২০১৮–১৯ বুন্দেসলিগা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
বুন্দেসলিগা
মৌসুম২০১৮–১৯
তারিখ২৪ আগস্ট ২০১৮ – ১৮ মে ২০১৯
চ্যাম্পিয়নবায়ার্ন মিউনিখ
২৮তম বুন্দেসলিগা শিরোপা
২৯তম জার্মান শিরোপা
অবনমনস্টুটগার্ট
হানোফার
নুর্নবার্গ
চ্যাম্পিয়নস লীগবায়ার্ন মিউনিখ
বরুসিয়া ডর্টমুন্ড
আরবি লাইপৎসিশ
বায়ার লেভারকুজেন
ইউরোপা লীগবরুসিয়া মনশেনগ্লাডবাখ
ভলফসবুর্গ
আইন্ট্রাখট ফ্রাঙ্কফুর্ট
মোট খেলা৩০৬
মোট গোলসংখ্যা৯৭৩ (ম্যাচ প্রতি ৩.১৮টি)
শীর্ষ গোলদাতাপোল্যান্ড রবের্ত লেভানদোভস্কি
(২২টি গোল)
সবচেয়ে বড় হোম জয়বরুসিয়া ডর্টমুন্ড ৭–০ নুর্নবার্গ
ভলফসবুর্গ ৮–১ আউগসবুর্গ
সবচেয়ে বড় অ্যাওয়ে জয়স্টুটগার্ট ০–৪ বরুসিয়া ডর্টমুন্ড
ভেয়ার্ডার ব্রেমেন ২–৬ লেভারকুজেন
হানোফার ০–৪ বায়ার্ন মিউনিখ
ডুসেলডর্ফ ০–৪ আরবি লাইপৎসিশ
মাইনৎস ১–৫ বায়ার লেভারকুজেন
বরুসিয়া মনশেনগ্লাডবাখ ১–৫ বায়ার্ন মিউনিখ
আউগসবুর্গ ০–৪ হফেনহাইম
ফ্রাইবুর্গ ০–৪ বরুসিয়া ডর্টমুন্ড
নুর্নবার্গ ০–৪ বরুসিয়া মনশেনগ্লাডবাখ
সর্বোচ্চ স্কোরিংভলফসবুর্গ ৮–১ আউগসবুর্গ
দীর্ঘতম টানা জয়৭ ম্যাচ[১]
বায়ার্ন মিউনিখ
দীর্ঘতম টানা অপরাজিত১৫ ম্যাচ[১]
বরুসিয়া ডর্টমুন্ড
দীর্ঘতম টানা জয়বিহীন২০ ম্যাচ[১]
নুর্নবার্গ
দীর্ঘতম টানা পরাজয়৬ ম্যাচ[১]
ডুসেলডর্ফ
সর্বোচ্চ উপস্থিতি৮১,৩৬৫[১]
৬টি ম্যাচ
সর্বনিম্ন উপস্থিতি১৯,২০৫[১]
মাইনৎস বনাম ভলফসবুর্গ
উপস্থিতি১,৩২,৯৪,১৩৯ (ম্যাচ প্রতি ৪৩,৪৪৫ জন)

২০১৮–১৯ বুন্দেসলিগা জার্মানির পেশাদার ফুটবল লীগের শীর্ষ স্তর বুন্দেসলিগার ৫৮তম মৌসুম ছিল। এই মৌসুমটি ২০১৮ সালের ২৪শে আগস্ট তারিখে শুরু হয়ে ২০১৯ সালের ১৮ই মে তারিখে সম্পন্ন হয়েছিল।[২] পূর্ববর্তী মৌসুমে একটি পরীক্ষামূলক ভিত্তিতে ব্যবহার পর আইএফএবির অনুমোদনের পর বুন্দেসলিগায় আনুষ্ঠানিকভাবে ভিডিও সহকারী রেফারি পদ্ধতিটি ব্যবহার করা হয়েছিল।[৩] বায়ার্ন মিউনিখের জার্মান আক্রমণভাগের খেলোয়াড় থমাস মুলার এই মৌসুমের প্রথম গোল করেছিলেন।[৪]

বায়ার্ন মিউনিখ বুন্দেসলিগার পূর্ববর্তী আসরের চ্যাম্পিয়ন, যারা ২০১৭–১৮ মৌসুমে ৮৪ পয়েন্ট অর্জন করে এই প্রতিযোগিতার ইতিহাসে ২৭তম বারের মতো শিরোপা জয়লাভ করেছিল।

