মুম্বই মেট্রো

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
(মুম্বাই মেট্রো থেকে পুনর্নির্দেশিত)
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
মুম্বই মেট্রো
Mumbai Metro Line 1 logo.png
Train at Azad Nagar station, Mumbai.jpg
আজাদ নগর স্টেশনে ট্রেন
তথ্য
মালিকএমএমআরডিএ (লাইনগুলি ১ এবং ৩ ব্যতীত সমস্ত লাইন),
মুম্বই মেট্রো ওয়ান (লাইন ১),
মুম্বই মেট্রো রেল কর্পোরেশন (লাইন ৩)
অবস্থানমুম্বাই মেট্রোপলিটন অঞ্চল
ধরনদ্রুত ট্রানজিট
লাইনের সংখ্যা
বিরতিস্থলের সংখ্যা১২
দৈনিক যাত্রীসংখ্যা৪০৫,১০৭ (জুন ২০১৮)
বার্ষিক যাত্রীসংখ্যা১৪৬ মিলিয়ন[১]
সদরদপ্তরমুম্বই
ওয়েবসাইট
কাজ
কাজ শুরু৮ জুন ২০১৪ (৬ বছর আগে) (8 June 2014)
পরিচালকমেট্রো ওয়ান অপারেটর প্রাইভেট লিমিটেড (লাইন ১)
দৈর্ঘ্য৪ কোচ ট্রেন
অগ্রগতি
  • ৪ মিনিট (ব্যস্ত সময়ে)
  • ৮ মিনিট (অন্য সময়ে)
প্রযুক্তি
লাইনের দৈর্ঘ্য১১.৪ কিমি (৭.১ মা)
গতিপথ গেজ১,৪৩৫ মিমি (৪ ফুট ৮ ১/২ ইঞ্চি)
বিদ্যুতায়ন২৫ কেভি, ৫০; হার্জ এসি মাধ্যমে ওভারহেড ক্যাটারারি[৩]
গড় গতিবেগ৩৩ কিমি/ঘ (২১ মা/ঘ)[২]
সর্বোচ্চ গতিবেগ৮০ কিমি/ঘ (৫০ মা/ঘ)[২]
ব্যবস্থার মানচিত্র

টেমপ্লেট:Mumbai Metro

মুম্বই মেট্রো হ'ল একটি দ্রুতগামী গণপরিবহন ব্যবস্থা, যা মহারাষ্ট্রের মুম্বাই শহর এবং বৃহত্তর মহানগর অঞ্চলে রেল পরিষেবা পরিবেশন করে। এই ব্যবস্থাটি শহরের যানজট নিরসন এবং ভিড় উপচে পড়া মুম্বাই শহরতলির রেল (সমান্তরালভাবে স্থানীয় ট্রেন নামে পরিচিত) নেটওয়ার্কের পরিপূরক হিসাবে তৈরি করা হয়েছে। এটি ১৫ বছরের সময়কালে তিনটি ধাপে নির্মিত হচ্ছে, ২০২৫ সালে সম্পূর্ণ সমাপ্তির প্রত্যাশা নিয়ে। এটি শেষ হলে মূল ব্যবস্থা বিস্তৃত আটটি উচ্চ-ক্ষমতার মেট্রো রেলপথ নিয়ে গঠিত হবে, যা ২৩৫ কিলোমিটার (১৪৬ মাইল) (২৪% ভূগর্ভস্থ, বাকিটি উত্তোলিত, একটি ভূমিগত অংশের সাথে নির্মিত) এবং ২০০ টি স্টেশন দ্বারা চালিত হবে।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

