বিষয়বস্তুতে চলুন

উয়েফা ইউরো ২০১৬

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
(২০১৬ উয়েফা ইউরো থেকে পুনর্নির্দেশিত)
উয়েফা ইউরো ২০১৬
UEFA Euro 2016 (ইংরেজি)
Championnat d'Europe de football 2016 (ফরাসি)
UEFA Euro 2016
Le Rendez-Vous
বিবরণ
স্বাগতিক দেশফ্রান্স
তারিখ১০ জুন– ১০ জুলাই ২০১৬
দল২৪
মাঠ১০ (১০টি আয়োজক শহরে)
চূড়ান্ত অবস্থান
চ্যাম্পিয়ন পর্তুগাল (১ম শিরোপা)
রানার-আপ ফ্রান্স
পরিসংখ্যান
ম্যাচ৫১
গোল সংখ্যা১০৮ (ম্যাচ প্রতি ২.১২টি)
দর্শক সংখ্যা২৪,২৭,৩০৩ (ম্যাচ প্রতি ৪৭,৫৯৪ জন)
শীর্ষ গোলদাতাফ্রান্স অঁতোয়ান গ্রিয়েজমান (৬ গোল)[১]
সেরা খেলোয়াড়ফ্রান্স অঁতোয়ান গ্রিয়েজমান[২]
সেরা যুব খেলোয়াড়পর্তুগাল রেনাতো সানচেজ[৩]
সর্বশেষ হালনাগাদ: ১০ জুন ২০১৬

উয়েফা ইউরো ২০১৬ (ইংরেজি: UEFA Euro 2016, ফরাসি: Championnat d'Europe de football 2016) হল উয়েফা ইউরোপীয় চ্যাম্পিয়নশিপের ১৫তম সংস্করণ। উয়েফা ইউরো ২০১৬ -র ভেন্যু ফ্রান্সের ১০টি শহরে ১০ জুন থেকে ১০ জুলাইয়ের পর্যন্ত চলেছিল।[৪][৫]

Saint-Denis
(Paris area)
Marseille Décines-Charpieu
(Lyon area)
Villeneuve-d'Ascq
(Lille area)
Stade de France Stade Vélodrome Parc Olympique Lyonnais Stade Pierre-Mauroy
Capacity: 81,338 Capacity: 67,394 Capacity: 59,286 Capacity: 50,186
Paris Bordeaux
পার্ক দে প্রাঁস Nouveau Stade de Bordeaux
Capacity: 48,712 Capacity: 42,115
চিত্র:Paris Le Parc des Princes.jpg
Saint-Étienne Lens Nice Toulouse
Stade Geoffroy-Guichard Stade Bollaert-Delelis Stade de Nice Stadium Municipal
Capacity: 41,965 Capacity: 38,223 Capacity: 35,624 Capacity: 33,150

গ্রুপ পর্ব

[সম্পাদনা]

টাইব্রেকার

[সম্পাদনা]

প্রত্যেক দলের পয়েন্টের ওপর ভিত্তি করে দলের অবস্থান নির্ণয় করা হয় (জয়ের জন্য ৩ পয়েন্ট, ড্রয়ের জন্য ১ পয়েন্ট, হারের জন্য ০ পয়েন্ট), এবং যদি পয়েন্টের সমতা হয় তবে গ্রুপ পর্বের সবগুলো খেলা শেষে নিম্নে বর্ণিত মানদণ্ডের উপর ভিত্তি করে শীর্ষ দুই দল নির্ণয় করা হয়েছিল:[৬][৭]