এই মৌসুমে ৭৮ পয়েন্ট অর্জন করে বায়ার্ন মিউনিখ ২৮তম বারের মতো বুন্দেসলিগা এবং ২৯তম বারের মতো জার্মান শিরোপা জয়লাভ করেছিল। বায়ার্ন মিউনিখের পোলীয় আক্রমণভাগের খেলোয়াড় রবের্ত লেভানদোভস্কি ২২ গোল করে এই মৌসুমের শীর্ষ গোলদাতার পুরস্কার জয়লাভ করেছিলেন।

প্রতিযোগিতার ধরন[সম্পাদনা]

প্রতিটি ক্লাব একে অপরের বিরুদ্ধে দুইটি ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছিল; একটি নিজেদের মাঠে এবং অপরটি প্রতিপক্ষ দলের মাঠে। ক্লাবগুলো প্রতিটি জয়ের জন্য তিন পয়েন্ট এবং ড্রয়ের জন্য এক পয়েন্ট করে অর্জন করেছিল। যদি দুই বা ততোধিক ক্লাব সমান পয়েন্ট অর্জন করে থাকে, তবে গোল পার্থক্যের মাধ্যমে পয়েন্ট তালিকায় তাদের অবস্থান নির্ধারণ করা হয়েছিল। সর্বাধিক পয়েন্ট অর্জনকারী ক্লাবটি চ্যাম্পিয়ন হিসেবে শিরোপা জয়লাভ করেছিল এবং সর্বনিম্ন পয়েন্ট অর্জনকারী দুইটি ক্লাব ২. বুন্দেসলিগায় অবনমিত হয়েছিল। পয়েন্ট তালিকায় তৃতীয় সর্বনিম্ন পয়েন্ট অর্জনকারী ক্লাবটি ২. বুন্দেসলিগায় তৃতীয় স্থান অধিকারী ক্লাবের বিরুদ্ধে দুই লেগের অবনমন/উন্নয়ন প্লে-অফে অংশগ্রহণ করেছিল, যেখানে বিজয়ী ক্লাব পরবর্তী মৌসুমে বুন্দেসলিগায় অংশগ্রহণের জন্য উত্তীর্ণ হয়েছিল।

দল[সম্পাদনা]

২০১৭–১৮ মৌসুম শেষে ফর্টুনা ডুসেলডর্ফ এবং নুর্নবার্গ মৌসুমে সর্বনিম্ন পয়েন্ট অর্জন করে পয়েন্ট তালিকার সর্বনিম্ন অবস্থানে থাকা দুই ক্লাব হিসেবে বুন্দেসলিগা হতে সরাসরি অবনমিত হয়েছিল। অন্যদিকে, তাদের বদলে কলন এবং হামবুর্গার বুন্দেসলিগায় উন্নীত হয়েছিল। পয়েন্ট তালিকায় তৃতীয় সর্বনিম্ন পয়েন্ট অর্জনকারী ক্লাব হিসেবে ভলফসবুর্গ ২. বুন্দেসলিগায় তৃতীয় স্থান অধিকারী ক্লাব হলস্টাইন কিলের বিরুদ্ধে দুই লেগের অবনমন/উন্নয়ন প্লে-অফে অংশগ্রহণ করেছিল, উক্ত প্লে-অফে জয়লাভ করে ভলফসবুর্গ বুন্দেসলিগার এই মৌসুমে অংশগ্রহণের জন্য উত্তীর্ণ হয়েছিল। পূর্ববর্তী মৌসুমের মতো এই মৌসুমেও ১৮টি ক্লাব প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছিল।

