তমা মোনিয়ে

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
তমা মোনিয়ে
Thomas Meunier (17 juli 2012) (4).JPG
ব্যক্তিগত তথ্য
জন্ম (১৯৯১-০৯-১২) ১২ সেপ্টেম্বর ১৯৯১ (বয়স ২৭)[১]
জন্ম স্থান সেন্তে-ওদে, বেলজিয়াম
উচ্চতা ১.৯০ মিটার (৬ ফুট ৩ ইঞ্চি)
মাঠে অবস্থান রাইট ব্যাক
ক্লাবের তথ্য
বর্তমান ক্লাব প্যারিস সেন্ট জার্মেই
জার্সি নম্বর ১২
যুব পর্যায়ের খেলোয়াড়ী জীবন
১৯৯৬–২০০২ আরইউএস সেন্তে-ওদে
২০০২–২০০৪ আরইউএস জিব্রি
২০০৪–২০০৬ স্ট্যান্ডার্ড লিয়েজ
২০০৬–২০০৯ ভির্টোন
জ্যেষ্ঠ পর্যায়ের খেলোয়াড়ী জীবন*
বছর দল উপস্থিতি (গোল)
২০০৯–২০১১ ভির্টোন ৪৯ (১৫)
২০১১–২০১৬ ক্লাব ব্রুহে ১৪৯ (১৪)
২০১৬– প্যারিস সেন্ট জার্মেই ৪০ (৫)
জাতীয় দল
২০০৬ বেলজিয়াম অনূর্ধ্ব-১৫ (০)
২০১১–২০১২ বেলজিয়াম অনূর্ধ্ব-২১ (১)
২০১৩– বেলজিয়াম ৩০ (৬)
  • পেশাদারী ক্লাবের উপস্থিতি ও গোলসংখ্যা শুধুমাত্র ঘরোয়া লিগের জন্য গণনা করা হয়েছে এবং ১৮ মার্চ ২০১৮ তারিখ অনুযায়ী সঠিক।

† উপস্থিতি(গোল সংখ্যা)।

‡ জাতীয় দলের হয়ে খেলার সংখ্যা এবং গোল ১৪ই জুলাই ২০১৮ তারিখ অনুযায়ী সঠিক।

তমা মোনিয়ে (ফরাসি উচ্চারণ: ​[tɔ.mɑ mø.nje]; জন্ম: ১২ সেপ্টেম্বর ১৯৯১) হলেন বেলজিয়ামের একজন পেশাদার ফুটবলার, যিনি লীগ ১-এর ক্লাব প্যারিস সেন্ট জার্মেই এবং বেলজিয়াম জাতীয় দলে একজন রাইট ব্যাক হিসেবে খেলেন।

আন্তর্জাতিক পর্যায়ে ২০১৩ সালের নভেম্বরে কলম্বিয়ার বিপক্ষে তার অভিষেক হয়। তিনি বেলজিয়ামের হয়ে উয়েফা ইউরো ২০১৬ এবং ২০১৮ ফিফা বিশ্বকাপে অংশগ্রহণ করেন।

ক্লাব কর্মজীবন[সম্পাদনা]

ভির্টোন[সম্পাদনা]

মোনিয়ে বেলজিয়ামের সেন্তে-ওদে-এ জন্মগ্রহণ করেন। মোনিয়ে যুব পর্যায় থেকেই খেলা শুরু করেন, তিনি প্রথমে আরইউএস সেন্তে-ওদের হয়ে খেলেছেন। পরবর্তীতে আরইউএস জিব্রি এবং স্ট্যান্ডার্ড লিয়েজের ক্লাবে খেলেছেন। তিনি স্ট্যান্ডার্ড লিয়েজে ২ মৌসুম খেলেছেন। কিন্তু ২০০৬ সালে, ইনজুরির কারণে তিনি ক্লাবটি ছেড়ে দেন।[২] স্ট্যান্ডার্ড লিয়েজ ছেড়ে তিনি ভির্টোনে যোগদান করেন। সেসময় ভির্টোনের প্রথম দল বেলজীয় তৃতীয় বিভাগ খেলত। পরবর্তীতে মুনিয়ের ভির্টোনের প্রথম দলের হয়ে খেলার মাধ্যমে জ্যেষ্ঠ পর্যায়ে অভিষেক করেন।[৩]

২০০৯ সালের প্রথমার্ধে, ভির্টোনের প্রথম দলের হয়ে মোনিয়ে পেশাদার ফুটবল খেলা শুরু করেন। তিনি ২০০৯–১০ থেকে ২০১০–১১ মৌসুম পর্যন্ত ভির্টোনের প্রথম একাদশের খেলোয়াড় ছিলেন। ২০০৯ থেকে ২০১১ পর্যন্ত, মুনিয়ের সর্বমোট ৫২টি ম্যাচে অংশগ্রহণ করেছেন এবং ১৬টি গোল করেছেন।

ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

ফুটবল ক্যারিয়ারের প্রথম দিকে, মোনিয়ে স্বয়ংক্রিয় যন্ত্রাংশের একটি কারখানায় কাজ করতেন এবং তার স্কুল সম্পন্ন হওয়ার পর তিনি ডিপ্লোমা গ্রহন করেন। ফুটবলের বাইরে, তিনি হচ্ছেন চারু ও কারুশিল্পের একজন ভক্ত।[৪] তার শৈশবে তিনি আন্ডারলেচের ভক্ত ছিলেন।[৫]

সম্মাননা[সম্পাদনা]

ক্লাব ব্রুহে

প্যারিস সেন্ট জার্মেই

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Thomas Meunier" 
  2. ""J'en suis là… grâce à mon renvoi du Standard Liege !"" (Dutch ভাষায়)। DHnet। ৯ নভেম্বর ২০১৩। সংগ্রহের তারিখ ১৭ নভেম্বর ২০১৭ 
  3. "Revelatie Thomas Meunier verkoos Brugge boven Luik" (Dutch ভাষায়)। Nieuwsblad। ৫ নভেম্বর ২০১১। সংগ্রহের তারিখ ১৭ নভেম্বর ২০১৭ 
  4. "'Dalí is geweldig'" (Dutch ভাষায়)। De Standaard (subscription required)। ২৬ ডিসেম্বর ২০১১। সংগ্রহের তারিখ ১৭ নভেম্বর ২০১৭ 
  5. "Meunier: 'Ik ben eigenlijk supporter van Anderlecht'" (Dutch ভাষায়)। Nieuwsblad। ২১ জানুয়ারি ২০১১। সংগ্রহের তারিখ ১৭ নভেম্বর ২০১৭ 
  6. "PSG clinch Ligue 1 title by thrashing Monaco" 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

টেমপ্লেট:বেলজিয়াম দল ২০১৬ উয়েফা ইউরো