অ্যালেক্স কেরি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
(Alex Carey (cricketer) থেকে পুনর্নির্দেশিত)
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
অ্যালেক্স কেরি
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামঅ্যালেক্স টাইসন কেরি
জন্ম (1991-08-27) ২৭ আগস্ট ১৯৯১ (বয়স ২৭)
লক্সটন, দক্ষিণ অস্ট্রেলিয়া, অস্ট্রেলিয়া
ব্যাটিংয়ের ধরনবামহাতি
ভূমিকাউইকেট-রক্ষক-ব্যাটসম্যান
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
ওডিআই অভিষেক
(ক্যাপ ২২৩)
১৯ জানুয়ারি ২০১৮ বনাম ইংল্যান্ড
শেষ ওডিআই৩১ মার্চ ২০১৯ বনাম পাকিস্তান
ওডিআই শার্ট নং
টি২০আই অভিষেক
(ক্যাপ ৮৯)
৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ বনাম নিউজিল্যান্ড
শেষ টি২০আই২৫ নভেম্বর ২০১৮ বনাম ভারত
টি২০আই শার্ট নং
ঘরোয়া দলের তথ্য
বছরদল
২০১৩–বর্তমানসাউথ অস্ট্রেলিয়া
২০১৭–বর্তমানঅ্যাডিলেড স্ট্রাইকার্স
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা ওডিআই টি২০আই এফসি এলএ
ম্যাচ সংখ্যা ১৯ ১৯ ২৯ ৪৪
রানের সংখ্যা ৪২৯ ১২৫ ১৪১৩ ১১৪৬
ব্যাটিং গড় ৩০.৬৪ ১৩.৮৮ ২৯.৪৩ ২৯.৩৮
১০০/৫০ ০/১ ০/০ ২/৭ ০/৬
সর্বোচ্চ রান ৫৫ ৩৭* ১৩৯ ৯২
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ১৬/৩ ১১/৫ ১০৭/২ ৪৪/৪
উৎস: ইএসপিএনক্রিকইনফো.কম, ১ এপ্রিল, ২০১৯

অ্যালেক্স টাইসন কেরি (ইংরেজি: Alex Carey; জন্ম: ২৭ আগস্ট, ১৯৯১) দক্ষিণ অস্ট্রেলিয়ার লক্সটন এলাকায় জন্মগ্রহণকারী প্রথিতযশা অস্ট্রেলীয় আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার ও সাবেক অস্ট্রেলীয় রুলস ফুটবলার। অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য তিনি। বর্তমানে অস্ট্রেলিয়ার ওডিআইটি২০আই দলের সহঃঅধিনায়কের দায়িত্বে রয়েছেন। দলে তিনি মূলতঃ উইকেট-রক্ষকের দায়িত্ব পালন করছেন। এছাড়াও, বামহাতে ব্যাটিংয়ে পারদর্শিতা প্রদর্শন করে চলেছেন অ্যালেক্স কেরি। ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটে সাউথ অস্ট্রেলিয়া ও অ্যাডিলেড স্ট্রাইকার্সের প্রতিনিধিত্ব করছেন।[১]

শৈশবকাল[সম্পাদনা]

শৈশবকালে অস্ট্রেলীয় রুলস ফুটবল ও ক্রিকেট - উভয় খেলাতেই সপ্রতিভ অংশগ্রহণ ছিল তার। উচ্চ পর্যায়ের ফুটবলে সাউথ অস্ট্রেলিয়ান ন্যাশনাল ফুটবল লীগে এসএএনএফএল গ্লেনেলগের পক্ষে খেলেন। ১৫ বছর বয়সে তিনি দলের সংরক্ষিত খেলোয়াড় ছিলেন।[২]

সাউথ অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে রুকি চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন ও ২০১০ সালে সিডনিতে চলে যান। সেখানে অস্ট্রেলিয়ান ফুটবলে লীগের এএফএল নতুন বর্ধিত ক্লাব গ্রেটার ওয়েস্টার্ন সিডনি জায়ান্টসে যোগ দেন[৩] ও অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করেন। কিন্তু, ২০১২ সালে দলটি অস্ট্রেলীয় ফুটবল লীগে যোগ দেয়ার পর দলের বাইরে চলে আসেন। এরপর নিজ রাজ্য সাউথ অস্ট্রেলিয়ায় ফিরে যান। সেখানে তিনি ঘরোয়া ক্রিকেট খেলতে শুরু করেন।