ক্লাব অবস্থান স্টেডিয়াম ধারণক্ষমতা
আউগসবুর্গ আউগসবুর্গ ডব্লিউডব্লিউকে এরিনা ৩০,৬৬০[৫]
হের্টা বার্লিন বার্লিন অলিম্পিক স্টেডিয়াম ৭৪,৬৪৯[৬]
ভেয়ার্ডার ব্রেমেন ব্রেমেন ভেজার স্টেডিয়াম ৪২,১০০[৭]
বরুসিয়া ডর্টমুন্ড ডর্টমুন্ড সিগনাল ইডুনা পার্ক ৮১,৩৬৫[৮]
ফর্টুনা ডুসেলডর্ফ ডুসেলডর্ফ মার্কুর স্পিয়েল-আরেনা ৫৪,৬০০[৯]
আইন্ট্রাখট ফ্রাঙ্কফুর্ট ফ্রাঙ্কফুর্ট কোমারৎসব্যাংক আরেনা ৫১,৫০০[১০]
ফ্রাইবুর্গ ফ্রাইবুর্গ ইম ব্রাইসগাউ শোয়ারৎসভাল্ড স্টেডিয়াম ২৪,০০০[১১]
হানোফার হানোফার এইচডিআই আরেনা ৪৯,০০০[১২]
১৮৯৯ হফেনহাইম সিনশাইম প্রিজিরো এরিনা ৩০,১৫০[১৩]
আরবি লাইপৎসিশ লাইপৎসিশ রেড বুল এরিনা ৪২,৫৫৮[১৪]
বায়ার লেভারকুজেন লেভারকুজেন বেএরিনা ৩০,২১০[১৫]
মাইনৎস মাইনৎস ওপেল এরিনা ৩৪,০০০[১৬]
বরুসিয়া মনশেনগ্লাডবাখ মনশেনগ্লাডবাখ বরুসিয়া পার্ক ৫৪,০২২[১৭]
বায়ার্ন মিউনিখ মিউনিখ অ্যালিয়াঞ্জ এরিনা ৭৫,০২৪[১৮]
নুর্নবার্গ নুরেমবার্গ মাক্স মরলক স্টেডিয়াম ৪৯,৯২৩[১৯]
শালকে গেলজেনকির্খেন আরেনা আউফশালকে ৬২,২৭১[২০]
স্টুটগার্ট স্টুটগার্ট গটলিয়েব ডাইমলার স্টেডিয়াম ৬০,৪৪৯[২১]
ভলফসবুর্গ ভলফসবুর্গ ফক্সভাগেন আরেনা ৩০,০০০[২২]

পয়েন্ট তালিকা[সম্পাদনা]

অব দল ম্যাচ জয় ড্র হার স্বগো বিগো গোপা পয়েন্ট যোগ্যতা অর্জন বা অবনমন
বায়ার্ন মিউনিখ (C) ৩৪ ২৪ ৮৮ ৩২ +৫৬ ৭৮ চ্যাম্পিয়নস লীগের গ্রুপ পর্বে উত্তীর্ণ
বরুসিয়া ডর্টমুন্ড ৩৪ ২৩ ৮১ ৪৪ +৩৭ ৭৬
আরবি লাইপৎসিশ ৩৪ ১৯ ৬৩ ২৯ +৩৪ ৬৬
বায়ার লেভারকুজেন ৩৪ ১৮ ১২ ৬৯ ৫২ +১৭ ৫৮
