মেগ রায়ান

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
মেগ রায়ান
Meg Ryan 2009 portrait.jpg
২০০৯ সালে মেগ রায়ান
স্থানীয় নাম
Meg Ryan
জন্ম
মার্গারেট ম্যারি এমিলি অ্যান হিয়ারা

(1961-11-19) ১৯ নভেম্বর ১৯৬১ (বয়স ৫৭)
যেখানের শিক্ষার্থী
পেশাঅভিনেত্রী, প্রযোজক
কার্যকাল১৯৮১-বর্তমান
দাম্পত্য সঙ্গীডেনিস কোয়াইড (বি. ১৯৯১; বিচ্ছেদ. ২০০১)
সন্তান২, জ্যাক কোয়াইড সহ

মেগ রায়ান (ইংরেজি: Meg Ryan; জন্ম: মার্গারেট ম্যারি এমিলি অ্যান হিয়ারা, ১৯ নভেম্বর ১৯৬১)[১] হলেন একজন মার্কিন অভিনেত্রী ও প্রযোজক। রায়ান ১৯৮১ সালে ক্ষুদ্র চরিত্রে কাজের মধ্যে দিয়ে তার অভিনয় জীবন শুরু করেন। ১৯৮২ সালে তিনি সিবিএস টেলিভিশনের সোপ অপেরা অ্যাজ দ্য ওয়ার্ল্ড টার্নস-এ অভিনয় করেন। ১৯৮০-এর দশকের মাঝামাঝি সময়ে তিনি চলচ্চিত্রে পার্শ্ব ভূমিকায় কাজ শুরু করেন এবং প্রমিজড ল্যান্ড (১৯৮৮) চলচ্চিত্রে কাজ করে খ্যাতি অর্জন করেন। পরবর্তীকালে তিনি রব রেইনারের পরিচালনায় প্রণয়ধর্মী হাস্যরসাত্মক হোয়েন হ্যারি মেট স্যালি... (১৯৮৯) ছবিতে অভিনয় করে ব্যাপক জনপ্রিয়তা অর্জন করেন এবং সেরা সঙ্গীতধর্মী বা হাস্যরসাত্মক চলচ্চিত্র অভিনেত্রী বিভাগে গোল্ডেন গ্লোব পুরস্কারের মনোনয়ন লাভ করেন।

১৯৯০-এর দশকে এবং ২০০০-এর দশকের শুরুর দিকে তিনি দেশে ও আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলে জনপ্রিয়তা অর্জন করেন এবং নিজেকে একজন সফল অভিনেত্রী হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করেন। এই সময়ে তার উল্লেখযোগ্য কাজসমূহ হল স্লিপলেস ইন সিয়াটল (১৯৯৩), ফ্রেঞ্চ কিস (১৯৯৫), ইউ হ্যাভ গট মেইল (১৯৯৮), এবং কেট অ্যান্ড লিওপল্ড (২০০১)। তন্মধ্যে তিনি স্লিপলেস ইন সিয়াটলইউ হ্যাভ গট মেইল চলচ্চিত্র দুটিতে অভিনয় করে সেরা সঙ্গীতধর্মী বা হাস্যরসাত্মক চলচ্চিত্র অভিনেত্রী বিভাগে আরও দুটি গোল্ডেন গ্লোব পুরস্কারের মনোনয়ন লাভ করেন। তার অভিনীত অন্যান্য উল্লেখযোগ্য চলচ্চিত্রসমূহ হল দ্য ডোরস (১৯৯১), হোয়েন আ ম্যান লাভস আ ওম্যান (১৯৯৪), কারেজ আন্ডার ফায়ার (১৯৯৬), অ্যাডিক্টেড টু লাভ (১৯৯৭), সিটি অব অ্যাঞ্জেলস (১৯৯৮), প্রুফ অব লাইফ (২০০০), এবং দ্য উইমেন (২০০৮)। ২০১৫ সালে ইথাকা চলচ্চিত্র দিয়ে তার পরিচালনায় অভিষেক হয় এবং তিনি এতে অভিনয়ও করেন।

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

রায়ান ১৯৬১ সালের ১৯শে নভেম্বর কানেটিকাট অঙ্গরাজ্যের ফেয়ারফিল্ডে জন্মগ্রহণ করেন।[২] তার পিতা হ্যারি হিয়ারা ছিলেন একজন অংকের শিক্ষক এবং মাতা সুজান জর্ডান (ডুগান) ছিলেন একজন অভিনেত্রী ও ইংরেজির শিক্ষক। তিনি জার্মান, আইরিশ, ও পোলীয় বংশোদ্ভূত। তিনি রোমান ক্যাথলিক ধর্মাবলম্বী হিসেবে বেড়ে ওঠেন এবং ফেয়ারফিল্ডের সেন্ট পিয়াস এক্স এলিমেন্টারি স্কুলে পড়াশোনা করেন। তার দুই বোন ডানা ও অ্যানি। তার ভাই অ্যান্ড্রু হিয়ার একজন সঙ্গীতজ্ঞ, তিনি বিলি পিলগ্রিম ব্যান্ডের সদস্য। ১৯৭৬ সালে রায়ানের যখন ১৫ বছর বয়স তখন তার পিতামাতার বিবাহবিচ্ছেদ ঘটে।[৩]

