কোয়েল মল্লিক

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
কোয়েল মল্লিক
Koyel Mullick.jpg
কোয়েল মল্লিক
জন্ম রুখমিনি মল্লিক
(১৯৮২-০৪-২৮) ২৮ এপ্রিল ১৯৮২ (বয়স ৩৪)
কলকাতা, পশ্চিমবঙ্গ, ভারত
বাসস্থান কলকাতা, পশ্চিমবঙ্গ
জাতীয়তা ভারতীয়
জাতিসত্তা বাঙালী
শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গোখলে মেমোরিয়াল গার্লস কলেজ
পেশা পুলিশ কর্মকর্তা, অভিনেতা
যে জন্য পরিচিত অভিনয়
উচ্চতা ১.৬৭ মি (৫ ফু   ইঞ্চি)
দাম্পত্য সঙ্গী নিসপাল সিং রানে (বি. ২০১৩)
পিতা-মাতা(গণ) রঞ্জিত মল্লিক (পিতা)
দীপা মল্লিক (মাতা)

কোয়েল মল্লিক (জন্ম: ২৮শে এপ্রিল, ১৯৮২) একজন ভারতীয় পুলিশ কর্মকর্তা বাংলার সাবেক বিখ্যাত অভিনেত্রী এবং ব্লগার । তিনি বিখ্যাত অভিনেতা রঞ্জিত মল্লিকের মেয়ে।[১]

ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

কোয়েল পশ্চিমবঙ্গের কলকাতায় জন্মগ্রহণ করে। তাঁর পিতার নাম রঞ্জিত মল্লিক ও মাতার নাম দীপা মল্লিক। তিনি মেয়েদের মর্ডার্ণ হাই স্কুল থেকে তাঁর স্কুলজীবন অতিবাহিত করে। তিনি মনোবিজ্ঞান বিষয়ে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাথে যুক্ত গোখলে মেমোরিয়াল গার্লস কলেজ হতে বি.এস.সি (অনার্স) করেন।

বিয়ে[সম্পাদনা]

ফেব্রুয়ারি, ২০১৩ তে কোয়েল মল্লিকের সাথে তার দীর্ঘসময়ের বন্ধু নিসপাল সিংহ রানের[২] বিয়ে হয়েছে।[৩] নিসপাল সিং রানে সুরিন্দার ফিল্মস-এর কর্ণধার। তাঁর সাথে কোয়েলের দীর্ঘ পাঁচ বছরের সম্পর্ক ছিল।[৪] বিয়ের অনুষ্ঠানও হয়েছে পাঁচ দিন।[৪] ছিল আশীর্বাদ, সংগীত, গায়ে হলুদ, বিয়ে, বৌভাত। বিয়ে হিন্দুপাঞ্জাবি দুই নিয়মেই পালিত হয়।[৪][৫] অনুষ্ঠানে পশ্চিম বাংলার অনেক প্রখ্যাত অভিনয়শিল্পীরা উপস্থিত ছিলেন।[৬] ২০১৪ সালের ফেব্রুয়ারিতে তাঁদের বিয়ের এক বছর পূর্তি হয়।[৭]

অভিনয় জীবন[সম্পাদনা]

চলচ্চিত্র[সম্পাদনা]

