২০০২ ফিফা বিশ্বকাপ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
২০০২ ফিফা বিশ্বকাপ
2002 FIFA 월드컵 대한민국/일본
2002 FIFAワールドカップ 韓国/日本
টুর্নামেন্টের বিবরণ
স্বাগতিক দেশসমূহ দক্ষিণ কোরিয়া
জাপান
তারিখসমূহ ৩১ মে – ৩০ জুন
দলসমূহ ৩২ (৫টি কনফেডারেশন থেকে)
ভেন্যু(সমূহ) ২০ (২০টি আয়োজক শহরে)
শীর্ষস্থানীয় অবস্থান
চ্যাম্পিয়নসমূহ  ব্রাজিল (৫ম শিরোপা)
রানার-আপ  জার্মানি
তৃতীয় স্থান  তুরস্ক
চতুর্থ স্থান  দক্ষিণ কোরিয়া
প্রতিযোগিতার পরিসংখ্যান
ম্যাচ খেলেছে ৬৪
গোল সংখ্যা ১৬১ (ম্যাচ প্রতি ২.৫২টি)
উপস্থিতি ২৭,০৫,১৯৭ (ম্যাচ প্রতি ৪২,২৬৯ জন)
শীর্ষ গোলদাতা ব্রাজিল রোনালদো (৮ গোল)
সেরা খেলোয়াড় জার্মানি অলিভার কান
২০০২ বিশ্বকাপে অংশ নেয়া দেশগুলি ও তাদের চুড়ান্ত অবস্থান

২০০২ সালের ফিফা বিশ্বকাপ ফুটবল দক্ষিণ কোরিয়া এবং জাপানে ৩১শে মে হতে ৩০শে জুন পর্যন্ত সম্পন্ন হয়। এটি ছিল বিশ্বকাপ ফুটবলের ১৭তম আসর। প্রথমবারের মতো দুইটি দেশে এক সাথে এই প্রতিযোগিতার খেলাগুলির আয়োজন করা হয়। এর পাশাপাশি এটি ছিল প্রথম বিশ্বকাপ, যা ইউরোপ ও দুই আমেরিকা মহাদেশের বাইরে এশিয়া মহাদেশে সম্পন্ন হয়।

প্রতিযোগিতার ফাইনালে ব্রাজিল জার্মানিকে ২-০ গোলে হারিয়ে ৫ম বারের জন্য বিশ্বকাপ জয় করে নেয়।

গ্রুপ পর্ব[সম্পাদনা]

সকল সময় কোরিয়া ও জাপানের প্রমিত সময় (ইউটিসি+৯)

  চ্যাম্পিয়ন
  রানার-আপ
  তৃতীয় স্থান
  চতুর্থ স্থান
  কোয়ার্টার ফাইনাল
  ১৬ দলের পর্ব
  গ্রুপ পর্ব

গ্রুপ এ,বি, সি, ডি এর খেলা দক্ষিণ কোরিয়া এবং গ্রুপ ই,এফ,জি,এইচ জাপানে অনুষ্ঠিত হয়।

নিম্নোক্ত টেবিলগুলোতে:

  • খেলা = মোট খেলা
  • = মোট জয়লাভ করা খেলা
  • ড্র = মোট ড্রকৃত খেলা
  • পরা = মোট পরাজিত খেলা
  • স্বগো = পক্ষে সর্বমোট গোল
  • বিগো = বিপক্ষে সর্বমোট গোল
  • গোপা = গোল পার্থক্য
  • =সর্বমোট পুঞ্জিভূত পয়েন্ট
গ্রুপ টেবিলে রঙের অর্থ
গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন এবং রানার-আপ ১৬ দলের পর্বে অগ্রসর হবে

গ্রুপ এ[সম্পাদনা]

ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন ফ্রান্স ডেনমার্ক এবং প্রথমবারের মত বিশ্বকাপ খেলা সেনেগালের কাছে পরাজিত হয়ে গ্রুপ পর্ব থেকে বিদায় নেয়। ২টি দলই ১৬ দলের পর্বে অগ্রসর হতে সক্ষম হয় যার ফলে ২ বারের চ্যাম্পিয়ন উরুগুয়েও প্রথম রাউন্ড থেকে বিদায় নেয়।[১]

