গতিমান এক্সপ্রেস

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
গতিমান এক্সপ্রেস
Gatimaan express.jpg
একটি ডাবলিউএপি-৫ (উচ্চ গতি বৈদ্যুতিক ইঞ্জিন) দ্বারা টানা গতিমান এক্সপ্রেস
সংক্ষিপ্ত বিবরণ
অবস্থাকাজ করছে
প্রথম পরিষেবা৫ এপ্রিল ২০১৬; ৪ বছর আগে (2016-04-05) (উদ্বোধনী দৌড়)
১ এপ্রিল ২০১৮; ২ বছর আগে (2018-04-01) ( ঝাঁসি জংশন পর্যন্ত প্রসারিত)
বর্তমান পরিচালকভারতীয় রেল
ওয়েবসাইটhttp://indianrail.gov.in
যাত্রাপথ
শুরুহজরত নিজামুদ্দিন
বিরতিআগ্রাগোয়ালিয়র
শেষঝাঁসি
ভ্রমণ দূরত্ব৪০৩ কিমি (২৫০ মা)
যাত্রার গড় সময়৪ ঘণ্টা ২৫ মিনিট
পরিষেবার হারশুক্রবার বাদে সবদিন
রেল নং১২০৪৯[১] / ১২০৫০[২]
যাত্রাপথের সেবা
শ্রেণীবাতানুকুল চেয়ার কার
এক্সিকিউটিভ চেয়ার কার
আসন বিন্যাসহ্যাঁ
ঘুমানোর ব্যবস্থানা
খাদ্য সুবিধাচলন্ত ট্রেনে খাদ্যাদি পরিবেশন
পর্যবেক্ষণ সুবিধাসমস্ত গাড়িতে বড় জানালা
মালপত্রের সুবিধামাথার ওপর তাক
অন্যান্য সুবিধাধূমপান বিপদঘণ্টা
যাত্রী তথ্য প্রণালী
কারিগরি
গাড়িসম্ভারএলএইচবি (লিংক হফম্যান বুশ) কামরা
ট্র্যাক গেজভারতীয় গেজ
১৬৭৬মিমি
বৈদ্যুতীকরণহ্যাঁ
পরিচালন গতিসর্বোচ্চ: ১৬০ কিমি/ঘ (৯৯ মা/ঘ)
গড়: ৯৫.৫ কিমি/ঘ (৫৯ মা/ঘ)
ট্র্যাকের মালিকভারতীয় রেল

গতিমান এক্সপ্রেস হল ভারতের প্রথম 'মধ্যম গতির রেল' বা 'সেমি হাই-স্পিড রেল'। এটি দিল্লি এবং ঝাঁসির মধ্যে চলে। এর সর্বোচ্চগতি ১৬০ কিমি/ঘ (৯৯ মা/ঘ) এবং বর্তমানে ভারতে ট্রেন ১৮ এবং টালগো ট্রেনসেট সহ ডাব্লুডিপি ৪ ২০০৯৯ 'আরাবল্লী' র পরে দ্রুততম ট্রেন।[৩][৪][৫] ট্রেনটি, ১লা এপ্রিল ২০১৮ থেকে, হজরত নিজামউদ্দিন থেকে ঝাঁসি জংশন রেলস্টেশন পর্যন্ত ৪০৩ কিমি (২৫০ মা) যাত্রা করতে ২৬৫ মিনিট সময় নেয়। এর গড় গতিবেগ ৯৫.৫ কিমি/ঘ (৫৯.৩ মা/ঘ)।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

অক্টোবর ২০১৪ সালে, এই রেলপথ পরিষেবাটি শুরু করার জন্য ভারতীয় রেল রেলওয়ে সুরক্ষা কমিশনের কাছে সুরক্ষা শংসাপত্রের জন্য আবেদন করেছিল।[৬]

২০১৫ সালের জুনে, ট্রেনটির কথা আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা করা হয়েছিল। ট্রেনটি ৫ই এপ্রিল ২০১৬ সালে চালু হয়েছিল এবং নিজামউদ্দিন ও আগ্রা ক্যান্টনমেন্টের মধ্যে যাত্রাপথটি ১০০ মিনিটের মধ্যে শেষ করে।[৭][৮]

