কাকিনাড়া বন্দর

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
(কাকিনাডা বন্দর থেকে পুনর্নির্দেশিত)
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
কাকিনাডা বন্দর
Far view of Kakinada port from Beach.jpg
কাকিনাডা বন্দর
অবস্থান
দেশ ভারত
অবস্থানকাকিনাড়া,অন্ধ্রপ্রদেশ
স্থানাঙ্ক১৬°৫৮′৩০″ উত্তর ৮২°১৬′৪৪″ পূর্ব / ১৬.৯৭৫° উত্তর ৮২.২৭৯° পূর্ব / 16.975; 82.279
বিস্তারিত
পরিচালনা করেকাকিনাডা বন্দর কর্তিপক্ষ
মালিকভারত সরকার
পোতাশ্রয়ের প্রকারপ্রাকৃতিক (সমুদ্র বন্দর)
উপলব্ধ নোঙরের স্থান
  • ৪ টি
* ২ টি নির্মাণাধীন
পরিসংখ্যান
বার্ষিক কার্গো টন১৪.৫০ মিলিয়ন টন (২০১৬-২০১৭)

কাকিনাড়া বন্দর ভারতের পূর্ব উপকূলে অন্ধ্রপ্রদেশ রাজ্যের বিশাখাপত্তনাম বন্দর থেকে ১৬০ কিলোমিটার দক্ষিণে বঙ্গোপসাগরের তীরে অবস্থিত।[১] কাকিনাডা আঙ্কোরাগ বন্দর,কাকিনাডা গভীর সমুদ্র বন্দর,কাকিনাডা মৎস বন্দর নিয়ে কাকিনাডা বন্দরটি গঠিত।কাকিনাডা আঙ্করাগ বন্দরটি কম গভীরতার বন্দর এবং বেশি গভীরতার বন্দরটি হল কাকিনাডা গভীর সমুদ্র বন্দর।[২]

কাকিনাড়া গভীর সমুদ্র বন্দরের গভীরতা ১২ মিটার ।এই বন্দরটি ৫০,০০০ ডিডাব্লুটি জাহাজ নিয়ন্ত্রণ করতে পাড়ে।[১] বর্তমানে বন্দরটির পণ্য পরিবহন ক্ষমতা ২০ মিলিয়ন টন।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

কাকিনাড়া গভীর জলের বন্দর ৬১০ মিটার দৈর্ঘ্যের জেটি বা ডক ইয়ার্ডের সঙ্গে নভেম্বর ২০১৭ সালে অন্ধ্রপ্রদেশ সরকার কর্তৃক উদ্ঠোদন করা হয়। ১৯৯৯ সালে বন্দরটি বেসরকারীকরণের মাধ্যে বন্দরটি পরিচালিত হয়েছিল। দশ বছর পর গভীর সমুদ্ররের পণ্য পরিবাহনের জন্য মাল্টি-প্রোডাক্ট হ্যান্ডলিং এবং স্ট্যান্ডবাই সুবিধার জন্য ডক ইয়ার্ডকে ২,৫০০ মিটার দৈর্ঘ্যে প্রসারিত করা হয়েছিল।

প্রবেশ পথ[সম্পাদনা]

গভীর সমুদ্র থেকে বন্দরে জাহাজের প্রবেশ পথ ১০ কিমি দীর্ঘ। প্রবেশ পথটি ১৬০ মিটার চওড়া ও ১৪.৫ মিটার গভীর। প্রবেশ পথে ৬ টি চ্যানেল বয়া রয়েছে।

পোতাশ্রয়[সম্পাদনা]

বন্দরের পোতাশ্রয়টি প্রধান জেটি, ওএসভি জেটি ও বহুমুখী বার্থ নিয়ে গঠিত। প্রথান জেটিতে ৬ টি বার্থ রয়েছে। প্রধান জেটি ২৫ মিটার চওড়া। ছয়টি বার্থ সহ প্রধান জেটির দৈর্ঘ্য হল ১,৫১০ মিটার। উচ্চ জোয়াড়ের সময়ে বন্দরের পোতাশ্রয়ের সর্বোচ্চ গভীরতা হল ১৪ মিটার।

পশ্চাৎভূমি[সম্পাদনা]

পূর্ব গোদাবরী, পশ্চিম গোদাবরী, কৃষ্ণা, গুন্টুর এবং সমগ্র তেলঙ্গানা রাজ্যের জেলাগুলির নিয়ে বন্দরটির পশ্চাৎভূমি গঠিত। এই অঞ্চলের প্রাথমিক কার্গো হল কৃষি পণ্য, খনিজ পদার্থ, কয়লা ও সার রয়েছে।

পন্য পরিবহন[সম্পাদনা]

বন্দরটি ২০১০-২০১১ সলে ১০.৮১ মিলিয়ন টন পণ্য পরিবহন করে এবং ২০১২-২০১৩ সালে ১২ মিলিয়ন টনের বেশি পণ্য পরিবহন করে।

যোগাযোগ ব্যবস্থা[সম্পাদনা]

বন্দরটির পাশেই রয়েছে ২১৬ নং জাতীয় সড়ক। ১৬ নং জাতীয় সড়ক (কলকাতা-চেন্নাই মহাসড়) ৬০ কিমি দূরে অবস্থিত।

কাকিনাড়া বন্দর রেলওয়ে স্টেশন চালু হয়। এই স্টেশন থেকে কলকাতা-চেন্নাই রেল পথ ২০ কিমি দূরে অবস্থিত।

পাইপলাইন[সম্পাদনা]

বন্দরটি অন্ধ্রপ্রদেশের প্রাকৃতিক গ্যাস গ্রিডের সঙ্গে যুক্ত রয়েছে। রিলায়েন্সের ইস্ট ওয়েস্ট পাইপ লাইন বন্দরটিকে গুজরাটের সঙ্গে যুক্ত করেছে। এছাড়া ভোজ্য তেল, পেট্রোলিয়াম পণ্য, এফ আর এম, তরল অ্যামোনিয়া জন্য পাইপলাইন রয়েছে কাকিনাড়া বন্দরে।

আরও[সম্পাদনা]

তথ্যসূ্ত্র[সম্পাদনা]

  1. "Kakinada Deep Water Port"। Department of Ports, Government of Andhra Pradesh। ২০১৩-০১-২৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৩-০১-২৫ 
  2. "Kakinada Anchorage Port"। Department of Ports, Government of Andhra Pradesh। ২০১৩-০৫-১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৩-০১-২৫ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]