২০১৮–১৯ উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লীগ নকআউট পর্ব

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

২০১৮–১৯ উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লীগ নকআউট পর্ব ২০১৯ সালের ১২ই ফেব্রুয়ারি শুরু হবে এবং ২০১৯ সালের ১লা জুন তারিখে সমাপ্ত হবে। এই রাউন্ডের শেষে স্পেনের মাদ্রিদের ওয়ান্দা মেত্রপলিতানোয় এই আসরের ফাইনাল অনুষ্ঠিত হবে, যার মাধ্যমে ২০১৮–১৯ উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লীগের চ্যাম্পিয়ন দল নির্ধারিত হবে।[১] নকআউট পর্বে সর্বমোট ১৬টি দল প্রতিযোগিতা করেছে।[২]

উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লীগের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো, এই পর্ব হতে ভিডিও সহকারী রেফারি (ভিএআর) প্রক্রিয়াটি ব্যবহার করা হবে।[৩]

সকল ম্যাচের সময় উয়েফা দ্বারা সিইটি/সিইএসটি[নোট ১] নির্ধারণ করা হয়েছে (স্থানীয় সময় যদি ভিন্ন হয় তবে তা বন্ধনীতে প্রদর্শিত)।

উত্তীর্ণ দল[সম্পাদনা]

নকআউট পর্বে ১৬টি দল রয়েছে, যারা গ্রুপ পর্বের প্রতিটি গ্রুপের বিজয়ী এবং রানার্স-আপ হয়ে এই পর্বে খেলার যোগ্যতা অর্জন করে।

গ্রুপ বিজয়ী
(১৬ দলের পর্বে সবীজ)
রানার্স-আপ
(১৬ দলের পর্বে অবীজ)
জার্মানি বরুসিয়া ডর্টমুন্ড স্পেন আতলেতিকো মাদ্রিদ
বি স্পেন বার্সেলোনা ইংল্যান্ড টটেনহ্যাম হটস্পার
সি ফ্রান্স পারি সাঁ-জেরমাঁ ইংল্যান্ড লিভারপুল
ডি পর্তুগাল পোর্তো জার্মানি শালকে ০৪
জার্মানি বায়ার্ন মিউনিখ নেদারল্যান্ডস আয়াক্স
এফ ইংল্যান্ড ম্যানচেস্টার সিটি ফ্রান্স লিঁও
জি স্পেন রিয়াল মাদ্রিদ ইতালি রোমা
এইচ ইতালি ইয়ুভেন্তুস ইংল্যান্ড ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড

বন্ধনী[সম্পাদনা]

  ১৬ দলের পর্ব কোয়ার্টার-ফাইনাল সেমি-ফাইনাল ফাইনাল (১ জুন – মাদ্রিদ)
                                         
 ইংল্যান্ড টটেনহ্যাম হটস্পার  
 জার্মানি বরুসিয়া ডর্টমুন্ড  
   ইংল্যান্ড টটেনহ্যাম হটস্পার (অ্যা)  
   ইংল্যান্ড ম্যানচেস্টার সিটি  
 জার্মানি শালকে ০৪
 ইংল্যান্ড ম্যানচেস্টার সিটি ১০  
   ইংল্যান্ড টটেনহ্যাম হটস্পার (অ্যা)  
   নেদারল্যান্ডস আয়াক্স  
 নেদারল্যান্ডস আয়াক্স  
 স্পেন রিয়াল মাদ্রিদ  
   নেদারল্যান্ডস আয়াক্স
   ইতালি ইয়ুভেন্তুস  
 স্পেন আতলেতিকো মাদ্রিদ
 ইতালি ইয়ুভেন্তুস  
   ইংল্যান্ড টটেনহ্যাম হটস্পার
   ইংল্যান্ড লিভারপুল
 ইংল্যান্ড ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড (অ্যা)  
 ফ্রান্স পারি সাঁ-জেরমাঁ  
   ইংল্যান্ড ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড
   স্পেন বার্সেলোনা  
 ফ্রান্স লিঁও
 স্পেন বার্সেলোনা  
   স্পেন বার্সেলোনা
   ইংল্যান্ড লিভারপুল  
 ইংল্যান্ড লিভারপুল  
 জার্মানি বায়ার্ন মিউনিখ  
   ইংল্যান্ড লিভারপুল
   পর্তুগাল পোর্তো  
 ইতালি রোমা
 পর্তুগাল পোর্তো (অ.স.প.)  

