টম হোগান

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
টম হোগান
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামটম জর্জ হোগান
জন্ম (1956-09-23) ২৩ সেপ্টেম্বর ১৯৫৬ (বয়স ৬২)
মেরেডিন, পশ্চিম অস্ট্রেলিয়া
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
বোলিংয়ের ধরনস্লো লেফট-আর্ম অর্থোডক্স
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
টেস্ট অভিষেক
(ক্যাপ ৩১৮)
২২ এপ্রিল ১৯৮৩ বনাম শ্রীলঙ্কা
শেষ টেস্ট২৮ এপ্রিল ১৯৮৪ বনাম ওয়েস্ট ইন্ডিজ
ওডিআই অভিষেক
(ক্যাপ ৭৩)
৩১ জানুয়ারি ১৯৮৩ বনাম নিউজিল্যান্ড
শেষ ওডিআই৫ অক্টোবর ১৯৮৪ বনাম ভারত
ঘরোয়া দলের তথ্য
বছরদল
১৯৮১-১৯৯০ওয়েস্টার্ন অস্ট্রেলিয়া
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট ওডিআই এফসি এলএ
ম্যাচ সংখ্যা ১৬ ৮০ ৪৪
রানের সংখ্যা ২০৫ ৭২ ১৭৫৬ ২১৭
ব্যাটিং গড় ১৮.৬৩ ৯.০০ ২০.১৮ ১১.৪২
১০০/৫০ ০/০ ০/০ ১/৬ ০/০
সর্বোচ্চ রান ৪২* ২৭ ১১৫* ৩৩
বল করেছে ১৪৩৬ ৯১৭ ১৭৪৪২ ২৪০৪
উইকেট ১৫ ২৩ ২০৯ ৫১
বোলিং গড় ৪৭.০৬ ২৪.৯৫ ৩৫.৮৭ ৩১.৫৬
ইনিংসে ৫ উইকেট
ম্যাচে ১০ উইকেট - -
সেরা বোলিং ৫/৬৬ ৪/৩৩ ৮/৮৬ ৪/৩৩
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ২/– ১০/– ৫২/– ২০/–
উৎস: ইএসপিএনক্রিকইনফো.কম, ২৪ অক্টোবর ২০১৩

টম জর্জ হোগান (ইংরেজি: Tom George Hogan; জন্ম: ২৩ সেপ্টেম্বর, ১৯৫৬) পশ্চিম অস্ট্রেলিয়ার মেরেডিনে জন্মগ্রহণকারী বিশিষ্ট ও সাবেক অস্ট্রেলীয় আন্তর্জাতিক ক্রিকেট তারকা। অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি। ১৯৮২ থেকে ১৯৮৩ সময়কালে সংক্ষিপ্ত সময়ের জন্যে অস্ট্রেলিয়ার পক্ষে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অংশগ্রহণ করেছিলেন। এ সময়ে সাত টেস্ট ও ১৬টি একদিনের আন্তর্জাতিকে অংশগ্রহণ করেছেন তিনি। ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটে ওয়েস্টার্ন অস্ট্রেলিয়ার প্রতিনিধিত্ব করেছেন। মূলতঃ বামহাতি স্পিনার হিসেবে খেলায় অংশ নিতেন টম হোগান। এছাড়াও, ডানহাতে নিচেরসারিতে ব্যাটিং করতেন।

খেলোয়াড়ী জীবন[সম্পাদনা]

১৯৮১-৮২ মৌসুমে পশ্চিম অস্ট্রেলিয়ার পক্ষে তার প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে অভিষেক ঘটে। ভিক্টোরিয়ার বিপক্ষে অনুষ্ঠিত ঐ খেলায় তিনি ৭০ রান করেছিলেন।[১] এছাড়াও পশ্চিম অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ৪৯ রান তুলেছিলেন।[২] ঐ গ্রীষ্মে ৩৬.৭৫ গড়ে ২০ উইকেট পেয়েছিলেন টম হোগান।[৩]

১৯৮২-৮৩ মৌসুমে সেরা সময় কাটে তার। নিউ সাউথ ওয়েলসের বিপক্ষে ৭২ রান করেন[৪]কুইন্সল্যান্ডের বিপক্ষে আট উইকেট লাভ করেন তিনি।[৫]

