দ্যা পাইওনিয়ার (ভারত)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
দ্যা পাইওনিয়ার
The Pioneer logo.jpg
দ্যা পাইওনিয়ার সংবাদপত্রের প্রচ্ছদ.jpg
ধরনদৈনিক সংবাদপত্র
ফরম্যাটব্রডশিট
মালিকসঞ্চর হোল্ডিংস[১] (৫৭ %)
আইডিবিআই ব্যাঙ্ক
আইসিআইসিআই ব্যাঙ্ক
রেইনবো প্রোডাকশনস
স্টারলিংক গ্রুপ,চেন্নাই
প্রকাশকসিএমওয়াইকে প্রিন্টেক লিমিটেড
প্রধান সম্পাদকচন্দন মিত্র
প্রতিষ্ঠাকাল১৮৬৫ (প্রতিষ্ঠা: ১৮৬৪)
ভাষাইংরেজি এবং হিন্দি
দাপ্তরিক ওয়েবসাইটwww.dailypioneer.com

দ্যা পাইওনিয়ার ভারতের একটি ইংরেজি দৈনিক। এটি দিল্লিসহ ভারতের বিভিন্ন জায়গা থেকে প্রকাশিত হয়ে থাকে। বর্তমানে প্রচলিত পত্রিকাগুলোর মধ্যে টাইমস অফ ইন্ডিয়ার পরে এটিই ভারতের দ্বিতীয় প্রবীণ ইংরেজি দৈনিক পত্রিকা।[২] ২০১০ সালে দ্যা পাইওনিয়ার লকনৌতে তাদের হিন্দি সংস্করণ প্রকাশ শুরু করে।[৩]

ইতিহাস[সম্পাদনা]

আলফ্রেড পার্সি সিনেট (১৮৭৪)

জর্জ অ্যালেন নামক একজন ব্রিটিশ চা ব্যবসায়ী উত্তর-পূর্ব ভারতে চা ব্যবসায় প্রভূত সম্পদ অর্জনের পর ১৮৬৫ সালে দ্যা পাইওনিয়ার পত্রিকা প্রবর্তন করেন।[৪]

১৮৬৫ থেকে ১৮৬৯ সাল পর্যন্ত পত্রিকাটি সপ্তাহে তিনবার করে ছাপা হতো। পরবর্তীতে এটি দৈনিক পত্রিকায় পরিণত হয়।[৫] ১৮৮৬ সালে "পাইওনিয়ার মেইল" নামে আটপেজি কাগজের একটি বিজ্ঞাপনসমৃদ্ধ ক্রোড়পত্র পত্রিকার সাথে যুক্ত হয়।[৪]

১৮৭২ এ আলফ্রেড পার্সি সিনেট পত্রিকাটির সম্পাদকের দায়িত্ব পান। পরবর্তীকালে তিনি ধর্মতত্ত্বে তার আগ্রহের জন্য পরিচিত হয়েছিলেন। তিনিই মূলত ব্রিটিশ ভারতের অন্যতম প্রভাবশালী পত্রিকা হয়ে ওঠার যাত্রায় দ্যা পাইওনিয়ারকে নেতৃত্ব দেন।[৪]

১৮৭৪ সালে সাপ্তাহিক পাইওনিয়ার মেইল পাইওনিয়ার মেইল অ্যান্ড ইন্ডিয়া উইকলি নিউজ-এ পরিণত হয় এবং ছোট গল্প, ভ্রমণকাহিনীও এখানে ছাপা হতে থাকে।[৫] ১৮৮৭র নভেম্বর থেকে ১৮৮৯ এর মার্চ পর্যন্ত লেখক রুডিয়ার্ড কিপলিং (১৮৭৬–১৯৩৬) তরুণ বয়সে এই পত্রিকার এলাহাবাদ অফিসে সহকারী সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেছিলেন।[৬][যাচাইকরণ ব্যর্থ হয়েছে] ১৯৩৩ সালের জুলাইয়ে দ্যা পাইওনিয়ার একটি সিন্ডিকেটের হাতে বিক্রি হয়ে যায়[৭] এবং এলাহাবাদ থেকে উত্তর প্রদেশের লকনৌতে স্থানান্তরিত হয়। সে সময়ে পাইওনিয়ার মেইল অ্যান্ড ইন্ডিয়া উইকলি নিউজ প্রকাশনা-সংকটে পরে।[৫]