মুম্বই মহারাষ্ট্রের রাজধানী। এটি বিশ্বের বৃহত্তম শহরগুলির মধ্যে একটি, যেখানে ২০১১ সালের হিসাবে মহানগরী এলাকার মোট জনসংখ্যা দুই কোটিরও বেশি[৪] এবং জনসংখ্যা বৃদ্ধির হার বছরে প্রায় ২%।[৫] পাবলিক গণপরিবহন ব্যবস্থার পক্ষে মুম্বইয়ের জনগণের উচ্চমাত্রার (৮৮%) ভাগের সুবিধা রয়েছে। বিদ্যমান মুম্বই শহরতলির রেল প্রতিদিন ৭ মিলিয়নেরও বেশি যাত্রী বহন করে[৬] এবং বৃহন্নমুম্বই ইলেকট্রিক সাপ্লাই অ্যান্ড ট্রান্সপোর্ট (বেস্ট) বাস সিস্টেম দ্বারা সম্পূরণ করা করা হয়, যা স্টেশনগামী যাত্রীদের তাদের ভ্রমণ শেষ করার জন্য ফিডার পরিষেবা সরবরাহ করে। ১৯৮০-এর দশক পর্যন্ত মুম্বাইয়ের পরিবহন কোনও বড় সমস্যা ছিল না। ট্রামগুলি বন্ধ হওয়ার ফলে শহরতলির রেল নেটওয়ার্কের উপর যাত্রীদের চাপের সরাসরি বৃদ্ধি ঘটে। ২০১০ সালের মধ্যে মুম্বাইয়ের জনসংখ্যা দ্বিগুণ হয়ে যায়। তবে, শহরের ভৌগলিক প্রতিবন্ধকতা এবং দ্রুত জনসংখ্যা বৃদ্ধির কারণে, রাস্তা ও রেল অবকাঠামোগত উন্নয়ন গত ৪-৫ দশকে ক্রমবর্ধমান চাহিদার সাথে তাল মিলিয়ে রাখতে সক্ষম হয়নি।[৭] তদুপরি, মুম্বই শহরতলির রেল যদিও বিস্তৃত, দ্রুত ট্রানজিট বৈশিষ্ট্যের সাথে নির্মিত নয়। মুম্বাই মেট্রোর মূল লক্ষ্য হ'ল ১ থেকে ২ কিলোমিটারের দূরত্বে লোকের কাছে দ্রুত ট্রানজিট পরিষেবা প্রদান করা এবং বিদ্যমান শহরতলির রেল নেটওয়ার্কের সাথে সংযুক্ত না থাকা অঞ্চলগুলিতে পরিষেবা দেওয়া।

মূল মুম্বাই মেট্রো মহাপরিকল্পনা[৭]
পর্যায় লাইন করিডোরের নাম দৈর্ঘ্য (কিমি)
প্রথম পর্যায়
(২০০৬–২০১১)
ভারসোভা - আন্ধেরি – ঘটকোপার ১১.০৭
বান্দ্রা - কুরলা - মানখুরদ ১৩.৩৭
কোলাবা - বান্দ্রা - সিপজ ৩৮.২৪
দ্বিতীয় পর্যায়
(২০১১–২০১৬)
চারকোপ - দাহিসার ৭.৫
ঘাটকোপার - মুলুন্দ ১২.৪
তৃতীয় পর্যায়
(২০১৬–২০২১)
বিকেসি - বিমানবন্দর হয়ে কঞ্জুরমার্গ ১৯.৫
বান্দ্রা (ই) - দাহিসার (ই) ১৬.৫
হুতাত্মা চৌক – ঘটকোপার ২১.৮
সেভরি - প্রভাদেবী ৩.৫