ক্রিকেট বিশ্বকাপ[সম্পাদনা]

১৯৮৩ সালের ক্রিকেটে বিশ্বকাপে অস্ট্রেলিয়ার পক্ষে খেলার জন্য মনোনীত হন। দ্বাদশ খেলোয়াড় ডেনিস লিলির স্থলাভিষিক্ত হয়ে মূল একাদশের ঠাঁই হয় তার।[৬] ভারতের বিপক্ষে ২/৪৮ লাভ করেন।[৭] জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে পরের খেলায়ও অংশগ্রহণের সুযোগ হয় তার। খেলায় তিনি ২/৩৩ বোলিং পরিসংখ্যান দাঁড় করান।[৮] ভারতের বিপক্ষে ১/৩১ নিয়ে পরাজিত হওয়া খেলার পর[৯] ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ১/৬০ লাভ করেন।

পাকিস্তানের মুখোমুখি, ১৯৮৩-৮৪[সম্পাদনা]

সফরকারী পাকিস্তানের বিপক্ষে প্রথম টেস্টে খেলার জন্য অস্ট্রেলিয়া দলে অন্তর্ভূক্ত হন।[১০] তবে অধিনায়ক কিম হিউজ পেস আক্রমণের সিদ্ধান্ত নেয়ায় টম হোগানকে দ্বাদশ ব্যক্তি হিসেবে মাঠের বাইরে অবস্থান করতে হয়েছিল।[১১] অস্ট্রেলিয়া খুব সহজেই খেলায় জয় তুলে নেয়। ফলশ্রুতিতে পরবর্তী টেস্টের জন্য একই দল রাখে।

শিল্ডের একটি খেলায় ৩/৯১ ও ১/১০৭ করার পর দ্বাদশ ব্যক্তি হিসেবে তাকে রেখে চারজন পেস বোলার নিয়ে দলকে মাঠে নামায়।[১২]

কার্ল রেকেম্যানের আঘাতের কারণে তৃতীয় টেস্টে খেলার জন্য হোগানকে খেলানো হয়।[১৩] তবে পাকিস্তানী ব্যাটসম্যানদের কাছে তাকে বেশ নাকানি-চুবানি খেতে হয়। ১/১০৭ বোলিং পরিসংখ্যান দাঁড় করান।[১৪] ফলশ্রুতিতে চতুর্থ ও পঞ্চম টেস্টে যথাক্রমে মারে বেনেটগ্রেগ ম্যাথিউসকে দলে নেয়া হয়।[১৫]

এরপর হোগান অস্ট্রেলিয়ার একদিনের দল থেকে বাদ পড়েন।[১৬] তবে ভিক্টোরিয়ার বিপক্ষে ৫/৩১ লাভ করেন জ্বলে উঠেন।[১৭] গ্রীষ্মে ৩৩ গড়ে ২৬টি প্রথম-শ্রেণীর উইকেট পান যা যে-কোনো অস্ট্রেলীয় স্পিনারের তুলনায় অধিক ছিল।[১৮]

ওয়েস্ট ইন্ডিজ গমন, ১৯৮৪[সম্পাদনা]

১৯৮৪ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে হোগানকে অন্তর্ভূক্ত করা হয়। স্পিনার হিসেবে গ্রেগ ম্যাথুজসহ তাকে দলে রাখা হয়। অন্যদিকে মারে বেনেট, পিটার স্লিপবব হল্যান্ডের ঘরোয়া আসরে দূর্দান্ত খেললেও এড়িয়ে যাওয়া হয়।[১৯][২০] এছাড়াও একদিনের দলেও তাকে রাখা হয়। প্রতিপক্ষ পাকিস্তানের বিপক্ষে ১/২২ লাভ করেন তিনি।[২১][২২] এছাড়াও নাটকীয়ভাবে টাই হওয়া টেস্টে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ০/৩১ ও ৬ রান করেন।[২৩] সিরিজের চূড়ান্ত ওডিআইয়ে ০/৩৯ বোলিং করেন টম হোগান।[২৪]