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

রায়ানের প্রথম কেন্দ্রীয় চরিত্রে কাজ ছিল প্রণয়ধর্মী হাস্যরসাত্মক হোয়েন হ্যারি মেট স্যালি... (১৯৮৯)। এতে তিনি সেই সময়ের হাস্যরসাত্মক চলচ্চিত্রের অন্যতম কেন্দ্রীয় অভিনেতা বিলি ক্রিস্টালের বিপরীতে অভিনয় করেন।[৩] এই ছবিতে অভিনয় করে তিনি ব্যাপক জনপ্রিয়তা অর্জন করেন এবং সেরা সঙ্গীতধর্মী বা হাস্যরসাত্মক চলচ্চিত্র অভিনেত্রী বিভাগে গোল্ডেন গ্লোব পুরস্কারের মনোনয়ন লাভ করেন।

তার পরবর্তী চলচ্চিত্র দ্য ডোরস (১৯৯১) মধ্যম মানের আয় করে এবং প্রিলুড টু আ কিস (১৯৯২) ফ্লপ হয়।[৪] তাকে দ্য সাইলেন্স অব দ্য ল্যাম্বস (১৯৯১) চলচ্চিত্রের কেন্দ্রীয় চরিত্র ক্লেরিস স্টার্লিং ভূমিকায় কাজের প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল, কিন্তু তিনি ছবিটির ভয়াবহ ও সহিংস বিষয়বস্তুর জন্য এই প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করেন। ১৯৯৩ সালে তার অভিনীত প্রণয়ধর্মী হাস্যরসাত্মক চলচ্চিত্র স্লিপলেস ইন সিয়াটল ব্যাপক সফল হয় এবং তিনি তার দ্বিতীয় গোল্ডেন গ্লোব পুরস্কারের মনোনয়ন লাভ করেন।[৫] এই ছবিতে তিনি দ্বিতীয়বারের মত টম হ্যাঙ্কসের সাথে জুটি বাঁধেন। তারা পূর্বে জো ভার্সাস দ্য ভলকানো (১৯৯০) ছবিতে কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন, ছবিটি ব্যবসায়িকভাবে ব্যর্থ হয়।[৬] এই জুটি পরবর্তীকালে পুনরায় ইউ হ্যাভ গট মেইল (১৯৯৮) ছবিতে একত্রে অভিনয় করেন।[৭] এই ছবিতে তার কাজের জন্য রায়ান তার তৃতীয় গোল্ডেন গ্লোব পুরস্কারের মনোনয়ন লাভ করেন।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Meg Ryan"বায়োগ্রাফি (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১৯ নভেম্বর ২০১৮ 
  2. জারকোভিচ, কেটি (১৮ নভেম্বর ২০১৮)। "Celebrate Meg Ryan's Birthday With These Unforgettable Shots"ডেইলি কলার (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১৯ নভেম্বর ২০১৮ 
  3. স্নাইডার, ক্যারেন এস. (২ আগস্ট ১৯৯৩)। "Educating Meg"পিপল (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১৯ নভেম্বর ২০১৮ 
  4. "Prelude to a Kiss (1992) - Box Office Mojo"বক্স অফিস মোজো (ইংরেজি ভাষায়)। ইন্টারনেট মুভি ডেটাবেজ। সংগ্রহের তারিখ ১৯ নভেম্বর ২০১৮ 
  5. "Golden Globe nominations"ভ্যারাইটি (ইংরেজি ভাষায়)। ২৩ ডিসেম্বর ১৯৯৩। সংগ্রহের তারিখ ১৯ নভেম্বর ২০১৮ 
  6. মারেস্কা, রেচেল (২৬ জুন ২০১৪)। "Tom Hanks, Meg Ryan to reunite on-screen in 'Ithaca': report - NY Daily News"নিউ ইয়র্ক ডেইলি নিউজ (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১৯ নভেম্বর ২০১৮ 
  7. ম্যাক্লিনটক, পামেলা (২৫ জুন ২০১৪)। "Tom Hanks in Talks to Reunite With Meg Ryan in 'Ithaca'"দ্য হলিউড রিপোর্টার (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১৯ নভেম্বর ২০১৮ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]