জাপান জাতীয় ফুটবল দল

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
 জাপান
শার্ট ব্যাজ/অ্যাসোসিয়েশন ক্রেস্ট
ডাকনাম সামুরাই ব্লু
নিপ্পন দাইহিয়ো
ওকাদা জাপান[১]
অ্যাসোসিয়েশন জাপান ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন
কনফেডারেশন এএফসি (এশিয়া)
প্রধান কোচ জাপান তাকাশি ওকাদা
অধিনায়ক ইয়োশিকাতসু কাওয়াগুচি
সর্বাধিক খেলায় অংশ নেওয়া খেলোয়াড় মাসামি ইহারা (১২২)
শীর্ষ গোলদাতা কুনিশিজে কামামোতো (৭৫)
ফিফা কোড JPN
ফিফা র‌্যাঙ্কিং ৪৫
সর্বোচ্চ ফিফা র‌্যাঙ্কিং (ফেব্রুয়ারি ১৯৯৮)
সর্বনিম্ন ফিফা র‌্যাঙ্কিং ৬২ (ফেব্রুয়ারি ২০০০)
এলো রেটিং ২৬
সর্বোচ্চ এলো রেটিং (আগস্ট ২০০১, মার্চ ২০০২)
সর্বনিম্ন এলো রেটিং ১১২ (সেপ্টেম্বর ১৯৬২)
প্রথম জার্সি
দ্বিতীয় জার্সি
প্রথম আন্তর্জাতিক খেলা
 জাপান ০ - ৫ প্রজাতন্ত্রী চীন 
(টোকিও, জাপান; ৯ মে, ১৯১৭)
সর্বোচ্চ জয়
 জাপান ১৫ - ০ ফিলিপাইন 
(টোকিও, জাপান; ২৭ সেপ্টেম্বর, ১৯৬৭)
সর্বোচ্চ পরাজয়
 জাপান ২ - ১৫ ফিলিপাইন 
(টোকিও, জাপান; ১০ মে, ১৯১৭)
বিশ্বকাপ
উপস্থিতি ৪ (প্রথম ১৯৯৮)
শ্রেষ্ঠ ফলাফল দ্বিতীয় পর্ব ২০০২
এশিয়া কাপ
উপস্থিতি ৬ (প্রথম ১৯৮৮)
শ্রেষ্ঠ ফলাফল বিজয়ী, ১৯৯২, ২০০০, ২০০৪
কনফেডারেশন্স কাপ
উপস্থিতি ৪ (প্রথম ১৯৯৫)
শ্রেষ্ঠ ফলাফল রানার্স-আপ, ২০০১

জাপান জাতীয় ফুটবল দল আন্তর্জাতিক ফুটবলে জাপানের প্রতিনিধিত্ব করে। দলটি নিয়ন্ত্রণ করে জাপানি ফুটবল সংস্থা জাপান ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন

জাপানি এর সমর্থকদের ও গণমাধ্যমের কাছে জাপানি ফুটবল দল সকার নিপ্পন দাইহিয়ো নামে পরিচিত। এর অর্থ হচ্ছে জাপানের ফুটবল প্রতিনিধি। এটিকে সংক্ষেপে নিপ্পন দাইহিয়ো বা জাপানের প্রতিনিধি নামেও ডাকা হয়। যদিও দলটির কোনো আনুষ্ঠানিক বা প্রাতিষ্ঠানিকভাবে স্বীকৃত কোনো ডাকনাম নেই, তাই প্রায় সময়ই এটি কোচের দল হিসেবে কোচের নামানুসারেই পরিচিত পায়। উদাহরণস্বরূপ, কোচ ইভিকা ওসিম যখন দায়িত্বে ছিলেন, তখন দলটিকে ডাকা হতো ওসিম জাপান নামে। সাম্প্রতিককালে দলটিকে সামুরাই ব্লু ডাকনামে ডাকা হচ্ছে।

জাপান এশিয়ার অ্যাসোসিয়েশন ফুটবল বা আন্তর্জাতিক ফুটবল দলগুলোর মাঝে সবচেয়ে সফল একটি দল হিসেবে পরিগণিত। দলটি তিনবার এশিয়ার আঞ্চলিক ফুটবল প্রতিযোগিতা এএফসি এশিয়ান কাপ জয় করেছে। এছাড়াও দলটি ধারাবাহিকভাব গত চারটি ফিফা বিশ্বকাপের মূল পর্বে খেলে আসছে।

বর্তমানে দলটির প্রধান প্রশিক্ষক বা কোচ হচ্ছেন তাকাশি ওকাদা। তিনি এর আগেও ১৯৯৮ সালের বিশ্বকাপেও জাপানের কোচ হিসেবে দায়িত্বে ছিলেন।

বর্তমান সদস্য[সম্পাদনা]

খেলার তারিখ: ১৫ জুন, ২০১৩
প্রতিপক্ষ: উরুগুয়ে
প্রতিযোগিতা: ২০১৩ ফিফা কনফেডারেশন্স কাপ

খেলা ও গোল সংখ্যা ১১ জুন, ২০১৩ পর্যন্ত সঠিক

ইতালীয় কোচ আলবার্তো জাচ্চেরোনি ৫ জুন, ২০১৩ তারিখে ২৩-সদস্যবিশিষ্ট দলের নাম ঘোষণা করেন।[২] এ দলটিই ২০১৪ সালের ফিফা বিশ্বকাপের যোগ্যতা নির্ধারণী - এএফসি চতুর্থ রাউন্ডের জন্য ইরাকের বিরুদ্ধে অংশ নিয়েছিল।