বিন্যাস[সম্পাদনা]

নকআউট পর্বের প্রতিটি ম্যাচের (ফাইনাল ব্যতীত) সমতায় দুই লেগের ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে, প্রতিটি দল নিজস্ব মাঠে একটি লেগ খেলবে। যে দল দুই লেগের ম্যাচে অধিক গোল স্কোর করবে সে দল পরবর্তী রাউন্ডে উত্তীর্ণ হবে। যদি সামগ্রিক স্কোর সমান হয়, তাহলে অ্যাওয়ে গোল নিয়ম প্রয়োগ করা হবে, অর্থাৎ এমন দল যে দল অ্যাওয়ে ম্যাচে অধিক গোল করবে সে দল উত্তীর্ণ হবে। যদি অ্যাওয়ে গোল সমান থাকে, তবে অতিরিক্ত সময়ের খেলা অনুষ্ঠিত হবে। অতিরিক্ত সময়ের পর পুনরায় অ্যাওয়ে গোল নিয়ম প্রয়োগ করা হবে, অর্থাৎ যদি অতিরিক্ত সময়ে গোল করা হয় এবং সমষ্টিগত স্কোর এখনও সমান থাকে, তবে অধিক গোলের জন্য সফরকারী দল উত্তীর্ণ হবে। অতিরিক্ত সময়ে কোন গোল স্কোর করা না হলে, পেনাল্টি শুট-আউটের মাধ্যমে বিজয়ী দল নির্ধারণ করে হবে। ফাইনাল ম্যাচটি হবে একটি একক ম্যাচ, যদি পূর্ণ সময়ের পর ফলাফল সমান থাকে, তবে অতিরিক্ত সময়ের খেলা আয়োজিত হবে, তারপরও যদি ফলাফল সমান থাকে তবে পেনাল্টি শুট-আউট আয়োজন করা হবে।[২]

নিম্নে ড্র আয়োজনের প্রক্রিয়া উল্লেখ করা হলো:

  • ১৬ দলের পর্বের ড্রয়ে, আট গ্রুপ বিজয়ীকে সবীজ পাত্রে এবং আট গ্রুপের রানার্স-আপকে অবীজ পাত্রে রাখা হবে। সবীজ দলগুলোকে অবীজ দলগুলোর বিরুদ্ধে ড্র করা হবে, যেখানে প্রথমে সবীজ দলগুলো অবীজ দলগুলোকে আতিথ্য করবে। একই গ্রুপ বা একই এসোসিয়েশন হতে দলগুলো একে অপরের বিরুদ্ধে ড্র করা যাবে না।
  • কোয়ার্টার-ফাইনাল এবং সেমি-ফাইনালের ড্রয়ের জন্য কোন বীজ থাকবে না এবং একই গ্রুপের দল বা একই অ্যাসোসিয়েশনের দলকে একে অপরের ড্র করা যাবে। কোয়ার্টার-ফাইনালের খেলার পূর্বে কোয়ার্টার-ফাইনাল এবং সেমি-ফাইনালের ড্র আয়োজন করা হবে, সেমি-ফাইনাল ড্রয়ের সময় কোয়ার্টার-ফাইনালে বিজয়ীদের পরিচয় জানা যাবে না। ফাইনালের পূর্বে একটি ড্র আয়োজন করা হবে, যেখানে দুই সেমি-ফাইনাল বিজয়ীর মধ্যে একটি দলকে "হোম" (প্রশাসনিক কাজের উদ্দেশ্যে) নির্ধারণ করা হবে। ফাইনালের খেলাটি একটি নিরপেক্ষ মাঠে অনুষ্ঠিত হবে।

সময়সূচী[সম্পাদনা]

নিম্নে ১৬ দলের পর্বের সময়সূচী উল্লেখ করা হলো (সুইজারল্যান্ডের নিয়নে সকল ড্র অনুষ্ঠিত হয়েছে):[১]

