মেক্সিকো জাতীয় ফুটবল দল

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
 মেক্সিকো
শার্ট ব্যাজ/অ্যাসোসিয়েশন ক্রেস্ট
ডাকনাম "এল ট্রাই" (তিনরঙা)
অ্যাসোসিয়েশন ফেদারাসিওন মেক্সিকানা দে ফুতবল অ্যাসোসিয়েসিওন (মেক্সিকো ফুটবল ফেডারেশন'')
কনফেডারেশন কনক্যাকাফ (উত্তর আমেরিকা)
প্রধান কোচ হাভিয়ের আগুইরে
সহকারী কোচ মারিও কারিল্লো
মানুয়েল ভিদরিও
সর্বাধিক খেলায় অংশ নেওয়া খেলোয়াড় ক্লডিও সুয়ারেজ (১৭৮)
শীর্ষ গোলদাতা হারেদ বোরগেত্তি (৪৬)
স্বাগতিক স্টেডিয়াম এস্ত্রাদিও অ্যাজটেকা
ফিফা কোড MEX
ফিফা র‌্যাঙ্কিং ১৭
সর্বোচ্চ ফিফা র‌্যাঙ্কিং (ফেব্রুয়ারি ১৯৯৮, মে-জুন ২০০৬)
সর্বনিম্ন ফিফা র‌্যাঙ্কিং ৩৩ (জুলাই ২০০৯)
এলো রেটিং
সর্বোচ্চ এলো রেটিং (জুন ২০০৫)
সর্বনিম্ন এলো রেটিং ৪৭ (ফেব্রুয়ারি ১৯৭৯)
প্রথম জার্সি
দ্বিতীয় জার্সি
প্রথম আন্তর্জাতিক খেলা
 গুয়াতেমালা ২-৩  মেক্সিকো
(গুয়াতেমালা সিটি, গুয়াতেমালা; ১ জানুয়ারি, ১৯২৩)
সর্বোচ্চ জয়
 মেক্সিকো ১৩-০ বাহামা দ্বীপপুঞ্জ 
(টলুকা, মেক্সিকো; ২৮ এপ্রিল, ১৯৮৭)
সর্বোচ্চ পরাজয়
 ইংল্যান্ড ৮-০  মেক্সিকো
(লন্ডন, ইংল্যান্ড; ১০ মে, ১৯৬১)
বিশ্বকাপ
উপস্থিতি ১৩ (প্রথম ১৯৩০)
শ্রেষ্ঠ ফলাফল কোয়ার্টার ফাইনাল, ১৯৭০, ১৯৮৬
কনক্যাকাফ চ্যাম্পিয়নশিপ ও গোল্ড কাপ
উপস্থিতি ১৮ (প্রথম ১৯৬৩)
শ্রেষ্ঠ ফলাফল বিজয়ী, ১৯৬৫, ১৯৭১, ১৯৭৭, ১৯৯৩, ১৯৯৬, ১৯৯৮, ২০০৩, ২০০৯
কনফেডারেশন্স কাপ
উপস্থিতি ৫ (প্রথম ১৯৯৫)
শ্রেষ্ঠ ফলাফল বিজয়ী, ১৯৯৯

মেক্সিকো জাতীয় ফুটবল দল হচ্ছে আন্তর্জাতিক ফুটবলে মেক্সিকোর প্রতিনিধি। মেক্সিকো ফুটবল ফেডারেশন হচ্ছে এই দলটির নিয়ন্ত্রক সংস্থা। সংস্থাটি মেক্সিকোর জাতীয় প্রমীলা ফুটবল দলও নিয়ন্ত্রণ করে। বর্তমানে ফিফা র‌্যাংকিংয়ে দলটির অবস্থান ১৭তম।[১] এছাড়া বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিংয়ে দলটির অবস্থান ৮ম।[২] এগুলো মেক্সিকোকে উত্তর আমেরিকার অন্যতম ফুটবল পরাশক্তি হিসেবে আবির্ভূত করেছে।