দল
খেলা ড্র পরা স্বগো বিগো গোপা
 ডেনমার্ক +৩
 সেনেগাল +১
 উরুগুয়ে −১
 ফ্রান্স −৩
৩১ মে ২০০২
ফ্রান্স  ০–১  সেনেগাল সিউল ওয়ার্ল্ড কাপ স্টেডিয়াম, সিউল
১ জুন ২০০২
উরুগুয়ে  ১–২  ডেনমার্ক মুনসু কাপ স্টেডিয়াম, উলসান
৬ জুন ২০০২
ডেনমার্ক  ১–১  সেনেগাল দেগু ওয়ার্ল্ড কাপ স্টেডিয়াম, দেগু
ফ্রান্স  ০–০  উরুগুয়ে এশিয়াড মেইন স্টেডিয়াম, বুজান
১১ জুন ২০০২
ডেনমার্ক  ২–০  ফ্রান্স ইঞ্চিয়ন মেইন স্টেডিয়াম, ইঞ্চিয়ন
সেনেগাল  ৩–৩  উরুগুয়ে শুয়ন ওয়ার্ল্ড কাপ স্টেডিয়াম, শুয়ন

গ্রুপ বি[সম্পাদনা]

স্পেন তাদের প্রত্যেকটি খেলায় জয়ী হয়ে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হিসেবে ১৬ দলের পর্বে অগ্রসর হয়। অন্যদিকে স্লোভেনিয়া প্রত্যেকটি খেলায় পরাজিত হয় এবং গ্রুপ পর্ব থেকে বিদায় নেয়। গ্রুপের বাকি দুই দল প্যারাগুয়ে এবং দক্ষিণ আফ্রিকার পয়েন্ট এমনকি গোল ব্যাবধানও সমান হওয়ায় প্যারাগুয়ের স্বপক্ষে বেশি গোল (৬ গোল, দক্ষিণ আফ্রিকা ৫ গোল) থাকার সুবাদে ২য় দল হিসেবে শেষ ১৬তে জায়গা করে নেয়।

দল
খেলা ড্র পরা স্বগো বিগো গোপা
 স্পেন +৫
 প্যারাগুয়ে
 দক্ষিণ আফ্রিকা
 স্লোভেনিয়া −৫
২ জুন ২০০২
প্যারাগুয়ে  ২-২  দক্ষিণ আফ্রিকা এশিয়াড মেইন স্টেডিয়াম, বুজান
স্পেন  ৩-১  স্লোভেনিয়া গুয়াংঝু ওয়ার্ল্ড কাপ স্টেডিয়াম, গুয়াংঝু
৭ জুন ২০০২
স্পেন  ৩-১  প্যারাগুয়ে জিয়নঝু ওয়ার্ল্ড কাপ স্টেডিয়াম, জিয়নঝু
৮ জুন ২০০২
দক্ষিণ আফ্রিকা  ১-০  স্লোভেনিয়া দেগু ওয়ার্ল্ড কাপ স্টেডিয়াম, দেগু
১২ জুন ২০০২
দক্ষিণ আফ্রিকা  ২-৩  স্পেন দেইজিয়ন ওয়ার্ল্ড কাপ স্টেডিয়াম, দেইজিয়ন
স্লোভেনিয়া  ১-৩  প্যারাগুয়ে জেজু ওয়ার্ল্ড কাপ স্টেডিয়াম, জেজু

Group C[সম্পাদনা]

Brazil won all three games to progress, whilst China PR were eliminated without a goal or a point. Costa Rica's leaky defense led to them being eliminated on goal difference, allowing Turkey to claim the runner-up spot.

দল
খেলা ড্র পরা স্বগো বিগো গোপা
 ব্রাজিল ১১ +৮
 তুরস্ক 5 +২
 কোস্টা রিকা 5 6 −১
 গণচীন −৯
3 জুন ২০০২
ব্রাজিল  2–1  তুরস্ক Munsu Cup Stadium, Ulsan
4 জুন ২০০২
গণচীন  0–2  কোস্টা রিকা Gwangju World Cup Stadium, Gwangju
8 জুন ২০০২
ব্রাজিল  4–0  গণচীন Jeju World Cup Stadium, Jeju
9 জুন ২০০২
কোস্টা রিকা  1–1  তুরস্ক Incheon Munhak Stadium, Incheon
13 জুন ২০০২
কোস্টা রিকা  2–5  ব্রাজিল Suwon World Cup Stadium, Suwon
তুরস্ক  3–0  গণচীন Seoul World Cup Stadium, Seoul

গ্রুপ ডি[সম্পাদনা]

United States's shock 3–2 win over Portugal, together with a draw against South Korea was enough to send them through, even though they lost 1–3 against Poland. Portugal were eliminated with one win and two losses, including one against South Korea. Poland were also eliminated, despite beating United States in their final game.