  1. যেসকল দলের পয়েন্ট সমান, তাদের ম্যাচে পয়েন্ট;
  2. যেসকল দলের পয়েন্ট সমান, তাদের গোল পার্থক্য;
  3. যেসকল দলের পয়েন্ট সমান, তাদের গোল সংখ্যা;
  4. যদি মানদণ্ড ১ থেকে ৩ প্রয়োগ করার পরও দলগুলো সমতায় থাকে, তবে মানদণ্ড ১ থেকে ৩ শুধুমাত্র দলগুলোর মধ্যে ম্যাচগুলোর ক্ষেত্রে পুনরায় প্রয়োগ করা হয়।[ক] এই পদ্ধতিটি যদি কোন সিদ্ধান্তের দিকে পরিচালিত না করে তবে মানদণ্ড ৫ থেকে ১০ প্রযোজ্য;
  5. গ্রুপ পর্বের সকল ম্যাচে উক্ত দলসমূহের গোল পার্থক্য;
  6. গ্রুপ পর্বের সকল ম্যাচে উক্ত দলসমূহের গোল সংখ্যা;
  7. গ্রুপ পর্বের সকল ম্যাচে উক্ত দলসমূহের জয়ের সংখ্যা;[খ]
  8. যদি গ্রুপ পর্বের শেষ পর্বে, দুটি দল একে অপরের মুখোমুখি হয় এবং প্রত্যেকের একই সংখ্যক পয়েন্ট থাকে, এর পাশাপাশি একই সংখ্যক গোল করা এবং হজম করা হয় এবং তাদের ম্যাচ শেষে স্কোর সমতায় থেকে, তবে তাদের অবস্থান পেনাল্টি শুট-আউটের মাধ্যমে নির্ধারিত হয়। (এই মানদণ্ডটি ব্যবহার করা হয় না, যদি দুটির বেশি দলের একই সংখ্যক পয়েন্ট থাকে।);
  9. গ্রুপ পর্বের সকল ম্যাচে উক্ত দলসমূহের অ্যাওয়ে জয়ের সংখ্যা;
  10. গ্রুপ পর্বের সকল ম্যাচে সর্বনিম্ন শাস্তিমূলক পয়েন্ট (লাল কার্ড = ৩ পয়েন্ট, হলুদ কার্ড = ১ পয়েন্ট, এক ম্যাচে দুটি হলুদ কার্ডের জন্য বহিষ্কার = ৩ পয়েন্ট, হলুদ কার্ডের পর সরাসরি লাল কার্ড = ৪ পয়েন্ট);
  11. সামগ্রিক র‍্যাঙ্কিংয়ে উচ্চতর অবস্থান।

টীকা

  1. যদি পয়েন্টে ত্রিমুখী সমতা হয়, তবে প্রথম তিনটি মানদণ্ডের প্রয়োগ কেবলমাত্র একটি দলের জন্য সমতা দূর করতে পারে, বাকি দুটি দল তখনও সমতায় থাকে। এই ক্ষেত্রে, সমতায় থাকা দুটি দলের জন্য টাইব্রেকিং পদ্ধতি শুরু থেকে পুনরায় শুরু করা হয়।
  2. এই মানদণ্ডটি কেবলমাত্র একটি সমতা ভাঙতে পারে যদি একটি পয়েন্ট কর্তন করা হয়, অন্যথায় একই গ্রুপের একাধিক দল পয়েন্টে সমতায় থেকে যায়, তবে তাদের জয়ের একটি ভিন্ন সংখ্যা রয়েছে।

গ্রুপ এ

[সম্পাদনা]
অব দল ম্যাচ জয় ড্র হার স্বগো বিগো গোপা পয়েন্ট যোগ্যতা অর্জন
 ফ্রান্স (H) +৩ নক-আউট পর্ব
  সুইজারল্যান্ড +১
 আলবেনিয়া −২
 রোমানিয়া −২
উৎস: উয়েফা
শ্রেণীবিভাগের নিয়মাবলী: গ্রুপ পর্বের টাইব্রেকার
(H) স্বাগতিক।

গ্রুপ বি

[সম্পাদনা]
অব দল ম্যাচ জয় ড্র হার স্বগো বিগো গোপা পয়েন্ট যোগ্যতা অর্জন
 ওয়েলস +৩ নক-আউট পর্ব
 ইংল্যান্ড +১
 স্লোভাকিয়া
 রাশিয়া −৪
উৎস: উয়েফা
শ্রেণীবিভাগের নিয়মাবলী: গ্রুপ পর্বের টাইব্রেকার