মেক্সিকো এখন পর্যন্ত তেরো বার ফিফা বিশ্বকাপে খেলার যোগ্যতা অর্জন করেছে। সেই সাথে ১৯৯৪ ফিফা বিশ্বকাপ থেকে তাঁরা টানা বিশ্বকাপে অংশ নিয়ে আসছে। বিশ্বকাপে এখন পর্যন্ত মেক্সিকোর সবচেয়ে বড় সাফল্য দুইবার (১৯৭০, ১৯৮৬) কোয়ার্টার ফাইনালে উত্তীর্ণ হওয়া। ১৯৭০ ও ১৯৮৬ সালের এই দুইটি বিশ্বকাপ-ই মেক্সিকোতে অনুষ্ঠিত হয়েছিলো। এছাড়া মেক্সিকোর একবার ফিফা কনফেডারেশন্স কাপ, পাঁচবার কনক্যাকাফ গোল্ড কাপ, তিনবার কনক্যাকাফ চ্যাম্পিয়নশিপ, একবার নর্থ আমেরিকান নেশন্স কাপ, ও দুইবার এনএএফসি চ্যাম্পিয়নশিপ জয় করেছে। যদিও মেক্সিকো কনক্যাকাফ কনফেডারেশনের আওতাভুক্ত, কিন্তু ১৯৯৩ সাল থেকে তারা কনমেবল কনফেডারেশনের প্রতিযোগিতা কোপা আমেরিকাতে অংশ নিয়ে আসছে। কোপা আমেরিকাতে তারা দুইবার রানার্স-আপ ও একবার তৃতীয় স্থান অধিকার করেছে।

বর্তমান সদস্য[সম্পাদনা]

খেলার তারিখ: ১৬ জুন, ২০১৩
প্রতিপক্ষ: ইতালি
প্রতিযোগিতা: ২০১৩ ফিফা কনফেডারেশন্স কাপ

খেলা ও গোল সংখ্যা ২৬ মার্চ, ২০১৩ পর্যন্ত সঠিক

নিম্নবর্ণিত ২৩ জন খেলোয়াড়কে ৩১ মে, ২০১৩ তারিখে নাইজেরিয়ার বিরুদ্ধে প্রীতি খেলার জন্য মনোনীত করা হয়। ২০১৪ সালের ফিফা বিশ্বকাপের যোগ্যতা নির্ধারণী খেলায় জামাইকা, পানামাকোস্টারিকার বিরুদ্ধে যথাক্রমে ৪, ৭ এবং ১১ জুন তারিখের জন্য নির্বাচিত করা হয়। প্রধান কোচ জোস ম্যানুয়েল ডি লা তোরে ২০ মে, ২০১৩ তারিখে ২৩-সদস্যবিশিষ্ট দলের নাম ঘোষণা করেন।[৩]