নকআউট পর্ব সময়সূচী
পর্ব ড্রয়ের তারিখ প্রথম লেগ দ্বিতীয় লেগ
১৬ দলের পর্ব ১৭ ডিসেম্বর ২০১৮, ১২:০০ ১২–১৩ এবং ১৯–২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ ৫–৬ এবং ১২–১৩ মার্চ ২০১৯
কোয়ার্টার-ফাইনাল ১৫ মার্চ ২০১৯, ১২:০০ ৯–১০ এপ্রিল ২০১৯ ১৬–১৭ এপ্রিল ২০১৯
সেমি-ফাইনাল ৩০ এপ্রিল – ১ মে ২০১৯ ৭–৮ মে ২০১৯
ফাইনাল মাদ্রিদের ওয়ান্দা মেত্রপলিতানোয় ১ জুন ২০১৯

১৬ দলের পর্ব[সম্পাদনা]

১৬ দলের পর্বের জন্য ২০১৮ সালের ১৭ই ডিসেম্বর ১২:০০ টায় কেন্দ্রীয় ইউরোপীয় সময় ড্র অনুষ্ঠিত হয়েছে।[৪]

ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লীগের ইতিহাসে প্রথম দল হিসেবে প্রথম লেগে দুই গোল বা তার বেশি গোলে হারার পরও দ্বিতীয় লেগে জয়লাভ করে কোয়ার্টার-ফাইনালে উত্তীর্ণ হয়।[৫] ইউরোপিয়ান কাপের যুগে, শুধুমাত্র আয়াক্স এই কৃতিত্বটি অর্জন করেছিল; তারা ১৯৬৮–৬৯ ইউরোপিয়ান কাপের কোয়ার্টার-ফাইনালে বেনফিকার বিরুদ্ধে প্রথম লেগে নিজস্ব মাঠে ১–৩ গোলে হারার পরও দ্বিতীয় লেগে বিপক্ষ দলে মাঠে ৩–১ গোলে জয়লাভ করে উত্তীর্ণ হয়েছিল।[৬]

সারাংশ[সম্পাদনা]

১৬ দলের পর্বের প্রথম লেগ ২০১৯ সালের ১২, ১৩, ১৯ এবং ২০শে ফেব্রুয়ারি এবং দ্বিতীয় লেগ ২০১৯ সালের ৫, ৬, ১২ এবং ১৩ই মার্চ অনুষ্ঠিত হবে।

দল ১ সমষ্টি দল ২ ১ম লেগ ২য় লেগ
শালকে ০৪ জার্মানি ২–১০ ইংল্যান্ড ম্যানচেস্টার সিটি ২–৩ ০–৭
আতলেতিকো মাদ্রিদ স্পেন ২–৩ ইতালি ইয়ুভেন্তুস ২–০ ০–৩
ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ইংল্যান্ড ৩–৩ (অ্যা) ফ্রান্স পারি সাঁ-জেরমাঁ ০–২ ৩–১
টটেনহ্যাম হটস্পার ইংল্যান্ড ৪–০ জার্মানি বরুসিয়া ডর্টমুন্ড ৩–০ ১–০
লিওঁ ফ্রান্স ১–৫ স্পেন বার্সেলোনা ০–০ ১–৫
রোমা ইতালি ৩–৪ পর্তুগাল পোর্তো ২–১ ১–৩ (অ.স.প.)
আয়াক্স নেদারল্যান্ডস ৫–৩ স্পেন রিয়াল মাদ্রিদ ১–২ ৪–১
লিভারপুল ইংল্যান্ড ৩–১ জার্মানি বায়ার্ন মিউনিখ ০–০ ৩–১

ম্যাচ[সম্পাদনা]

ম্যানচেস্টার সিটি সামগ্রিকভাবে ১০–২ গোলে জয়ী


ইয়ুভেন্তুস সামগ্রিকভাবে ৩–২ গোলে জয়ী


সামগ্রিকভাবে ৩–৩ গোলে ড্র, ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড অধিক অ্যাওয়ে গোলের জন্য জয়ী


