অ্যাডাম প্যারোরে

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
অ্যাডাম প্যারোরে
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামঅ্যাডাম ক্রেইগ প্যারোরে
জন্ম (1971-01-23) ২৩ জানুয়ারি ১৯৭১ (বয়স ৪৮)
অকল্যান্ড, নিউজিল্যান্ড
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
ভূমিকাউইকেট-রক্ষক
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
টেস্ট অভিষেক
(ক্যাপ ১৭১)
৫ জুলাই ১৯৯০ বনাম ইংল্যান্ড
শেষ টেস্ট৩ এপ্রিল ২০০২ বনাম ইংল্যান্ড
ওডিআই অভিষেক
(ক্যাপ ৮০)
৩১ অক্টোবর ১৯৯২ বনাম জিম্বাবুয়ে
শেষ ওডিআই৮ ফেব্রুয়ারি ২০০২ বনাম দক্ষিণ আফ্রিকা
ওডিআই শার্ট নং৬৭
ঘরোয়া দলের তথ্য
বছরদল
১৯৮৮-২০০২অকল্যান্ড
১৯৯৮-১৯৯৯নর্দার্ন ডিস্ট্রিক্টস
২০০৮চেন্নাই সুপারস্টার্স
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট ওডিআই এফসি এলএ
ম্যাচ সংখ্যা ৭৮ ১৭৯ ১৬৩ ২৫৫
রানের সংখ্যা ২,৮৬৫ ৩,৩১৪ ৬,৮২৬ ৫,০৩৩
ব্যাটিং গড় ২৬.২৮ ২৫.৬৮ ৩২.৬৬ ২৬.৯১
১০০/৫০ ২/১৪ ১/১৪ ১০/৩৬ ১/২৪
সর্বোচ্চ রান ১১০ ১০৮ ১৫৫* ১০৮
বল করেছে ৩০ -
উইকেট -
বোলিং গড় - -
ইনিংসে ৫ উইকেট -
ম্যাচে ১০ উইকেট - -
সেরা বোলিং - -
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ১৯৭/৭ ১১৬/২৫ ৩৬৭/২৪ ১৬৯/৩৩
উৎস: ক্রিকইনফো, ২৮ জুলাই ২০১৭

অ্যাডাম ক্রেইগ প্যারোরে (ইংরেজি: Adam Parore; জন্ম: ২৩ জানুয়ারি, ১৯৭১) অকল্যাণ্ডে জন্মগ্রহণকারী প্রথিতযশা সাবেক নিউজিল্যান্ডীয় আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার। নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি। সমগ্র খেলোয়াড়ী জীবনে ৭৮ টেস্ট ও ১৭৯টি একদিনের আন্তর্জাতিকে অংশগ্রহণ করেছেন। দলে তিনি মূলতঃ উইকেট-রক্ষকের ভূমিকায় অবতীর্ণ হতেন। ডানহাতি ব্যাটসম্যান অ্যাডাম প্যারোরে ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে অকল্যাণ্ড ও নর্দার্ন ডিস্ট্রিক্টসের পক্ষে প্রতিনিধিত্ব করেছেন। এছাড়াও, চেন্নাই সুপারস্টার্সের পক্ষে ইন্ডিয়ান ক্রিকেট লীগে খেলেছেন তিনি। বর্তমানে তিনি ‘অ্যাডাম প্যারোরে মর্টগেজেস’ নামের একটি আর্থিক প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপনা পরিচালকের দায়িত্ব পালন করছেন।

খেলোয়াড়ী জীবন[সম্পাদনা]

প্রথম মাওরি জনগোষ্ঠীর সদস্য হিসেবে নিউজিল্যান্ডের পক্ষে ক্রিকেট খেলার সুযোগ পান।[১] ৫ জুলাই, ১৯৯০ তারিখে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে তার টেস্ট অভিষেক ঘটে। এক দশকেরও অধিক সময় নিউজিল্যান্ডের প্রতিনিধিত্ব করার পর অবসর গ্রহণ করেন। ৩ এপ্রিল, ২০০২ তারিখে অকল্যান্ডে সফরকারী ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সর্বশেষ টেস্টে অংশগ্রহণ করেন তিনি। ২০৪টি টেস্ট ডিসমিসালের সাথে জড়িত তিনি, যা নিউজিল্যান্ডীয় রেকর্ডবিশেষ।[২]

একদিনের আন্তর্জাতিক[সম্পাদনা]

