জার্মানি জাতীয় ফুটবল দল

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
 জার্মানি
শার্ট ব্যাজ/অ্যাসোসিয়েশন ক্রেস্ট
ডাকনাম ডাই মানশ্যাফ্‌ট (দ্য টিম), অজার্মানভাষী গণমাধ্যমে ব্যবহৃত হয়
ডাই ডিএফবি-এল্ফ (ডিএফবি একাদশ)
অ্যাসোসিয়েশন জার্মান ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন
(Deutscher Fußball-Bund — DFB)
কনফেডারেশন উয়েফা (ইউরোপ)
প্রধান কোচ ইওয়াখিম ল্যোভ
অধিনায়ক ফিলিপ লাম
সর্বাধিক খেলায় অংশ নেওয়া খেলোয়াড় লোথার মাথেউস (১৫০)
শীর্ষ গোলদাতা গার্ড ম্যুলার (৬৮)
ফিফা কোড GER
ফিফা র‌্যাঙ্কিং
সর্বোচ্চ ফিফা র‌্যাঙ্কিং (আগস্ট ১৯৯৩)
সর্বনিম্ন ফিফা র‌্যাঙ্কিং ২৩ (মার্চ ২০০৬)
এলো রেটিং
সর্বোচ্চ এলো রেটিং (১৯৯০-৯২, ১৯৯৩-৯৪, ১৯৯৬-৯৭)
সর্বনিম্ন এলো রেটিং ২৮ (১৯২৩)
প্রথম জার্সি
দ্বিতীয় জার্সি
প্রথম আন্তর্জাতিক খেলা

  সুইজারল্যান্ড ৫ - ৩  জার্মানি


(বাজেল, সুইজারল্যান্ড; ৫ এপ্রিল, ১৯০৮)
সর্বোচ্চ জয়
 জার্মানি ১৬ - ০  রাশিয়া
(স্টকহোম, সুইডেন; ১ জুলাই, ১৯১২)
সর্বোচ্চ পরাজয়
 ইংল্যান্ড ৯ - ০  জার্মানি
(অক্সফোর্ড, ইংল্যান্ড; ১৩ মার্চ, ১৯০৯)[১]
বিশ্বকাপ
উপস্থিতি ১৬ (প্রথম ১৯৩৪)
শ্রেষ্ঠ ফলাফল চ্যাম্পিয়ন, ১৯৫৪, ১৯৭৪, ১৯৯০, ২০১৪
ইউরোপীয় চ্যাম্পিয়নশিপ
উপস্থিতি ১০ (প্রথম ১৯৭২)
শ্রেষ্ঠ ফলাফল চ্যাম্পিয়ন, ১৯৭২, ১৯৮০, ১৯৯৬
কনফেডারেশন্স কাপ
উপস্থিতি ২ (প্রথম ১৯৯৯)
শ্রেষ্ঠ ফলাফল ৩য় অবস্থান, ২০০৫

জার্মানি জাতীয় ফুটবল দল (জার্মান: 'Die deutsche Fußballnationalmannschaft — উচ্চারণ: ডাই ডয়েচ্‌ ফুসবাইন্যাটশিনাইলমানশাফ্‌ট') হচ্ছে ১৯০৮ সাল থেকে আন্তর্জাতিক ফুটবলে জার্মানির প্রতিনিধি। এটি নিয়ন্ত্রণ করে জার্মান ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন (DFB) (Deutscher Fußball-Bund)। এটি ১৯০০ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিলো।

