দিল্লি ক্যাপিটালস

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
(দিল্লি ডেয়ারডেভিলস থেকে পুনর্নির্দেশিত)
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
দিল্লি ক্যাপিটালস
দিল্লি ডেয়ারডেভিলস (২০০৮–২০১৮)
দিল্লি ক্যাপিটালসের লোগো
কর্মীবৃন্দ
অধিনায়কভারত রিষভ পান্ত
কোচঅস্ট্রেলিয়া রিকি পন্টিং
দলীয় তথ্য
শহরদিল্লি, ভারত
রঙDD
প্রতিষ্ঠাকাল২০০৮ (দিল্লি ডেয়ারডেভিলস হিসেবে)
স্বাগতিক ভেন্যুফিরোজ শাহ কোটলা মাঠ, দিল্লি
(ধারণক্ষমতা: ৩১,৩৪০)
অপ্রধান স্বাগতিক মাঠশহীদ বীর নারায়ণ সিং আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়াম, রায়পুর
(ধারণক্ষমতা: ৬৫,০০০)
ইতিহাস
ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগ জয়
সিএলটি২০ জয়
অফিসিয়াল ওয়েবসাইটdelhicapitals.in
Kit left arm redborder.png
Kit right arm redborder.png

টি২০আই কিট

২০১৯ সালে দিল্লি ক্যাপিটালস

দিল্লী ক্যাপিটালস (হিন্দি: दिल्ली कैपिटल्स) (প্রায়ই হিসাবে সংক্ষিপ্ত DD) হল একটি ভারতীয় ক্রিকেট ফ্রাঞ্চাইজ দল যেটি ভারতীয় প্রিমিয়ার লীগে খেলে থাকে। ফ্রাঞ্জাইজটি মালিক জিএমআর গ্রুপ। ২০০৮ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়, দলটির বর্তমান অধিনায়ক হিসেবে আছেন ডেভিড ওয়ার্নার এবং কোচের দায়িত্বে আছে সাবেক দক্ষিণ আফ্রিকান বোলার ইরিক সিমন্স। গ্যারি কার্স্টেন আইপিএল ০৭ থেকে শুরু তিন বছরের জন্য দিল্লি ডেয়ারডেভিলস কোচ হবেন। তাদের নিজস্ব স্থানীয় মাঠ হল দিল্লির ঐতিহাসিক ফিরোজ শাহ কোটলা গ্রাউন্ড। ২০১৩ সালে তারা অন্তর্ভুক্ত করে রায়পুর আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে তাদের দ্বিতীয় ঘরোয়া মাঠ হিসাবে। দলটির বীরেন্দ্র শেওয়াগ হলেন সবচেয়ে বেশী রান সংগ্রহকারী এবং ইরফান পাঠান হলেন সবচেয়ে বেশী উইকেট শিকারী বোলার।

পরিচ্ছেদসমূহ

ফ্রাঞ্চাইজ ইতিহাস[সম্পাদনা]

ফ্রাঞ্চাইজ নিলাম চলাকালীন সময়ে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগের দল দিল্লি ডেয়ারডেভিলসকে জিএমআর গ্রুপ $ ৮৪ মিলিয়ন দিয়ে কিনে নেয়। ২০১৩ সালের সেপ্টেম্বরে দিল্লি ডেয়ারডেভিলস জন্য গ্যারি কাস্টেনকে প্রধান কোচ হিসাবে মনোনীত করা হয়েছে।

২০০৯ আইপিএল মৌসুম[সম্পাদনা]

অস্ট্রেলিয়ান পেস বোলার গ্লেন ম্যাকগ্রা পুরো মৌসুমের সময় কোনো ম্যাচ খেলতে সুযোগ না পেয়ে তিনি হতাশা প্রকাশ করেন এবং তারপর থেকে দিল্লি দল থেকে বিদায় নেন।[১][২]

২০১২ আইপিএল মৌসুম[সম্পাদনা]

২০১৩ আইপিএল মৌসুম[সম্পাদনা]

২০১৪ আইপিএল মৌসুম[সম্পাদনা]