প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেট[সম্পাদনা]

অ্যাডিলেডে ফিরে আসার পর শুরুতে গ্লেনেলগে খেলার পরিকল্পনা গ্রহণে করলেও খেলা পরিবর্তনের সিদ্ধান্ত নেন। এ পর্যায়ে ২০১২-১৩ মৌসুমে গ্লেনেলগ ক্রিকেট ক্লাবের পক্ষে গ্রেড ক্রিকেটে অংশ নেন। ব্যাটিংয়ের দিকেই নজর দেন তিনি ও গ্লেনেলগের সদস্যরূপে সকল স্তরের ক্রিকেটে অংশ নিয়ে প্রায় পঞ্চাশের কাছাকাছি গড়ে রান তুলেছিলেন।[৩] সুন্দর ক্রীড়াশৈলী প্রদর্শনের স্বীকৃতিস্বরূপ সাউথ অস্ট্রেলিয়া দলে প্রথমবারের মতো খেলার জন্যে আমন্ত্রিত হন। ২০১২-১৩ মৌসুমে রায়োবি কাপে নিউ সাউথ ওয়েলসের বিপক্ষে অংশগ্রহণের মাধ্যমে লিস্ট এ ক্রিকেটে অভিষেক ঘটে তার। এছাড়াও, শেফিল্ড শিল্ডে দলের পক্ষে খেলার মাধ্যমে প্রথম-শ্রেণীর খেলায় অভিষেক হয় তার।[৩] শিল্ডের তিন খেলার অংশ নিয়ে ছয় ইনিংসে মাত্র ১০.১০ গড়ে রান তুলেন। ফলশ্রুতিতে তাকে দলের বাইরে অবস্থান করতে হয়েছিল।[৩][৪]

২০১৩ সালের শুরুতে মূলতঃ শীর্ষসারির ব্যাটিং নির্ভর খেলোয়াড় হিসেবে অংশ নিতেন। কিন্তু যথাযথ সফলতা না পাওয়ায় তিনটি প্রথম-শ্রেণীর খেলায় অংশগ্রহণের পরই তাকে বাদ দেয়া হয়েছিল। এরপর তিনি ব্যাটিংয়ের অবস্থান পাল্টান ও উইকেট-রক্ষকের ভূমিকায় অবতীর্ণ হন। ২০১৩-১৪ মৌসুমে সাউথ অস্ট্রেলিয়ার সাথে রুকি চুক্তি করেন। তবে, ঐ মৌসুমে রাজ্য দলের সাথে কোন খেলায় অংশগ্রহণের সুযোগ পাননি। শীর্ষসারির ব্যাটসম্যান হিসেবে প্রতিষ্ঠা লাভে ব্যর্থ হওয়ায় উইকেট-রক্ষকের ভূমিকায় অবতীর্ণ হন তিনি। ফলশ্রুতিতে, ফিউচার্স লীগে সাউথ অস্ট্রেলিয়ার পক্ষে বেশ কয়েকটি খেলায় অংশগ্রহণের সুযোগ পান।[৩]

২০১৫-১৬ মৌসুমে নিজেকে আত্মপ্রকাশের সুযোগ পান। গ্লেনেলগ দলের পক্ষে ১০ খেলায় অংশ নিয়ে ৯০.২২ গড়ে ৮২২ রান তুলেন। তন্মধ্যে, অ্যাডিলেডের বিপক্ষে ১৯৫ ও ওয়েস্ট টরেন্সের বিপক্ষে ১৫১ রান সংগ্রহের ন্যায় বড় ধরনের ইনিংস খেলেছিলেন তিনি।[৩][৫] ফিউচার্স লীগে পাঁচ খেলায় ৪৪.১৩ গড়ে রান তুলেন।[৫] ফলশ্রুতিতে, ২০১৫-১৬ মৌসুমের শেফিল্ড শিল্ডের শেষ চার রাউন্ড খেলার জন্যে মনোনীত হন। তিনি অভিজ্ঞতায় পরিপুষ্ট উইকেট-রক্ষক টিম লুডম্যানের স্থলাভিষিক্ত হয়েছিলেন।[৩][৬]