১৯৮৪ সালে অস্ট্রেলিয়া দল ওয়েস্ট ইন্ডিজে সফরে যায়। দলের একমাত্র স্পিন বোলিং পারদর্শী ছিলেন তিনি। লিওয়ার্ড আইল্যান্ডের বিপক্ষে সফরের উদ্বোধনী প্রস্তুতিমূলক খেলায় দূর্বলমানের বোলিংশৈলী উপস্থাপন করেন। তবে পরের খেলাতেই গায়ানার বিপক্ষে ৫/৯৫ লাভ করে জোরপূর্বক দলের বিজয় ছিনিয়ে আনেন।[২৫]

ম্যাথিউসের বোলিং ভালোমানের না হওয়ায় তাকে প্রথম টেস্টের জন্য দলে ঠাঁই দেয়া হয়।[২৬] প্রথমে ব্যাটিংয়ে নেমে ১৮২/৯ থাকাবস্থায় রডনি হগের সাথে ৯৭ রানের জুটি গড়েন। এ জুটি ৯৭ রান তুলে দশম উইকেটে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে নতুন রেকর্ড দাঁড় করায়। হোগানের ৪২ রানের কল্যাণে অস্ট্রেলিয়া ২৭৯ রান করতে সমর্থ হয়।[২৭] ওয়েস্ট ইন্ডিজের প্রথম ইনিংসে হোগান ৪/৫৬ পান। তবে অস্ট্রেলিয়ার ব্যাটিংয়ে ধ্বস ও হোগানের দ্বিতীয় ইনিংসে ০/৭৬ পেলেও সৌভাগ্যবশতঃ অস্ট্রেলিয়ার ড্রয়ের সন্ধান পায়।[২৮][২৯]

দ্বিতীয় টেস্টে ২/১০৩ পেলেও দ্বিতীয় ইনিংসে মহামূল্যবান ৩৮ রান তুলেন। নাইটওয়াচম্যান হিসেবে মাঠে নেমে অস্ট্রেলিয়াকে ড্রয়ের দিকে নিয়ে যেতে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখেন তিনি।[৩০] তৃতীয় টেস্টে আবারো নাইটওয়াচম্যান হিসেবে আবির্ভূত হন। প্রথম ইনিংসে ৪০ রান তুললেও ০/৯৭ বোলিং পরিসংখ্যান গড়েন। ঐ টেস্টে অস্ট্রেলিয়া পরাজিত হয়েছিল।[৩১] চতুর্থ ও পঞ্চম টেস্টে যথাক্রমে ০/৬৫[৩২] ও ২/৬৮ পান।[৩৩]

সিরিজের তৃতীয় ও চতুর্থ ওডিআইয়ে অংশ নিয়ে ০/৩১[৩৪] ও ০/৩১ বোলিং পরিসংখ্যান দাঁড় করান।[৩৫] সফরে টম হোগান ৩৯.৪৫ গড়ে ২২ উইকেট লাভ করে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ সংগ্রাহক হন। এছাড়াও ৬০ গড়ে আট উইকেট তুলে সিরিজের তৃতীয় সর্বোচ্চ উইকেট শিকারীতে পরিণত হন।[৩৬][৩৭]

ভারত গমন, ১৯৮৪-৮৫[সম্পাদনা]

১৯৮৪-৮৫ মৌসুমে ভারত সফরে ১৪ সদস্যবিশিষ্ট অস্ট্রেলীয় ওডিআই দলের অন্যতম সদস্য মনোনীত হন। মারে বেনেট এবং তিনিই দলের স্পিনার ছিলেন।[৩৮]

১৯৮৪ সালে ভারত সফরে প্রস্তুতিমূলক খেলায় ৪/৩৩ লাভ করেন।[৩৯] সিরিজেও তিনি বেশ ভালোমানের বোলিং করেন। প্রথম ওডিআইয়ে ৩/৪৪ পান।[৪০] দ্বিতীয় ওডিআইয়ে ৪/৩৩[৪১] ও চতুর্থ ওডিআইয়ে ২/৪০ লাভ করেন টম হোগান।[৪২] অস্ট্রেলিয়া ৩-০ ব্যবধানে সিরিজ জয় করেছিল।