আগামী আইপিএল ২০১৪ জন্য খেলোয়াড়দের নিলাম অনুষ্ঠিত হবে ১০ জানুয়ারি ২০১৪। দিল্লি ডেয়ারডেভিলস টিম তারা আইপিএল মৌসুম ৭ এর জন্য তাদের বর্তমান স্কোয়াড জন্য কোনো খেলোয়াড় ধরে রাখা হবে না বলে ঘোষণা করেছেন। ৬০০ (প্রায় মার্কিন $ ৯.৬) মিলিয়ন ডলার তাদের পূর্ণ দল গঠনের উদ্দেশ্য খেলোয়াড়দের নিলামে ব্যয় করবে।[৩]

ঘরোয়া মাঠ[সম্পাদনা]

নয়া দিল্লীতে অবস্থিত তাদের ঘরোয়া স্টেডিয়াম হল ফিরোজ শাহ কোটলা।

ব্র্যান্ড এ্যাম্বেসর[সম্পাদনা]

বলিউড স্টার অক্ষয় কুমার দলের ২০০৮ মৌসুম সময় ব্র্যান্ড দূত ছিল কিন্তু ব্যস্ততার কারণে তিনি ২০০৯ মৌসুমের জন্য ফিরে আসতে পারেননি। বিখ্যাত ভারতীয় শিল্পী কৈলাশ খের দলের জন্য খেল ফ্রন্ট ফুট পে গানটি গেয়েছেন। গানটি দিল্লি ডেয়ারডেভিলস প্রতিটা ম্যাচে বাজান হয়। দিল্লি ডেয়ারডেভিলস তাদের নতুন গান মুন্ডে দিল্লি কে ৫ মার্চ ২০১২ সালে ইউ টিউবে মুক্তি দেয়।[৪]

বর্তমান স্কোয়াড[সম্পাদনা]

ব্যাট্সম্যান[সম্পাদনা]

  1. শ্রেয়াস ইয়ের
  2. হনুমা বিহারী

অল রাউন্ডার[সম্পাদনা]

  1. ক্রিস মরিস (বিদেশি)
  2. জয়ন্ত যাদব
  3. অক্ষর প্যাটেল

ওইকেট কিপার

২. ঋষভ পন্ত

বোলার[সম্পাদনা]

  1. কাগিসো রাবাদা (বিদেশি)
  2. অমিত মিশ্র (২০০৮, ২০১১, ২০১৩ এই তিন আসরে হ্যাটট্রিক করেছিলেন)
  3. ট্রেন্ট বোল্ট (বিদেশি)
  4. ইশান্ত শর্মা

সম্ভাব্য প্রথম একাদশ[সম্পাদনা]

ক্রম নাম ভূমিকা
ধাওয়ান ওপেনিং বাটসমেন
শাও ওপেনিং বাটসমেন
ইনগ্রাম বাটসমেন
আইয়ের বাটসমেন
পান্থ উইকেটকিপার - বাটসমেন
হনুমা ব্যাট্সমেন
মরিস অল রাউন্ডার
অক্ষর স্পিনার অল রাউন্ডার
অমিত মিশ্র লেগ স্পিনার
১০ রাবাডা পেসার
১১ কিমো পল পেসার

সম্মান[সম্পাদনা]

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগ[সম্পাদনা]

বছর ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগ ক্রম অধিনায়ক
২০০৮ সেমিফাইনালিস্ট 4th Virender Sehwag
২০০৯ সেমিফাইনালিস্ট 3rd Gautam Gambhir
২০১০ গ্রুপ পর্যায়ে 5th Virender Sehwag
Gautam Gambhir
Dinesh Karthik
২০১১ গ্রুপ পর্যায়ে 10th James Hopes
২০১২ প্লেঅফ 3rd Virender Sehwag
Mahela Jayawardene
Ross Taylor
২০১৩ গ্রুপ পর্যায়ে 9th David Warner
২০১৪ গ্রুপ পর্যায়ে 8th Kevin Pieterson
২০১৫ গ্রুপ পর্যায়ে 7th JP Duminy
২০১৬ গ্রুপ পর্যায়ে 6th JP Duminy
Zaheer Khan
২০১৭ গ্রুপ পর্যায়ে 6th Zaheer Khan