টটেনহ্যাম হটস্পার সামগ্রিকভাবে ৪–০ গোলে জয়ী


বার্সেলোনা সামগ্রিকভাবে ৫–১ গোলে জয়ী


রোমা ইতালি২–১পর্তুগাল পোর্তো
প্রতিবেদন

পোর্তো সামগ্রিকভাবে ৪–৩ গোলে জয়ী


আয়াক্স সামগ্রিকভাবে ৫–৩ গোলে জয়ী


লিভারপুল ইংল্যান্ড০–০জার্মানি বায়ার্ন মিউনিখ
প্রতিবেদন

লিভারপুল সামগ্রিকভাবে ৩–১ গোলে জয়ী

কোয়ার্টার-ফাইনাল[সম্পাদনা]

কোয়ার্টার-ফাইনালের জন্য ২০১৯ সালের ১৫ই মার্চ ১২:০০ টায় সিইটি ড্র অনুষ্ঠিত হয়েছে ।[২৪]

সারাংশ[সম্পাদনা]

কোয়ার্টার-ফাইনালের প্রথম লেগ ২০১৯ সালের ৯ ও ১০শে এপ্রিল এবং দ্বিতীয় লেগ ২০১৯ সালের ১৬ এবং ১৭ই এপ্রিলে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

দল ১ সমষ্টি দল ২ ১ম লেগ ২য় লেগ
আয়াক্স নেদারল্যান্ডস ৩–২ ইতালি ইয়ুভেন্তুস ১–১ ২–১
লিভারপুল ইংল্যান্ড ৬–১ পর্তুগাল পোর্তো ২–০ ৪–১
টটেনহ্যাম হটস্পার ইংল্যান্ড ৪–৪ (অ্যা) ইংল্যান্ড ম্যানচেস্টার সিটি ১–০ ৩–৪
ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ইংল্যান্ড ০–৪[ক] স্পেন বার্সেলোনা ০–১ ০–৩

নোট

  1. ম্যানচেস্টার সিটি বনাম টটেনহ্যাম হটস্পারের ম্যাচ একই শহরে একই দিনে নির্ধারিত হওয়ার ফলে, এই সময়সূচী সংঘাত এড়ানোর জন্য, মূল ড্রয়ের পর এই ম্যাচের সময়সূচী পরিবর্তন করা হয়েছিল।

ম্যাচ[সম্পাদনা]

আয়াক্স সামগ্রিকভাবে ৩–২ গোলে জয়ী


লিভারপুল সামগ্রিকভাবে ৬–১ গোলে জয়ী


সামগ্রিকভাবে ৪–৪ গোলে ড্র, টটেনহ্যাম হটস্পার অধিক অ্যাওয়ে গোলের জন্য জয়ী


বার্সেলোনা স্পেন৩–০ইংল্যান্ড ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড
প্রতিবেদন

বার্সেলোনা সামগ্রিকভাবে ৪–০ গোলে জয়ী

সেমি-ফাইনাল[সম্পাদনা]

সেমি-ফাইনালের জন্য ২০১৯ সালের ১৫ই মার্চ ১২:০০ টায় সিইটি (কোয়ার্টার-ফাইনালের ড্রয়ের পর) ড্র অনুষ্ঠিত হবে।[৩৩]

সেমি-ফাইনালের প্রথম লেগ ২০১৯ সালের ৩০শে এপ্রিল ও ১লা মে এবং দ্বিতীয় লেগ ২০১৯ সালের ৭ এবং ৮ই মে তারিখে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

দল ১ সমষ্টি দল ২ ১ম লেগ ২য় লেগ
টটেনহ্যাম হটস্পার ইংল্যান্ড ৩–৩ (অ্যা) নেদারল্যান্ডস আয়াক্স ০–১ ৩–২
বার্সেলোনা স্পেন ৩–৪ ইংল্যান্ড লিভারপুল ৩–০ ০–৪

ম্যাচ[সম্পাদনা]

সামগ্রিকভাবে ৩–৩ গোলে ড্র, ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড অধিক অ্যাওয়ে গোলের জন্য জয়ী


লিভারপুল ইংল্যান্ড৪–০স্পেন বার্সেলোনা
প্রতিবেদন
দর্শক সংখ্যা: ৫৫,২১২[৩৭]

লিভারপুল সামগ্রিকভাবে ৪–৩ গোলে জয়ী

ফাইনাল[সম্পাদনা]