১৯৫০ থেকে ১৯৯০ সাল পর্যন্ত এই দলটিকে পশ্চিম জার্মানি হিসেবে অভিহিত করা হতো। কারণ দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর ডিবিএফ মূলত ফেডারেল রিপাবলিক অফ জার্মানিকে কেন্দ্র করেই প্রতিষ্ঠিত হয়। আর এই ফেডারেল রিপাবলিককে ১৯৪৯ থেকে ১৯৫০ পর্যন্ত পশ্চিম জার্মানি হিসেবে ডাকা হতো। ১৯৫০ সালের বিশ্বকাপের পর ফিফার মাধ্যমে ডিবিএফ পশ্চিম জার্মানির ফুটবল দলের নিয়ন্ত্রণকরী প্রতিষ্ঠান হিসেবে স্বীকৃতি পায়। তবে সেসময় জার্মানির পৃথক দলের অস্তিত্বও ছিলো, এবং সেগুলো ছিলো ফিফা দ্বারা স্বীকৃত। এর মধ্যে আছে সারাল্যান্ড দল (১৯৫০-১৯৫৬), ও পূর্ব জার্মানি ফুটবল দল (১৯৫২-১৯৯০)। পরবর্তীতে উভয় দলই বর্তমানের মূল দলের সাথে একত্রিত হয়। সেই সাথে ফিফার মাধ্যমে তাদের খেলা সংখ্যা, গোল, বিশ্বকাপ জয়, রেকর্ড, প্রভৃতি সবকিছু মূল জার্মানি দলের সাথে একত্রীকরণ করা হয়। ১৯৯০ সালে জার্মানি দলটির ফিফার প্রাতিষ্ঠানিক কোড ‘Germany FR’ (FRG) থেকে পরিবর্তিত হয়ে ‘Germany’ (GER) হয়।

আন্তর্জাতিক ফুটবল প্রতিযোগীতায় অন্যতম সফল দল তিনটির মধ্যে জার্মানি একটি। এখন পর্যন্ত দলটি চারবার ফিফা বিশ্বকাপ শিরোপা ও ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়ন্স লীগ শিরোপা জয় করেছে। বিশ্বের সবচেয়ে বেশি স্থিতিশীল ও ঠান্ডা মাথার দল হিসেবে ধরা হয়। তিন বার করে শিরোপা জয়ের পাশাপাশি দলটি ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়ন্স লীগের তিনবার ও বিশ্বকাপ ফুটবলে চারবার রানার্স-আপ হওয়ার গৌরব অর্জন করে। সেই সাথে তাঁরা তিনবার বিশ্বকাপে তৃতীয় স্থান অধিকার করেছিলো। ১৯৭৬ সালে পূর্ব জার্মানি অলিম্পিকে স্বর্ণপদক জয় করে। ফুটবল ইতিহাসে জার্মানি-ই একমাত্র দেশ যারা পুরুষ ও নারী উভয় ফুটবল বিশ্বকাপে শিরোপা অর্জন করতে সমর্থ হয়েছে।

ট্রফি[সম্পাদনা]

প্রতিদ্বন্দ্বিতা ১ ২ ৩ মোট
বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপ ১২
ইউরোপীয়ান চ্যাম্পিয়নশিপ
কনফেডারেশন্স কাপ
অলিম্পিক ফুটবল
সর্বমোট ২২

পোশাক বিবর্তন[সম্পাদনা]

স্বদেশী[২]

১৯০৮
বিশ্বকাপ
১৯৩৪
বিশ্বকাপ
১৯৩৮[৩]
বিশ্বকাপ
১৯৫৪
বিশ্বকাপ
১৯৭০
বিশ্বকাপ
১৯৭৪
বিশ্বকাপ
১৯৭৮
ইউরো ১৯৮০ এবং বিশ্বকাপ ১৯৮২
ইউরো
১৯৮৪
বিশ্বকাপ
১৯৮৬
ইউরো ১৯৮৮ এবং বিশ্বকাপ ১৯৯০
ইউরো
১৯৯২
বিশ্বকাপ
১৯৯৪
ইউরো
১৯৯৬
বিশ্বকাপ
১৯৯৮
ইউরো
২০০০
বিশ্বকাপ
২০০২
ইউরো
২০০৪
বিশ্বকাপ
২০০৬
ইউরো
২০০৮
বিশ্বকাপ
২০১০
ইউরো
২০১২
বিশ্বকাপ
২০১৪

Away[২]

বিশ্বকাপ
১৯৫৪–১৯৫৮
বিশ্বকাপ
১৯৬৬– ১৯৭০
বিশ্বকাপ
১৯৭৪–১৯৭৮
ইউরো ১৯৮০ – বিশ্বকাপ ১৯৮২
ইউরো ১৯৮৪ – বিশ্বকাপ ১৯৮৬
ইউরো ১৯৮৮ – বিশ্বকাপ ১৯৯০
ইউরো
১৯৯২
বিশ্বকাপ
১৯৯৪
ইউরো
১৯৯৬
বিশ্বকাপ
১৯৯৮
ইউরো
২০০০
বিশ্বকাপ
২০০২
ইউরো
২০০৪
কনফেড কাপ
২০০৫
বিশ্বকাপ
২০০৬
ইউরো
২০০৮
বিশ্বকাপ
২০১০
ইউরো
২০১২
বিশ্বকাপ
২০১৪