১৯৮৪-৮৫ মৌসুমে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে প্রথম টেস্টে নিশ্চিতরূপেই দলে অন্তর্ভূক্তির বিষয়ে হোগান প্রধান দাবীদার ছিলেন।[৪৩] কিন্তু পেস আক্রমণ নিয়ে অস্ট্রেলিয়া মাঠে নামায় তিনি দল নির্বাচকমণ্ডলী কর্তৃক উপেক্ষিত হন।[৪৪] ঐ গ্রীষ্মে মারে বেনেট ও বব হল্যান্ডকে স্পিনাররূপে অগ্রাধিকার দেয়া হয়। তারাসহ গ্রেগ ম্যাথিউসকে ১৯৮৫ সালে ইংল্যান্ড সফরের জন্য মনোনীত করা হয়। ঐ মৌসুমে ২৬ উইকেট পেলেও ৫১ গড়ে বেশ রান দিয়ে ফেলেন তিনি।[৪৫]

বিদ্রোহী দলে অংশগ্রহণ[সম্পাদনা]

অস্ট্রেলিয়া দল থেকে চলে আসার পর হোগান অস্ট্রেলীয় বিদ্রোহী দলে যোগ দেন। ১৯৮৫-৮৬ মৌসুম ও ১৯৮৬-৮৭ মৌসুম - এ দুই মৌসুমে তৎকালীন আন্তর্জাতিক ক্রীড়াঙ্গনে নিষিদ্ধঘোষিত দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে যান। চুক্তিবদ্ধ হওয়া বেনেটের স্থলাভিষিক্ত হন তিনি। আন্তর্জাতিক ক্রিকেট অঙ্গনে বেনেট তার ভবিষ্যতের কথা বিবেচনায় এনে বিদ্রোহী দল থেকে নিজনাম প্রত্যাহার করে নিয়েছিলেন।[৪৬] তিনি ও ট্রেভর হোন্স দলের দুই স্পিনার হিসেবে যোগ দেন।[৪৭] ফলশ্রুতিতে তিনি তিন বছরের জন্য টেস্ট ক্রিকেট থেকে ও দুই বছরের জন্য শেফিল্ড শিল্ড ক্রিকেটে অংশগ্রহণের বিষয়ে নিষেধাজ্ঞার কবলে পড়েন।[৪৮]

প্রস্তুতিমূলক খেলায় ট্রান্সভাল কান্ট্রির বিপক্ষে ৭৭ বলে মনোমুগ্ধকর ৭৪ রানের ইনিংস খেলার মাধ্যমে দক্ষিণ আফ্রিকা সফর শুরু করেন।[৪৯] এরপর ইস্টার্ন প্রভিন্সের বিপক্ষে ৬৩ রান সংগ্রহের পাশাপাশি ৮/৮৯ বোলিং পরিসংখ্যান দাঁড় করান।[৫০][৫১] এরপর থেকেই তার খেলার মান ক্রমশঃ নীচের দিকে নামতে শুরু করে। গ্রীষ্মের প্রথমদিকে ৩৮.৬০ গড়ে ১৬ উইকেট পেয়েছিলেন টম হোগান। তাস্বত্ত্বেও ট্রেভর হোন্সের তুলনায় বেশ ভালো অবস্থানে ছিলেন।[৫২]

দ্বিতীয় সফরেও তার খেলার উত্তরণ লক্ষ্য করা যায়নি। ৩৯.৪০ গড়ে ১০টি প্রথম-শ্রেণীর উইকেটের সন্ধান পেয়েছিলেন। তবে ৩৩ উইকেট লাভকারী ট্রেভর হোন্সের কারণে খুব সহজেই দল থেকে বাদ পড়ে যান।[৫৩]

শেফিল্ড শিল্ডে প্রত্যাবর্তন[সম্পাদনা]

১৯৮৭ সালে ইংল্যান্ডের ল্যাঙ্কাশায়ার লীগে লোয়ারহাউজের পক্ষে খেলেন তিনি।[৫৪]

দক্ষিণ আফ্রিকায় বিদ্রোহী দলের সফরে অংশগ্রহণকারীরা ১৯৮৭-৮৮ মৌসুমের গ্রীষ্মে অনুষ্ঠিত প্রথম শেফিল্ড শিল্ডের খেলায় দল নির্বাচকমণ্ডলীর কাছ থেকে উপেক্ষিত হন।[৫৫] শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে খেললেও বোলিং করেননি তিনি। তাসমানিয়ার বিপক্ষে খেলে ৬/৫৭ পান।