স্বর্ণালী অধ্যায়[সম্পাদনা]

২০১৬-১৭ মৌসুমে প্রথমবারের মতো সাউথ অস্ট্রেলিয়ার বড়দের দলে খেলায় অংশগ্রহণের জন্যে আহুত হন।[৭] এ মৌসুমটি ব্যক্তিগতভাবে সেরা সফল সময় অতিবাহিত করেন। এ মৌসুমের শেফিল্ড শিল্ড প্রতিযোগিতায় অবিস্মরণীয় ক্রীড়াশৈলী প্রদর্শনে করেন অ্যালেক্স কেরি। মাত্র চতুর্থ খেলোয়াড় হিসেবে ক্রিস হার্টলি, ম্যাথু ওয়েদঅ্যাডাম গিলক্রিস্টের পর শেফিল্ড শিল্ড প্রতিযোগিতার ইতিহাসে এক মৌসুমে ব্যাট হাতে ৫০০ রান ও ৫০ ডিসমিসাল ঘটানোর অনন্য কৃতিত্ব প্রদর্শন করেন।[৩][৮] প্রতিযোগিতার চূড়ান্ত খেলায় ৫৯তম ডিসমিসাল ঘটিয়ে শেফিল্ড শিল্ডের এক মৌসুমে সর্বাধিক ডিসমিসাল রেকর্ড গড়েন।[৯]

ফলশ্রুতিতে, ২০১৭ সালে মৌসুম-বহির্ভূত পর্যায়ে অস্ট্রেলিয়ার ন্যাশনাল পারফরম্যান্স স্কোয়াডে তার অন্তর্ভূক্তি ঘটে।[১০] এছাড়াও, অস্ট্রেলিয়া এ দলের একমাত্র উইকেট-রক্ষক হিসেবে ২০১৭ সালের ত্রি-দেশীয় সিরিজে অংশগ্রহণের লক্ষ্যে দক্ষিণ আফ্রিকা গমনের জন্য মনোনীত হন। সাবেক টেস্ট উইকেট-রক্ষক পিটার নেভিলটিম পেইনকে পাশ কাটিয়ে তিনি এ সুযোগ পান। এরফলে কোন কারণে অস্ট্রেলিয়ার টেস্ট দলে ম্যাথু ওয়েদ আঘাতপ্রাপ্ত হলে তিনি জাতীয় দলে খেলার সুযোগ পাবেন।[১১]

২০১৭-১৮ মৌসুমের জেএলটি কাপে সাউথ অস্ট্রেলিয়ার পক্ষে খেলেন। ভিক্টোরিয়ার বিপক্ষে ৯২ রান তুলে সেঞ্চুরির কাছাকাছি পর্যায়ে চলে এসেছিলেন তিনি। জ্যাক ওয়েদারাল্ডের সাথে একদিনের খেলায় সাউথ অস্ট্রেলিয়ার ২১২ রানের চতুর্থ বৃহৎ জুটি গড়েন।[১২][১৩] ফলশ্রুতিতে, অস্ট্রেলিয়া এ দল ও একদিনের দলে অন্তর্ভূক্ত হন।

০১৭-১৮ মৌসুমের শেফিল্ডশিল্ড মৌসুমে তিনি অন্যতম অ্যাশেজ সিরিজে অংশ নেয়ার প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন। এ মৌসুম শুরুর পূর্বে তিনি মাত্র ১৮টি প্রথম-শ্রেণীর খেলায় অংশগ্রহণের অভিজ্ঞতাপুষ্ট ছিলেন। ঐ মুহুর্তে তিনি অস্ট্রেলিয়ার সেরা তরুণ উইকেট-রক্ষক হিসেবে বিবেচিত হন।[১৪] প্রথম দুই খেলায় রান সংগ্রহে দল নির্বাচকমণ্ডলীর সন্তুষ্টি লাভ করেন।[১৫] তবে, দল ঘোষণার পূর্বে তিনি কোন পঞ্চাশোর্ধ্ব রান সংগ্রহ করতে পারেন। ওয়েস্টার্ন অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সঙ্গীর অভাবে ৪৬ রানে অপরাজিত থাকতে হয়েছিল অ্যালেক্স কেরিকে।[১৬] জাতীয় দলে অন্তর্ভূক্ত হতে না পারলেও কুইন্সল্যান্ডের বিপক্ষে ১৩৯ রানের ইনিংসে প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে প্রথম সেঞ্চুরির সন্ধান পান।[১৭]