গ্রুপ সি

[সম্পাদনা]
অব দল ম্যাচ জয় ড্র হার স্বগো বিগো গোপা পয়েন্ট যোগ্যতা অর্জন
 জার্মানি +৩ [ক] নক-আউট পর্ব
 পোল্যান্ড +২ [ক]
 উত্তর আয়ারল্যান্ড
 ইউক্রেন −৫
উৎস: উয়েফা
শ্রেণীবিভাগের নিয়মাবলী: গ্রুপ পর্বের টাইব্রেকার
টীকা:
  1. হেড-টু-হেড ফলাফলে টাই (জার্মানি ০–০ পোল্যান্ড)। তাই মোট গোল পার্থক্য ধরা হয়েছে।

গ্রুপ ডি

[সম্পাদনা]
অব দল ম্যাচ জয় ড্র হার স্বগো বিগো গোপা পয়েন্ট যোগ্যতা অর্জন
 ক্রোয়েশিয়া +২ নক-আউট পর্ব
 স্পেন +৩
 তুরস্ক −২
 চেক প্রজাতন্ত্র −৩
উৎস: উয়েফা
শ্রেণীবিভাগের নিয়মাবলী: গ্রুপ পর্বের টাইব্রেকার

গ্রুপ ই

[সম্পাদনা]
অব দল ম্যাচ জয় ড্র হার স্বগো বিগো গোপা পয়েন্ট যোগ্যতা অর্জন
 ইতালি +২ [ক] নক-আউট পর্ব
 বেলজিয়াম +২ [ক]
 প্রজাতন্ত্রী আয়ারল্যান্ড −২
 সুইডেন −২
উৎস: উয়েফা
শ্রেণীবিভাগের নিয়মাবলী: গ্রুপ পর্বের টাইব্রেকার
টীকা:
  1. হেড-টু-হেড ফলাফল: বেলজিয়াম ০–২ ইতালি।

গ্রুপ এফ

[সম্পাদনা]
অব দল ম্যাচ জয় ড্র হার স্বগো বিগো গোপা পয়েন্ট যোগ্যতা অর্জন
 হাঙ্গেরি +২ [ক] Advance to knockout stage
 আইসল্যান্ড +১ [ক]
 পর্তুগাল
 অস্ট্রিয়া −৩
উৎস: উয়েফা
শ্রেণীবিভাগের নিয়মাবলী: গ্রুপ পর্বের টাইব্রেকার
টীকা:
  1. হেড-টু-হেড ফলাফলে টাই (আইসল্যান্ড ১–১ হাঙ্গেরি)। মোট গোল পার্থক্য ব্যবহৃত।

তৃতীয় স্থানাধিকারী দলগুলির অবস্থান

[সম্পাদনা]
অব গ্রুপ দল ম্যাচ জয় ড্র হার স্বগো বিগো গোপা পয়েন্ট যোগ্যতা অর্জন
বি  স্লোভাকিয়া নক-আউট পর্ব
 প্রজাতন্ত্রী আয়ারল্যান্ড −২
এফ  পর্তুগাল
সি  উত্তর আয়ারল্যান্ড
ডি  তুরস্ক −২
 আলবেনিয়া −২
উৎস: উয়েফা
শ্রেণীবিভাগের নিয়মাবলী: ১) মোট পয়েন্ট; ২) মোট গোল পার্থক্য; ৩) মোট স্বপক্ষে গোল; ৪) ফেয়ার প্লে পয়েন্ট; ৫) উয়েফা সামগ্রিক র‍্যাঙ্কিং-এ অবস্থান

নক-আউট পর্ব

[সম্পাদনা]
 
১৬ দলের পর্বকোয়ার্টার-ফাইনালসেমি-ফাইনালফাইনাল
 
              
 
25 June – Saint-Étienne
 
 
  সুইজারল্যান্ড1 (4)
 
