রায়ান হ্যারিস

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
রায়ান হ্যারিস
Ryan Harris 2014.jpg
২০১৪ সালে হ্যারিস
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামরায়ান জেমস হ্যারিস
জন্ম (1979-10-11) ১১ অক্টোবর ১৯৭৯ (বয়স ৪০)
সিডনি, নিউ সাউথ ওয়েলস, অস্ট্রেলিয়া
ডাকনামরাইনো,[১] রিয়ানো[২]
উচ্চতা১.৮১ মিটার (৫ ফুট ১১ ইঞ্চি)
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
বোলিংয়ের ধরনডানহাতি ফাস্ট
ভূমিকাবোলার
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
টেস্ট অভিষেক
(ক্যাপ ৪১৩)
১৯ মার্চ ২০১০ বনাম নিউজিল্যান্ড
শেষ টেস্ট২৬ ডিসেম্বর ২০১৪ বনাম ভারত
ওডিআই অভিষেক
(ক্যাপ ১৬৯)
১৮ জানুয়ারি ২০০৯ বনাম দক্ষিণ আফ্রিকা
শেষ ওডিআই২৪ ফেব্রুয়ারি ২০১২ বনাম শ্রীলঙ্কা
ওডিআই শার্ট নং৪৫
ঘরোয়া দলের তথ্য
বছরদল
২০০১/০২–২০০৭/০৮দক্ষিণ অস্ট্রেলিয়া (দল নং ২৪)
২০০৮/০৯–কুইন্সল্যান্ড (দল নং ৪৫)
২০০৮সাসেক্স
২০০৯-২০১০ডেকান চার্জার্স (দল নং ৭)
২০০৯সারে
২০১১–কিংস ইলাভেন পাঞ্জাব (দল নং ৪৫)
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট ওডিআই এফসি এলএ
ম্যাচ সংখ্যা ২৭ ২১ ৮১ ৮৫
রানের সংখ্যা ৬০৩ ৪৮ ২,০৪৭ ৪১১
ব্যাটিং গড় ২১.৫৩ ৮.০০ ২০.২৬ ১২.৮৪
১০০/৫০ ০/৩ ০/০ ০/১১ ০/০
সর্বোচ্চ রান ৭৪ ২১ ৯৪ ৩৯
বল করেছে ৫,৭৩৬ ১,০৩১ ১৬,২০৭ ৪,১৩৫
উইকেট ১১৩ ৪৪ ২৯৯ ১২৩
বোলিং গড় ২৩.৫২ ১৮.৯০ ২৬.৫৩ ২৭.৫৯
ইনিংসে ৫ উইকেট ১০
ম্যাচে ১০ উইকেট - -
সেরা বোলিং ৭/১১৭ ৫/১৯ ৭/৬০ ৫/১৯
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ১৩/– ৬/– ৪০/– ৩৩/–
উৎস: Cricinfo, ১০ জানুয়ারি ২০১৫

রায়ান জেমস হ্যারিস (ইংরেজি: Ryan James Harris; জন্ম: ১১ অক্টোবর, ১৯৭৯) নিউ সাউথ ওয়লসের সিডনিতে জন্মগ্রহণকারী সাবেক অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটার। ডানহাতি ফাস্ট বোলার হিসেবে অস্ট্রেলিয়া জাতীয় ক্রিকেট দলে খেলেছেন তিনি। তাকে অস্ট্রেলিয়ার সর্বাপেক্ষা প্রতিশ্রুতিশীল ফাস্ট বোলার হিসেবে গণ্য করা হয়েছিল।

২০০৮ সালে সাসেক্স কাউন্টি ক্রিকেট ক্লাবে খেলেন। জুন, ২০০৯ সালে তিনি সারে দলের সাথে স্বল্প মেয়াদে চুক্তিতে আবদ্ধ হন।[৩] ২০১০ সালে ইয়র্কশায়ারের হয়ে ঘরোয়া ক্রিকেট খেলেন।[৪]

খেলোয়াড়ী জীবন[সম্পাদনা]

দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে একদিনের আন্তর্জাতিকের মাধ্যমে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটাঙ্গনে অভিষিক্ত হন হ্যারিস। ১৮ জুন, ২০০৯ তারিখে হোবার্টের বেলেরিভ ওভালে অনুষ্ঠিত খেলায় নিল ম্যাকেঞ্জি’র উইকেট নেন যাতে তার বোলিং বিশ্লেষণ ছিল ১/৫৪।[৫] এরপর প্রায় এক বছর তিনি নির্বাচকদের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে পারেননি। ২৬ জুন, ২০১০ তারিখে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে অনুষ্ঠিত তৃতীয় ওডিআই’য়ে অংশ নেন। পিঠের আঘাতে অসুস্থ পিটার সিডলের ঘাটতি মোকাবেলা করতেই অ্যাডিলেইড ওভালে খেলতে নামেন হ্যারিস। ব্যাটিংয়ের প্রয়োজন না পড়লেও ডগ বলিঙ্গারের সাথে বোলিং উদ্বোধন করেন ও ৪৩ রানে ৫ উইকেট নেন। উইকেটের তালিকায় কামরান আকমলশহীদ আফ্রিদি ছিল।[৬] এ খেলায় তিনি ম্যান অব দ্য ম্যাচের পুরস্কার লাভ করেন। পাশাপাশি পরবর্তী দুই খেলায় অংশগ্রহণের সুযোগ পান। পরের খেলায় তিনি ১৯ রানে ৫ উইকেট পান যা ধারাবাহিকভাবে দ্বিতীয় পাঁচ উইকেট শিকার।[৭] ধারাবাহিক তিনবার পাঁচ উইকেট শিকারের তালিকায় শীর্ষস্থানে রয়েছেন ওয়াকার ইউনুস

অবসর[সম্পাদনা]

মার্চ, ২০১৪ সালে হাঁটুতে অস্ত্রোপাচারের জন্য ছয়মাস ক্রিকেট থেকে দূরে থাকবেন বলে ঘোষণা দেন।[৮] ৩১ মার্চ, ২০১৫ তারিখে অ্যাশেজ সিরিজের জন্য ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া তাকেসহ ১৭-সদস্যের তালিকা প্রকাশ করে।[৯] কিন্তু রায়ান হ্যারিস তার দীর্ঘদিনের হাঁটুর আঘাতের কারণে সিরিজ শুরু হবার ৩দিন পূর্বে আকস্মিকভাবে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসরের ঘোষণা দেন।[১০] তার পরিবর্তে নিউ সাউথ ওয়েলসের ফাস্ট-বোলার প্যাট কামিন্সকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়।[১১]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Ronay, Barney (১৯ জুলাই ২০১৩)। "The Ashes 2013: Ryan 'Rhino' Harris gives Australia first blood"The Guardian। সংগ্রহের তারিখ ১৬ ডিসেম্বর ২০১৩ 
  2. "Cricinfo profile"। Content.cricinfo.com। সংগ্রহের তারিখ ২০১৩-০৮-০৯ 
  3. "Surrey sign Ryan Harris"। ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০ জুলাই ২০১৩ 
  4. [১]
  5. "Ryan Harris"। Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ১ ফেব্রুয়ারি ২০১০ 
  6. "Scorecard: 3rd ODI: Australia v Pakistan at Adelaide, 26 January 2010"। Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ১ ফেব্রুয়ারি ২০১০ 
  7. "Scorecard: 4th ODI: Australia v Pakistan at Perth, 29 January 2010"। Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ১ ফেব্রুয়ারি ২০১০ 
  8. "Australia's Ryan Harris out for six months after knee surgery"BBC Sport। British Broadcasting Corporation। ১২ মার্চ ২০১৪। সংগ্রহের তারিখ ১২ মার্চ ২০১৪ 
  9. "Ashes 2015: Australia announce squad to tour England"। BBC Sport। ৩১ মার্চ ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ৩১ মার্চ ২০১৫ 
  10. "Ashes 2015: Ryan Harris out of Australia's tour with knee injury, retires from Test cricket"ABC News। ৪ জুলাই ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ৪ জুলাই ২০১৫ 
  11. "Injury forces Ryan Harris to retire"। ESPN Cricinfo। ৪ জুলাই ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ৪ জুলাই ২০১৫ 

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]