0#0 অব নাম জন্ম (বয়স) ম্যাচ গোল ক্লাব
গো গিলমারো ওচোয়া (১৯৮৫-০৭-১৩) জুলাই ১৩, ১৯৮৫ (বয়স ২৯) ৫২ ফ্রান্স এজাসিও
গো জিসাস করোনা (১৯৮১-০১-২৬) জানুয়ারি ২৬, ১৯৮১ (বয়স ৩৩) ২২ মেক্সিকো ক্রুজ আজুল
গো আলফ্রেদো তালাভেরা (১৯৮২-০৯-১৮) সেপ্টেম্বর ১৮, ১৯৮২ (বয়স ৩২) ১১ মেক্সিকো তলুকা
কার্লোস সালসিদো (১৯৮০-০৪-০২) এপ্রিল ২, ১৯৮০ (বয়স ৩৪) ১০৯ ১০ মেক্সিকো ইউএএনএল
ফ্রান্সিসকো রড্রিগুয়েজ (১৯৮১-১০-২০) অক্টোবর ২০, ১৯৮১ (বয়স ৩২) ৭৯ মেক্সিকো আমেরিকা
হেক্টর মরিনো (১৯৮৮-০১-১৭) জানুয়ারি ১৭, ১৯৮৮ (বয়স ২৬) ৪১ স্পেন ইস্পানিওল
জর্জ তোরেস নিলো (১৯৮৮-০১-১৬) জানুয়ারি ১৬, ১৯৮৮ (বয়স ২৬) ৩২ মেক্সিকো ইউএএনএল
সেভারো মেজা (১৯৮৬-০৭-০৯) জুলাই ৯, ১৯৮৬ (বয়স ২৮) ১১ মেক্সিকো মন্তেরে
দিয়েগো রিয়েজ (১৯৯২-০৯-১৯) সেপ্টেম্বর ১৯, ১৯৯২ (বয়স ২২) মেক্সিকো আমেরিকা
হিরাম মায়ের (১৯৮৯-০৮-২৫) আগস্ট ২৫, ১৯৮৯ (বয়স ২৫) মেক্সিকো মন্তেরে
গারার্দো ফ্লোরেস (১৯৮৬-০২-০৫) ফেব্রুয়ারি ৫, ১৯৮৬ (বয়স ২৮) মেক্সিকো ক্রুজ আজুল
গারার্দো তোরাদো (১৯৭৯-০৪-৩০) এপ্রিল ৩০, ১৯৭৯ (বয়স ৩৫) ১৩৮ মেক্সিকো ক্রুজ আজুল
আন্দ্রেজ গুয়ার্দাদো (১৯৮৬-০৯-২৮) সেপ্টেম্বর ২৮, ১৯৮৬ (বয়স ২৮) ৯০ ১৪ স্পেন ভ্যালেন্সিয়া
পাবলো বারেরা (১৯৮৭-০৬-২১) জুন ২১, ১৯৮৭ (বয়স ২৭) ৫২ মেক্সিকো ক্রুজ আজুল
অ্যাঙ্গেল রেনা (১৯৮৪-০৯-১৯) সেপ্টেম্বর ১৯, ১৯৮৪ (বয়স ৩০) ২০ মেক্সিকো পাচুকা
জিসাস জাভালা (১৯৮৭-০৭-২১) জুলাই ২১, ১৯৮৭ (বয়স ২৭) ১৮ মেক্সিকো মন্তেরে
জাভিয়ের এক্যুইনো (১৯৯০-০২-১১) ফেব্রুয়ারি ১১, ১৯৯০ (বয়স ২৪) ১৪ স্পেন ভিলারিয়েল
জিসাস মলিনা (১৯৮৮-০৩-২৯) মার্চ ২৯, ১৯৮৮ (বয়স ২৬) মেক্সিকো আমেরিকা
হেক্টর হেরেরা (১৯৯০-০৪-১৯) এপ্রিল ১৯, ১৯৯০ (বয়স ২৪) মেক্সিকো পাচুকা
গিওভানি দোস সান্তোস (১৯৮৯-০৫-১১) মে ১১, ১৯৮৯ (বয়স ২৫) ৬২ ১৪ স্পেন মলোর্কা
জাভিয়ের হার্নান্দেজ (১৯৮৮-০৬-০১) জুন ১, ১৯৮৮ (বয়স ২৬) ৪৬ ৩০ ইংল্যান্ড ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড
আল্দো ডি নাইগ্রিস (১৯৮৩-০৭-২২) জুলাই ২২, ১৯৮৩ (বয়স ৩১) ২১ মেক্সিকো মন্তেরে
রাউল জিমেনেজ (১৯৯১-০৫-০৫) মে ৫, ১৯৯১ (বয়স ২৩) মেক্সিকো আমেরিকা

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "FIFA World Rankings - March 2010"FIFA। সংগৃহীত 2010-03-03 
  2. "World Football Elo Ratings"World Football Elo Ratings। সংগৃহীত 2010-03-05 
  3. "Convocatoria de la Selección Mayor" [Called up for the major selection] (Spanish ভাষায়)। femexfut। 20 May 2013। সংগৃহীত 20 May 2013 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]