এমএমআরডিএর মাধ্যমে মহারাষ্ট্র সরকার, মুম্বইয়ের পরিবহনের পরিস্থিতি উন্নত করতে এবং আগামী ২-৩ দশকের মধ্যে ভবিষ্যতের ভ্রমণের প্রয়োজনীয়তা পূরণের জন্য, বিভিন্ন বিকল্প গণপরিবহন ব্যবস্থার অনুসন্ধান শুরু করেছে, যা দক্ষ, অর্থনৈতিকভাবে টেকসই এবং পরিবেশ বান্ধব হবে। এই প্রসঙ্গে, ১৯৯৭-২০০০ সালে ইন্দো-জার্মান প্রযুক্তিগত সহযোগিতার অধীনে ডিই-কনসাল্ট এবং টিসিএস-এর সহযোগিতায় টিউইউইটি-র পরামর্শের কাজ অর্পণের মাধ্যমে একটি বিশদ সম্ভাব্যতা সমীক্ষা করা হয়। গবেষণায় বেশ কয়েকটি বিকল্প করিডোর এবং সারিবদ্ধতা পরীক্ষা করার পরে অন্ধেরি থেকে ঘাটকোপার পর্যন্ত একটি গণ ট্রানজিট করিডোরকে সম্ভাব্য ব্যাঙ্কযোগ্য এবং অর্থনৈতিকভাবে টেকসই হিসাবে সুপারিশ করা হয়। এই গবেষণাটি এমএমআরডিএ ২০০৪ সালের মে মাসে আপডেট করে। মিনহিলিওশন (ডিএমআরসি) মুম্বই মেট্রোর জন্য প্রধান পরিকল্পনা প্রস্তুত করে, যার মধ্যে তারা অন্ধেরি-ঘাটকোপার অংশটি ভার্সোয়া পর্যন্ত প্রধান পরিকল্পনার অংশ হিসাবে বাড়ানোর প্রস্তাব দিয়েছিল এবং এটি বাস্তবায়নের জন্য অগ্রাধিকার করিডোর হিসাবে চিহ্নিত করেছিল। রাজ্য সরকার প্রকল্পটিকে "জনসাধারণের গুরুত্বপূর্ণ অবকাঠামো প্রকল্প" হিসাবে ঘোষণা করে এবং এমএমআরডিএ'কে প্রকল্প বাস্তবায়ন সংস্থা (পিআইএ) হিসাবে মনোনীত করে।[৭] ২০০৪ সালে এমএমআরডিএ কর্তৃক প্রকাশিত প্রধান পরিকল্পনাটি মোট ১৪৬.৫ কিলোমিটার (৯১.০ মাইল) ট্র্যাক নিয়ে গঠিত, যার মধ্যে ৩২ কিলোমিটার (২০ মাইল) ভূগর্ভস্থ।[৮] মুম্বই মেট্রোটি আনুমানিক ₹১৯,৫২৫ কোটি ব্যয়ে তিন ধাপে নির্মাণের প্রস্তাব দেওয়া হয়।[৭] ২০০৯ সালের সেপ্টেম্বরে, প্রস্তাবিত হুতাত্মা চৌক এবং কার্নাকে বুন্দের মধ্যে একটি লাইন থেকে হুতাত্মা চৌক - ঘাটকোপার অংশ বাদ দেওয়া হয়।

২০১১ সালে এমএমআরডিএ বর্ধিত কোলাবা-বান্দ্রা-এসইপিজেড মেট্রো লাইনের পরিকল্পনা উন্মোচন করে। পূর্ববর্তী পরিকল্পনা অনুসারে, কোলাবা থেকে মহালক্ষ্মী পর্যন্ত ১০ কিলোমিটার (৬.২ মাইল) ভূগর্ভস্থ এবং পরে মহালক্ষ্মী থেকে বান্দ্রা পর্যন্ত একটি উত্তোলিত ট্র্যাকের উপর দিয়ে একটি ২০ কিলোমিটার দীর্ঘ কোলাবা থেকে বান্দ্রা মেট্রো লাইনটি তৈরি করা হবে। যাইহোক, এমএমআরডিএ সিদ্ধান্ত নিয়েছে বান্দ্রা পেরিয়ে ছত্রপতি শিবাজি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর হয়ে লাইনটি নির্মাণ করা হবে যাত্রী সংখ্যা বাড়ানোর জন্য। ৩৩.৫ কিলোমিটার (২০.৮ মাইল) কোলাবা-বান্দ্রা-এসইপিজেড লাইনটি ₹২১,০০০ কোটি ডলার (২.৯ বিলিয়ন মার্কিন ডলার) ব্যয় করে নির্মিত হবে[৯] এবং এটি হবে শহরের প্রথম ভূগর্ভস্থ মেট্রো লাইন। এই লাইনে ২৭ টি স্টেশন নির্মিত হচ্ছে।[১০]

রোলিং স্টক[সম্পাদনা]

মুম্বই মেট্রোর ট্রেন বহর সরবরাহের জন্য আরআইআইএল বেশ কয়েকটি বড় আন্তর্জাতিক রোলিং স্টক নির্মাতাদের সাথে পরামর্শ করে। চুক্তির জন্য দরদাতাদের মধ্যে কাওসাকী, অলস্টম, সিমেনস এবং বোম্বার্ডিয়ারের মতো প্রতিষ্ঠিত মেট্রো যানবাহন প্রস্তুতকারী অন্তর্ভুক্ত ছিল, তবে চীনের সিএসআর নানজিং চূড়ান্তভাবে ৬ বিলিয়ন টাকার বিনিময়ে রোলিং স্টক সরবরাহ করতে বেছে নেওয়া হয়।[১১][১২] ২০০৮ সালের মে মাসে, সিএসআর নানজিং চারটি গাড়ি বা কোচ যুক্ত প্রথম ১৬ টি ট্রেন সম্পন্ন করে।[১৩] জানুয়ারী ২০১৩ সালে প্রথম দশটি ট্রেন চলাচলের জন্য প্রস্তুত রয়েছে বলে জানা যায়।[১৪]