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট[সম্পাদনা]

১৩ জানুয়ারি, ২০১৮ তারিখে অ্যাডিলেড স্ট্রাইকার্সের পক্ষে ব্যাটিং উদ্বোধনে নামে। অ্যালাইস স্প্রিংসে অনুষ্ঠিত প্রথম কেএফসি বিগ ব্যাশ লীগের খেলায় তিনি পার্থ স্কর্চাসের বিপক্ষে খেলেন। ১৭ জানুয়ারি, ২০১৮ তারিখে নিজ শহর অ্যাডিলেড ওভালে ব্যাটিং উদ্বোধনে নেমে হোবার্ট হারিকেন্সের বিপক্ষে প্রথম বিগ ব্যাশ প্রতিযোগিতার সেঞ্চুরি করেন। ফলশ্রুতিতে, দুই দিন পরই গাব্বায় অস্ট্রেলিয়া ওডিআই দলের পক্ষে খেলার জন্যে আমন্ত্রিত হন। ১৯ জানুয়ারি, ২০১৮ তারিখে অসুস্থ থাকা টিম পেইনের স্থলাভিষিক্ত হন।[১৮]

একই মাসের শেষদিকে ২০১৭-১৮ মৌসুমের ট্রান্স-তাসমান ত্রি-দেশীয় সিরিজে অংশ নেয়ার লক্ষ্যে টুয়েন্টি২০ আন্তর্জাতিক দলের সদস্য মনোনীত হন। এ প্রতিযোগিতাটি ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ সালে অনুষ্ঠিত হয়।[১৯] ৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ তারিখে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে টি২০আইয়ে অভিষেক ঘটে অ্যালেক্স কেরি’র।[২০]

এপ্রিল, ২০১৮ সালে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া কর্তৃক ২০১৮-১৯ মৌসুমের জন্যে ঝাই রিচার্ডসনের সাথে তিনিও জাতীয় পর্যায়ে চুক্তিতে আবদ্ধ হন।[২১][২২] মে, ২০১৮ সালে অস্ট্রেলিয়ার টি২০ দলের সহঃঅধিনায়কের মর্যাদা লাভ করেন।[২৩]