১৯৮৮-৮৯ মৌসুমে ডব্লিউএ-এর পক্ষে প্রথম পাঁচ খেলায় অংশ নেন। ৩০ গড়ে ১২ উইকেট পান। এরপর দল থেকে বাদ পড়েন।[৫৬] ৩৬.৫০ গড়ে ১৪ উইকেট নিয়ে গ্রীষ্মের শেষে তিনি দলে ফিরে আসেন।[৫৭] ভিক্টোরিয়ার বিপক্ষে প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে ১১৫ রান তুলে নিজস্ব প্রথম সেঞ্চুরি করেন।[৫৮]

গ্রেগ চ্যাপেলরিচি বেনো উভয়েই ১৯৮৯ সালে ইংল্যান্ড সফরের জন্য হোগানকে মনোনীত করেন।[৫৯] তবে শেষ সময়ে টিম মে ও ট্রেভর হোন্সকে স্পিনাররূপে দলে অন্তর্ভূক্ত করা হয়। উপর্যুপরি তৃতীয়বার শিল্ডের শিরোপা জয়ে প্রভূতঃ ভূমিকা রাখেন। এরপর ওয়েস্টার্ন অস্ট্রেলিয়া দলের সাথে ভারত সফরে যান তিনি।[৬০]

১৯৮৯-৯০ মৌসুমে হোগান ৩৫.৬০ গড়ে ১৮ উইকেট দখল করেন। তন্মধ্যে ৫/৬০ পেয়েছিলেন তিনি।[৬১][৬২] ১৯৯০-৯১ মৌসুমে সর্বশেষ প্রথম-শ্রেণীর খেলায় অংশ নিয়েছিলেন তিনি।

অবসর[সম্পাদনা]