বরুসিয়া মনশেনগ্লাডবাখ ৩৪ ১৬ ১১ ৫৫ ৪২ +১৩ ৫৫ ইউরোপা লীগের গ্রুপ পর্বে উত্তীর্ণ[ক]
ভলফসবুর্গ ৩৪ ১৬ ১১ ৬২ ৫০ +১২ ৫৫
আইন্ট্রাখট ফ্রাঙ্কফুর্ট ৩৪ ১৫ ১০ ৬০ ৪৮ +১২ ৫৪ ইউরোপা লীগের দ্বিতীয় বাছাইপর্বে উত্তীর্ণ[ক]
ভেয়ার্ডার ব্রেমেন ৩৪ ১৪ ১১ ৫৮ ৪৯ +৯ ৫৩
১৮৯৯ হফেনহাইম ৩৪ ১৩ ১২ ৭০ ৫২ +১৮ ৫১
১০ ফর্টুনা ডুসেলডর্ফ ৩৪ ১৩ ১৬ ৪৯ ৬৫ −১৬ ৪৪
১১ হের্টা ৩৪ ১১ ১০ ১৩ ৪৯ ৫৭ −৮ ৪৩
১২ মাইনৎস ৩৪ ১২ ১৫ ৪৬ ৫৭ −১১ ৪৩
১৩ ফ্রাইবুর্গ ৩৪ ১২ ১৪ ৪৬ ৬১ −১৫ ৩৬
১৪ শালকে ৩৪ ১৭ ৩৭ ৫৫ −১৮ ৩৩
১৫ আউগসবুর্গ ৩৪ ১৮ ৫১ ৭১ −২০ ৩২
১৬ স্টুটগার্ট (R) ৩৪ ২০ ৩২ ৭০ −৩৮ ২৮ অবনমন প্লে-অফে উত্তীর্ণ
১৭ হানোফার (R) ৩৪ ২৩ ৩১ ৭১ −৪০ ২১ ২. বুন্দেসলিগায় অবনমিত
১৮ নুর্নবার্গ (R) ৩৪ ১০ ২১ ২৬ ৬৮ −৪২ ১৯
উৎস: জার্মান ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন
শ্রেণীবিভাগের নিয়মাবলী: ১) পয়েন্ট; ২) গোল পার্থক্য; ৩) স্বপক্ষে গোল; ৪) হেড-টু-হেড পয়েন্ট; ৫) হেড-টু-হেড গোল পার্থক্য; ৬) হেড-টু-হেড স্বপক্ষে গোল; ৭) হেড-টু-হেড অ্যাওয়ে গোল; ৮) অ্যাওয়ে গোল; ৯) প্লে-অফ।[২৩]
(C) চ্যাম্পিয়ন; (R) অবনমিত।
টীকা:
  1. ২০১৮–১৯ ডিএফবি-পোকালের চ্যাম্পিয়ন বায়ার্ন মিউনিখ উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লীগে উত্তীর্ণ হওয়ায় উয়েফা ইউরোপা লীগে তাদের বরাদ্দকৃত স্থানটি ষষ্ঠ স্থান অধিকারী ক্লাব ভলফসবুর্গকে প্রদান করা হয়েছিল এবং উয়েফা ইউরোপা লীগে তাদের বরাদ্দকৃত স্থানটি সপ্তম স্থান অধিকারী ক্লাব আইন্ট্রাখট ফ্রাঙ্কফুর্টকে প্রদান করা হয়েছিল।