0#0 অব নাম জন্ম (বয়স) ম্যাচ গোল ক্লাব
গো এইজি কাওয়াশিমা (১৯৮৩-০৩-২০) ২০ মার্চ ১৯৮৩ (বয়স ৩১) ৪৫ বেলজিয়াম স্ট্যান্ডার্ড লীগ
মাসাহিকো আইনোহা (১৯৮৫-০৮-২৮) ২৮ আগস্ট ১৯৮৫ (বয়স ২৯) ১৯ জাপান জুবিলো আইওয়াতা
গোতোকু সাকাই (১৯৯১-০৩-১৪) ১৪ মার্চ ১৯৯১ (বয়স ২৩) জার্মানি স্টুটগার্ট
কেইসুকে হোন্ডা (১৯৮৬-০৬-১৩) ১৩ জুন ১৯৮৬ (বয়স ২৮) ৪২ ১৪ রাশিয়া সিএসকেএ মস্কো
ইউতো নাগাতোমো (১৯৮৬-০৯-১২) ১২ সেপ্টেম্বর ১৯৮৬ (বয়স ২৮) ৫৮ ইতালি ইন্টারন্যাজিওনালে
এতসুতো উচিদা (১৯৮৮-০৩-২৭) ২৭ মার্চ ১৯৮৮ (বয়স ২৬) ৫৭ জার্মানি শালকে ০৪
ইয়াসুহিতো এন্ডো (১৯৮০-০১-২৮) ২৮ জানুয়ারি ১৯৮০ (বয়স ৩৪) ১৩০ ১০ জাপান গাম্বা ওসাকা
হিরোশি কিয়ুতাকে (১৯৮৯-১১-১২) ১২ নভেম্বর ১৯৮৯ (বয়স ২৪) ১৭ জার্মানি নুরেমবার্গ
শিঞ্জি ওকাজাকি (১৯৮৬-০৪-১৬) ১৬ এপ্রিল ১৯৮৬ (বয়স ২৮) ৬৩ ৩৩ জার্মানি স্টুটগার্ট
১০ শিঞ্জি কাগাওয়া (১৯৮৯-০৩-১৭) ১৭ মার্চ ১৯৮৯ (বয়স ২৫) ৪৩ ১৩ ইংল্যান্ড ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড
১১ মাইক হ্যাভেনার (১৯৮৭-০৫-২০) ২০ মে ১৯৮৭ (বয়স ২৭) ১৪ নেদারল্যান্ডস ভিতেসে
১২ গো শুসাকু নিশিকাওয়া (১৯৮৬-০৬-১৮) ১৮ জুন ১৯৮৬ (বয়স ২৮) জাপান স্যানফ্রিস হিরোশিমা
১৩ হাজিমে হোসোগাই (১৯৮৬-০৬-১০) ১০ জুন ১৯৮৬ (বয়স ২৮) ২১ জার্মানি বায়ার লেভারকুজেন
১৪ কেঙ্গো নাকামুরা (১৯৮০-১০-৩১) ৩১ অক্টোবর ১৯৮০ (বয়স ৩৩) ৬৬ জাপান কাওয়াসাকি ফ্রন্টাল
১৫ ইয়াসুয়োকি কন্নো (১৯৮৩-০১-২৫) ২৫ জানুয়ারি ১৯৮৩ (বয়স ৩১) ৬৮ জাপান গাম্বা ওসাকা
১৬ ইউজো কুরিহারা (১৯৮৩-০৯-১৮) ১৮ সেপ্টেম্বর ১৯৮৩ (বয়স ৩১) ১৬ জাপান ইয়োকোহামা এফ. মারিনোস
১৭ মাকোতো হাসেবে () (১৯৮৪-০১-১৮) ১৮ জানুয়ারি ১৯৮৪ (বয়স ৩০) ৬৮ জার্মানি ওলফসবার্গ
১৮ রাইওইচি মায়েদা (১৯৮১-১০-০৯) ৯ অক্টোবর ১৯৮১ (বয়স ৩৩) ৩০ ১০ জাপান জুবিলো আইওয়াতা
১৯ তাকাশি ইনুই (১৯৮৮-০৬-০২) ২ জুন ১৯৮৮ (বয়স ২৬) ১০ জার্মানি আইনট্রাখট ফ্রাঙ্কফুর্ট
২০ হিদেতো তাকাহাশি (১৯৮৭-১০-১৭) ১৭ অক্টোবর ১৯৮৭ (বয়স ২৭) জাপান এফসি টোকিও
২১ হিরোকি সাকাই (১৯৯০-০৪-১২) ১২ এপ্রিল ১৯৯০ (বয়স ২৪) ১০ জার্মানি হ্যানোভার ৯৬
২২ মায়া ইয়োশিদা (১৯৮৮-০৮-২৪) ২৪ আগস্ট ১৯৮৮ (বয়স ২৬) ২৭ ইংল্যান্ড সাউদাম্পটন
২৩ গো শুইচি গোন্ডা (১৯৮৯-০৩-০৩) ৩ মার্চ ১৯৮৯ (বয়স ২৫) জাপান এফসি টোকিও

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. A common methodology of nickname creation is done by taking the last name of incumbent head coach followed by "Japan".
  2. Japan squad for Confederations Cup announced, Japan Football Association, 5 June 2013

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]