চ্যাম্পিয়নস লিগ টোয়েন্টি ২০[সম্পাদনা]

  • DNQ = কুয়ালিফাই হননি
  • Q = কুয়ালিফাই
বছর চ্যাম্পিয়নস লিগ টোয়েন্টি ২০
২০০৮ বাতিল হয়েছে (Q)
২০০৯ গ্রুপ পর্যায়ে
২০১০ DNQ
২০১১ DNQ
২০১২ সেমিফাইনালিস্ট
২০১৩ DNQ

পরিসংখ্যান[সম্পাদনা]

জয়–হার রেকর্ড[সম্পাদনা]

সংস্করণ খেলা জয় হার টাই ফলাফল নেই জয়% ঘরোয়া জয়% বাইরে জয়% নিরপেক্ষ জয়% অবস্থা
২০০৮ ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগ ১৫ - ৫০% ৪/৭ (১ NR)= ৬৬.৬৭% ৩/৭= ৪২.৮৬% ০/১=০% সেমিফাইনালে
২০০৯ ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগ (দক্ষিণ আফ্রিকা) ১৪ ১০ - - ৬৬.৬৭% - - ১০/১৫= ৬৬.৬৭% লীগ পর্যায় সারণি, সেমিফাইনালে
২০০৯ চ্যাম্পিয়নস লিগ টোয়েন্টি ২০ - - ৩৩.৩৩% ২/৪= ৫০% ০/১= ০% - লীগ পর্যায়ে
২০১০ ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগ ১৪ - - ৫০% ৩/৭= ৪২.৮৬% ৪/৭= ৫৭.১৪% - লীগ পর্যায়ে
২০১১ ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগ ১৪ - ৩০.৭৭% ১/৭ (১ NR)= ১৬.৬৭% ৩/৭= ৪২.৮৬% - লীগ পর্যায়ে
২০১২ ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগ ১৮ ১১ - - ৬১.১১% ৫/৮= ৬২.৫% ৬/৯= ৬৬.৬৭% ০/১=০% লীগ পর্যায় সারণি,, প্লেঅফ
ক্রমযোজিত আইপিএল ৭৬ ৩৯ ৩৭ - ৫২.৭% ১৪/২৯ (২ NR)= ৫১.৮৫% ১৬/৩০= ৫৩.৩৩% ১০/১৭= ৫৮.৮২%
সর্বমোট ৮১ ৪১ ৪০ - ৫১.৯% ১৬/৩৩ (২ NR)= ৫১.৬১% ১৬/৩১= ৫১.৬১% ১০/১৭= ৫৮.৮২%

২০১২ পর্যন্ত

আইপিএল মুখোমুখি[সম্পাদনা]

আইপিএল দল খেলা জয় হার টাই ফলাফল নেই সফলতা%
চেন্নাই সুপার কিংস ১০ - - ৪০%
ডেকান চার্জার্স ১১ - - ৬৩.৬৪%
কিংস এলেভেন পাঞ্জাব ১০ - - ৫০%
কচি টাস্কার কেরালা - - ৫০%
কলকাতা নাইট রাইডার্স ১০ - ৪৪.৪৪%
মুম্বাই ইন্ডিয়ানস ১১ - - ৫০%
পুনে ওয়ারিয়র্স ইন্ডিয়া - ৬৬.৬৭%
রাজস্থান রয়ালস ১০ - - ৬০%
রয়ার চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালরু - - ৫৫.৫৬%
সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ - - - ০%

আইপিএল ফিক্সার ও ফলাফল[সম্পাদনা]

২০০৮ আইপিএল মৌসুম[সম্পাদনা]