30 June – Marseille
 
 পোল্যান্ড (পে.)1 (5)
 
 পোল্যান্ড1 (3)
 
25 June – Lens
 
 পর্তুগাল (পে.)1 (5)
 
 ক্রোয়েশিয়া0
 
6 July – Décines-Charpieu
 
 পর্তুগাল (অ.স.প.)1
 
 পর্তুগাল2
 
25 June – Paris
 
 ওয়েলস0
 
 ওয়েলস1
 
1 July – Villeneuve-d'Ascq
 
 উত্তর আয়ারল্যান্ড0
 
 ওয়েলস3
 
26 June – Toulouse
 
 বেলজিয়াম1
 
 হাঙ্গেরি0
 
10 July – Saint-Denis
 
 বেলজিয়াম4
 
 পর্তুগাল (অ.স.প.)1
 
26 June – Villeneuve-d'Ascq
 
 ফ্রান্স0
 
 জার্মানি3
 
2 July – Bordeaux
 
 স্লোভাকিয়া0
 
 জার্মানি (পে.)1 (6)
 
27 June – Saint-Denis
 
 ইতালি1 (5)
 
 ইতালি2
 
7 July – Marseille
 
 স্পেন0
 
 জার্মানি0
 
26 June – Décines-Charpieu
 
 ফ্রান্স2
 
 ফ্রান্স2
 
3 July – Saint-Denis
 
 প্রজাতন্ত্রী আয়ারল্যান্ড1
 
 ফ্রান্স5
 
27 June – Nice
 
 আইসল্যান্ড2
 
 ইংল্যান্ড1
 
 
 আইসল্যান্ড2
 

ফাইনাল

[সম্পাদনা]
Red shirts, red shorts and green socks
পর্তুগাল[৯]
Blue shirts, blue shorts and red socks
ফ্রান্স[৯]

পরিসংখ্যান

[সম্পাদনা]

এই প্রতিযোগিতায় ৫১টি ম্যাচে ১০৮টি গোল হয়েছে, যা ম্যাচ প্রতি গড়ে ২.১২টি গোল।

৬টি গোল

৩টি গোল

২টি গোল

উৎস: উয়েফা[১০]

তথ্যসূত্র

[সম্পাদনা]
  1. উদ্ধৃতি ত্রুটি: <ref> ট্যাগ বৈধ নয়; golden-boot-winner নামের সূত্রটির জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি
  2. "Antoine Griezmann named Player of the Tournament"। UEFA। ১১ জুলাই ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ১২ জুলাই ২০১৬ 
  3. "Renato Sanches named Young Player of the Tournament"। UEFA। ১০ জুলাই ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ১১ জুলাই ২০১৬ 
  4. "UEFA EURO 2016: key dates and milestones"। UEFA.com। ১ ফেব্রুয়ারি ২০১৩। 
  5. "UEFA EURO 2016 steering group meets in Paris"। UEFA.com। ২৩ অক্টোবর ২০১২। 
  6. "UEFA EURO 2016 regulations published"। UEFA। ১৮ ডিসেম্বর ২০১৩। 
  7. "Regulations of the UEFA European Football Championship 2014–16" (পিডিএফ)। UEFA। ১৯ ডিসেম্বর ২০১৩ তারিখে মূল (পিডিএফ) থেকে আর্কাইভ করা। 
  8. "Full Time Summary – Portugal v France" (পিডিএফ)UEFA। ১০ জুলাই ২০১৬। ১৬ জুলাই ২০১৬ তারিখে মূল (পিডিএফ) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১০ জুলাই ২০১৬ 
  9. "Tactical Line-ups – Portugal v France" (পিডিএফ)UEFA। ১০ জুলাই ২০১৬। ১৬ জুলাই ২০১৬ তারিখে মূল (পিডিএফ) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১০ জুলাই ২০১৬ 
  10. "UEFA Euro 2024 – Statistics – UEFA EURO 2016 in numbers"উয়েফা (UEFA.com)। সংগ্রহের তারিখ ২১ জুন ২০২৪