ঊনসত্তরের গণঅভ্যুত্থান

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

উনসত্তরের গণঅভ্যুত্থান তৎকালীন পূর্ব-পাকিস্তান তথা স্বাধীন বাংলাদেশের রাজনৈতিক ও ঐতিহাসিক মুক্তি সংগ্রামের এক গুরুত্বপূর্ণ অধ্যায়। এক দশকেরও বেশি সময় ধরে ক্ষমতায় থাকা আইয়ুব খান সরকারের পতন ঘটে এই অভ্যুত্থানের মধ্য দিয়ে।

ঘটনাপঞ্জি[সম্পাদনা]

৪ জানুয়ারি: সর্বদলীয় ছাত্র সংগ্রাম পরিষদ তাদের ঐতিহাসিক ১১ দফা কর্মসূচী পেশ করেন।

৭ ও ৮ জানুয়ারি: গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার পক্ষে রাজনৈতিক ঐক্য ডেমোক্রেটিক অ্যাকশন কমিটি বা ড্যাক (DAC) গঠিত হয়।

২০ জানুয়ারি: ছাত্রদের মিছিলে গুলিবর্ষনের ঘটনায় নিহত হন ছাত্র আসাদুজ্জামান

২৪ জানুয়ারি: পুলিশের গুলিতে নিহত হন কিশোর ছাত্র মতিয়ুর রহমান-সহ আরো অনেকে।

১৫ ফেব্রুয়ারি: কুর্মিটোলা ক্যান্টনমেন্টে আটক আগরতলা ষড়যন্ত্র মামলার অন্যতম আসামী সার্জেন্ট জহুরুল হক নিহত।[১]

১৮ ফেব্রুয়ারি: রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের মৌন মিছিলে গুলি চালালে নিহত হন শিক্ষক ড. শামসুজ্জোহা

২১ ফেব্রুয়ারি: আগরতলা ষড়যন্ত্র মামলা প্রত্যাহার।

২৬ ফেব্রুয়ারি: বিরোধী নেতৃবৃন্দের সাথে আলোচনার জন্য আইয়ুব খান গোলটেবিল বৈঠক আহবান করেন। পরবর্তীতে গোলটেবিল বৈঠক ব্যর্থ হলে আইয়ুব খান পদত্যাগ করেন।

ঊনসত্তরের গণঅভ্যুত্থানে শহীদদের তালিকা[সম্পাদনা]

৮ ডিসেম্বর ১৯৬৮: নীলক্ষেতে ওয়াবদার কর্মচারী আব্দুল মজিদ ও গুলিস্তানে সাইকেল মিস্ত্রি আবু।

৯ ডিসেম্বর ১৯৬৮: ফৌজদার হাটে শ্রমিক মুসা মিয়া।

২৯ ডিসেম্বর ১৯৬৮: হাতির দিয়ায় কৃষক মিয়া চাঁন, হাসান আলী, চেরাগ আলী এবং শিক্ষক সিদ্দিকুর রহমান।

১৮ জানুয়ারি ১৯৬৯ :রূপগঞ্জে ছাত্র হাফিজ আহমেদ।

২০ জানুয়ারি ১৯৬৯: ঢাকা মেডিকেল কলেজের সামনে ছাত্র ও কৃষক সংগঠক মোহাম্মদ আসাদুজ্জামান আসাদ।

২৪ জানুয়ারি ১৯৬৯: সেক্রেটারিয়েটের সামনে ছাত্র মতিয়ুর রহমান মল্লিক,রচ্স্তম আলী ও ময়মনসিংহে ছাত্র আলমগীর মনসুর এবং চট্টগ্রামে শ্রমিক হাসানুজ্জামান ও জানু মিঞা।

২৫ জানুয়ারি ১৯৬৯: নাখালপাড়ায় গৃহবধু আনোয়ারা বেগম, তেজগাঁতে ছাত্র আব্দুল লতিফ, ধানমণ্ডি এলাকায় চাকুরীজীবি রহিমদাদ।

২৬ জানুয়ারি ১৯৬৯: ঢাকায় শ্রমিক সরল খান, শিমুলিয়া রেলস্টেশনে আনোয়ার আলী, সিদ্দিরগঞ্জে জুলহাস শিকদার।

২৭ জানুয়ারী ১৯৬৯ :গৌরিপুরে ছাত্র হারচ্ন আব্দুল আজিজ।

৩০ জানুয়ারী ১৯৬৯ :জাজিরায় ছাত্র আলাউদ্দীন ও নৌকার মাঝি আব্দুল জব্বার মাঝি

১ ফেব্রুয়ারি ১৯৬৯ :জলির পাড় ছাত্র মহানন্দ সরকার ছাত্র।

৫ ফেব্রুয়ারি ১৯৬৯: ঢাকায় শ্রমিক আব্দুল আলী।

৬ ফেব্রুয়ারি ১৯৬৯: রাজারগাঁও ছাত্র মজিবর রহমান ও কামাল উদ্দীন আকন্দ।

১৫ ফেব্রুয়ারি ১৯৬৯ :নবীনগর, নারায়নগঞ্জে ছাত্র মাজাহার আহমেদ ও ঢাকা সেনানিবাসে সৈনিক সার্জেন্ট জহুরুল হক।