কোচগুলি অগ্নি প্রতিরোধকারী,[১৫] শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত এবং শব্দ এবং কম্পন হ্রাস করার জন্য নকাশা করা হয় এবং যাত্রীদের জন্য উচ্চ আসন ক্ষমতা ও দাঁড়িয়ে থাকা যাত্রীদের জন্য পর্যাপ্ত জায়গা উভয়ই থাকবে। এলসিডি স্ক্রিন, ৩ডি পথ মানচিত্র, প্রাথমিক চিকিৎসার যন্ত্রপাতি, হুইলচেয়ার সুবিধা, অগ্নিনির্বাপক সরঞ্জাম এবং ট্রেন চালকের সাথে যোগাযোগের অনুমতি দেওয়ার আন্তঃব্যবস্থা'সহ সুরক্ষা এবং সুবিধার্থে বেশ কয়েকটি বৈশিষ্ট্য থাকবে। প্রতিটি কোচ দুর্ঘটনা তদন্তে সহায়তা করার জন্য একটি ব্ল্যাক বাক্সও রয়েছে।[১৬] ট্রেনগুলি চার কোচ যুক্ত এবং ১,১০০ জন যাত্রী বহন করতে সক্ষম হবে, প্রতিটি গাড়ি প্রায় ২.৯ মিটার (৯.৫ ফুট) প্রশস্ত হবে।[১৭]

২০১৮ সালে, এমএমআরসিএল লাইন ৩ এর জন্য ৩১ টি গাড়ি ট্রেন সরবরাহ করাত্ব অলস্টমকে বেছে নিয়েছে। ট্রেনগুলি চালকবিহীন ভাবে পরিচালনায় করতে সক্ষম হবে এবং অন্ধ্র প্রদেশের শ্রী সিটির অলস্টমের কারখানায় নির্মিত হবে।[১৮][১৯]

২০১৮ সালে, এমএমআরডিএ লাইন ২ এবং ৭ এর জন্য ৩,০১৫ কোটি ($৪২৭.৩৩ মিলিয়ন) ব্যয়ে ৬৩ টি ট্রেন (৩8৮ কোচ) সরবরাহের জন্য ভারত আর্থ মুভার্স (বিইএমএল) কে একটি দরপত্র দিয়েছে। চালকবিহীন ভাবে পরিচালনায় সক্ষম, ট্রেনগুলি বেঙ্গালুরুর বিইএমএলের কারখানায় তৈরি করা হবে এবং ২০২০ থেকে ২০২২ সালের মধ্যে সরবরাহ করা হবে।[২০][২১]

সংকেত এবং যোগাযোগ[সম্পাদনা]

মুম্বই মেট্রোতে একটি উন্নত সংকেত ব্যবস্থা উপস্থিত থাকবে, যার মধ্যে একটি স্বয়ংক্রিয় ট্রেন সুরক্ষা ব্যবস্থা (এটিপিএস) এবং ১১ কিলোমিটার (৬.৮ মাইল) দীর্ঘ লাইন ১ এ ট্রেন চলাচল নিয়ন্ত্রণ করতে স্বয়ংক্রিয় সংকেত ব্যবস্থা ব্যবহৃত হয়। রুটে চার মিনিটের অন্তঃর পরিষেবা পরিচালিত হয়।[২]

প্রকল্পের জন্য প্রয়োজনীয় সংকেত ব্যবস্থা সরবরাহ করবে সিমেনস, আর থ্যালস গ্রুপ মেট্রোর যোগাযোগ ব্যবস্থা সরবরাহ করবে। নেটওয়ার্কের সংকেত এবং ট্রেন নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থা এলজেডবি ৭০০এম প্রযুক্তির উপর ভিত্তি করে তৈরি করা হবে।[২২]

