লা-আয়ুন

স্থানাঙ্ক: ২৭°৯′১৩″ উত্তর ১৩°১২′১২″ পশ্চিম / ২৭.১৫৩৬১° উত্তর ১৩.২০৩৩৩° পশ্চিম / 27.15361; -13.20333
উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
(আল-'ঊয়ূন থেকে পুনর্নির্দেশিত)
লা-আয়ুন
لعيون (Hassaniyya)
ⵍⵄⵢⵓⵏ (আমাজিগ)

এল আয়ুন
City
Footprints on the sand, Place Mechouar, Street, Monumental Arch, Laayoune Cathedral
Footprints on the sand, Place Mechouar, Street, Monumental Arch, Laayoune Cathedral
লুয়া ত্রুটি মডিউল:অবস্থান_মানচিত্ এর 480 নং লাইনে: নির্দিষ্ট অবস্থান মানচিত্রের সংজ্ঞা খুঁজে পাওয়া যায়নি। "মডিউল:অবস্থান মানচিত্র/উপাত্ত/Western Sahara" বা "টেমপ্লেট:অবস্থান মানচিত্র Western Sahara" দুটির একটিও বিদ্যমান নয়।Location in Western Sahara
স্থানাঙ্ক: ২৭°৯′১৩″ উত্তর ১৩°১২′১২″ পশ্চিম / ২৭.১৫৩৬১° উত্তর ১৩.২০৩৩৩° পশ্চিম / 27.15361; -13.20333
Non-Self-Governing TerritoryWestern Sahara
Claimed by Kingdom of Morocco
 Sahrawi Arab Democratic Republic
Controlled by Kingdom of Morocco
RegionLaâyoune-Sakia El Hamra
ProvinceLaâyoune
Settled1934
Founded1938
প্রতিষ্ঠাতাAntonio de Oro
আয়তন
 • মোট২৪৭.৮ বর্গকিমি (৯৫.৬৮ বর্গমাইল)
জনসংখ্যা (2014)[১]
 • মোট২,১৭,৭৩২
 • ক্রম1st
 • জনঘনত্ব৮৮০/বর্গকিমি (২,৩০০/বর্গমাইল)
 • ঘনত্বের ক্রম1st

লা-আয়ুন (/lɑːˈjn/ lah-YOON, also ইউকে: /lˈ-/ ly-, ফরাসি : [la.ajun]) or এল-আ'য়ূন (/ˌɛl ˈ(j)n/ EL eye-(Y)OON,[২] স্পেনীয়: [el (a)aˈʝun]; Hassaniya Arabic: لعيون, romanized: Laʕyūn/Elʕyūn; আমাজিগ: ⵍⵄⵢⵓⵏ, প্রতিবর্ণীকৃত: Leɛyun; Literary Arabic: العيون, প্রতিবর্ণীকৃত: al-ʿUyūn/el-ʿUyūn, অনুবাদ'The Springs') হচ্ছে পশ্চিম সাহারার বৃহত্তম শহর। ২০১৪ সালে যার মোট জনসংখ্যা ছিল ২ লক্ষ ১৭ হাজার। শহরটি কার্যত মরক্কোর প্রশাসনের অধীনে রয়েছে। আধুনিক শহরটি ১৯৩৮ সালে স্পেনীয় সেনা অধিনায়ক আন্তোনিও দে ওরো দ্বারা প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল মনে করা হয়।[৩] ১৯৪০ সালে, স্পেন এটিকে স্পেনীয় সাহারার রাজধানী হিসাবে মনোনীত করে।[তথ্যসূত্র প্রয়োজন] লা-আয়ুন হল মরক্কো দ্বারা শাসিত লাইয়াউন-সাকিয়া এল হামরা অঞ্চলের রাজধানী, জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশন MINURSO-এর তত্ত্বাবধানে।

সাগুইয়া এল-হামরার শুষ্ক নদী দ্বারা শহরটি দুই ভাগে বিভক্ত। দক্ষিণ দিকে পুরানো নিম্ন শহর, স্পেনীয় ঔপনিবেশিক প্রশাসন দ্বারা নির্মিত।[তথ্যসূত্র প্রয়োজন] [ উদ্ধৃতি প্রয়োজন ] সেই যুগের একটি মহাগির্জা বা ক্যাথেড্রাল এখনও সক্রিয় আছে; এর পুরোহিতরা এই শহর এবং দাখলা আরও দক্ষিণে সেবা করে।[তথ্যসূত্র প্রয়োজন] [ উদ্ধৃতি প্রয়োজন ]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "POPULATION LÉGALE DES RÉGIONS, PROVINCES, PRÉFECTURES, MUNICIPALITÉS, ARRONDISSEMENTS ET COMMUNES DU ROYAUME D'APRÈS LES RÉSULTATS DU RGPH 2014" (আরবি and ফরাসি ভাষায়)। High Commission for Planning, Morocco। ৮ এপ্রিল ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ২৯ সেপ্টেম্বর ২০১৭ 
  2. উদ্ধৃতি ত্রুটি: <ref> ট্যাগ বৈধ নয়; MW নামের সূত্রটির জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি
  3. Francisco López Barrios (২০০৫-০১-২৩)। "El Lawrence de Arabia Español" (স্পেনীয় ভাষায়)। El Mundo। সংগ্রহের তারিখ ২০১৩-০২-১১