থিবো কোর্তোয়া

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
থিবো কোর্তোয়া
Courtois 2018 (cropped).jpg
২০১৮ সালে থিবো কোর্তোয়া
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নাম থিবো নিকোলাস মার্ক কোর্তোয়া[১]
জন্ম (1992-05-11) ১১ মে ১৯৯২ (বয়স ২৭)
জন্ম স্থান ব্রী, বেলজিয়াম
উচ্চতা ১.৯৯ মি (৬ ফু ৬ ইঞ্চি)[২]
মাঠে অবস্থান গোলরক্ষক
ক্লাবের তথ্য
বর্তমান ক্লাব রিয়াল মাদ্রিদ
জার্সি নম্বর ১৩
যুব পর্যায়ের খেলোয়াড়ী জীবন
১৯৯৭–১৯৯৯ বিলজেন ভি.ভি.
১৯৯৯–২০০৯ শেঙ্ক
জ্যেষ্ঠ পর্যায়ের খেলোয়াড়ী জীবন*
বছর দল উপস্থিতি (গোল)
২০০৯–২০১১ শেঙ্ক ৪১ (০)
২০১১– চেলসি ১২৬ (০)
২০১১–২০১৪আতলেতিকো মাদ্রিদ (ধার) ১১১ (০)
২০১৮ রিয়াল মাদ্রিদ ০১ (০)
জাতীয় দল
২০০৯–২০১০ বেলজিয়াম অনূর্ধ্ব-১৮ (০)
২০১১– বেলজিয়াম ৬৫ (০)
  • পেশাদারী ক্লাবের উপস্থিতি ও গোলসংখ্যা শুধুমাত্র ঘরোয়া লিগের জন্য গণনা করা হয়েছে এবং ৩১ জুন ২০১৮ তারিখ অনুযায়ী সঠিক।

† উপস্থিতি(গোল সংখ্যা)।

‡ জাতীয় দলের হয়ে খেলার সংখ্যা এবং গোল ১৫ জুলাই ২০১৮ তারিখ অনুযায়ী সঠিক।

থিবো নিকোলাস মার্ক কোর্তোয়া (ওলন্দাজ: [tiˈboː kuːrˈtʋaː]; ফরাসি : [tibo kuʁtwa]; জন্ম: ১১ মে ১৯৯২) হলেন বেলজিয়ামের একজন পেশাদার ফুটবলার, যিনি স্পেনীয় লিগ লা লিগা এর ক্লাব রিয়াল মাদ্রিদ এবং বেলজিয়াম জাতীয় দলে একজন গোলরক্ষক হিসেবে খেলেন।

কোর্তোয়া শেঙ্কের যুব পর্যায় থেকে স্নাতক সম্পন্ন করেছেন এবং মাত্র ১৮ বছর বয়সে, তিনি বেলজীয় প্রো লীগ জয়ে দলের জন্য গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখেন। ২০১১ সালের জুলাই মাসে, তিনি চেলসিতে ৮ মিলিয়ন ইউরোর বিনিময়ে যোগদান করেন, এবং অবিলম্বে তিনি স্পেনীয় ক্লাব আতলেতিকো মাদ্রিদে ধারে চলে যান। আতলেতিকো মাদ্রিদে তিনি তিন মৌসুম অতিবাহিত করেন, যেখানে তিনি ২০১২ সালে উয়েফা ইউরোপা লীগ, ২০১৩ সালে কোপা দেল রে এবং ২০১৪ সালে লা লিগা জয়লাভ করতে সমর্থ হন। একই সাথে তিনি অসাধারণ খেলার মাধ্যমে লা লিগার সেরা গোলরক্ষকের পুরষ্কার রিকার্ডো জামোরা ট্রফি জয়লাভ করেন। ২০১৪ সালের জুলাই মাসে, কোর্তোয়া চেলসিতে ফিরে আসেন, এবং তার প্রথম মউসুমেই তিনি ফুটবল লীগ কাপ এবং প্রিমিয়ার লীগ জয়লাভ করেন।