ট্রেন সম্বন্ধীয় তথ্য[সম্পাদনা]

এই ট্রেনে লোকোমোটিভ ডাবলিউএপি-৫ ইঞ্জিন ব্যবহৃত হয়। গাজিয়াবাদ (জিজেডবি) ইলেকট্রিক লোকোমোটিভ শেড থেকে তিনটি সুনির্দিষ্ট ডাবলিউএপি-৫ লোকোমোটিভ ৩০০০৭, ৩০০২০, ৩০০৮৬ ইঞ্জিন এই ট্রেনটিকে উভয় যাত্রাপথেই টেনে নিয়ে যায়। সমস্ত কামরাই এলএইচবি কামরা। এই ট্রেনে ১২টি কামরা রয়েছে এবং দুটি মালপত্র সহ জেনারেটর ভ্যান আছে, যেদুটিকে এন্ড - অন - জেনারেটর ভ্যান (ইওজি) বলা হয়। ৮ টি কামরা বাতানুকুল চেয়ার কার এবং বাকি ২ টি কামরা বাতানুকুল এক্সিকিউটিভ চেয়ার কার। ট্রেনটি শতাব্দী এক্সপ্রেসে ব্যবহৃত প্রায় একই রকম তকমা ব্যবহার করে, অতিরিক্ত থাকে একটি হলুদ রঙের পটি।

ইঞ্জিন ১০ ১১ ১২
BSicon LDER.svg ইওজি সি১ সি২ সি৩ সি৪ ই১ ই২ সি৫ সি৬ সি৭ সি৮ ইওজি

গমনপথ[সম্পাদনা]

গতিমান এক্সপ্রেস
# স্টেশন কোড গড় গতিবেগ মণ্ডল অবস্থান
1 হজরত নিজামুদ্দিন এনজেডেম ১৫০ কিমি/ঘণ্টা এনআর দিল্লি
2 আগ্রা ক্যান্টনমেন্ট এজিসি ১০০ কিমি/ঘণ্টা এনসিআর আগ্রা, উত্তরপ্রদেশ
3 গোয়ালিয়র জংশন জিডাবলিউএল ৮০ কিমি/ঘণ্টা গোয়ালিয়র, মধ্যপ্রদেশ
4 ঝাঁসি জেএইচএস ৮০ কিমি/ঘণ্টা ঝাঁসি, উত্তরপ্রদেশ

পুরো গমনপথটি বিদ্যুতায়িত হওয়ায়, গাজিয়াবাদ (জিজেডবি) ইলেকট্রিক লোকোমোটিভ শেড থেকে তিনটি সুনির্দিষ্ট ডাবলিউএপি-৫ লোকোমোটিভ ৩০০০৭, ৩০০২০, ৩০০৮৬ ইঞ্জিন এই ট্রেনটিকে উভয় যাত্রাপথেই টেনে নিয়ে যায়।

পরিষেবা সমূহ[সম্পাদনা]

ট্রেনটিতে ২ টি বাতানুকুল এক্সিকিউটিভ চেয়ার কার কামরা এবং ৮ টি বাতানুকুল চেয়ার কার কামরা রয়েছে। ট্রেনটিতে বায়ো-টয়লেট, অগ্নি বিপদ ঘণ্টা, জিপিএস - ভিত্তিক যাত্রী তথ্য ব্যবস্থা এবং স্লাইডিং দরজা আছে। ট্রেনটিতে পরিষেবার জন্য, বিমান সংস্থাগুলির মতো, ট্রেনের হোস্টেস রয়েছে, এবং যাত্রীরা বিনামূল্যে ওয়াই-ফাই এবং মাল্টিমিডিয়া ব্যবহার করতে পারে। উত্তর ভারতীয় এবং দক্ষিণ ভারতীয় রন্ধনপ্রণালীতে নিরামিষ এবং আমিষ উভয়ই খাবার পাওয়া যায়।

সময়তালিকা[সম্পাদনা]

