বিষয়বস্তুতে চলুন

বিলি বার্নস: সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

বট নিবন্ধ পরিষ্কার করেছে। কোন সমস্যায় এর পরিচালককে জানান।
(অপ্রয়োজনীয় বিষয়শ্রেণী বাদ)
(বট নিবন্ধ পরিষ্কার করেছে। কোন সমস্যায় এর পরিচালককে জানান।)
 
== খেলোয়াড়ী জীবন ==
১৮৭৫ থেকে ১৮৯৪ মেয়াদকালে নটিংহ্যামশায়ার ক্রিকেট ক্লাবের সদস্য ছিলেন তিনি। তাঁরতার মুখে কোন দাঁত ছিল না ও এর কারণ সম্পর্কে কিছুই জানা যায়নি।
 
১৮৮০ থেকে ১৮৯০ সময়কালের মধ্যে ইংল্যান্ড ক্রিকেট দলের পক্ষে [[আন্তর্জাতিক ক্রিকেট]] খেলায় অংশগ্রহণ করেন। ৬ সেপ্টেম্বর, ১৮৮০ তারিখে লন্ডনের [[কেনিংটন ওভাল|কেনিংটন ওভালে]] অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে তাঁরতার টেস্ট অভিষেক ঘটে। প্রথম ইনিংসে ২৮ ও দ্বিতীয় ইনিংসে ৫ রান তোলেন। এছাড়াও [[উইলিয়াম মোল|উইলিয়াম মোলের]] [[উইকেট]] নিয়েছিলেন তিনি। খেলায় ইংল্যান্ড ৫ উইকেটে জয়লাভ করে।<ref name="cw">{{সংবাদ উদ্ধৃতি|প্রথমাংশ= |শেষাংশ=|শিরোনাম =England v Australia: Only Test, 1880 | ইউআরএল=http://www.cricketweb.net/statsspider/test/4.php |তারিখ =|সংগ্রহের-তারিখ = 29 July 2015|প্রকাশক=cricketweb }}</ref>
 
সমগ্র খেলোয়াড়ী জীবনে তিনি তিনবার [[অস্ট্রেলিয়া জাতীয় ক্রিকেট দল|অস্ট্রেলিয়া]] ও একবার [[উত্তর আমেরিকা]] সফর করেন। তন্মধ্যে, ১৮৮৬-৮৭ মৌসুমে আলফ্রেড শয়ের [[ইংল্যান্ড ক্রিকেট দলের অধিনায়কদের তালিকা|নেতৃত্বাধীন]] ইংরেজ দল অস্ট্রেলিয়া সফরে যান। অস্ট্রেলীয় অধিনায়ক [[পার্সি ম্যাকডোনেল|পার্সি ম্যাকডোনেলকে]] ছোঁড়া বল দেয়ালে আঘাত করলে বলটি হারিয়ে যায়। এরফলে এ সফরের বেশ কয়েকটি খেলায় অংশগ্রহণ করা থেকে তাঁকেতাকে বিরত রাখা হয়। ঐ বলটি [[রেজিনাল্ড উড]] খুঁজে পান ও তাঁরতার পরিবর্তে শয়ের একাদশে উডকে তিন খেলায় অংশগ্রহণ করানো হয়েছিল।
 
== অবসর ==
১৮৯৫ থেকে ১৮৯৮ সালের মধ্যে [[লর্ড’স ক্রিকেট গ্রাউন্ড|লর্ড’স ক্রিকেট গ্রাউন্ডের]] মাঠ কর্মকর্তার দায়িত্বে ছিলেন তিনি। এছাড়াও প্রয়োজনে [[আম্পায়ার]] হিসেবেও খেলা পরিচালনা করতেন।
 
ক্রিকেট মৌসুমের অবসর সময়ে ম্যান্সফিল্ড উডহাউজের অ্যাঞ্জেল ইনে জমি দেখাশোনা করতেন বার্নস। সেখানেই মার্চ ১৮৯৯ সালে তাঁরতার দেহাবসান ঘটে। ১৮৯০ সালে [[উইজডেন ক্রিকেটার্স অ্যালমেনাক|উইজডেন]] কর্তৃক [[উইজডেন বর্ষসেরা ক্রিকেটার|বর্ষসেরা ক্রিকেটার]] হিসেবে মনোনীত হন।<ref>{{ওয়েব উদ্ধৃতি|ইউআরএল=http://www.cricketarchive.com/Archive/Players/Overall/Wisden_Cricketers_of_the_Year.html |শিরোনাম=Wisden Cricketers of the Year |সংগ্রহের-তারিখ=2009-02-21 |প্রকাশক=CricketArchive}}</ref>
 
== ব্যক্তিগত জীবন ==
‘এলিজা’ নাম্নী এক রমণীর পাণিগ্রহণ করেন তিনি। শুধুমাত্র গ্রীষ্মকালেই পেশাদারী পর্যায়ে ক্রিকেট খেলতেন। ১৮৮১ সালের জরীপে তাঁকেতাকে তুলাচাষীরূপে দেখানো হয়। তাঁরতার ভাই [[Thomas Barnes (cricketer)|টমাস]], ভাইপো [[James Barnes (cricketer)|জেমস বার্নস]] - উভয়েই [[প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেট|প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে]] অংশ নিয়েছেন।
 
== তথ্যসূত্র ==
১,৯৬,০১৪টি

সম্পাদনা