৩১ অক্টোবর, ১৯৯২ তারিখে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ওডিআইয়ে অভিষিক্ত হন। ২ ডিসেম্বর, ১৯৯৪ থেকে ১২ জানুয়ারি, ১৯৯৫ তারিখ পর্যন্ত দক্ষিণ আফ্রিকায় অনুষ্ঠিত চার-দেশীয় মান্ডেলা ট্রফির একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেট প্রতিযোগিতায় সনাথ জয়াসুরিয়া, অ্যাডাম প্যারোরে, ডেভ কালাগানমাইকেল রিন্ডেল তাদের প্রথম ওডিআই শতক হাঁকান।[৩] তন্মধ্যে, প্যারোরে প্রতিযোগিতায় দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক হন। তবে, ঐ প্রতিযোগিতায় তার দল সর্বনিম্ন স্থান দখল করেছিল।

বাউন্ডারিবিহীন অবস্থায় একদিনের আন্তর্জাতিকে সর্বোচ্চ রানের রেকর্ড রয়েছে তার। ১৯৯৪ সালে বড়োদরায় অনুষ্ঠিত স্বাগতিক ভারতের বিপক্ষে কোন বাউন্ডারির মার ছাড়াই ৯৬ রান তুলেন।[৪] ১৯৯৬১৯৯৯ সালের ক্রিকেট বিশ্বকাপে নিউজিল্যান্ড দলের পক্ষে খেলেন। তন্মধ্যে, ১৯৯৯ সালে তার দল সেমি-ফাইনাল পর্যন্ত অগ্রসর হতে পেরেছিল।

২০০৮ সালে টুয়েন্টি২০ প্রতিযোগিতা হিসেবে ইন্ডিয়ান ক্রিকেট লীগে খেলার জন্য চুক্তিবদ্ধ হন। চেন্নাই সুপারস্টার্সের পক্ষে অংশ নেন তিনি।

ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

২০০৩ সালে বিশিষ্ট সমাজকর্মী ও টেলিভিশন উপস্থাপক স্যালি রিজের সাথে পরিণয়সূত্রে আবদ্ধ হন। তাদের সংসারে দুই সন্তান রয়েছে। এছাড়াও তারা ক্রীড়া পোশাক বিক্রয় প্রতিষ্ঠান পরিচালনা করছেন। বাড়ী ধ্বংসের ন্যায় বিতর্কিত বিষয়ের সাথে রিজ ও প্যারোরে জড়িত রয়েছেন। তারা ১০০-বছরের পুরনো একটি বাড়ী ধ্বংস করতে চান ও নতুন ভবন স্থাপনের প্রয়াস চালান।[৫]

২০০৬ সালে নিজস্ব ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান অ্যাডাম প্যারোরে মর্টগেজেস পরিচালনায় অগ্রসর হন। মে, ২০১১ সালে একমাত্র টেস্ট ক্রিকেটার হিসেবে[৬] এভারেস্ট পর্বতমালা সাফল্যের সাথে আরোহণ করেন।[৭] মার্চ, ২০১৪ সালে হোকিয়াঙ্গায় মিলার রোজ ম্যাকলিয়ড-ম্যাকগি নাম্নী ২২-বছয় বয়সী এক রমণীর পাণিগ্রহণ করেন।[৮] তবে, প্রতিবেদনে প্রকাশ পায় যে, ২০১৬ সালে তাদের মধ্যকার বৈবাহিক সম্পর্ক বিচ্ছেদে পরিণত হয়েছে।[৯]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Cricket Selectors Change Team in Bid to Get Lucky, International Herald Tribune, Retrieved on 19 October 2007
  2. Tests – Most dismissals for New Zealand ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ২০ ফেব্রুয়ারি ২০০৮ তারিখে, Cricinfo, Retrieved on 19 October 2007
  3. "Wisden - Mandela Trophy, 1994-95". ESPNcricinfo. Retrieved 28 July 2017.
  4. Most One Day International runs without a boundary, Cricinfo, Retrieved on 16 January 2009
  5. Orsman, Bernard (২৫ মার্চ ২০০৬)। "Celebrity couple can demolish house"The New Zealand Herald। সংগ্রহের তারিখ ৭ নভেম্বর ২০১১ 
  6. "Parore sorry for fat attack"Stuff.co.nz। ৩০ নভেম্বর ২০১১। সংগ্রহের তারিখ ৩০ নভেম্বর ২০১১ 
  7. Pepperell, Susan (২২ মে ২০১১)। "Adam Parore conquers Mt Everest"Stuff.co.nz। সংগ্রহের তারিখ ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১১ 
  8. "Harbourside wedding for cricketer and model bride"। nzherald.co.nz। সংগ্রহের তারিখ ৯ মার্চ ২০১৪ 
  9. "Stumps pulled on Adam Parore's marriage to Miller Rose"Stuff। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-১২-১৯ 

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]