নম্বর তারিখ বিরুদ্ধে মাঠ ফলাফল
১৯ এপ্রিল রাজস্থান রয়্যালস ফিরোজ শাহ কোটলা ৯ উইকেটে জয়ী, MoM - শ্রীলঙ্কা পারভেজ মাহরুফ ২/১১ (৪ ওভার)
২২ এপ্রিল ডেকান চার্জার্স রাজীব গান্ধী আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়াম, হায়দ্রবাদ ৯ উইকেটে জয়ী, MoM - ভারত বীরেন্দ্র শেওয়াগ ৯৪* (৪১)
২৭ এপ্রিল কিংস এলেভেন পাঞ্জাব পাঞ্জাব ক্রিকেট এসোসিয়েশন স্টেডিয়াম, মোহালী ৪ উইকেটে হার
৩০ এপ্রিল রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর দিল্লী ১০ রানে জয়ী, MoM - অস্ট্রেলিয়া গ্লেন ম্যাকগ্রাথ ৪/২৯ (৪ ওভার)
২ মে চেন্নাই সুপার কিংস এম,এ, চিদাম্বারাম স্টেডিয়াম, চেন্নাই ৮ উইকেটে জয়ী, MoM - ভারত বীরেন্দ্র শেওয়াগ 1/21 (2 overs) and 71 (41)
৪ মে মুম্বাই ইন্ডিয়ানস ডিওয়াই পাতিল স্টেডিয়াম, মুম্বাই ২৯ রানে হার
৮ মে চেন্নাই সুপার কিংস দিল্লী ৪ উইকেটে হার
১১ মে রাজস্থান রয়্যালস সাওয়াই মানসিং স্টেডিয়াম, জয়পুর ৩ উইকেটে হার
১৩ মে কলকাতা নাইট রাইডার্স ইডেন গার্ডেন, কলকাতা ২৩ রানে হার
১০ ১৫ মে ডেকান চার্জার্স দিল্লী ১২ রানে জয়ী, MoM - ভারত অমিত মিশ্র ৫/১৭ (৪ ওভার)
১১ ১৭ মে কিংস এলেভেন পাঞ্জাব দিল্লী ৬ রানে হার (ডাক লুইস পদ্ধতিতে)
১২ ১৯ মে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর এম, চিন্বাস্বয়ামী স্টেডিয়াম, ব্যাঙ্গালোর ৫ উইকেটে জয়ী, MoM - ভারত শ্রীবাস্ত গোস্বামী ৫২ (৪২)
১৩ ২২ মে কলকাতা নাইট রাইডার্স দিল্লী বৃষ্টির কারনে খেলা পরিত্যাক্ত
১৪ ২৪ মে মুম্বাই ইন্ডিয়ানস দিল্লী ৫ উইকেটে জয়ী, MoM - ভারত দীনেশ কার্তিক ৫৬* (৩২)
১৫ ৩০ মে রাজস্থান রয়্যালস(Semi Final #1) ওয়ানখেন্ডে স্টেডিয়াম, মুম্বাই ১০৫ রানে হার

২০০৯ আইপিএল মৌসুম[সম্পাদনা]