১৯৯০ এর আগ অবধি পত্রিকাটি প্রাথমিকভাবে লকনৌ-কেন্দ্রিক পত্রিকা হিসেবেই সীমাবদ্ধ থাকে। ১৯৯০র পর ব্যবসায়ী এলএম থাপরের থাপর গ্রুপ পত্রিকাটির মালিকানা কিনে নেয় এবং একে একটি জাতীয় পত্রিকায় রূপান্তরিত করে। তখন থেকেই পত্রিকাটি দিল্লি, লকনৌ, ভুবনেশ্বর, কোচি, ভূপাল, চণ্ডীগড়, দেরাদুন এবং রাঁচি থেকে প্রকাশিত হতে থাকে। ১৯৯৮ সালে থাপর পত্রিকাটির অন্যতম সম্পাদক চন্দন মিত্রের কাছে পত্রিকাটির মালিকানা বিক্রি করে দেন। সেসময় এর কর্মীসংখ্যা ছিলো ৪৮৪। মিত্র নিজে এর সত্বাধিকারী থাকতে চান নি, তিনি তখন অনুকূল বিনিয়োগকারীর সন্ধান করতে থাকেন।[৮]

২০১০ সালের ১৭ অক্টোবর দ্যা পাইওনিয়ার লকনৌতে তাদের হিন্দি সংস্করণ প্রকাশ শুরু করে[৩] এবং ২০১২ সালের মে মাসে ছত্তিশগড় সংস্করণের জন্য পত্রিকাটি রায়পুরে তাদের অফিস স্থাপন করে।[৯]

২০১৩ সাল থেকে চন্দন মিত্র দ্যা পাইওনিয়ারের প্রধান সম্পাদক নিযুক্ত আছেন।

সংস্করণ[সম্পাদনা]

  • দিল্লি
  • লকনৌ
  • ভূপাল
  • ভুবনেশ্বর
  • চণ্ডীগড়
  • রাইপুর
  • দেরাদুন
  • রাঁচি
  • তেলেঙ্গানা
  • মিরাট

লকনৌ সংস্করণের চারটি উপ-সংস্করণ রয়েছে–বারাণসী, কানপুর, এলাহাবাদ এবং মূল লকনৌ।

কলাম-লেখক[সম্পাদনা]

কার্টুনশিল্পী[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Sumantha Rathore (১৫ সেপ্টেম্বর ২০১১)। "Ownership of Pioneer Group reorganised"afaqs.com। সংগ্রহের তারিখ ২৩ এপ্রিল ২০২০Sanchar Holdings, the new entity formed by Chandan Mitra, Durbar Ganguly and Amit Goel, will hold a 57 per cent stake in The Pioneer Group. 
  2. Robert Jackson Baumgardner (১৯৯৬)। South Asian English: Structure, Use, and Users। University of Illinois Press। পৃষ্ঠা 14–। আইএসবিএন 978-0-252-06493-7। সংগ্রহের তারিখ ৭ ডিসেম্বর ২০১৭ 
  3. Pioneer launches Hindi edition in Lucknow, The Pioneer
  4. Das Gupta, Uma. 1977. "The Indian Press 1870-1880: A Small World of Journalism", Modern Asian Studies, 11(2):213-235. pp 233-234.
  5. National Library of Australia. 1994. South Asian Newspapers in Australian Libraries: A Holdings List
  6. The proprietors of The Pioneer also owned a smaller newspaper, The Civil and Military Gazette, published from Lahore, at which Kipling had worked from 1883 to 1887, and which had served to launch his career as an author.
  7. "When, at long last, the Pioneer—India’s greatest and most important paper which used to pay twenty-seven per cent to its shareholders—fell on evil days and, after being bedevilled and bewitched, was sold to a syndicate, and I received a notification beginning; ‘We think you may be interested to know that,’ etc., I felt curiously alone and unsponsored. But my first mistress and most true love, the little Civil and Military Gazette, weathered the storm." From: Kipling, Rudyard. 1937. Something of Myself ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ১৮ মে ২০০৮ তারিখে, Chapter III (Seven Years' Hard). Available (public domain) at Words: University of Newcastle, Australia ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ১০ জুলাই ২০০৭ তারিখে.
  8. Editor steps in to save The Pioneer[স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ], The Times Of India, 12 May 1998.
  9. Pioneer, The। "Advani launches Pioneer Raipur"। সংগ্রহের তারিখ ৭ মে ২০১২