ক্রিকেট খেলা থেকে অবসর নেয়ার পর হোগান ২০০৩-০৪ মৌসুমে পশ্চিম অস্ট্রেলিয়ার দল নির্বাচকমণ্ডলীর সদস্যরূপে মনোনীত হন।[৬৩]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Fighting partnerships rescue Victoria"The Canberra Times56, (16,927)। Australian Capital Territory, Australia। ৩১ জানুয়ারি ১৯৮২। পৃষ্ঠা 24। সংগ্রহের তারিখ ৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ – National Library of Australia-এর মাধ্যমে। 
  2. "South Australia has Shield in sight"The Canberra Times56, (16,950)। Australian Capital Territory, Australia। ২৩ ফেব্রুয়ারি ১৯৮২। পৃষ্ঠা 18। সংগ্রহের তারিখ ৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ – National Library of Australia-এর মাধ্যমে। 
  3. https://cricketarchive.com/Archive/Seasons/Seasonal_Averages/AUS/1981-82_f_Bowling_by_Wickets.html
  4. "WA's tactics backfire"The Canberra Times57, (17,215)। Australian Capital Territory, Australia। ১৫ নভেম্বর ১৯৮২। পৃষ্ঠা 20। সংগ্রহের তারিখ ৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ – National Library of Australia-এর মাধ্যমে। 
  5. "Broad hits out"The Canberra Times57, (17,269)। Australian Capital Territory, Australia। ৯ জানুয়ারি ১৯৮৩। পৃষ্ঠা 20। সংগ্রহের তারিখ ৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ – National Library of Australia-এর মাধ্যমে। 
  6. "Hughes, Chappell put on second-wicket 144"The Canberra Times57, (17,425)। Australian Capital Territory, Australia। ১৪ জুন ১৯৮৩। পৃষ্ঠা 18। সংগ্রহের তারিখ ৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ – National Library of Australia-এর মাধ্যমে। 
  7. "The Home of CricketArchive"cricketarchive.com। সংগ্রহের তারিখ ৭ নভেম্বর ২০১৭ 
  8. "The Home of CricketArchive"cricketarchive.com। সংগ্রহের তারিখ ৭ নভেম্বর ২০১৭ 
  9. "The Home of CricketArchive"cricketarchive.com। সংগ্রহের তারিখ ৭ নভেম্বর ২০১৭ 
  10. "CRICKET Hughes pips Marsh for Test captaincy"The Canberra Times58, (17,567)। Australian Capital Territory, Australia। ৩ নভেম্বর ১৯৮৩। পৃষ্ঠা 28। সংগ্রহের তারিখ ৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ – National Library of Australia-এর মাধ্যমে। 
  11. "Australians show their spin fears"The Canberra Times58, (17,574)। Australian Capital Territory, Australia। ১০ নভেম্বর ১৯৮৩। পৃষ্ঠা 30। সংগ্রহের তারিখ ৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ – National Library of Australia-এর মাধ্যমে। 
  12. "Australians: no changes"The Canberra Times58, (17,587)। Australian Capital Territory, Australia। ২৩ নভেম্বর ১৯৮৩। পৃষ্ঠা 42। সংগ্রহের তারিখ ৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ – National Library of Australia-এর মাধ্যমে। 
  13. "CRICKET Rackemann injury gives Hogan Test chance"The Canberra Times58, (17,602)। Australian Capital Territory, Australia। ৮ ডিসেম্বর ১৯৮৩। পৃষ্ঠা 28। সংগ্রহের তারিখ ৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ – National Library of Australia-এর মাধ্যমে। 
  14. "The Home of CricketArchive"cricketarchive.com। সংগ্রহের তারিখ ৭ নভেম্বর ২০১৭ 
  15. "Selectors overlook Rackemann for fourth and fifth Tests Come in spinners"The Canberra Times58, (17,616)। Australian Capital Territory, Australia। ২২ ডিসেম্বর ১৯৮৩। পৃষ্ঠা 20। সংগ্রহের তারিখ ৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ – National Library of Australia-এর মাধ্যমে। 
  16. "Allrounder gets sack despite fielding performance"The Canberra Times58, (17,637)। Australian Capital Territory, Australia। ১২ জানুয়ারি ১৯৮৪। পৃষ্ঠা 18। সংগ্রহের তারিখ ৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ – National Library of Australia-এর মাধ্যমে। 
  17. "WA spins spell over Victoria"The Canberra Times58, (17,640)। Australian Capital Territory, Australia। ১৫ জানুয়ারি ১৯৮৪। পৃষ্ঠা 21 (SUNDAY EDITION)। সংগ্রহের তারিখ ৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ – National Library of Australia-এর মাধ্যমে। 
  18. "The Home of CricketArchive"cricketarchive.com। সংগ্রহের তারিখ ৭ নভেম্বর ২০১৭ 