কোয়েল মল্লিকের পর্দায় প্রথম আবির্ভাব নাটের গুরু [৮] সিনেমায় বিখ্যাত ভারতীয় বাংলা অভিনেতা জিতের বিপরীতে। নাটের গুরু বক্স অফিসে খুবই বিখ্যাত হয়।[৯] ২০০৩ সালে মুক্তি পাওয়া এই ছবির মাধ্যমেই টলিউডে কোয়েলের পদার্পন ঘটে। এই ছবিতে জিৎ প্রধান অভিনেতা চরিত্রে অভিনয় করে। কোয়েল মনিকা নামক ২৩ বছর বয়সী এক মেয়ের চরিত্রে অভিনয় করে। এই ছবির পর থেকে জিৎ-কোয়েল জুটি এক জনপ্রিয় জুটি হিসেবে বিভিন্ন সিনেমায় অভিনয় করে (প্রায় ১১টি ছবিতে)।[১০] ২০০৪ সালে কোয়েল দেবীপক্ষ, শুধু তুমি, বাদশাহ্‌, বন্ধন ছবিতে অভিনয় করে। প্রথম দুটি ছবি বক্স অফিসে তেমন কিছু করতে না পারলেও বাদশাহ্‌ খুবই হিট হয় এবং বক্স অফিসে ব্লকবাস্টার তকমা পায়। ২০০৪ সালের অন্যতম বিখ্যাত ছবিও এটা। ২০০৫ সালে কোয়েল শুভ দৃষ্টি, মানিক, যুদ্ধ, চোরে চোরে মাসতুতো ভাই ছবিতে অভিনয় করে। যুদ্ধ ছবিতে সে মিঠুন চক্রবর্তী ও দেবশ্রী রায়ের বিপরীতে অভিনয় করে। ছবিটি প্রথম সপ্তাহে ১.২ কোটি টাকা আয় করে। ২০০৬ সালে আরো গুরুত্বপূর্ন চরিত্রে, একজন সাংবাদিক হিসেবে এম.এল.এ ফাটাকেষ্ট ছবিতে অভিনয় করে। সে ১৯৭০ সালে নির্মিত লাভ স্টোরির পুননির্মান লাভ ছবিতে ২০০৮ সালে অভিনয় করে। [১১] ২০০৯ সাল হতে কোয়েল নানা বিখ্যাত ছবি যেমন বলো না তুমি আমার, দুই পৃথিবী, পাগলু, ১০০% লাভ, হেমলক সোসাইটি, পাগলু ২ সহ আরো নানা ছবিতে অভিনয় করে। ২০১১ সালে দেব-কোয়েল জুটি রাজিব বিশ্বাস পরিচালিত ও সুরিন্দার ফিল্মস প্রযোজিত পাগলু ছবিতে অভিনয় করে। এই ছবিটি চ্যালেঞ্জ ২ (অক্টোবর, ২০১২) এর আগ পর্যন্ত মুক্তির প্রথম দিনে সর্বাধিক দর্শক দেখার রেকর্ড করে। স্টার জলসায় যেদিন এই ছবিটি দেখানো হয়, সেদিন এই ছবিটি এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ টি.আর.পি (প্রায় ১২.২৫) আয় করে। এই ছবি টি.আর.পি যুদ্ধে থ্রি ইডিয়টসকেও পিছনে ফেলে দেয়। মুক্তির প্রথম সপ্তাহে এই ছবিটি ১৬৬টি সিনেমা হলে এবং ২য় সপ্তাহে ১৬৯টি থিয়েটারে মুক্তি পায়। ১৩ই জুন, ২০১১ পর্যন্ত এর ম্যাটিনি শো ৫ কোটি টাকা আয় করে। এই ছবিটি ছিল বিনোদনমূলক। এর গান, অভিনয় সবকিছুই ছিল অসাধারণ। এই ছবি বাংলায় এতই বিখ্যাত হয় যে সালমান খানের রেডি ছবিকেও এটি পেছনে ফেলে দেয়। এর পর এই জুটি পাগলু ২ ছবিতেও অভিনয় করে। এছাড়াও এই জুটি আরো নানা ব্লকবাস্টার ছবিতে অভিনয় করে।

টেলিভিশন[সম্পাদনা]

কোয়েল কথা ও কাহিনী টক-শোর মাধ্যমে টেলিভিশনে তাঁর পদার্পন ঘটায় ও ইটিভি বাংলায় রিয়েলেটি শো ঝলক দিখলা ঝা বিপরীতে রেমো ডি' সুজার সঙ্গে ও পেয়ার ওয়ালা লাভ স্টোরি রাহুল বৈদ্যর বিপরীত । [১২]

পণ্যদূত[সম্পাদনা]

কোয়েল বিভিন্ন বহুজাতিক প্রতিষ্ঠানের পণ্যদূত হিসেবে টিভিএস মোটর কোম্পানী, ফেয়ার এন্ড লাভলী, প্যানাসনিক, ভ্যাসলিন প্রভৃতি পণ্যের বিজ্ঞাপন করে

চলচ্চিত্রের তালিকা[সম্পাদনা]