২০১৯ সালের ১লা জুন তারিখে মাদ্রিদের ওয়ান্দা মেত্রপলিতানো এই আসরের ফাইনাল অনুষ্ঠিত হবে। "হোম" দল (প্রশাসনিক উদ্দেশ্যে) কোয়ার্টার-ফাইনাল এবং সেমি-ফাইনাল ড্রয়ের পরে অনুষ্ঠিত অতিরিক্ত ড্র দ্বারা নির্ধারণ করা হবে।[৩৩]

নোট[সম্পাদনা]

  1. সিইটি (ইউটিসি+১) ৩০শে মার্চ ২০১৮ পর্যন্ত (১৬ দলের পর্ব) ম্যাচের জন্য এবং সিইএসটি (ইউটিসি+২) পরবর্তী (কোয়ার্টার-ফাইনাল, সেমি-ফাইনাল এবং ফাইনাল) ম্যাচের জন্য।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "2018/19 Champions League match and draw calendar"UEFA.com। Union of European Football Associations। ৯ জানুয়ারি ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ৯ জানুয়ারি ২০১৮ 
  2. "Regulations of the UEFA Champions League 2018/19" (PDF)। UEFA.com। ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৮। 
  3. "VAR to be used in UEFA Champions League knockout phase"UEFA.com। Union of European Football Associations। ৩ ডিসেম্বর ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ৩ ডিসেম্বর ২০১৮ 
  4. "UEFA Champions League round of 16 draw"। UEFA.com। 
  5. "Man Utd score late penalty to shock PSG"UEFA.com। Union of European Football Associations। ৭ মার্চ ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ৭ মার্চ ২০১৯ 
  6. Brandsnes, Håkon Østmoe (৬ মার্চ ২০১৯)। "Uniteds umulige utgangspunkt: Har ikke skjedd på femti år" [United's impossible starting point: Hasn't happened in fifty years] (Norwegian ভাষায়)। [[{{subst:#invoke:Redirect|main|Dagbladet}}]]। ৭ মার্চ ২০১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৭ মার্চ ২০১৯ 
  7. "Full Time Summary Round of 16 1st Leg – Schalke 04 v Manchester City" (PDF)UEFA.com। Union of European Football Associations। ২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ 
  8. "Full Time Summary Round of 16 2nd Leg – Manchester City v Schalke 04" (PDF)UEFA.com। Union of European Football Associations। ১২ মার্চ ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ১২ মার্চ ২০১৯ 
  9. "Full Time Summary Round of 16 1st Leg – Atlético Madrid v Juventus" (PDF)UEFA.com। Union of European Football Associations। ২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ 
  10. "Full Time Summary Round of 16 2nd Leg – Juventus v Atlético Madrid" (PDF)UEFA.com। Union of European Football Associations। ১২ মার্চ ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ১২ মার্চ ২০১৯ 
  11. "Full Time Summary Round of 16 1st Leg – Manchester United v Paris Saint-Germain" (PDF)UEFA.com। Union of European Football Associations। ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ 
  12. "Full Time Summary Round of 16 2nd Leg – Paris Saint-Germain v Manchester United" (PDF)UEFA.com। Union of European Football Associations। ৬ মার্চ ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ৬ মার্চ ২০১৯ 
  13. "Tottenham: New stadium not ready until at least March, confirms Daniel Levy"। BBC Sport। ৯ জানুয়ারি ২০১৯। 
  14. "Full Time Summary Round of 16 1st Leg – Tottenham Hotspur v Borussia Dortmund" (PDF)UEFA.com। Union of European Football Associations। ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ 
  15. "Full Time Summary Round of 16 2nd Leg – Borussia Dortmund v Tottenham Hotspur" (PDF)UEFA.com। Union of European Football Associations। ৫ মার্চ ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ৫ মার্চ ২০১৯ 
  16. "Full Time Summary Round of 16 1st Leg – Lyon v Barcelona" (PDF)UEFA.com। Union of European Football Associations। ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ 
  17. "Full Time Summary Round of 16 2nd Leg – Barcelona v Lyon" (PDF)UEFA.com। Union of European Football Associations। ১৩ মার্চ ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ১৩ মার্চ ২০১৯ 
  18. "Full Time Summary Round of 16 1st Leg – Roma v Porto" (PDF)UEFA.com। Union of European Football Associations। ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ 