গতিমান এক্সপ্রেস (ট্রেন নং - ১২০৫০), গড়ে, তার নির্ধারিত সময়ের চেয়ে ২ মিনিট আগে ঝাঁসি রেলস্টেশনে পৌঁছে যায়। ট্রেনটি হজরত নিজামউদ্দিন থেকে সকাল ৮টা ১০মিনিটে আইএসটি ছেড়ে আগ্রা ক্যান্টনমেন্টে থামে সকাল ৯টা ৫০মিনিট নাগাদ এবং সকাল ৯ টা ৫৫ মিনিটে আগ্রা থেকে রওনা হয়ে সকাল সোয়া ১১ টা নাগাদ গোয়ালিয়রে পৌঁছায়। এটি ২ মিনিটের জন্য গোয়ালিয়রে থামে এবং তারপরে ঝাঁসির দিকে যাত্রা শুরু করে ঝাঁসিতে পৌঁছয় ১২টা ৩৫ মিনিটে (আইএসটি)।

ফেরার সময়, ১২০৪৯ গতিমান এক্সপ্রেস ঝাঁসি থেকে ছেড়ে যায় দুপুর ৩টে ০৫মিনিটে এবং ১ ঘণ্টার মধ্যে অর্থাৎ, ৪টে ০৫মিনিটে গোয়ালিয়রে পৌঁছয়। ২ মিনিট নির্ধারিত থামার পরে এটি আগ্রা ক্যান্টনমেন্টে পৌঁছে যায় বিকেল ৫ টা ৪৫ মিনিটে এবং সন্ধ্যা ৫টা ৫০মিনিটে যাত্রা শুরু করে এটি হজরত নিজামমুদ্দিন পৌঁছে যায় সন্ধ্যা সাড়ে সাত টায়।

জিজেডবি ডাবলিউএপি-৫

২০১৭ সালে ১২০৫০ গতিমান এক্সপ্রেসের গড় বিলম্ব ছিল ২৭ মিনিট। [৯]

কামরাগুলি[সম্পাদনা]

গতিমান এক্সপ্রেস মোট ১০টি কামরা রয়েছে। এর মধ্যে দুটি হল এক্সিকিউটিভ বাতানুকুল চেয়ার কার এবং বাকি আটটি বাতানুকুল চেয়ার কার।[১০]

লোকো যোগাযোগ[সম্পাদনা]

গাতিমান এক্সপ্রেসকে, নিয়মিতভাবে, বৈদ্যুতিক লোকোমোটিভ ডব্লিউএপি -৫ ইঞ্জিন টেনে নিয়ে যায়। গাজিয়াবাদ (জিজেডবি) ইলেকট্রিক লোকোমোটিভ শেড থেকে তিনটি সুনির্দিষ্ট ডাবলিউএপি-৫ লোকোমোটিভ ৩০০০৭, ৩০০২০, ৩০০৮৬ ইঞ্জিন এই ট্রেনটিকে উভয় যাত্রাপথেই টেনে নিয়ে যায়। লোকোমোটিভগুলি টিপিডাব্লুএস (ট্রেন সুরক্ষা এবং সতর্কতা ব্যবস্থা) দিয়ে সজ্জিত।

আরো দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "12049 Schedule / Time Table"। railenquiry.in। সংগ্রহের তারিখ ১৬ মার্চ ২০১৭ 
  2. "12050 Schedule / Time Table"। railenquiry.in। সংগ্রহের তারিখ ১৬ মার্চ ২০১৭ 
  3. "Train to be named Gatimaan Express"The Hindu। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-০৪-০৫ 
  4. "Delhi-Agra semi-high speed train to be named Gatimaan Express"Zee News। সংগ্রহের তারিখ ৫ এপ্রিল ২০১৬ 
  5. "Delhi To Agra In 100 Minutes: Gatimaan Express hits tracks next week"Indian Express। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-০৪-০৫ 
  6. "Delhi-Agra semi-high speed train to be named Gatimaan Express"India Today। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-০৪-০৫ 
  7. "Gatimaan Express, India's Fastest Train, To Debut On Tuesday"NDTV। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-০৪-০৫ 
  8. "Gatimaan Express reaches Agra within targeted 100 minutes"India Today। ২০১৬-০৪-০৫। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-০৪-০৫ 
  9. "12050 Gatimaan Express Last Year's Train Running History / Archive"runningstatus.in। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৮-১০ 
  10. "Gatimaan Express - A High Speed Luxury Train Journey"www.indianluxurytrains.com। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-১০-০৪ 

টেমপ্লেট:Greater Delhi transit টেমপ্লেট:Higher-speed rail