১৭ ফেব্রুয়ারি ১৯৬৯ :নাজিরা বাজারে প্রেসকর্মী ইসহাক।

১৮ ফেব্রুয়ারী ১৯৬৯ :সোনাদিঘীর পাড়, রাজশাহীতে সিটি কলেজ ছাত্র ও ছাত্রনেতা নূরুল ইসলাম খোকা , রামেক হাসপাতালে শিক্ষক ড. মোহাম্মদ শামসুজ্জোহা ও নাজিরাবাজারে চাকুরীজীবি রহমতুল্লাহ।

১৯ ফেব্রুয়ারি ১৯৬৯: ঢাকায় শ্রমিক লোকমান, মুজিবুর রহমান, মালিবাগে দর্জি আতাহার খান, হোটেল বয় শামসু আইসক্রীম বিক্রেতা আব্দুল আলী, কাঠমিস্ত্রী আবুল হাশেম, সেনবাগে ছাত্র খোরশেদ আলম, সেনবাগ- নোয়াখালীতে শ্রমিক হাফিজুর রহমান, আব্দুর রহমান, ছাত্র আবুল কালাম, শামসুল হক, কুষ্টিয়ায় চাকুরীজীবি আব্দুর রাজ্জাক।

২০ ফেব্রুয়ারি ১৯৬৯:ঢাকা সেনানিবাসে মু. দেলওয়ার হোসেন।

২১ ফেব্রুয়ারি ১৯৬৯:দৌলতপুরে ছাত্র আবদুস সাত্তার, মনিরচ্জ্জামান, নৈশবিদ্যালয়ের ছাত্র ও শ্রমিক মাহতাক আলী, শ্রমিক ইসরাফিল বান্দো, আলতাব, হাবিবুর রহমান,নাসির, লোকনাথ।

২৮ ফেব্রুয়ারি ১৯৬৯ :বরিশালে ছাত্র আলাউদ্দীন, ঢাকায় শ্রমিক আব্দুস সাত্তার।

৭ মার্চ ১৯৬৯ : টাঙ্গাইলে ছাত্র বিশ্বনাথ সাহা।

৮ মার্চ ১৯৬৯ : শেরপুরে ছাত্র দারোগ আলী।

২৩ মার্চ ১৯৬৯:মানিকগঞ্জে ছাত্র আবদুল কাদের।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. বাংলা একাডেমী চরিতাভিধান, সম্পাদকঃ সেলিনা হোসেন ও নূরুল ইসলাম, ২য় সংস্করণ, ২০০৩, বাংলা একাডেমী, ঢাকা, পৃ. ১৭২

২. বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধের দলিলপত্র (২য় খন্ড) (পটভূমি ১৯০৫-১৯৫৮) নভেম্বর ১৯৮২ ও মার্চ ২০০৪: পৃষ্ঠা-৫২২

৩. বাংলাদেশের ছাত্র আন্দোলনের ইতিহাস (১৮৩০-১৯৭১) : ড. মোহাম্মদ হাননান : ১৯৯৯

৪. আসাদ থেকে গণঅভ্যুত্থান : মোস্তফা কামাল: এশিয়া পাবলিকেশন্স, ঢাকা : ২০০০ পৃষ্ঠা- ১০৬-১০৮

৫. দৈনিক আজাদ: ১১ মার্চ ১৯৬৯

৬. সাপ্তাহিক গণখবর ফেব্রুয়ারি ২০-২৬,১৯৯৪

৭. দৈনিক সংবাদ ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০০৭

৮. দৈনিক সোনালী সংবাদ, দৈনিক প্রথম আলো, দৈনিক ভোরের কাগজ,দৈনিক সোনার দেশ ২১ ফেব্রুয়ারি ২০০৭

৯. দৈনিক ভোরের কাগজ, দৈনিক প্রথম আলো, দৈনিক সোনালী সংবাদ, দৈনিক নতুন প্রভাত, দৈনিক আমার দেশ ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০০৮

১০. তোমাদের স্বরণ করি (শহীদ সাত্তার-নূরুল ভবন নামকরণ উপলক্ষ্যে প্রকাশিত প্রচারপত্র): রাজশাহী সরকারী মাদ্রাসা: ১ মার্চ ২০১৩ খ্রি.

১১. রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস : বায়েজিদ আহমেদ: শেকড় সন্ধানী ফাউন্ডেশন, রাজশাহী: ডিসেম্বর-২০০৫: পৃষ্ঠা-২১৬

১২. বাংলা উইকিপিডিয়া

১৩. English for today (for Classes 11-12) Unit-12 Lesson-1 NCTB. Dhaka, 2001

১৪. রাজশাহী কলেজিয়েট স্কুলের ১৮০ বছর পূর্তি উপলক্ষ্যে প্রকাশিত স্বারক