দল
খেলা ড্র পরা স্বগো বিগো গোপা
 দক্ষিণ কোরিয়া +৩
 মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র −১
 পর্তুগাল +২
 পোল্যান্ড −৪
4 জুন ২০০২
দক্ষিণ কোরিয়া  2–0  পোল্যান্ড Asiad Main Stadium, Busan
5 জুন ২০০২
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র  3–2  পর্তুগাল Suwon World Cup Stadium, Suwon
10 জুন ২০০২
দক্ষিণ কোরিয়া  1–1  মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র Daegu World Cup Stadium, Daegu
পর্তুগাল  4–0  পোল্যান্ড Jeonju World Cup Stadium, Jeonju
14 জুন ২০০২
পর্তুগাল  0–1  দক্ষিণ কোরিয়া Incheon Munhak Stadium, Incheon
পোল্যান্ড  3–1  মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র Daejeon World Cup Stadium, Daejeon

গ্রুপ ই[সম্পাদনা]

Saudi Arabia were eliminated as the worst team in tournament, after three defeats and no goals scored, including an 8–0 loss to Germany. Germany qualified, knocking out Cameroon in the process. Robbie Keane was one of only two players to score against Germany in the whole World Cup (the other being Ronaldo of Brazil in the final), scoring in additional time to help Republic of Ireland claim second place in the group.

দল
খেলা ড্র পরা স্বগো বিগো গোপা
 জার্মানি ১১ +১০
 প্রজাতন্ত্রী আয়ারল্যান্ড +৩
 ক্যামেরুন −১
 সৌদি আরব ১২ −১২
1 জুন ২০০২
প্রজাতন্ত্রী আয়ারল্যান্ড  1–1  ক্যামেরুন Niigata Stadium, Niigata
জার্মানি  8–0  সৌদি আরব Sapporo Dome, Sapporo
5 জুন ২০০২
জার্মানি  1–1  প্রজাতন্ত্রী আয়ারল্যান্ড Kashima Soccer Stadium, Ibaraki
6 জুন ২০০২
ক্যামেরুন  1–0  সৌদি আরব Saitama Stadium 2002, Saitama
11 জুন ২০০২
ক্যামেরুন  0–2  জার্মানি Shizuoka Stadium, Shizuoka
সৌদি আরব  0–3  প্রজাতন্ত্রী আয়ারল্যান্ড International Stadium Yokohama, Yokohama

গ্রুপ এফ[সম্পাদনা]

Like favourites France, second favourites Argentina were eliminated following a 1–1 draw with Sweden in their third game. They needed a victory following their second game loss to England to secure a second round berth. Sweden topped the group, having scored more goals than England, while Nigeria had already been eliminated before drawing with England in their final match.

দল
খেলা ড্র পরা স্বগো বিগো গোপা
 সুইডেন +১
 ইংল্যান্ড +১
 আর্জেন্টিনা
 নাইজেরিয়া −২
2 জুন ২০০২
আর্জেন্টিনা  1–0  নাইজেরিয়া Kashima Soccer Stadium, Ibaraki
ইংল্যান্ড  1–1  সুইডেন Saitama Stadium 2002, Saitama
7 জুন ২০০২
সুইডেন  2–1  নাইজেরিয়া Kobe Wing Stadium, Kobe
আর্জেন্টিনা  0–1  ইংল্যান্ড Sapporo Dome, Sapporo
12 জুন ২০০২
সুইডেন  1–1  আর্জেন্টিনা Miyagi Stadium, Miyagi
নাইজেরিয়া  0–0  ইংল্যান্ড Nagai Stadium, Osaka

গ্রুপ জি[সম্পাদনা]

Mexico effectively qualified for the round of 16 after two wins in their first two games. Italy also progressed thanks to Ecuador's win over Croatia in Yokohama, and would have qualified even had Alessandro Del Piero not scored the equaliser against the Mexicans in the group's final match. This left Croatia and World Cup debutants Ecuador, who picked up their maiden World Cup win against the Croats, as the two teams that did not advance.