নম্বর তারিখ বিরুদ্ধে মাঠ ফলাফল
১৯ এপ্রিল কিংস এলেভেন পাঞ্জাব কেপটাউন ১০ উইকেটে বিজয়ী (ডার্ক লুইস পদ্ধতি), MoM- নিউজিল্যান্ড ড্যানিয়েল ভেট্টোরি - ১৫/৩ (৩ ওভার)
২৩ এপ্রিল চেন্নাই সুপার কিংস ডারবান ৯ উইকেটে বিজয়ী, MoM- দক্ষিণ আফ্রিকা এবি ডি ভিলিয়ার্স - ১০৫*
২৬ এপ্রিল রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু পোর্ট এলিজাবেথ ৬ উইকেটে বিজয়ী, MoM- শ্রীলঙ্কা তিলকরত্নে দিলশান - ৬৭*
২৮ এপ্রিল রাজস্থান রয়াল সেঞ্চুরিয়ান ৫ উইকেটে বিজয়ী,
৩০ এপ্রিল ডেকান চারজাস সেঞ্চুরিয়ান ৬ উইকেটে বিজয়ী, MoM- অস্ট্রেলিয়া ডির্ক ন্যানেস -২/১৬ (৪ ওভার)
২ মে চেন্নাই সুপার কিংস জোহানেসবার্গ ১ রানে পরাজিত
৫ মে কলকাতা নাইট রাইডার্স ডারবান ৯ উইকেটে বিজয়ী, MoM- ভারত গৌতম গম্ভীর -৭১*(৫৭)
৮ মে মুম্বাই ইন্ডিয়ানস ইস্ট লন্ডন ৭ উইকেটে বিজয়ী
১০ মে কলকাতা নাইট রাইডার্স জোহানেসবার্গ ৭ উইকেটে বিজয়ী, MoM- ভারত Amit Mishra - 3/14 (4 overs)
১০ ১৩ মে ডেকান চারজাস ডারবান ১২ রানে বিজয়ী, MoM- ভারত রজত ভাটিয়া - ৪/১৫ (২.৪ ওভার)
১১ ১৫ মে কিংস এলেভেন পাঞ্জাব ব্লয়েমফন্টন ৬ উইকেটে পরাজিত,
১২ ১৭ মে রাজস্থান রয়াল Bloemfontein ১৪ রানে বিজয়ী, MoM- দক্ষিণ আফ্রিকা AB de Villiers- 79* (55)
১৩ ১৯ মে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু জোহানেসবার্গ ৭ উইকেটে পরাজিত,
১৪ ২১ মে মুম্বাই ইন্ডিয়ানস সেঞ্চুরিয়ান ৪ উইকেটে বিজয়ী
১৫ ২২ মে ডেকান চারজাস (সেমি ফাইনাল #1) সেঞ্চুরিয়ান ৬ উইকেটে পরাজিত,

২০১৮ আইপিএল-এ দলের সদস্যের প্রদর্শন[সম্পাদনা]

বিশেষ অবদানগুলি হাইলাইট করা হলো

ঘরের মাঠে ম্যাচ[সম্পাদনা]

খেলোয়াড় মূল্য(রুপি) বনাম কিংস এলেভেন পাঞ্জাব বনাম কলকাতা নাইট রাইডার্স বনাম রাজস্থান রয়্যালস
পৃথিবী শ ১.২ কোটি ২২(১০) ৬২(৪৪) ৪৭(২৫)
কলিন মানরো ১.৯ কোটি খেলেনি ৩৩(১৮) ০(১)
গৌতম গম্ভীর ২.৮ কোটি ৪(১৩) খেলেনি খেলেনি
গ্লেন ম্যাক্সওয়েল ৯ কোটি ১২(১০) ও ১-০-৪-০ ২৭(১৮) ও ২-০-২২-২ ৫(৫) ও ১-০-২১-১
শ্রেয়াস আইয়ের ৭ কোটি ৫৭(৪৫) ৯৩*(৪০) ৫০(৩৫)
ঋষভ পন্থ ৮ কোটি ৪(৭) ০(১) ৬৯(২৯)
বিজয় শঙ্কর ৩.২ কোটি খেলেনি ০*(০) ও ১-০-১০-০ ১৭(৬)
রাহুল তেয়াটিয়া ৩ কোটি ২৪(২১) ও ১-০-৬-০ ১-০-১১-০ খেলেনি
ড্যানিয়েল ক্রিস্টিয়ান ১.৫ কোটি ৬(১১) ও ৩-০-১৭-১ খেলেনি খেলেনি
লিয়াম প্লাঙ্কেট ২ কোটি ০(১) ও ৪-০-১৭-৩ ৪-০-২৪-০ ১*(২) ও ৩-০-৩৭-০
অমিত মিশ্র ৪ কোটি ১*(২) ও ৪-০-৩৩-০ ৪-১-২৩-২ ২-০-১২-১
আবেশ খান ৭০ লক্ষ ৪-০-৩৬-২ ৪-০-২৯-২ ২-০-৩৬-০
ট্রেন্ট বোল্ট ২.২ কোটি ৩-০-২১-২ ৪-০-৪৪-২ ৩-০-২৬-২
শাহবাজ নাদীম ৩.২ কোটি খেলেনি খেলেনি ১-০-১৩-০

