কিমিগায়ো

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
君が代
"কিমিগায়ো"
Kimigayo.score.svg

 জাপান
জাপান সাম্রাজ্য-এর জাতীয় সঙ্গীত

কথাওয়াকা কবিতা, হেইআন কাল (৭৯৪-১১৮৫)
সুরইয়োশিইসা ওকু, আকিমোরি হায়াশি এবং Franz Eckert, ১৮৮০
গ্রহণের তারিখ১৩ আগস্ট ১৯৯৯
সঙ্গীতের নমুনা
A page with Asian characters and a black-and-white version of the Japanese flag left above
জাপানের জাতীয় পতাকা ও জাতীয় সংগীতের উপর আইনের নথি, আগস্ট ১৫, ১৯৯৯-তে সরকারি গেজেটে প্রদর্শিত

"কিমিগায়ো" (君が代, জাপানি উচ্চারণ: [kimiɡajo]; "সম্রাটের রাজত্ব") জাপানের জাতীয় সঙ্গীত। গানের কথাগুলি হেইয়ান যুগে (৭৯৪-১১৮৫)[১] এক বেনামি লেখকের লেখা একটি ওয়াকা কবিতা থেকে এসেছে এবং গানের বর্তমান সুরটি ১৮৮০ সালে জন উইলিয়াম ফেন্টন এগারো বছর আগে রচিত একটি অপ্রিয় সুরের পরিবর্তে বেছে নেওয়া হয়েছিল। যদিও "কিমিগায়ো" শিরোনামটি সাধারণত "সম্রাটের রাজত্ব" বা "তাঁর রাজকীয় মহিমা" হিসাবে অনুবাদ করা হয়, তবে শিরোনাম বা গানের কোনো সরকারি অনুবাদ আইনে প্রতিষ্ঠিত হয়নি।[২]

১৮৮৮ থেকে ১৯৪৫ পর্যন্ত "কিমিগায়ো" জাপান সাম্রাজ্যের জাতীয় সংগীত ছিল। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ শেষে আত্মসমর্পণের পর যখন সাম্রাজ্য বিলুপ্ত হয়, তখন ১৯৪৫ সালে জাপান রাজ্য এর স্থলাভিষিক্ত হয়। উত্তরসূরি রাষ্ট্রটি একটি সংসদীয় গণতন্ত্র এবং এর শাসনতন্ত্র সাম্রাজ্যবাদী সার্বভৌমত্ব থেকে জনসার্বভৌমিত্বে পরিবর্তিত হয়। তবে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের দখলদার বাহিনী সম্রাট হিরোহিতোকে সিংহাসন আসীন রাখে এবং "কিমিগায়ো" কার্যত জাতীয় জাতীয় সংগীত হিসাবেই রয়ে যায়। ১৯৯৯ সালে জাতীয় পতাকা ও সংগীতের উপর আইন পাসের মাধ্যমে এটিকে রাষ্ট্রীয় জাতীয় ও রাজকীয় সংগীত হিসাবে স্বীকৃতি দেওয়া হয়।

ব্যুৎপত্তি[সম্পাদনা]

ইতিহাস[সম্পাদনা]

গানের কথা[সম্পাদনা]

কাঞ্জি এবং হিরাগানা লিপির মিশ্রণ[৩] হিরাগানা লিপিতে[৩] জাপানি ভাষার রোমানীকরণ[৪] বাংলা লিপিতে উচ্চারণ বাংলা অনুবাদ (সত্যেন্দ্রনাথ দত্ত অনূদিত)

君が代は
千代に八千代に
細石の
巌となりて
苔の生すまで

きみがよは
ちよにやちよに
さざれいしの
いわおとなりて
こけのむすまで

Kimigayo wa
Chiyo ni yachiyo ni
Sazare-ishi no
Iwao to narite
Koke no musu made

কিমিগায়ো ওয়া
চিয়োনি ইয়াচিয়োনি
সাজারে ইশি নো
ইওয়াও তো নারিতে
কোকে নো মুসু মাদে

অযুত যুগ ধরি বিরাজো মহারাজ!
রাজ্য হোক তব অক্ষয়;
উপল যতদিন
না হয় মহীধর;
প্রভূত শৈবালে শােভাময়।

পাদটীকা[সম্পাদনা]

  1. "Japan – Kimigayo"। NationalAnthems.me। ২০১১-১২-২৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১১-১১-২৮ 
  2. "Elementary schools face new mandate: Patriotism, 'Kimigayo'"The Japan Times Online। Kyodo News। ২০০৮-০৩-২৯। সংগ্রহের তারিখ ২০১১-০৮-২০ 
  3. 国旗及び国歌に関する法律
  4. "National Flag and Anthem" (PDF)Web Japan। Japanese Ministry of Foreign Affairs।