দল
খেলা ড্র পরা স্বগো বিগো গোপা
 মেক্সিকো +২
 ইতালি +১
 ক্রোয়েশিয়া −১
 ইকুয়েডর −২
3 জুন ২০০২
ক্রোয়েশিয়া  0–1  মেক্সিকো Niigata Stadium, Niigata
ইতালি  2–0  ইকুয়েডর Sapporo Dome, Sapporo
8 জুন ২০০২
ইতালি  1–2  ক্রোয়েশিয়া Kashima Soccer Stadium, Ibaraki
9 জুন ২০০২
মেক্সিকো  2–1  ইকুয়েডর Miyagi Stadium, Miyagi
13 জুন ২০০২
মেক্সিকো  1–1  ইতালি Ōita Stadium, Ōita
ইকুয়েডর  1–0  ক্রোয়েশিয়া International Stadium Yokohama, Yokohama

গ্রুপ এইচ[সম্পাদনা]

Hosts Japan topped the group with two wins and a draw. Belgium also qualified after a see-saw match with the Russians, while Tunisia was also eliminated after picking up just one point.

দল
খেলা ড্র পরা স্বগো বিগো গোপা
 জাপান +৩
 বেলজিয়াম +১
 রাশিয়া
 তিউনিসিয়া −৪
4 জুন ২০০২
জাপান  2–2  বেলজিয়াম Saitama Stadium 2002, Saitama
5 জুন ২০০২
রাশিয়া  2–0  তিউনিসিয়া Kobe Wing Stadium, Kobe
9 জুন ২০০২
জাপান  1–0  রাশিয়া International Stadium Yokohama, Yokohama
10 জুন ২০০২
তিউনিসিয়া  1–1  বেলজিয়াম Ōita Stadium, Ōita
14 জুন ২০০২
তিউনিসিয়া  0–2  জাপান Nagai Stadium, Osaka
বেলজিয়াম  3–2  রাশিয়া Shizuoka Stadium, Shizuoka

Knockout stage[সম্পাদনা]

For the second round, quarter-finals, and semi-finals, the qualifiers from Groups A, C, F, and H played their games in Japan while the qualifiers from Groups B, D, E, and G played their games in South Korea. Daegu, South Korea, hosted the third-place match while Yokohama, Japan, hosted the final.

১৬ দলের পর্ব কোয়ার্টার ফাইনাল সেমি ফাইনাল ফাইনাল
                           
১৫ জুন – সিয়গউইপো            
  জার্মানি  
২১ জুন – উলসান
  প্যারাগুয়ে  ০  
  জার্মানি  
১৭ জুন – জিয়নঝু
    মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র  ০  
  মেক্সিকো  ০
২৫ জুন – সিউল
  মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র    
  জার্মানি  
১৬ জুন – শুয়ন
    দক্ষিণ কোরিয়া  ০  
  স্পেন (পেন.)  ১ (৩)
২২ জুন – গুয়াংঝু
  প্রজাতন্ত্রী আয়ারল্যান্ড  ১ (২)  
  স্পেন  ০ (৩)
১৮ জুন – দেইয়ন
    দক্ষিণ কোরিয়া (পেন.)  ০ (৫)  
  দক্ষিণ কোরিয়া (অ.স.প)  
৩০ জুন – ইয়োকহোমা
  ইতালি  ১  
  জার্মানি  ০
১৫ জুন – নিগাতা
    ব্রাজিল  
  ডেনমার্ক  ০
২১ জুন – শিজুকা
  ইংল্যান্ড    
  ইংল্যান্ড  ১
১৭ জুন – কোবে
    ব্রাজিল    
  ব্রাজিল  
২৬ জুন – সাইতামা
  বেলজিয়াম  ০  
  ব্রাজিল  
১৬ জুন – ওইতা
    তুরস্ক  ০   তৃতীয় স্থান
  সুইডেন  ১
২২ জুন – ওসাকা ২৯ জুন – দেগু
  সেনেগাল (অ.স.প)    
  সেনেগাল  ০   দক্ষিণ কোরিয়া  ২
১৮ জুন – মিয়াগি
    তুরস্ক (অ.স.প)       তুরস্ক  
  জাপান  ০
  তুরস্ক    

Round of 16[সম্পাদনা]