কোর্তোয়া আন্তর্জাতিক পর্যায়ে বেলজিয়াম জাতীয় দলের হয়ে ২০১১ সালের অক্টোবর মাসে অভিষেক করেন, তখন তিনি বেলজিয়ামকে প্রতিনিধিত্ব করা সর্বকনিষ্ঠ গোলরক্ষকে পরিণত হন। তিনি এপর্যন্ত প্রায় ৫০-এর অধিক ম্যাচ খেলেছেন। তিনি ২০১৪, ২০১৮ ফিফা বিশ্বকাপে এবং ২০১৬ উয়েফা ইউরোয় বেলজিয়ামের প্রতিনিধিত্ব করেছেন। তিনি ২০১৮ ফিফা বিশ্বকাপ সেরা গোলরক্ষক হিসেবে গোল্ডেন গ্লাভস জয় করেন।

ক্লাব ক্যারিয়ার[সম্পাদনা]

শেঙ্ক[সম্পাদনা]

২০১০-২০১১ সালে তিনি শেঙ্ক করে থাকেন।

চেলসি[সম্পাদনা]

২০১১ সালে কর্তোয়া প্রমিয়ার লিগ ক্লাব চেলচিতে ৯ মিলিয়ন ইউরোতে ৫ বছরের জন্য চুক্তিবদ্ধ হন।

আতলেতিকো মাদ্রিদ[সম্পাদনা]

২০১১ সালে ১৫ আগস্ট উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের খেলার মাধ্যমে আতলেতিকো মাদ্রিদের হয়ে খেলা শুরু করেন। ২৬ নভেম্বর কর্তোয়া প্রথম তার ক্যারিয়ারের লাল কার্ড দেখেন রিয়াল মাদ্রিদ এর ফরোয়ার্ড করিম বেনজামা কে ফাউল করার জন্যে।

পুনরায় চেলসি[সম্পাদনা]

২০১৪ সাল থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত খেলে থাকেন।

রিয়াল মাদ্রিদ[সম্পাদনা]

৮ আগস্ট ২০১৮ সালে তিনি রিয়াল মাদ্রিদের সাথে ছয় বছরের চুক্তি করেন ।

ক্যারিয়ার পরিসংখ্যান[সম্পাদনা]

আন্তর্জাতিক[সম্পাদনা]

১০ নভেম্বর ২০১৭ পর্যন্ত হালনাগাদকৃত।[৩][৪]
বেলজিয়াম
সাল উপস্থিতি গোল
২০১১
২০১২
২০১৩
২০১৪ ১৩
২০১৫
২০১৬ ১৪
২০১৭
সর্বমোট ৫৪

সম্মাননা[সম্পাদনা]

শেঙ্ক[৫]

আতলেতিকো মাদ্রিদ[৫]

চেলসি[৫]

ব্যক্তিগত

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Acta del Partido celebrado el 28 de agosto de 2011, en Madrid – Atlético Madrid vs Osasuna; RFEF, 28 August 2011 (স্পেনীয়)
  2. "Player Profile: Thibaut Courtois"। Chelsea F.C.। 
  3. National-Football-Teams.com-এ Thibaut Courtois (ইংরেজি)
  4. "Thibaut Courtois – national football team player"। eu-football.info। 
  5. থিবো কোর্তোয়া প্রোফাইল সকারওয়েতে
  6. "Thibaut Courtois: Overview"। Premier League। সংগ্রহের তারিখ ১৬ এপ্রিল ২০১৮ 
  7. "Ivan Perisic is Profvoetballer van het Jaar" (Dutch ভাষায়)। Het Nieuwsblad। ২২ মে ২০১১। সংগ্রহের তারিখ ১ মে ২০১৪ 
  8. "Thibaut Courtois beste Belg in buitenland"Het Laatste Nieuws (Dutch ভাষায়)। ২১ জানুয়ারি ২০১৪। সংগ্রহের তারিখ ৩০ এপ্রিল ২০১৪ 
  9. "Anderlecht's Praet is Belgium's best"। UEFA। ১৪ জানুয়ারি ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ১৪ জানুয়ারি ২০১৫ 
  10. "FIFA FIFPro World XI: the reserve teams – FIFPro World Players' Union"। FIFPro.org। ১৫ জানুয়ারি ২০১৫। ১৪ এপ্রিল ২০১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১ অক্টোবর ২০১৭ 
  11. "London Football Awards:" 
  12. "Rode Duivels zijn grote slokop op Sportgala" (Dutch ভাষায়)। Sporza। ১৪ ডিসেম্বর ২০১৪। ১৪ ডিসেম্বর ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৪ ডিসেম্বর ২০১৪ 
  13. "Chelsea goalkeeper Thibaut Courtois wins Premier League Golden Glove award - Goal.com" 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]