ফলাফল[সম্পাদনা]

স্বাগতিক \ সফরকারী AUG BSC BRE DOR DÜS FRA FRE HAN HOF LEI LEV MAI MÖN MUN NÜR SCH STU WOL
আউগসবুর্গ ৩–৪ ২–৩ ২–১ ১–২ ১–৩ ৪–১ ৩–১ ০–৪ ০–০ ১–৪ ৩–০ ১–১ ২–৩ ২–২ ১–১ ৬–০ ২–৩
হের্টা ২–২ ১–১ ২–৩ ১–২ ১–০ ১–১ ০–০ ৩–৩ ০–৩ ১–৫ ২–১ ৪–২ ২–০ ১–০ ২–২ ৩–১ ০–১
ভেয়ার্ডার ব্রেমেন ৪–০ ৩–১ ২–২ ৩–১ ২–২ ২–১ ১–১ ১–১ ২–১ ২–৬ ৩–১ ১–৩ ১–২ ১–১ ৪–২ ১–১ ২–০
বরুসিয়া ডর্টমুন্ড ৪–৩ ২–২ ২–১ ৩–২ ৩–১ ২–০ ৫–১ ৩–৩ ৪–১ ৩–২ ২–১ ২–১ ৩–২ ৭–০ ২–৪ ৩–১ ২–০
ফর্টুনা ডুসেলডর্ফ ১–২ ৪–১ ৪–১ ২–১ ০–৩ ২–০ ২–১ ২–১ ০–৪ ১–২ ০–১ ৩–১ ১–৪ ২–১ ০–২ ৩–০ ০–৩
আইন্ট্রাখট ফ্রাঙ্কফুর্ট ১–৩ ০–০ ১–২ ১–১ ৭–১ ৩–১ ৪–১ ৩–২ ১–১ ২–১ ০–২ ১–১ ০–৩ ১–০ ৩–০ ৩–০ ১–২
ফ্রাইবুর্গ ৫–১ ২–১ ১–১ ০–৪ ১–১ ০–২ ১–১ ২–৪ ৩–০ ০–০ ১–৩ ৩–১ ১–১ ৫–১ ১–০ ৩–৩ ৩–৩
হানোফার ১–২ ০–২ ০–১ ০–০ ০–১ ০–৩ ৩–০ ১–৩ ০–৩ ২–৩ ১–০ ০–১ ০–৪ ২–০ ০–১ ৩–১ ২–১
১৮৯৯ হফেনহাইম ২–১ ২–০ ০–১ ১–১ ১–১ ১–২ ৩–১ ৩–০ ১–২ ৪–১ ১–১ ০–০ ১–৩ ২–১ ১–১ ৪–০ ১–৪
আরবি লাইপৎসিশ ০–০ ৫–০ ৩–২ ০–১ ১–১ ০–০ ২–১ ৩–২ ১–১ ৩–০ ৪–১ ২–০ ০–০ ৬–০ ০–০ ২–০ ২–০
বায়ার লেভারকুজেন ১–০ ৩–১ ১–৩ ২–৪ ২–০ ৬–১ ২–০ ২–২ ১–৪ ২–৪ ১–০ ০–১ ৩–১ ২–০ ১–১ ২–০ ১–৩
মাইনৎস ২–১ ০–০ ২–১ ১–২ ৩–১ ২–২ ৫–০ ১–১ ৪–২ ৩–৩ ১–৫ ০–১ ১–২ ২–১ ৩–০ ১–০ ০–০
বরুসিয়া মনশেনগ্লাডবাখ ২–০ ০–৩ ১–১ ০–২ ৩–০ ৩–১ ১–১ ৪–১ ২–২ ১–২ ২–০ ৪–০ ১–৫ ২–০ ২–১ ৩–০ ০–৩
বায়ার্ন মিউনিখ ১–১ ১–০ ১–০ ৫–০ ৩–৩ ৫–১ ১–১ ৩–১ ৩–১ ১–০ ৩–১ ৬–০ ০–৩ ৩–০ ৩–১ ৪–১ ৬–০
নুর্নবার্গ ৩–০ ১–৩ ১–১ ০–০ ৩–০ ১–১ ০–১ ২–০ ১–৩ ০–১ ১–১ ১–১ ০–৪ ১–১ ১–১ ০–২ ০–২
শালকে ০–০ ০–২ ০–২ ১–২ ০–৪ ১–২ ০–০ ৩–১ ২–৫ ০–১ ১–২ ১–০ ০–২ ০–২ ৫–২ ০–০ ২–১
স্টুটগার্ট ১–০ ২–১ ২–১ ০–৪ ০–০ ০–৩ ২–২ ৫–১ ১–১ ১–৩ ০–১ ২–৩ ১–০ ০–৩ ১–১ ১–৩ ৩–০
ভলফসবুর্গ ৮–১ ২–২ ১–১ ০–১ ৫–২ ১–১ ১–৩ ৩–১ ২–২ ১–০ ০–৩ ৩–০ ২–২ ১–৩ ২–০ ২–১ ২–০
উৎস: জার্মান ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন
রং: নীল = স্বাগতিক দল বিজয়ী; হলুদ = ড্র; লাল = সফরকারী দল বিজয়ী।