Germany eliminated Paraguay through an 88th-minute winner from Oliver Neuville. England breezed past the Danes with a 3–0 win, while Henri Camara scored the golden goal that put Senegal through to the quarter-finals at Sweden's expense. Spain eliminated Ireland on penalties after a tense match, in which Robbie Keane levelled the scores with a penalty, just as Spain looked like they would be going through in normal time. In the North American derby, the United States defeated Mexico 2–0 to set up a quarter-final tie with Germany. Brazil defeated Belgium 2–0 and Turkey ended the journey of hosts Japan. In an echo of North Korea's victory over Italy in 1966, South Korea defeated the Azzurri with a golden goal from Perugia's Ahn Jung-hwan, in a game that saw so many controversial referee decisions against Italy that FIFA president himself had to make commentaries.[২] After the game, Ahn was told by Perugia's president, Luciano Gaucci, that he would never play for the club again,[৩] only for Gaucci to have a change of heart[৪] the following day.

15 June 2002
15:30
জার্মানি  1–0  প্যারাগুয়ে
Neuville গোল 88' Report
Jeju World Cup Stadium, Jeju
দর্শক সংখ্যা: 25,176
রেফারী: Carlos Batres (Guatemala)

15 June 2002
20:30
ডেনমার্ক  0–3  ইংল্যান্ড
Report Ferdinand গোল 5'
Owen গোল 22'
Heskey গোল 44'
Niigata Stadium, Niigata
দর্শক সংখ্যা: 40,582
রেফারী: Markus Merk (Germany)

16 June 2002
15:30
সুইডেন  1–2 (অ.স.প.)  সেনেগাল
Larsson গোল 11' Report H. Camara গোল 37' Golden goal in the 104র্থ minute 104'
Ōita Stadium, Ōita
দর্শক সংখ্যা: 39,747
রেফারী: Ubaldo Aquino (Paraguay)


17 June 2002
15:30
মেক্সিকো  0–2  মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র
Report McBride গোল 8'
Donovan গোল 65'
Jeonju World Cup Stadium, Jeonju
দর্শক সংখ্যা: 36,380
রেফারী: Vítor Melo Pereira (Portugal)

17 June 2002
20:30
ব্রাজিল  2–0  বেলজিয়াম
Rivaldo গোল 67'
Ronaldo গোল 87'
Report
Kobe Wing Stadium, Kobe
দর্শক সংখ্যা: 40,440
রেফারী: Peter Prendergast (Jamaica)

18 June 2002
15:30
জাপান  0–1  তুরস্ক
Report Ümit D. গোল 12'
Miyagi Stadium, Miyagi
দর্শক সংখ্যা: 45,666
রেফারী: Pierluigi Collina (Italy)

18 June 2002
20:30
দক্ষিণ কোরিয়া  2–1 (অ.স.প.)  ইতালি
Seol Ki-hyeon গোল 88'
Ahn Jung-hwan Golden goal in the 117ম minute 117'
Report Vieri গোল 18'
Daejeon World Cup Stadium, Daejeon
দর্শক সংখ্যা: 38,588
রেফারী: Byron Moreno (Ecuador)

Quarter-finals[সম্পাদনা]

In the quarter-finals, Brazil's Ronaldinho caught out England goalkeeper David Seaman with a lobbed free kick from 42 yards to send Brazil into the semis. Oliver Kahn kept Germany in front of the United States with a string of saves in a first half dominated by the Americans, save for the winning goal, scored by Michael Ballack in the 39th minute. Meanwhile, Spain were unable to win a second consecutive penalty shoot-out, losing to South Korea after having two goals controversially disallowed in normal time,[৫] with South Korea becoming the first (and, as of 2014, the only) team from outside Europe and the Americas to reach the last four of a World Cup. Turkey ended the dream of Africa's sole quarter-final representative, Senegal, with an İlhan Mansız golden goal.

21 June 2002
15:30
ইংল্যান্ড  1–2  ব্রাজিল
Owen গোল 23' Report Rivaldo গোল 45+2'
Ronaldinho গোল 50'
Shizuoka Stadium, Shizuoka
দর্শক সংখ্যা: 47,436
রেফারী: Felipe Ramos (Mexico)

21 June 2002
20:30
জার্মানি  1–0  মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র
Ballack গোল 39' Report
Munsu Cup Stadium, Ulsan
দর্শক সংখ্যা: 37,337
রেফারী: Hugh Dallas (Scotland)


22 June 2002
20:30
সেনেগাল  0–1 (অ.স.প.)  তুরস্ক
Report İlhan Golden goal in the 94র্থ minute 94'
Nagai Stadium, Osaka
দর্শক সংখ্যা: 44,233
রেফারী: Óscar Ruiz (Colombia)

Semi-finals[সম্পাদনা]

Brazil defeated Turkey, thanks to a single goal from the tournament's top scorer, Ronaldo. Despite picking up a booking that would rule him out of the final, Michael Ballack scored the goal that sent Germany to the final and consigned South Korea to the third place play-off.