বছর ছবি পরিচালক সহশিল্পী ভাষা
২০১৫ বেশ করেছি প্রেম করেছি[১৩] রাজা চন্দ জিৎ বাংলা
২০১৫ হিরোগিরি[১৪] রবি কিনাগী দেব, মিঠুন চক্রবর্তী বাংলা
২০১৪ চার সন্দীপ রায় আবীর চট্টোপাধ্যায় বাংলা
২০১৪ অরুন্ধতী[১৫] সুজিত মন্ডল ইন্দ্রনীল সেনগুপ্ত বাংলা
২০১৪ হাইওয়ে সুদিপ্ত চট্টোপাধ্যায় পরমব্রত চট্টোপাধ্যায় বাংলা
২০১৩ রংবাজ রাজা চন্দ দেব, রজতাভ দত্ত বাংলা
২০১২ দশমী সুমন মৈত্র ইন্দ্রনীল সেনগুপ্ত বাংলা
২০১২ পাগলু ২ সুজিত মন্ডল দেব, টোটা রায়চৌধুরী বাংলা
২০১২ হেমলক সোসাইটি সৃজিত মুখোপাধ্যায় পরমব্রত চট্টোপাধ্যায়, সাহেব চট্টোপাধ্যায়, শিলাজিৎ মজুমদার বাংলা
২০১২ জানেমন রাজা চন্দ সোহম চক্রবর্তী, আশীষ বিদ্যার্থী বাংলা
২০১২ ১০০% লাভ রবি কিনাগী জিৎ বাংলা
২০১১ পাগলু রাজিব বিশ্বাস দেব বাংলা
২০১০ দুই পৃথিবী রাজ চক্রবর্তী জিৎ, দেব বাংলা
২০১০ হ্যাংওভার প্রভাত রায় বিশেষ আবির্ভাব বাংলা
২০১০ প্রেম বাই চান্স সুদেষ্ণা রায় আবীর চট্টোপাধ্যায় বাংলা
২০১০ মন যে করে উড়ু উড়ু সুজিত গুহ হিরণ চট্টোপাধ্যায় বাংলা
২০১০ তু থা মন জাসি রাসি শ্রীতম দাস মিহির দাস, হারা পাটনায়েক ওড়িয়া
২০০৯ বলো না তুমি আমার সুজিত মন্ডল দেব, টোটা রায়চৌধুরী বাংলা
২০০৯ হিটলিস্ট সন্দীপ রায় সাহেব চট্টোপাধ্যায়, টোটা রায়চৌধুরী বাংলা
২০০৯ বর আসবে এখুনি রঞ্জন চক্রবর্তী যীশু সেনগুপ্ত, কাঞ্চন মল্লিক বাংলা
২০০৯ নীল আকাশের চাঁদনী সুজিত গুহ জিৎ, যীশু সেনগুপ্ত বাংলা
২০০৯ জ্যাকপট কৌশিক গাঙ্গুলি হিরণ চট্টোপাধ্যায়, রাহুল বন্দ্যোপাধ্যায়, সোহিনী পাল, দেব বাংলা
২০০৯ সাত পাকে বাঁধা সুজিত মন্ডল জিৎ বাংলা
২০০৮ লাভ রিঙ্গো বন্দ্যোপাধ্যায় যীশু সেনগুপ্ত বাংলা
২০০৮ চিরসাথী হারানাথ চক্রবর্তী হিরণ চট্টোপাধ্যায় বাংলা
২০০৮ মন মানে না সুজিত গুহ দেব বাংলা
২০০৮ প্রেমের কাহিনী রবি কিনাগী দেব, যীশু সেনগুপ্ত বাংলা
২০০৭ চাঁদের বাড়ি তরুন চক্রবর্তী সোহম চক্রবর্তী বাংলা
২০০৭ মহানায়ক দেবু পাটনায়েক রাহুল দেব, অনুভব মোহান্তি, বিজয় মোহান্তি ওড়িয়া
২০০৭ মিনিষ্টার ফাটাকেষ্ট স্বপন সাহা মিঠুন চক্রবর্তী বাংলা
২০০৭ নবাব নন্দিনী হারানাথ চক্রবর্তী হিরণ চট্টোপাধ্যায়, তাথৈ দেব বাংলা
২০০৬ এম.এল.এ ফাটাকেষ্ট স্বপন সাহা মিঠুন চক্রবর্তী বাংলা
২০০৬ শিকড় সারান দত্ত অমিতাভ ভট্টাচার্য বাংলা
২০০৬ ঘটক স্বপন সাহা জিৎ বাংলা
২০০৬ এরই নাম প্রেম সুজিত গুহ অনুভব মোহান্তি বাংলা
২০০৬ হিরো স্বপন সাহা জিৎ বাংলা
২০০৫ চোরে চোরে মাসতুতো ভাই অনুপ সেনগুপ্ত যীশু সেনগুপ্ত, মিঠুন চক্রবর্তী, জিৎ বাংলা
২০০৫ প্রেমি নং ১ দেবু পাটনায়েক রাহুল দেব, অনুভব মোহান্তি ওড়িয়া
২০০৫ শুভদৃষ্টি প্রভাত রায় জিৎ, পরমব্রত চট্টোপাধ্যায় বাংলা
২০০৫ যুদ্ধ রবি কিনাগী মিঠুন চক্রবর্তী, জিৎ বাংলা
২০০৫ মানিক প্রভাত রায় জিৎ বাংলা
২০০৪ দেবীপক্ষ রাজা সেন ঋতুপর্ণ সেনগুপ্ত বাংলা
২০০৪ শুধু তুমি অভিজিত গুহ, সুদেষ্ণা রায় প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়, পায়েল সরকার বাংলা
২০০৪ বন্ধন রবি কিনাগী জিৎ বাংলা
২০০৪ বাদশাহ সৌরভ চক্রবর্তী প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় বাংলা
২০০৩ নাটের গুরু হারানাথ চক্রবর্তী জিৎ বাংলা