বিরোধী মাটিতে ম্যাচ[সম্পাদনা]

খেলোয়াড় মূল্য(রুপি) বনাম কিংস এলেভেন পাঞ্জাব বনাম রাজস্থান রয়্যালস বনাম মুম্বই ইন্ডিয়ান্স বনাম কলকাতা নাইট রাইডার্স
জেসন রয় ১.৫ কোটি খেলেনি খেলেনি ৯১*(৫৩) ১(৩)
কলিন মানরো ১.৯ কোটি ৪(৬) ০(০) খেলেনি খেলেনি
গৌতম গম্ভীর ২.৮ কোটি ৫৫(৪২) ব্যবহৃত হয়নি ১৫(১৬) ৮(৭)
গ্লেন ম্যাক্সওয়েল ৯ কোটি খেলেনি ১৭(১২) ১৩(৬) ও ৩-০-২১-০ ৪৭(২২)
শ্রেয়াস আইয়ের ৭ কোটি ১১(১১) ০*(০) ২৭*(২০) ৪(৩)
বিজয় শঙ্কর ৩.২ কোটি ১৩(১৩) ৩(৩) ব্যবহৃত হয়নি ২(৪) ও ১-০-১২-০
ঋষভ পন্থ ৮ কোটি ২৮(১৩) ২০(১৪) ৪৭(২৫) ৪৩(২৬)
রাহুল তেয়াটিয়া ৩ কোটি ৯(৭) ও ৪-০-২৪-১ ৪-০-২৯-০ ৪-০-৩৬-২ ১(২) ও ৩-০-১৮-৩
ক্রিস মরিস ৭.১ কোটি ২৭*(১৬)৩-০-২৫-১ ১৭*(৭) ও ৩-০-৩৪-০ খেলেনি ২(৩) ও ৪-০-৪১-২
ড্যানিয়েল ক্রিস্টিয়ান ১.৫ কোটি ১৩(১৩) ও ২-০-১২-১ খেলেনি ৩-০-৩৫-২ খেলেনি
অমিত মিশ্র ৪ কোটি ৪-০-৪৬-০ খেলেনি খেলেনি খেলেনি
ট্রেন্ট বোল্ট ২.২ কোটি ৩.৫-০-৩৪-১ ৩-০-২৬-১ ৪-০-৩৯-২ ০(২) ও ৪-১-২৯-২
মোহাম্মদ শমী ৩ কোটি ২-০-২৬-০ ৩.৫-০-২৯-১ ৪-০-৩৬-১ ৭(৬) ও ৪-০-৫৩-১
শাহবাজ নাদীম ৩.২ কোটি খেলেনি ৪-০-৩৪-২ ২-০-২২-০ ৬*(৮) ও ৪-০-৪৩-১

২০১৯ ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগ-এ দলের সদস্যের প্রদর্শন[সম্পাদনা]

ব্যাটিং[সম্পাদনা]

ওভার পাল্লা ম্যাচ ১ ম্যাচ ২
পাওয়ার প্লে (১ম - ৬ষ্ঠ) ধাওয়ান - ইনগ্রাম ধাওয়ান
মধ্যভাগে (৭ম - ১৬তম) ধাওয়ান - ইনগ্রাম - পন্থ ধাওয়ান
স্লগ (১৭তম - ২০তম) পন্থ

বোলিং[সম্পাদনা]

বোলার - শিকার

ওভার পাল্লা ম্যাচ ১ ম্যাচ ২
পাওয়ার প্লে (১ম - ৬ষ্ঠ) ইশান্ত (রোহিত -দে কক) ইশান্ত (রায়ুডু) - অমিত (ওয়াটসন)
মধ্যভাগে (৭ম - ১৬তম) কেমো পল (পোলার্ড) অমিত (রায়না)
স্লগ (১৭তম - ২০তম) রাবাডা (যুবরাজ) রাবাডা (কেদার)

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]