিএন 1-85284-037-4 
  5. "Survey turns hill into a mountain"। BBC News। ১৮ সেপ্টেম্বর ২০০৮। সংগ্রহের তারিখ ৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৩ 
  6. "A Mountain is a Mountain - isn't it?"। www.go4awalk.com। সংগ্রহের তারিখ ৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৩ 
  7. mountain at dictionary.reference.com. Accessed on 3 February 2013.
  8. Wilson, Peter (2001). ‘’Listing the Irish hills and mountains’’ in ‘’Irish Geography’’, Vol 34(1), University of Ulster, Coleraine, p. 89.
  9. What is a “Mountain”? Mynydd Graig Goch and all that… ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ৩০ মার্চ ২০১৩ তারিখে at Metric Views. Accessed on 3 February 2013.
  10. "What is the Difference Between a Mountain and a Hill?"। www.wisegeek.com। সংগ্রহের তারিখ ৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৩ 
  11. Johnsingh A.J.T., Ramesh K., Qureshi Q., David A., Goyal S.P., Rawat G.S., Rajapandian K., Prasad S. 2004. Conservation status of tiger and associated species in the Terai Arc Landscape, India ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ২৯ সেপ্টেম্বর ২০১১ তারিখে. RR-04/001, Wildlife Institute of India, Dehradun