শীর্ষ গোলদাতা[সম্পাদনা]

অবস্থান খেলোয়াড় ক্লাব গোল[২৪]
পোল্যান্ড রবের্ত লেভানদোভস্কি বায়ার্ন মিউনিখ ২২
স্পেন পাকো আলকাসের বরুসিয়া ডর্টমুন্ড ১৮
জার্মানি কাই হাভের্ৎস বায়ার লেভারকুজেন ১৭
সার্বিয়া লুকা ইয়োভিচ আইন্ট্রাখট ফ্রাঙ্কফুর্ট
ক্রোয়েশিয়া আন্দ্রেই ক্রামারিচ ১৮৯৯ হফেনহাইম
জার্মানি মার্কো রয়েস বরুসিয়া ডর্টমুন্ড
নেদারল্যান্ডস ভুট ভেগরস্ট ভলফসবুর্গ
আলজেরিয়া ইসহাক বিলফুদিল ১৮৯৯ হফেনহাইম ১৬
জার্মানি টিমো ভেয়ার্নার আরবি লাইপৎসিশ
১০ ফ্রান্স সেবাস্তিয়াঁ আলার আইন্ট্রাখট ফ্রাঙ্কফুর্ট ১৫

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Bundesliga Performance Stats – 2018–19"। ESPN। সংগ্রহের তারিখ ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮ 
  2. "DFB-Präsidium verabschiedet Rahmenterminkalender 2018/2019" [DFB executive committee adopts 2018–19 framework schedule]। DFB.de (জার্মান ভাষায়)। German Football Association। ৮ ডিসেম্বর ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ৮ ডিসেম্বর ২০১৭ 
  3. "Bundesliga ab Sommer offiziell mit Video-Assistent – 2. Bundesliga mit Offline-Testphase" [Bundesliga officially with video assistant starting in summer – 2. Bundesliga with offline test phase]। DFL.de (জার্মান ভাষায়)। Deutsche Fußball Liga। ২২ মার্চ ২০১৮। ২৮ মে ২০১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৮ মে ২০১৯ 
  4. "Bayern München - 1899 Hoffenheim 3:1 (Bundesliga 2018/2019, 1. Round)"worldfootball.net। ২৫ আগস্ট ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ১০ মার্চ ২০২২ 
  5. "Zahlen und Fakten"fcaugsburg.de (জার্মান ভাষায়)। FC Augsburg। ১৯ জুন ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৬ জুলাই ২০১৮ 
  6. "Das Berliner Olympiastadion"herthabsc.de (জার্মান ভাষায়)। Hertha BSC। সংগ্রহের তারিখ ১৬ জুলাই ২০১৮ 
  7. "Stadionplan"weserstadion.de (জার্মান ভাষায়)। Bremer Weser-Stadion GmbH। সংগ্রহের তারিখ ৪ সেপ্টেম্বর ২০১৪ 
  8. "Signal Iduna Park"bvb.de (জার্মান ভাষায়)। Borussia Dortmund GmbH & Co. KGaA। সংগ্রহের তারিখ ১৬ জুলাই ২০১৮ 
  9. "Stadiondaten"f95.de (জার্মান ভাষায়)। Düsseldorfer Turn- und Sportverein Fortuna 1895 e.V.। সংগ্রহের তারিখ ১৬ জুলাই ২০১৮ 
  10. "Eckdaten"eintracht.de (জার্মান ভাষায়)। Eintracht Frankfurt। ৫ জানুয়ারি ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৬ জুলাই ২০১৮ 
  11. "Schwarzwald-Stadion"scfreiburg.com (জার্মান ভাষায়)। SC Freiburg। ৩০ ডিসেম্বর ২০১০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৩ এপ্রিল ২০১৭ 
  12. "HDI Arena"hannover96.de (জার্মান ভাষায়)। Hannover 96। সংগ্রহের তারিখ ২১ মে ২০১৭ 
  13. "Die Wirsol Rhein-Neckar-Arena in Zahlen"achtzehn99.de (জার্মান ভাষায়)। TSG 1899 Hoffenheim Fußball-Spielbetriebs GmbH। সংগ্রহের তারিখ ১৬ জুলাই ২০১৮ 
  14. "Daten und Fakten"dierotenbullen.com (জার্মান ভাষায়)। RasenBallsport Leipzig। সংগ্রহের তারিখ ১৬ জুলাই ২০১৮ 
  15. "Die BayArena"bayer04.de (জার্মান ভাষায়)। Bayer 04 Leverkusen Fußball GmbH। সংগ্রহের তারিখ ১৬ জুলাই ২০১৮ 
  16. "Unsere Arena"mainz05.de (জার্মান ভাষায়)। 1. FSV Mainz 05 e. V.। সংগ্রহের তারিখ ১৬ জুলাই ২০১৮ 
  17. "Das ist Der Borussia-Park"borussia.de (জার্মান ভাষায়)। Borussia Mönchengladbach। সংগ্রহের তারিখ ১৬ জুলাই ২০১৮ 
  18. "Allgemeine Informationen zur Allianz Arena"allianz-arena.com (জার্মান ভাষায়)। FC Bayern München AG। সংগ্রহের তারিখ ১৬ জুলাই ২০১৮ 
  19. "Max-Morlock-Stadion"fcn.de (জার্মান ভাষায়)। 1. FC Nürnberg e.V.। সংগ্রহের তারিখ ১৬ জুলাই ২০১৮ 
  20. "Die VELTINS-Arena"schalke04.de (জার্মান ভাষায়)। FC Gelsenkirchen-Schalke 04 e.V.। সংগ্রহের তারিখ ১৬ জুলাই ২০১৮ 
  21. "Daten & Fakten"mercedes-benz-arena-stuttgart.de (জার্মান ভাষায়)। VfB Stuttgart Arena Betriebs GmbH। সংগ্রহের তারিখ ২১ মে ২০১৭ 
  22. "Daten und Fakten"vfl-wolfsburg.de (জার্মান ভাষায়)। VfL Wolfsburg। সংগ্রহের তারিখ ১ ডিসেম্বর ২০১৫ 
  23. "Spielordnung" [Match rules] (PDF)DFL.de (German ভাষায়)। Deutsche Fußball Liga। ১ জুলাই ২০১৮। পৃষ্ঠা 3। সংগ্রহের তারিখ ২৭ জুলাই ২০১৮ 
  24. "Goalscorers"kicker.de (জার্মান ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৮ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]