ফিফা বিশ্বকাপ রেকর্ড[সম্পাদনা]

ফিফা বিশ্বকাপ রেকর্ড যোগ্যতার রেকর্ড
বছর রাউন্ড অবস্থান খেলা জয় ড্র হার গোল গো প্র খেলা জয় ড্র হার গোল ড়ো প্র
উরুগুয়ে ১৯৩০ প্রবেশ করেনি প্রবেশ করেনি
ইতালি ১৯৩৪ তৃতীয় স্থান ৩য় ১১
ফ্রান্স ১৯৩৮ প্রথম রাউন্ড ১০ম ১১
ব্রাজিল ১৯৫০ নিষিদ্ধ নিষিদ্ধ
সুইজারল্যান্ড ১৯৫৪ চ্যাম্পিয়নস ১ম ২৫ ১৪ ১২
সুইডেন ১৯৫৮ চতুর্থ স্থান ৪র্থ ১২ ১৪ ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন হিসেবে কোয়ালিফাই
চিলি ১৯৬২ কোয়ার্টার ফাইনালে ৭ম ১১
ইংল্যান্ড ১৯৬৬ রানার্স-আপ ২য় ১৫ ১৪
মেক্সিকো ১৯৭০ তৃতীয় স্থান ৩য় ১৭ ১০ ২০
পশ্চিম জার্মানি ১৯৭৪ চ্যাম্পিয়নস ১ম ১৩ আয়োজক হিসেব কোয়িলফাই
আর্জেন্টিনা ১৯৭৮ নক আউট পর্যায় ৬ষ্ঠ ১০ ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন হিসেবে কোয়ালিফাই
স্পেন ১৯৮২ রানার্স-আপ ২য় ১২ ১০ ৩৩
মেক্সিকো ১৯৮৬ রানার্স-আপ ২য় ২২
ইতালি ১৯৯০ চ্যাম্পিয়নস ১ম ১৫ ১৩
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ১৯৯৪ কোয়ার্টার ফাইনাল ৫ম ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন হিসেবে কোয়ালিফাই
ফ্রান্স ১৯৯৮ ৭ম ১০ ২৩
দক্ষিণ কোরিয়া জাপান ২০০২ রানার্স-আপ ২য ১৪ ১০ ১৯ ১২
জার্মানি ২০০৬ তৃতীয় স্থান ৩য় ১৪ আয়োজক হিসেব কোয়িলফাই
দক্ষিণ আফ্রিকা ২০১০ তৃতীয় স্থান ৩য় ১৬ ১০ ২৬
ব্রাজিল ২০১৪ চ্যাম্পিয়নস ১ম ১৮ ১০ ৩৬ ১০
রাশিয়া ২০১৮ TBD TBD
কাতার ২০২২ TBD TBD
সর্বমোট ৪র্থ বার বিজয়ী ১৮/২০ ১০৬ ৬৬ ২০ ২০ ২২৪ ১২১ ৮৪ ৬৪ ১৮ ২৪৯ ৬৬

খেলোয়াড়[সম্পাদনা]

বর্তমান দল[সম্পাদনা]

নিম্নলিখিত ২৩ জন খেলোয়াড় ২০১৪ ফিফা বিশ্বকাপ এর জন্য নির্বাচিত।[৪]