25 June 2002
20:30
জার্মানি  1–0  দক্ষিণ কোরিয়া
Ballack গোল 75' Report
Seoul World Cup Stadium, Seoul
দর্শক সংখ্যা: 65,256
রেফারী: Urs Meier (Switzerland)

26 June 2002
20:30
ব্রাজিল  1–0  তুরস্ক
Ronaldo গোল 49' Report
Saitama Stadium 2002, Saitama
দর্শক সংখ্যা: 61,058
রেফারী: Kim Milton Nielsen (Denmark)

Third place play-off[সম্পাদনা]

Turkey won third place after an entertaining 3–2 victory over hosts South Korea, in a match that included the fastest ever World Cup goal, scored by Parma striker and Turkey veteran Hakan Şükür after just 11 seconds.

29 June 2002
20:00
দক্ষিণ কোরিয়া  2–3  তুরস্ক
Lee Eul-yong গোল 9'
Song Chong-gug গোল 90+3'
Report Hakan Ş. গোল 1'
İlhan গোল 13'32'
Daegu World Cup Stadium, Daegu
দর্শক সংখ্যা: 63,483
রেফারী: Saad Mane (Kuwait)

ফাইনাল[সম্পাদনা]

২০০২ ফিফা বিশ্বকাপ ফাইনাল ২০০২ সালে অনুষ্ঠিত ফিফা বিশ্বকাপের সর্বশেষ ও শিরোপা নির্ধারণী খেলা যেখানে জার্মানি ও ব্রাজিল পরস্পরের মুখোমুখি হয়। খেলাটি অনুষ্ঠিত হয় জাপানের ইয়োকোহামার নিসান স্টেডিয়ামে। খেলায় ব্রাজিল ২-০ গোলে জয়লাভ করার মাধ্যমে তাদের ৫ম বিশ্বকাপ শিরোপা জয় করে। খেলাটিতে দুইটি গোলই করেন ব্রাজিলের আক্রমণভাগের খেলোয়াড় রোনালদো। তিনি ছিলেন ঐ বিশ্বকাপের সর্বাধিক গোলদাতা। দুইটি গোলই হয় খেলায় দ্বিতীয়ার্ধে। এই ম্যাচের মাধ্যমেই ব্রাজিল ও জার্মানি প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপে পরস্পরের মুখোমুখি হয়।

৩০ জুন, ২০০২
২০:০০
জার্মানি  ০ – ২  ব্রাজিল
(প্রতিবেদন) রোনালদো গোল ৬৭'৭৯'

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "France dismissed by Danes"। BBC Sport। 11 জুন ২০০২। 27 March 2012-এ মূল থেকে আর্কাইভ। সংগৃহীত 27 March 2012 
  2. "Blatter condemns officials"BBC Sport। 20 June 2002। সংগৃহীত 6 June 2014 
  3. "Gaucci said he would no longer employ Ahn"BBC Sport। 20 June 2002। সংগৃহীত 27 June 2011 
  4. "Perugia forgive Ahn"। 25 June 2002। সংগৃহীত 25 June 2014 
  5. "Korean dream lives on"BBC Sport (BBC)। 22 June 2002। সংগৃহীত 22 June 2012 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

বিশ্বকাপ ফুটবল আসর সমূহ
উরুগুয়ে ১৯৩০ইতালি ১৯৩৪ফ্রান্স ১৯৩৮ব্রাজিল ১৯৫০সুইজারল্যান্ড ১৯৫৪সুইডেন ১৯৫৮চিলি ১৯৬২ইংল্যান্ড ১৯৬৬মেক্সিকো ১৯৭০পশ্চিম জার্মানি ১৯৭৪আর্জেন্টিনা ১৯৭৮স্পেন ১৯৮২মেক্সিকো ১৯৮৬ইতালি ১৯৯০যুক্তরাষ্ট্র ১৯৯৪ফ্রান্স ১৯৯৮কোরিয়া/জাপান ২০০২জার্মানি ২০০৬দক্ষিণ আফ্রিকা ২০১০ব্রাজিল ২০১৪