  19. "CRICKET Selectors stick with proven performers"The Canberra Times58, (17,645)। Australian Capital Territory, Australia। ২০ জানুয়ারি ১৯৮৪। পৃষ্ঠা 16। সংগ্রহের তারিখ ৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ – National Library of Australia-এর মাধ্যমে। 
  20. "CRICKET Hogan set for busy tour of West Indies"The Canberra Times58, (17,671)। Australian Capital Territory, Australia। ১৫ ফেব্রুয়ারি ১৯৮৪। পৃষ্ঠা 40। সংগ্রহের তারিখ ৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ – National Library of Australia-এর মাধ্যমে। 
  21. "The Home of CricketArchive"cricketarchive.com। সংগ্রহের তারিখ ৭ নভেম্বর ২০১৭ 
  22. "Pakistan tumbles out of contention Australia, Windies in WSC finals"The Canberra Times58, (17,656)। Australian Capital Territory, Australia। ৩১ জানুয়ারি ১৯৮৪। পৃষ্ঠা 20। সংগ্রহের তারিখ ৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ – National Library of Australia-এর মাধ্যমে। 
  23. "The Home of CricketArchive"cricketarchive.com। সংগ্রহের তারিখ ৭ নভেম্বর ২০১৭ 
  24. "The Home of CricketArchive"cricketarchive.com। সংগ্রহের তারিখ ৭ নভেম্বর ২০১৭ 
  25. "CRICKET Phillips sees victory slip through his gloves"The Canberra Times58, (17,685)। Australian Capital Territory, Australia। ২৯ ফেব্রুয়ারি ১৯৮৪। পৃষ্ঠা 42। সংগ্রহের তারিখ ৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ – National Library of Australia-এর মাধ্যমে। 
  26. "First Test in Guyana Weakened Windies boost for Australia"The Canberra Times58, (17,688)। Australian Capital Territory, Australia। ৩ মার্চ ১৯৮৪। পৃষ্ঠা 46। সংগ্রহের তারিখ ৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ – National Library of Australia-এর মাধ্যমে। 
  27. "Last-wicket Test highlight Hogan, Hogg save the day"The Canberra Times58, (17,690)। Australian Capital Territory, Australia। ৫ মার্চ ১৯৮৪। পৃষ্ঠা 16। সংগ্রহের তারিখ ৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ – National Library of Australia-এর মাধ্যমে। 
  28. "The Home of CricketArchive"cricketarchive.com। সংগ্রহের তারিখ ৭ নভেম্বর ২০১৭ 
  29. "First Test drawn but Windies come close"The Canberra Times58, (17,694)। Australian Capital Territory, Australia। ৯ মার্চ ১৯৮৪। পৃষ্ঠা 22। সংগ্রহের তারিখ ৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ – National Library of Australia-এর মাধ্যমে। 
  30. "The Home of CricketArchive"cricketarchive.com। সংগ্রহের তারিখ ৭ নভেম্বর ২০১৭ 
  31. "The Home of CricketArchive"cricketarchive.com। সংগ্রহের তারিখ ৭ নভেম্বর ২০১৭ 
  32. "The Home of CricketArchive"cricketarchive.com। সংগ্রহের তারিখ ৭ নভেম্বর ২০১৭ 
  33. "The Home of CricketArchive"cricketarchive.com। সংগ্রহের তারিখ ৭ নভেম্বর ২০১৭ 
  34. "The Home of CricketArchive"cricketarchive.com। সংগ্রহের তারিখ ৭ নভেম্বর ২০১৭ 
  35. "The Home of CricketArchive"cricketarchive.com। সংগ্রহের তারিখ ৭ নভেম্বর ২০১৭ 
  36. "The Home of CricketArchive"cricketarchive.com। সংগ্রহের তারিখ ৭ নভেম্বর ২০১৭ 
  37. "The Home of CricketArchive"cricketarchive.com। সংগ্রহের তারিখ ৭ নভেম্বর ২০১৭ 
  38. "Surprises in Australian cricket contract list and squad for India tour Hookes, Matthews dropped"The Canberra Times58, (17,824)। Australian Capital Territory, Australia। ১৭ জুলাই ১৯৮৪। পৃষ্ঠা 18। সংগ্রহের তারিখ ৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ – National Library of Australia-এর মাধ্যমে। 
  39. "CRICKET Hughes considers left-arm spinners for third match"The Canberra Times59, (17,902)। Australian Capital Territory, Australia। ৩ অক্টোবর ১৯৮৪। পৃষ্ঠা 42। সংগ্রহের তারিখ ৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ – National Library of Australia-এর মাধ্যমে। 
  40. "The Home of CricketArchive"cricketarchive.com। সংগ্রহের তারিখ ৭ নভেম্বর ২০১৭ 
  41. "The Home of CricketArchive"cricketarchive.com। সংগ্রহের তারিখ ৭ নভেম্বর ২০১৭ 
  42. "The Home of CricketArchive"cricketarchive.com। সংগ্রহের তারিখ ৭ নভেম্বর ২০১৭ 
  43. "CRICKET Holland axed from NSW Cup team"The Canberra Times59, (17,930)। Australian Capital Territory, Australia। ৩১ অক্টোবর ১৯৮৪। পৃষ্ঠা 46। সংগ্রহের তারিখ ৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ – National Library of Australia-এর মাধ্যমে। 