  19. "Full Time Summary Round of 16 2nd Leg – Porto v Roma" (PDF)UEFA.com। Union of European Football Associations। ৬ মার্চ ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ৬ মার্চ ২০১৯ 
  20. "Full Time Summary Round of 16 1st Leg – Ajax v Real Madrid" (PDF)UEFA.com। Union of European Football Associations। ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ 
  21. "Full Time Summary Round of 16 2nd Leg – Real Madrid v Ajax" (PDF)UEFA.com। Union of European Football Associations। ৫ মার্চ ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ৫ মার্চ ২০১৯ 
  22. "Full Time Summary Round of 16 1st Leg – Liverpool v Bayern Munich" (PDF)UEFA.com। Union of European Football Associations। ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ 
  23. "Full Time Summary Round of 16 2nd Leg – Bayern Munich v Liverpool" (PDF)UEFA.com। Union of European Football Associations। ১৩ মার্চ ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ১৩ মার্চ ২০১৯ 
  24. "UEFA Champions League quarter-final draw"। UEFA.com। 
  25. "Full Time Summary Quarter-finals 1st Leg – Ajax v Juventus" (PDF)UEFA.com। Union of European Football Associations। ১০ এপ্রিল ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ১০ এপ্রিল ২০১৯ 
  26. "Full Time Summary Quarter-finals 2nd Leg – Juventus v Ajax" (PDF)UEFA.com। Union of European Football Associations। ১৬ এপ্রিল ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ১৬ এপ্রিল ২০১৯ 
  27. "Full Time Summary Quarter-finals 1st Leg – Liverpool v Porto" (PDF)UEFA.com। Union of European Football Associations। ৯ এপ্রিল ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ৯ এপ্রিল ২০১৯ 
  28. "Full Time Summary Quarter-finals 2nd Leg – Porto v Liverpool" (PDF)UEFA.com। Union of European Football Associations। ১৭ এপ্রিল ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ১৭ এপ্রিল ২০১৯ 
  29. "Full Time Summary Quarter-finals 1st Leg – Tottenham Hotspur v Manchester City" (PDF)UEFA.com। Union of European Football Associations। ৯ এপ্রিল ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ৯ এপ্রিল ২০১৯ 
  30. "Full Time Summary Quarter-finals 2nd Leg – Manchester City v Tottenham Hotspur" (PDF)UEFA.com। Union of European Football Associations। ১৭ এপ্রিল ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ১৭ এপ্রিল ২০১৯ 
  31. "Full Time Summary Quarter-finals 1st Leg – Manchester United v Barcelona" (PDF)UEFA.com। Union of European Football Associations। ১০ এপ্রিল ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ১০ এপ্রিল ২০১৯ 
  32. "Full Time Summary Quarter-finals 2nd Leg – Barcelona v Manchester United" (PDF)UEFA.com। Union of European Football Associations। ১৬ এপ্রিল ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ১৬ এপ্রিল ২০১৯ 
  33. "UEFA Champions League semi-final draw"। UEFA.com। 
  34. "Full Time Summary Semi-finals 1st Leg – Tottenham Hotspur v Ajax" (PDF)UEFA.com। Union of European Football Associations। ৩০ এপ্রিল ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ৩০ এপ্রিল ২০১৯ 
  35. "Full Time Summary Semi-finals 2nd Leg – Ajax v Tottenham Hotspur" (PDF)UEFA.com। Union of European Football Associations। ৮ মে ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ৮ মে ২০১৯ 
  36. "Full Time Summary Semi-finals 1st Leg – Barcelona v Liverpool" (PDF)UEFA.com। Union of European Football Associations। ১ মে ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ১ মে ২০১৯ 
  37. "Full Time Summary Semi-finals 2nd Leg – Liverpool v Barcelona" (PDF)UEFA.com। Union of European Football Associations। ৭ মে ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ৭ মে ২০১৯ 
  38. "Full Time Report Final – Tottenhঅ্যা.মি.Hotspur v Liverpool" (PDF)UEFA.com। Union of European Football Associations। ১ জুন ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ১ জুন ২০১৯ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]