এপ্রিল, ২০১৯ সালে ইংল্যান্ডে অনুষ্ঠিতব্য ক্রিকেট বিশ্বকাপ প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের জন্যে ১৫-সদস্যবিশিষ্ট অস্ট্রেলিয়া দলের অন্যতম সদস্যরূপ মনোনীত হন।[২৪][২৫]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Alex Tyson Carey"ESPNcricinfoESPN Inc.। সংগ্রহের তারিখ ২৯ নভেম্বর ২০১৭ 
  2. Ramsey, Andrew (২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৭)। "Carey's crushed AFL hopes pave new path"Cricket.com.auCricket Australia। সংগ্রহের তারিখ ২৯ নভেম্বর ২০১৭ 
  3. Sellar, Lachlan (১১ সেপ্টেম্বর ২০১৭)। "The rise and rise of Alex Carey"SACA.com.auSouth Australian Cricket Association। সংগ্রহের তারিখ ২৯ নভেম্বর ২০১৭ 
  4. Earle, Richard (২৪ মার্চ ২০১৭)। "Former GWS Giant Alex Carey hoping to claim Shield glory"The AdvertiserNews Corp Australia। সংগ্রহের তারিখ ২৯ নভেম্বর ২০১৭ 
  5. "Alex Carey"Cricket.com.auCricket Australia। সংগ্রহের তারিখ ২৯ নভেম্বর ২০১৭ 
  6. Jolly, Laura (২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৬)। "Siddons puts Redbacks players on notice"Cricket.com.auCricket Australia। সংগ্রহের তারিখ ২৯ নভেম্বর ২০১৭ 
  7. "Cosgrove and Cooper cut by South Australia"ESPNcricinfoESPN Inc.। ১৫ এপ্রিল ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ২৯ নভেম্বর ২০১৭ 
  8. Coverdale, Brydon (২৮ মার্চ ২০১৭)। "Holland takes seven as Victoria remain on top"ESPNcricinfoESPN Inc.। সংগ্রহের তারিখ ২৯ নভেম্বর ২০১৭ 
  9. Coverdale, Brydon (২৯ মার্চ ২০১৭)। "Alex Carey breaks wicketkeeping record"ESPNcricinfoESPN Inc.। সংগ্রহের তারিখ ২৯ মার্চ ২০১৭ 
  10. Brettig, Daniel (১৯ এপ্রিল ২০১৭)। "Carey, Labuschagne, McDermott among NPS intake"ESPNcricinfoESPN Inc.। সংগ্রহের তারিখ ২৯ নভেম্বর ২০১৭ 
  11. Ferris, Sam (২২ মে ২০১৭)। "Carey on the cusp of national call-up"Cricket.com.auCricket Australia। সংগ্রহের তারিখ ২৯ নভেম্বর ২০১৭ 
  12. Earle, Richard (২০ অক্টোবর ২০১৭)। "Redbacks skipper Travis Head says keeper Alex Carey is right in the mix for an Ashes Test debut"The AdvertiserNews Corp Australia। সংগ্রহের তারিখ ৮ ডিসেম্বর ২০১৭ 
  13. Earle, Richard (১৯ অক্টোবর ২০১৭)। "JLT Cup: South Australia overwhelm Victoria to storm into Cup final"The AdvertiserNews Corp Australia। সংগ্রহের তারিখ ৮ ডিসেম্বর ২০১৭ 
  14. Horne, Ben (৮ সেপ্টেম্বর ২০১৭)। "The Ashes 2017-18: South Australia keeper Alex Carey enters selection fray as Matthew Wade's star dims"The Daily TelegraphNews Corp Australia। সংগ্রহের তারিখ ৮ ডিসেম্বর ২০১৭ 
  15. Lalor, Peter (২০ অক্টোবর ২০১৭)। "Alex Carey: the Test keeper in waiting you've never heard of"The AustralianNews Corp Australia। সংগ্রহের তারিখ ৮ ডিসেম্বর ২০১৭ 
  16. Earle, Richard (২২ নভেম্বর ২০১৭)। "South Australia coach Jamie Siddons says Tim Paine's Ashes resurrection could give hope to Callum Ferguson"The AdvertiserNews Corp Australia। সংগ্রহের তারিখ ৮ ডিসেম্বর ২০১৭ 
  17. "SA bowlers leave Queensland reeling after Carey's maiden ton"ESPN Cricinfo। ৪ ডিসেম্বর ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ৪ ডিসেম্বর ২০১৭ 
  18. Cameron, Louis (১৯ জানুয়ারি ২০১৮)। "Carey to debut in place of ill Paine"Cricket Australia। সংগ্রহের তারিখ ১৯ জানুয়ারি ২০১৮ 
  19. "Richardson, Holland in Australia squad for South Africa Tests"International Cricket Council। সংগ্রহের তারিখ ২২ জানুয়ারি ২০১৮ 
  20. "1st Match (N), Twenty20 Tri Series at Sydney, Feb 3 2018"ESPN Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ২২ জানুয়ারি ২০১৮ 
  21. "Carey, Richardson gain contracts as Australia look towards World Cup"ESPN Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ১১ এপ্রিল ২০১৮ 
  22. "Five new faces on CA contract list"Cricket Australia। সংগ্রহের তারিখ ১১ এপ্রিল ২০১৮ 
  23. "সংরক্ষণাগারভুক্ত অনুলিপি"। ২০১৮-০৬-২৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৪-১৭ 
  24. "Smith and Warner make World Cup return; Handscomb and Hazlewood out"ESPN Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ১৫ এপ্রিল ২০১৯ 
  25. "Smith, Warner named in Australia World Cup squad"International Cricket Council। সংগ্রহের তারিখ ১৫ এপ্রিল ২০১৯ 

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]