  44. "CRICKET"The Canberra Times59, (17,932)। Australian Capital Territory, Australia। ২ নভেম্বর ১৯৮৪। পৃষ্ঠা 1 (SPORTS SECTION)। সংগ্রহের তারিখ ৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ – National Library of Australia-এর মাধ্যমে। 
  45. "The Home of CricketArchive"cricketarchive.com। সংগ্রহের তারিখ ৭ নভেম্বর ২০১৭ 
  46. "Strong team for rebel cricket tour, S.Africa says"The Canberra Times59, (18,103)। Australian Capital Territory, Australia। ২৩ এপ্রিল ১৯৮৫। পৃষ্ঠা 1। সংগ্রহের তারিখ ৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ – National Library of Australia-এর মাধ্যমে। 
  47. "Hughes gives his reasons for South African tour"The Canberra Times59, (18,130)। Australian Capital Territory, Australia। ২০ মে ১৯৮৫। পৃষ্ঠা 1। সংগ্রহের তারিখ ৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ – National Library of Australia-এর মাধ্যমে। 
  48. "S. Africa cricket tourists face three-year Test ban Go-ahead for rebal tour"The Canberra Times59, (18,202)। Australian Capital Territory, Australia। ৩১ জুলাই ১৯৮৫। পৃষ্ঠা 1। সংগ্রহের তারিখ ৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ – National Library of Australia-এর মাধ্যমে। 
  49. "Cricket tourists meet the Press"The Canberra Times60, (18,313)। Australian Capital Territory, Australia। ২০ নভেম্বর ১৯৮৫। পৃষ্ঠা 52। সংগ্রহের তারিখ ৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ – National Library of Australia-এর মাধ্যমে। 
  50. "Hughes' tourists knock up daunting innings"The Canberra Times60, (18,338)। Australian Capital Territory, Australia। ১৫ ডিসেম্বর ১৯৮৫। পৃষ্ঠা 25। সংগ্রহের তারিখ ৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ – National Library of Australia-এর মাধ্যমে। 
  51. "Pull of tourists falls further"The Canberra Times60, (18,340)। Australian Capital Territory, Australia। ১৭ ডিসেম্বর ১৯৮৫। পৃষ্ঠা 23। সংগ্রহের তারিখ ৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ – National Library of Australia-এর মাধ্যমে। 
  52. "The Home of CricketArchive"cricketarchive.com। সংগ্রহের তারিখ ৭ নভেম্বর ২০১৭ 
  53. "The Home of CricketArchive"cricketarchive.com। সংগ্রহের তারিখ ৭ নভেম্বর ২০১৭ 
  54. "The Home of CricketArchive"cricketarchive.com। সংগ্রহের তারিখ ৭ নভেম্বর ২০১৭ 
  55. "IN BRIEF Shield selectors overlook rebels"The Canberra Times62, (19,024)। Australian Capital Territory, Australia। ৫ নভেম্বর ১৯৮৭। পৃষ্ঠা 28। সংগ্রহের তারিখ ৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ – National Library of Australia-এর মাধ্যমে। 
  56. "No Qld smooch for 'hotlips' Hughes"The Canberra Times। Australian Capital Territory, Australia। ১৫ ডিসেম্বর ১৯৮৮। পৃষ্ঠা 24। সংগ্রহের তারিখ ৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ – National Library of Australia-এর মাধ্যমে। 
  57. "The Home of CricketArchive"cricketarchive.com। সংগ্রহের তারিখ ৭ নভেম্বর ২০১৭ 
  58. "Easts have better of rain-marred day"The Canberra Times63, (19,513)। Australian Capital Territory, Australia। ১২ মার্চ ১৯৮৯। পৃষ্ঠা 16। সংগ্রহের তারিখ ৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ – National Library of Australia-এর মাধ্যমে। 
  59. "Will the spot go to Merv or Craig"The Canberra Times63, (19,518)। Australian Capital Territory, Australia। ১৭ মার্চ ১৯৮৯। পৃষ্ঠা 18। সংগ্রহের তারিখ ৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ – National Library of Australia-এর মাধ্যমে। 
  60. "The Home of CricketArchive"cricketarchive.com। সংগ্রহের তারিখ ৭ নভেম্বর ২০১৭ 
  61. "The Home of CricketArchive"cricketarchive.com। সংগ্রহের তারিখ ৭ নভেম্বর ২০১৭ 
  62. "Times Sport WA looks set for outright victory"The Canberra Times64, (20,029)। Australian Capital Territory, Australia। ১২ ফেব্রুয়ারি ১৯৯০। পৃষ্ঠা 26। সংগ্রহের তারিখ ৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ – National Library of Australia-এর মাধ্যমে। 
  63. "Hogan named Warriors selector"। ৯ মে ২০০৩। 

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]