পুরষ্কার[সম্পাদনা]

  • কলাকার পুরষ্কার

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Tollywood top girls on the go, at a glance"The Telegraph (Calcutta, India)। ৪ সেপ্টেম্বর ২০০৪। সংগৃহীত ৮ সেপ্টেম্বর ২০০৮ 
  2. "টোপর পরা নিয়ে আমার পেছনে লাগা শুরু হয়ে গেছে"আনন্দবাজার পত্রিকা। সংগৃহীত ১ সেপ্টেম্বর ২০১২ 
  3. "আজ কোয়েলের বিয়ে"প্রথম আলো। সংগৃহীত ১ ফেব্রুয়ারি ২০১৩ 
  4. ৪.০ ৪.১ ৪.২ "বিয়ে নিয়ে দারুণ ব্যস্ত কোয়েল"প্রথম আলো। সংগৃহীত ১৬ জানুয়ারি ২০১৩ 
  5. "রানে যখন জীবনের মানে"আনন্দবাজার পত্রিকা। সংগৃহীত ৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৩ 
  6. "কোয়েলের কাছে"আনন্দবাজার পত্রিকা। সংগৃহীত ৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৩ 
  7. "দিল্লি কা লাড্ডু খেয়ে পস্তাচ্ছি না"আনন্দবাজার পত্রিকা। সংগৃহীত ৩১ জানুয়ারি ২০১৪ 
  8. Koyel Mallick, Short Biography. কোয়েল মল্লিকের সংক্ষিপ্ত জীবনী
  9. Mitra, Aindrila (২৪ এপ্রিল ২০০৪)। "Koel's on a Tolly high with Nater Guru"The Times Of India। সংগৃহীত ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১০ 
  10. "10 Questions – Koel Mullick"। Calcutta, India: www.telegraphindia.com। ২৮ জানুয়ারি ২০০৮। সংগৃহীত ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১০ 
  11. Kushali Nag (৩ অক্টোবর ২০০৭)। "A Tale of Tenderness"The Telegraph (Calcutta, India)। সংগৃহীত ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১০ 
  12. "Star talk"The Telegraph। ২৯ এপ্রিল ২০১০। সংগৃহীত ২৯ আগস্ট ২০১২ 
  13. "তখনই বুঝেছিলাম জিতের সহ্যশক্তি ভালোই"এই সময়। সংগৃহীত ৮ জুলাই, ২০১৫ 
  14. "ব্যোম শঙ্কর ভজ গৌরাঙ্গ"আনন্দবাজার পত্রিকা। সংগৃহীত ২৩ এপ্রিল, ২০১৪ 
  15. "রণং দেহি"আনন্দবাজার পত্রিকা। সংগৃহীত ২১ অক্টোবর ২০১৩ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]