যাত্রী[সম্পাদনা]

মে ২০১৮ সালে, লাইন ১ এর চতুর্থ বার্ষিকীর অল্প সময়ের মধ্যেই, এমএমওপিএল বলেছে যে লাইনটি প্রায় দৈনিক প্রায় ৩,৩৫,০০০ জন (৩.৩৫ লক্ষ) যাত্রী নিয়ে ৪০০ মিলিয়ন (৪০ কোটি) যাত্রী পরিবহন করেছে।[২৩]

আরো দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Mumbai's Metro ridership touches 3.8 lakh commuters a day mark - Times of India"The Times of India 
  2. "Mumbai Metro project"MMRDA। ১ জানুয়ারি ২০০৮। সংগ্রহের তারিখ ১ জানুয়ারি ২০১০ 
  3. "Overhead Metro wires to be charged"Hindustan Times। ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৪। ২৩ ডিসেম্বর ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৫ মার্চ ২০১৩ 
  4. United Nations Population Division - City Population ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ১০ মার্চ ২০০৭ তারিখে. Retrieved 5 October 2011.
  5. Average Annual Rate of Change ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ১০ মার্চ ২০০৭ তারিখে. United Nations Population Division. Retrieved 5 October 2011.
  6. Mumbai Suburban Railway Network. Western Railway – Indian Railways. Updated 9 April 2012. Retrieved 26 April 2012.
  7. "Mmrda – Projects – Mumbai Metro Rail Project"। Mmrdamumbai.org। ১৯ মার্চ ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১২ মার্চ ২০১৪ 
  8. "Metro Rail-I to be operational in Mumbai in 2012"The Economic Times। ৫ সেপ্টেম্বর ২০১১। সংগ্রহের তারিখ ২৪ অক্টোবর ২০১১ 
  9. "Development body in talks with CSIA". The Indian Express. 14 January 2012. Retrieved 16 January 2012.
  10. "Views on Colaba-Seepz underground metro sought". DNA India. 14 December 2011. Retrieved 30 December 2011.
  11. Mumbai's beautiful butterfly emerges. Railway Gazette. Retrieved on 6 December 2013.
  12. "Mumbai Metro One Project updates"। mumbai-metro.com। ১৮ নভেম্বর ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৫ আগস্ট ২০১০ 
  13. "Mumbai's beautiful butterfly emerges". Railway Gazette. 25 March 2010. Retrieved 24 October 2011.
  14. "Mumbai metro trains raring to run, but where are tracks?"। DNAIndia। ২৩ জানুয়ারি ২০১৩। সংগ্রহের তারিখ ৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৩ 
  15. "A Mumbai Metro train every three minutes". DNA India. 1 May 2013. Retrieved 7 July 2013.
  16. "Metro first line hinges on Andheri bridge". Times of India. 11 October 2011. Retrieved 18 October 2011.
  17. Katkurwar, Saurabh (২৬ ফেব্রুয়ারি ২০১২)। "CIDCO opts for wider metro coaches"MiD DAY। সংগ্রহের তারিখ ২৮ মার্চ ২০১২ 
  18. "Design And Make In India: Alstom Wins India's Largest Urban Rolling Stock Contract For Mumbai Metro"Swarajya। ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ২৩ অক্টোবর ২০১৮ 
  19. "#MakeInIndia: Mumbai's First Underground Metro Line Will Get Driverless Trains Manufactured Domestically"Swarajya (21 July 2018)। সংগ্রহের তারিখ ২৩ অক্টোবর ২০১৮ 
  20. "BEML receives order worth Rs 3015 crore for Mumbai Metro"Capital Market। Business Standard। ২৪ নভেম্বর ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ৩০ নভেম্বর ২০১৮ 
  21. "BEML secures $427.33m Mumbai metro car supply contract"। Railway Technology। ২৬ নভেম্বর ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ৩০ নভেম্বর ২০১৮ 
  22. "MMOPL awards contract to ABB, Siemens, SEW"। Projects Today। ৮ জানুয়ারি ২০০৮। সংগ্রহের তারিখ ১৫ জানুয়ারি ২০১০ 
  23. "Mumbai's Metro-1 crosses 40 crore ridership in almost four years"DNA। ১ মে ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ২৩ অক্টোবর ২০১৮ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]