প্রশিক্ষক: জার্মানি ইওয়াকিম লু

নং অবস্থান খেলোয়াড় জন্ম/বয়স উপস্থিতি ক্লাব
গো ম্যানুএল নয়ার (1986-03-27)২৭ মার্চ ১৯৮৬ (বয়স ২৮) ৪৫ জার্মানি বায়ার্ন মিউনিখ
কেভিন গ্রোসক্রয়েট্‌জ (1988-07-19)১৯ জুলাই ১৯৮৮ (বয়স ২৫) জার্মানি বরুসিয়া ডর্টমুন্ড
মাথিয়াস জিন্টার (1994-01-19)১৯ জানুয়ারি ১৯৯৪ (বয়স ২০) জার্মানি এসসি ফ্রেইবার্গ
বেনেডিক্ট হাফিডাস (1988-02-29)২৯ ফেব্রুয়ারি ১৯৮৮ (বয়স ২৬) ২১ জার্মানি শালকে ০৪
ম্যাটস হুমেলস (1988-12-16)১৬ ডিসেম্বর ১৯৮৮ (বয়স ২৫) ৩০ জার্মানি বরুসিয়া ডর্টমুন্ড
সামি খেদিরা (1987-04-04)৪ এপ্রিল ১৯৮৭ (বয়স ২৭) ৪৬ স্পেন রিয়াল মাদ্রিদ
বাস্তিয়ান শোয়েনস্টেইগার (1984-08-01)১ আগস্ট ১৯৮৪ (বয়স ২৯) ১০২ জার্মানি বায়ার্ন মিউনিখ
মেসুত ওজিল (1988-10-15)১৫ অক্টোবর ১৯৮৮ (বয়স ২৫) ৫৫ ইংল্যান্ড আর্সেনাল
আন্দ্রে শুর্লে (1990-11-06)৬ নভেম্বর ১৯৯০ (বয়স ২৩) ৩৩ ইংল্যান্ড চেলসি
১০ লুকাস পোদোলস্কি (1985-06-04)৪ জুন ১৯৮৫ (বয়স ২৯) ১১৪ ইংল্যান্ড আর্সেনাল
১১ মিরোস্লাভ ক্লোজে (1978-06-09)৯ জুন ১৯৭৮ (বয়স ৩৬) ১৩২ ইতালি লাৎজিও
১২ গো রন-রবার্ট জিলার (1989-02-12)১২ ফেব্রুয়ারি ১৯৮৯ (বয়স ২৫) জার্মানি হানোফার ৯৬
১৩ টমাস মুলার (1989-09-13)১৩ সেপ্টেম্বর ১৯৮৯ (বয়স ২৪) ৪৯ জার্মানি বায়ার্ন মিউনিখ
১৪ জুলিয়ান ড্রাক্সলার (1993-09-20)২০ সেপ্টেম্বর ১৯৯৩ (বয়স ২০) ১১ জার্মানি শালকে ০৪
১৫ এরিক ডার্ম (1992-05-12)১২ মে ১৯৯২ (বয়স ২২) জার্মানি বরুসিয়া ডর্টমুন্ড
১৬ ফিলিপ লাম () (1983-11-11)১১ নভেম্বর ১৯৮৩ (বয়স ৩০) ১০৬ জার্মানি বায়ার্ন মিউনিখ
১৭ পের মের্টেজাকার (1984-09-29)২৯ সেপ্টেম্বর ১৯৮৪ (বয়স ২৯) ৯৮ ইংল্যান্ড আর্সেনাল
১৮ টনি ক্রুস (1990-01-04)৪ জানুয়ারি ১৯৯০ (বয়স ২৪) ৪৪ জার্মানি বায়ার্ন মিউনিখ
১৯ মারিও গোটজে (1992-06-03)৩ জুন ১৯৯২ (বয়স ২২) ২৯ জার্মানি বায়ার্ন মিউনিখ
২০ জেরম বোয়াটেং (1988-09-03)৩ সেপ্টেম্বর ১৯৮৮ (বয়স ২৫) ৩৯ জার্মানি বায়ার্ন মিউনিখ
২১ শকর্ডান মুস্তাফি (1992-04-17)১৭ এপ্রিল ১৯৯২ (বয়স ২২) ইতালি সাম্পদরিয়া
২২ গো রোমান ওয়াইডেনফেলার (1980-08-06)৬ আগস্ট ১৯৮০ (বয়স ৩৩) জার্মানি বরুসিয়া ডর্টমুন্ড
২৩ ক্রিস্টোফ ক্রেমার (1991-02-12)১২ ফেব্রুয়ারি ১৯৯১ (বয়স ২৩) জার্মানি বরুসিয়া মনচিঙ্গলাদ্‌বাখ

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "All matches of The National Team in 1909"। DFB। সংগৃহীত 1 August 2008 
  2. ২.০ ২.১ "Germany Football Shirts – Old Football Kits"। oldfootballshirts.com। সংগৃহীত 25 December 2011 
  3. http://www.historicalkits.co.uk/international/tournaments/fifa-world-cup/1938/1938.html
  4. "Das Team"DFB। সংগৃহীত 7 June 2014 

বহিসংযোগ[সম্পাদনা]